দশম শ্রেণী জীবন বিজ্ঞান | জীবজগতে নিয়ন্ত্রণ ও সমন্দ্বয় – প্রশ্ন উত্তর সাজেশন | WBBSE Class 10th Life Science Suggestion

19448

দশম শ্রেণী জীবন বিজ্ঞান সাজেশন – WBBSE Class 10th Life Science Suggestion

দশম শ্রেণী জীবন বিজ্ঞান | বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ – প্রশ্ন উত্তর সাজেশন | WBBSE Class 10th Life Science Suggestion

দশম শ্রেণী জীবন বিজ্ঞান সাজেশন – WBBSE Class 10th Life Science Suggestionবংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ – প্রশ্ন উত্তর   দেওয়া হল নিচে। এই WBBSE Class 10th (X) Madhyamik Life Science Suggestion – মাধ্যমিক দশম শ্রেণীর জীবন বিজ্ঞান সাজেশন – বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ – প্রশ্ন উত্তর  গুলি আগামী সালের পশ্চিমবঙ্গ মাধ্যমিক জীবন বিজ্ঞান পরীক্ষার জন্য খুব ইম্পর্টেন্ট। আপনারা যারা মাধ্যমিক দশম শ্রেণীর জীবন বিজ্ঞান পরীক্ষার সাজেশন খুঁজে চলেছেন, তারা নিচে দেওয়া প্রশ্নপত্র ভালো করে পড়তে পারেন। এই পরীক্ষা তে কোশ্চেন গুলো আসার সম্ভাবনা খুব বেশি।

জীবজগতে নিয়ন্ত্রণ ও সমন্দ্বয় – অতিসংক্ষিপ্ত, সংক্ষিপ্ত, রোচনাধর্মী প্রশ্ন উত্তর (MCQ, SAQ, Short, Descriptive Question and Answer) | মাধ্যমিক দশম শ্রেণী জীবন বিজ্ঞান সাজেশন – WBBSE Class 10th Madhyamik Life Science Suggestion

দশম শ্রেণী জীবন বিজ্ঞান | জীবজগতে নিয়ন্ত্রণ ও সমন্দ্বয় – বহু বিকল্পভিত্তিক প্রশ্নোত্তর [MCQ] : [প্রতিটি প্রশ্নের মান-1]

1. গমনে সক্ষম একটি উদ্ভিদ হল—
[A] মিউকর       [B] ইস্ট [C] ভলভক্স       [D] অ্যাগারিকাস

      [C] ভলভক্স
2. সংকটকালীন হরমোন হল—

[A] ইনসুলিন      [B] অ্যাড্রিনালিন       [C] থাইরক্সিন [D] টেস্টোস্টেরন

     [B] অ্যাড্রিনালিন
3. মস্তিষ্কের যােজক কলা বলা হয়—
[A] থ্যালামাস      [B] লঘুমস্তিস্ক   [C] পক্স [D] গুরুমস্তিষ্ক

    [A] TT

4. চোখে ধূলােবালি পড়ার উপক্রম হলেই চোখ দুটি মুদে যায়। এটি কী ধরনের ক্রিয়া?
[A] সহজাত প্রতিবর্ত ক্রিয়া       [B] অর্জিত প্রতিবর্ত ক্রিয়া [C] গমন       [D] কোনােটিই নয়

    [A] সহজাত প্রতিবর্ত ক্রিয়া

5. হাইপােথ্যালামাস কোন্ পিটুইটারি হরমােন সংরক্ষিত রাখে—
[A] TSH       [B] STH [C] ADH       [D] থাইরক্সিন

    [C] ADH

6. ডিম্বাশয় থেকে নিঃসৃত হয় না যে হরমােনটি তা হলাে—

        [A] ইস্ট্রোজেন       [B] প্রজেস্টেরন [C] রিল্যাক্সিন       [D] অ্যান্ড্রোজেন

        [D] অ্যান্ড্রোজেন
7. মানবদেহে করােটি স্নায়ুর সংখ্যা-

        [A] 31 জোড়া       [B] 31টি [C] 12 জোড়া       [D] 12টি

        [C] 12 জোড়া
8. নীচের কোন্ হরমােনকে অ্যান্টিকিটোজেনিক হরমােন বলে?

        [A] থাইরক্সিন      [B] গ্লুকাগন [C] ইনসুলিন      [D] অ্যাড্রিনালিন

        [C] ইনসুলিন
9. যে হরমােনটির অভাবে মূত্রে জলের পরিমাণ বৃদ্ধি পায়—

         [A] STH      [B] GTH [C] ADH       [D] TSH

        [C] ADH
10. সূর্যশিশিরের পাতা পতঙ্গের সংস্পর্শে এলে পতঙ্গের দিকে বেঁকে যায় এইপ্রকার চলনকে বলে—

        [A] ফটোট্যাকটিক      [B] সিসমেন্যাস্টিক   [C] ফটোন্যাস্টি [D] কেমােন্যাস্টি

        [D] কেমােন্যাস্টি
11. গ্লুকাগন হরমােন ক্ষরিত হয় কোন্ গ্রন্থি থেকে?

        [A] অগ্ন্যাশয়      [B] পিটুইটারি [C] ডিম্বাশয়      [D] থাইরয়েড

        [A] অগ্ন্যাশয়
12. কেন্দ্রীয় স্নায়ুতন্ত্রের বাইরের আবরন হল—

         [A] পুরা       [B] পেরিকার্ডিয়াম      [C] মেনিনজেস [D] পেরিটোনিয়া

        [C] মেনিনজেস
13. অগ্র পিটুইটারির হরমােন ক্ষরণ নিয়ন্ত্রণ করে—

        [A] থ্যালামাস       [B] হাইপােথ্যালামাস     [C] এপিথ্যালামাস [D] মেটাথ্যালামাস

        [B] হাইপােথ্যালামাস
14. প্রতিবিম্ব গঠিত হয় চোখের

         [A] রেটিনায়      [B] লেন্সে [C] কর্নিয়াতে       [D] কোরয়েডে

        [A] রেটিনায়
15. কোন্ প্রকার পেশি সংকোচেনে অস্থি সন্ধি সংলগ্ন অস্থি দুটির কৌণিক দূরত্ব হ্রাস পায় ?

        [A] এক্সটেনশন       [B] অ্যাবডাকশন [C] ফ্লেকশন       [D] রােটেশন

        [C] ফ্লেকশন
16. যে হরমােনের উদ্ভিদের অগ্রমুকুলের বৃদ্ধি ত্বরান্বিত করে তা হল-

         [A] অক্সিন       [B] জিব্বেরেলিন     [C] সাইটোকাইনিন [D] ফোরিজেন

        [A] অক্সিন

দশম শ্রেণী জীবন বিজ্ঞান | জীবজগতে নিয়ন্ত্রণ ও সমন্দ্বয় – শূন্যস্থান প্রশ্নোত্তর : (প্রতিটি প্রশ্নের মান-1]

1. উদ্দীপক হল একপ্রকার ___________ ।

        উত্তর : শক্তি
2. অক্সিন উদ্ভিদের __________ থেকে উৎপন্ন করে।

        উত্তর : অগ্রস্থ ভাজক কলা থেকে
3. ট্যাকটিক চলন একপ্রকার ____________ ।

        উত্তর : প্রবৃত্ত
4. সিলিয়ারী গমন দেখা যায় ___________ প্রাণীতে ।

        উত্তর : প্যারামিসিয়াম
5. উদ্ভিদ হরমােনের অপর নাম _____________ ।

        উত্তর : ফাইটো হরমােন
6. ___________ হরমােনের অপর নাম ভেসােপ্রেসিন।

        উত্তর : ADH
7. __________ হল নিউরােহরমােন।

        উত্তর : ADH
8. প্রাণীদেহের স্নায়ুতন্ত্র হল __________ সম্বায়ক।

        উত্তর : ভৌত
9. সুন্দরীর শ্বাসমূলে ____________ চলন দেখা যায়।

        উত্তর : নেগেটিভ জিওট্রপিক
10. ট্রপিক চলন উদ্ভিদের ____________ অঞলে ঘটে।

        উত্তর : বর্ধনশীল
11. মানুষের চোখ দিয়ে একই সঙ্গে দুটি বস্তু দেখাকে

        উত্তর : দ্বিনেত্র দৃষ্টি
12. লেডিগের আন্তরকোশ থেকে ক্ষরিত হরমােনটি হল ___________________ ।

        উত্তর : টেস্টোস্টেরন
13. হেলিওট্রপিজমের প্রধান উদ্দীপক হল –

        উত্তর : সূর্যালােক
14, বীজপত্র ও ভূণের প্রাপ্ত হরমােনটি হল ___________ ।

        উত্তর : জিব্বেরেলিন
15. পিটুইটারি গ্রন্থিকে __________ গ্রন্থি বলে।

        উত্তর : প্রভু গ্রন্থি
16. স্নায়ুকোশের কোশদেহের সাইটোপ্লাজমকে __________ বলে।

        উত্তর : নিউরােপ্লাজম
17. কাশি হল একপ্রকার __________ প্রতিবর্ত ক্রিয়া।

        উত্তর : সহজাত
18. স্নায়ুকোশের _________ থেকে অ্যাক্সনের উৎপত্তি হয়।

        উত্তর : অ্যাক্সন হিলক
19. গমনে সক্ষম উদ্ভিদ হল ____________ ।

        উত্তর : ক্ল্যামাইডােমােনাস
20. মাছের দেহে মেরুদন্ডের দু-পাশে Vআকৃতির __________ পেশি আছে

        উত্তর : মায়ােটস
21. মানুষের করােটিতে মােট অস্থির সংখ্যা – টি।

        উত্তর : 24টি

দশম শ্রেণী জীবন বিজ্ঞান | জীবজগতে নিয়ন্ত্রণ ও সমন্দ্বয় – সত্য-মিথ্যা প্রশ্নোত্তর : (প্রতিটি প্রশ্নের মান-1}

1. টিউলিপ ফুল কম উয়তায় ফোটে।

    উত্তর : মিথ্যা ।

2. বনাড়াল গাছে একক পত্র আছে।

    উত্তর : মিথ্যা ।

3. এককোশী শৈবালের সামগ্রিক চলন ঘটে।

    উত্তর :সত্য।

4. ন্যাস্টিক চলন স্থায়ী প্রকৃতির।

    উত্তর : মিথ্যা ।

5. উদ্ভিদের কাণ্ডকে নেগেটিভলি ফোটোট্রপিক বলে।

    উত্তর : মিথ্যা ।

6. নর-অ্যাড্রিনালিনকে জরুরীকালীন হরমোেন বলে।

    উত্তর : মিথ্যা ।

7. STH হল একপ্রকার স্টেরয়েড ধর্মী হরমােন।

    উত্তর :মিথ্যা ।

8. জিব্বেরেলিনের উৎস হল কাণ্ডের অগ্রস্থ ভাজক কলা।

    উত্তর : মিথ্যা ।

9. কেন্দ্রীয় স্নায়ুতন্ত্র মস্তিষ্ক ও সুষুম্নাকাণ্ড দ্বারা গঠিত।

    উত্তর :সত্য।

10. লেখাপড়া শেখা একপ্রকার অভ্যাসগত প্রতিবর্ত ক্রিয়া।

     উত্তর :সত্য ।

11. সমস্ত সুযুন্মীয় স্নায়ু সংজ্ঞাবহ প্রকৃতির হয়।

    উত্তর : মিথ্যা ।

বাম স্তম্ভের সাথে ডান স্তম্ভের সমতা বিধান : [প্রতিটি প্রশ্নের মান-1]
বাম স্তম্ভ    ডান স্তম্ভ
1. অক্সিন    A. অক্সিন।
2. বীজহীন ফল উৎপাদন।    B. সেরিব্রাম
3. অ্যাড্রিনালিন    C. ফোটোট্রপিক চলন
4. অগ্রমস্তিষ্কের সর্ববৃহৎ অংশ    D. এঁকেবেঁকে যেতে সাহায্য করা।
5. মায়ােটোম পেশী    E. জরুরীকালীন হরমােন
F. ইউপ্পিনা

উত্তর : 1. –[C] 2.–[A] 3.–[E] 4.–[B] 5.–[D]
বাম স্তম্ভ    ডান স্তম্ভ
1. ডায়াটোম    A. অন্ধ বিন্দু
2. প্রাকৃতিক সাইটোকাইনিন    B. জিয়াটিন
3. থাইরয়েড গ্রন্থি    C. দেহের ভারসাম্য রক্ষা করে।
4. চোখের যে স্থানে প্রতিবিম্ব হয় না।    D. গলগন্ড রােগ
5. অস্থি সন্ধি    E. গমন করে
F. সাইনােভিয়াল তরল

উত্তর : 1.– [C] 2.– [B] 3.– [D] 4.– [A] 5.– [F]
14. একটি স্টেরয়েডধর্মী হরমােনের নাম লেখাে।

    উত্তর : একটি স্টেরয়েডধর্মী হরমােনের নাম হল ইস্ট্রোজেন।

15. কোন্ হরমােনকে ক্যাথেরিজেনিক হরমােন বলে?

    উত্তর : থাইরক্সিন হরমােনকে ক্যাথােরিজেনিক হরমােন বলে।

16. এমন একটি উদ্ভিদ হরমােনের নাম করাে যা বাম্পমােচন করায়?

    উত্তর : অ্যাবসিসিক অ্যাসিড হল এমন একটি উদ্ভিদ হরমােন যা উদ্ভিদের বাষ্পমােচন করায়।

17. STH-এর পুরাে নাম কী ?

    উত্তর : STH-এর পুরাে নাম—সােমাটো ট্রপিক হরমােন।

18. TSH-এর পুরাে নাম লেখাে।

    উত্তর : TSH-এর পুরাে নাম থাইরয়েড স্টিমুলেটিং হরমােন।

19. ডাবের জলে কোন্ হরমােন পাওয়া যায়?

    উত্তর : ডাবের জলে কাইনিন হরমােন পাওয়া যায়।

20. ICSH এর পুরাে নাম কী?

    উত্তর : ICSH-এর পুরাে নাম হল—ইন্টারস্টিশিয়াল সেল স্টিমুলেটিং হরমােন।

21. বীজবিহীন ফল উৎপাদন ব্যাবহৃত হরমােনের নাম কী?

    উত্তর : বীজবিহীন ফল উৎপাদনে ব্যবহৃত হরমােনের নাম হল অক্সিন।

22. LTH-এর কাজ কী

    উত্তর : LTH হরমােন স্ত্রীদেহে প্রসবের স্তনদুগ্ধ ক্ষরণে সাহায্য করে।

23. CNS-এর পুরাে নাম কী?

    উত্তর : CNS-এর পুরাে নাম হল—সেন্ট্রাল নার্ভাস সিস্টেম।

24. মানুষের দীর্ঘ স্নায়ু কোনটি?

    উত্তর : মানুষের দীর্ঘ স্নায়ু হল সায়াটিক নার্ভ।

25. ফানগাছের শুক্রাণুতে কোন্ প্রকার চলন দেখা যায়?

    উত্তর : ফার্ণ গাছের শুক্রাণুতে কেমােট্যাকটিক চলন দেখা যায়।

26. বনর্চাড়াল গাছের বিজ্ঞানসম্মত নাম কী ?

    উত্তর : বনাড়াল গাছের বিজ্ঞানসম্মত নাম হল ডেসমােডিয়াম গাইরাস।

27. টিউলিপ ফুলে কী প্রকার চলন দেখা যায় ?

    উত্তর : টিউলিপ ফুলে থার্মোন্যাস্টি চলন দেখা যায়।

28. সূর্যাস্তের পর তেঁতুল গাছের পাতাগুলি মুড়ে যায়—এটি কী ধরনের চলন?

    উত্তর : এটি নিকটিন্যাস্টি চলন।

29. ACTH-এর সম্পূর্ণ নাম লেখাে।

    উত্তর : ACTH-এর সম্পূর্ণ নাম—অ্যাড্রিনাে কর্টিকো ট্রপিক হরমােন।

30. তাপের তীব্রতা দ্বারা নিয়ন্ত্রিত উদ্ভিদের অঙ্গের চলনকে কী বলে?

    উত্তর : তাপের তীব্রতা দ্বারা নিয়ন্ত্রিত উদ্ভিদ অঙ্গের চলনকে থার্মোন্যাস্টিক চলন বলে।

31. পায়রারা রেক্ট্রিসেস পালকের সংখ্যা কয়টি এবং ডানায় কয়টি রেমিজেস পালক থাকে?

    উত্তর : পায়রার লেজে 12টি রেক্টিসেস এবং ডানায় 23টি রেমিজেস পালক থাকে।

32. পাখির লেজের পালক রেকট্রিসেসের কাজ কী?

    উত্তর : পাখির লেজের পালক রেকট্রিসেসের কাজ হল ওড়ার সময় ব্রেক বা গতিরােধক হিসাবে কাজ করে।

33, পার্থেননাকাপি কাকে বলে?

    উত্তর : অক্সিন হরমােনের প্রভাবে নিষেক ছাড়াই বীজবিহীন ফল উৎপাদনের পদ্ধতিকে পার্থোনােকার্পি বলে।

দশম শ্রেণী জীবন বিজ্ঞান | জীবজগতে নিয়ন্ত্রণ ও সমন্দ্বয় – সংক্ষিপ্ত উত্তরভিত্তিক প্রশ্নোত্তর : প্রতিটি প্রশ্নের মান-2]

1. ক্রেসকোগ্রাফ যন্ত্র কে আবিষ্কার করেন? এই যন্ত্রের গুরুত্ব কী?

    উত্তর : আচার্য জগদীশ চন্দ্র বসু ক্রেসকোগ্রাফ যন্ত্র আবিষ্কার করেন। গুরুত্ব : এই যন্ত্রের সাহায্যে প্রমাণিত হয় যে, গাছেরও প্রাণ আছে এবং মানুষ ও অন্যান্য প্রাণীদের মতােই উদ্ভিদও পরিবেশের বিভিন্ন উদ্দীপনায় (যেমন—আলাে, তাপ, জল, রাসায়নিক পদার্থ প্রভৃতি) শনাক্ত করতে পারে এবং সেই অনুযায়ী সাড়া দিয়ে পরিবেশের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন করে।

2. সামগ্রিক চলন (Movement of Locomotion) কাকে বলে?

    উত্তর : সামগ্রিক চলন : বাহ্যিক বা অভ্যন্তরীণ উদ্দীপকের প্রভাবে উদ্ভিদদেহে যে সামগ্রিক স্থান পরিবর্তন ঘটে, তাকে সামগ্রিক চলন বলে। উদাহরণ-ক্ল্যামাইডােমােনাস, ভলভক্স প্রভৃতি শৈবালের আলাের দিকে চলন।

3. কেন লজ্জাবতী পাতার চলন লজ্জাবতীর কাণ্ডের থেকে আলাদা?

    উত্তর : লজ্জাবতীর পাতায় স্পর্শ বা আঘাতের প্রভাবে রসস্ফীতির চাপের পার্থক্য ঘটে, ফলে পাতা বৃন্তসহ নীচের দিকে ঝুলে যায়। একে হ্যাপ্টোন্যাস্টিক চলন বলে। অন্য দিকে, লজ্জাবতীর কাণ্ড আলাের গতিপথের দিকে বৃদ্ধিজ বক্র চলন ঘটায়। একে ফটোট্রপিক চলন বলে।

4. গমনে সক্ষম দুটি উদ্ভিদের নাম লেখাে।

    উত্তর : গমনে সক্ষম দুটি উদ্ভিদের নাম হল—ক্ল্যামাইডােমােনাস, ভলভক্স ।

5. প্রকল্পিত হরমােন কাকে বলে? উদাহরণ দাও।

    উত্তর : প্রাকৃতিক ভাবে উৎপন্ন যে সমস্ত উদ্ভিদ হরমােনের উপস্থিতি ও কাজ সম্পর্কে প্রমাণ পাওয়া গেলেও, তাদের রাসায়নিক গঠন এবং কার্যপদ্ধতি সম্পর্কে এখনও পরিষ্কার তথ্য পাওয়া যায়নি, তাদের প্রকল্পিত হরমােন বলে। উদাহরণ—ফ্লোরিজেন ও ডরমিন।

6. দুটি প্রাকৃতিক অক্সিনের রাসায়নিক নাম লেখাে।

    উত্তর : দুটি প্রাকৃতিক অক্সিন হল—1. ইন্ডােল-ও-অ্যাসিটিক অ্যাসিড (IAA) এবং 2. ফিনাইল অ্যাসিটিক অ্যাসিড (PAA)।

7. বাসন্তীকরণে বা ভার্নালাইজেশনে (Vornalization) জিব্বেরেলিনের ভূমিকা উল্লেখ করাে

    উত্তর : নিম্ন উয়তার দ্বারা পুষ্প প্রস্ফুটন প্রক্রিয়াকে তরান্বিত করার শারীরবৃত্তীয় প্রক্রিয়াকে বাসন্তীকরণ বা ভার্নালাইজেশন বলে। কিছু কিছু উদ্ভিদে জিব্বেরেলিন প্রয়ােগ করে এক বছরের মধ্যেই ফুল ফোটানাে সম্ভব হয়।

৪. উদ্ভিদের কাণ্ডের অগ্রভাগ কেটে নিলে প্রচুর শাখাপ্রশাখা বের হয় কেন?

    উত্তর : উদ্ভিদের কাণ্ডের অগ্রভাগ কেটে নিলে সেই স্থানে সাইটোকাইনিন ক্ষরণের পরিমাণ বেড়ে যায় এবং এর প্রভাবে প্রচুর শাখাপ্রশাখা বের হয়।

9. পিটুইটারি গ্রন্থিকে ‘প্রভু গ্রন্থি (Master Gland) বলা হয় কেন?

    উত্তর : পিটুইটারি গ্রন্থির অগ্রখণ্ড থেকে ক্ষরিত হরমােনগুলি (ট্রপিক হরমােন) দেহের অন্যান্য অন্তঃক্ষরা গ্রন্থির বৃদ্ধি ও ক্ষরণ নিয়ন্ত্রণ করে বলে পিটুইটারিকে ‘প্রভু গ্রন্থি’ বা ‘মাস্টার গ্ল্যান্ড’ বলা হয়। যেমন—TSH, ACTH, GTH হরমােনগুলি যথাক্রমে থাইরয়েড, অ্যাড্রিনাল কর্টেক্স, গােনাড প্রভৃতি গ্রন্থির ওপর প্রভাব বিস্তার বা প্রভুক্ত করে।

10. গুরুমস্তিষ্কে গােলার্ধগুলি ও লঘু মস্তিষ্কের গােলার্ধগুলি পরস্পর যে দুটি অংশ দ্বারা যুক্ত তাদের নাম লেখাে।

    উত্তর : গুরু মস্তিষ্কের গােলার্ধ দুটি হল ডান ও বাম সেরিব্রাল হেমিস্ফিয়ার। যা করপাস ক্যালােসাম যােজক দ্বারা যুক্ত থাকে। লঘু মস্তিষ্কের গােলার্ধ দুটি ভারমিস যােজক দ্বারা যুক্ত থাকে।

11. প্যারামেসিয়ামের গমন অঙ্গের নাম ও গমন পদ্ধতির নাম লেখাে।

    উত্তর : গমন অঙ্গ : সিলিয়া। গমন পদ্ধতি : সিয়ািরি গমন।

12. রেমিজেস পালকের অবস্থান ও কাজ লেখাে।

    উত্তর : অবস্থান : পাখির ডানায় উপস্থিত থাকে। কাজ : পাখিকে উড়তে সাহায্য করে।

13. অস্থিযুক্ত মাছের জোড় পাখনা ও লেজ কেটে দিলে মাছের কোন্ কাজগুলি ব্যাহত হবে?

    উত্তর : জোড় পাখনার অভাবে মাছ এক জায়গায় স্থির হয়ে ভেসে থাকতে পারবে না। লেজের অভাবে মাছ দিক পরিবর্তন করতে পারবে না।

14. বল ও সকেট সন্ধি কাকে বলে? উদাহরণ দাও।

    উত্তর : যে প্রকার অস্থিসন্ধিতে একটি অস্থির বলের ন্যায় গােলাকৃতি মস্তক অংশ অপর একটি অস্থির কোটরে বা সকেটে এমনভাবে যুক্ত থাকে যাতে অস্থিসন্ধির বিচলন। সব দিকে ঘটে। তাকে বলে বল ও সকেট সন্ধি। উদাহরণ হিউমেরাস ও স্ক্যাপুলা অস্থির সন্ধি, ফিসার ও হিপ অস্থিত সন্ধি।

15. ফ্লেক্সন (Flexion) ধরনের অস্থিসন্ধি বিচলন কাকে বলে? উদাহরণ দাও।

    উত্তর : যে প্রকার অস্থিসন্ধি বিচলনে ফ্লেক্সর পেশির সংকোচনের ফলে সংশ্লিষ্ট দুটি অস্থির মধ্যে কৌণিক দূরত্ব কমে যায় অর্থাৎ অঙ্গের মধ্যে ভঁজ তৈরি হয়, তাকে ফ্লেক্সন (Flexion) বলে। উদাহরণ—বাইসেপ ব্রাকি পেশির সংকোচনের ফলে হাতের কনুই ভঁজ হয়।

16. হরমােনকে ‘দ্বৈত-নিয়ন্ত্রক’ বলা হয় কেন?

    উত্তর : সুনির্দিষ্ট কোনাে কাজে (বৃদ্ধি, রক্তের শর্করা নিয়ন্ত্রণ, যৌনতা প্রকাশ) কিছু হরমােন সহায়তা করে আবার কিছু হরমােন ওই কাজে বাধার সৃষ্টি করে। তাই হরমােনকে দ্বৈত নিয়ন্ত্রক বলা হয়। যেমন—ইনসুলিন রক্তের শর্করার মাত্রা কমাতে সাহায্য করে, কিন্তু গ্লকাগন রক্তে শর্করার মাত্রা বৃদ্ধিতে সাহায্য করে।।

17. ট্রপিক ও ট্যাকটিক চলনের মূল পার্থক্য কী?

    উত্তর : ট্রপিক চলনে উদ্ভিদের সামগ্রিক স্থান পরিবর্তন হয় না, কিন্তু ট্যাকটিক চলনে উদ্ভিদের সামগ্রিক স্থান পরিবর্তন হয়।

18. ট্রপিক ও ন্যাস্টিক চলনের পার্থক্য লেখাে।

    উত্তর : যে আবিষ্ট বক্ৰচলন উদ্দীপকের গতিপথ অনুসারে হয় অর্থাৎ, উদ্ভিদ অঙ্গের চলন যখন উদ্দীপকের গতিপথ অনুসারে হয়, তখন তাকে ট্রপিক চলন বলে। আবার উদ্ভিদ অঙ্গের চলন যখন উদ্দীপকের গতিপথের প্রভাবে না হয়ে উদ্দীপকের তীব্রতা অনুসারে নিয়ন্ত্রিত হয়, তখন তাকে ন্যাস্টিক চলন বলে।

19. হরমােনের দুটি প্রধান কাজ উল্লেখ করাে।

    উত্তর : হরমােনের কাজ : (i) হরমােন জীবদেহের কোশে কোশে রাসায়নিক সংযােগ স্থাপন করে। (i) হরমােন জীবদেহে বিপাকীয় কার্য নিয়ন্ত্রণ করে।

20. কৃষিকার্যে জিব্বেরেলিনের দুটি ব্যাবহারিক প্রয়ােগ লেখাে।

    উত্তর : জিব্বেরেলিনের ব্যাবহারিক প্রয়ােগ : (i) জিব্বেরেলিন কয়েক প্রকার (ভুট্টা, মটর) খর্ব জাতের গাছের দৈর্ঘ্যবৃদ্ধির জন্য | ব্যবহার করা হয়। (ii) জিব্বেরেলিন প্রয়ােগ করে লেটুস বীজের দ্রুত অঙ্কুরােদ্গম ঘটানাে সম্ভবপর হয়েছে।

21. মধুমেহ বা ডায়াবেটিস মেলিটাস কাকে বলে ?

    উত্তর : ইনসুলিন হরমােনের কম ক্ষরণে রক্তে শর্করার পরিমাণ বৃদ্ধি (180 gm/100 ml এর বেশি), মূত্রের মাধ্যমে শর্করা নির্গত হওয়া, অতিরিক্ত ক্ষুধা ও তৃয়াসহ শারীরিক দুর্বলতাজনিত কঠিন ব্যাধিকে মধুমেহ বা ডায়াবেটিস মেলিটাস বলে।

22. অ্যাড্রিনালিনকে ‘জরুরিকালীন হরমোেন’ বলা হয় কেন?

    উত্তর : অ্যাড্রিনালিন ভয়, রাগ, দুশ্চিন্তা প্রভৃতি মানসিক উত্তেজনায় অতিরিক্ত পরিমাণে ক্ষরিত হয়। জরুরি প্রয়ােজনে এই হরমােন দ্রুত ক্রিয়াশীল হয় এবং সিমপ্যাথেটিক স্নায়ুতন্ত্রকে উদ্দীপিত করে সেই মুহূর্তে দেহকে প্রয়ােজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করার উপযােগী করে তােলে এবং সংকটজনক অবস্থা থেকে দেহকে মুক্ত করে, তাই অ্যাড্রিনালিনকে জরুরিকালীন বা আপৎকালীন হরমােন বলে।

23. মায়েলিন সিদের কাজ কী?

    উত্তর : (i) স্নায়ুতন্তুকে অন্তরিত করে দ্রুত স্নায়ুপ্রবাহ সারিত করা। (i) স্নায়ুকোশ বা নিউরােনকে পুষ্টির জোগান দেওয়া। (i) স্নায়ুপ্রবাহের গতিকে বৃদ্ধি করা।

24. মিশ্র গ্রন্থি কাকে বলে? উদাহরণ দাও।

    উত্তর : যে সব গ্রন্থি অন্তঃক্ষরা এবং বহিঃক্ষরা (নালিযুক্ত এবং নালিবিহীন) উভয় গ্রন্থির সমন্বয়ে গঠিত, তাদের মিশ্র গ্রন্থি বলে। উদাহরণ : শুক্রাশয়, ডিম্বাশয়, অগ্ন্যাশয় গ্রন্থির প্যানক্রিয়েটিক অ্যাসিনাস অংশটি নালিযুক্ত ও বহিঃক্ষরা প্রকৃতির। এটি বিভিন্ন পরিপাককারী উৎসেচক নিঃসরণ করে, আবার আইলেটস অব ল্যাঙ্গারহ্যানস অংশ নালিবিহীন, অন্তঃক্ষরা প্রকৃতির, এটি বিভিন্ন হরমােন (ইনসুলিন, গ্লুকাগন প্রভৃতি) ক্ষরণ করে।

25. হরমােনকে রাসায়নিক দূত বলা হয় কেন?

    উত্তর : দূত যেমন স্থানে স্থানে বার্তা বহন করে নিয়ে যায় হরমােনও তেমন দূতের মতাে লক্ষ্যকোশের ভিতরে বা বাইরে কোশপর্দায় কোনাে গ্রাহকের সঙ্গে যুক্ত হয়ে একটি রাসায়নিক বার্তা প্রেরণ করে, যাতে ওই কোশের শারীরবৃত্তীয় কাজ প্রভাবিত হয়, এজন্য হরমােনকে রাসায়নিক দূত বলে।

দশম শ্রেণী জীবন বিজ্ঞান | জীবজগতে নিয়ন্ত্রণ ও সমন্দ্বয় – দীর্ঘ উত্তরভিত্তিক প্রশ্নোত্তর : [প্রতিটি প্রশ্নের মান-5]

1. উদ্ভিদের বিভিন্ন প্রকার ট্রপিক চলন সম্পর্কে লেখাে।

    উত্তর : উদ্দীপকের উৎসের দিকে বা উদ্দীপকের গতিপথের দিকে উদ্ভিদ অঙ্গের চলনকে ট্রপিক চলন বলে।
উদ্ভিদের ট্রপিক চলন প্রধানত তিন প্রকারের। যথা—(i) ফোটোট্রপিক চলন, (ii) হাইড্রোট্রপিক চলন, (iii) জিওট্রপিক চলন।
(i) ফোটোট্রপিক চলন :

উদ্ভিদ অঙ্গের চলন যখন আলােক উৎসের গতিপথ অনুসারে হয়, তখন তাকে ফোটোট্রপিক চলন বলে।
উদাহরণ—একটি গাছকে অন্ধকার ঘরে জানালার সামনে রেখে জানালার একটি পাল্লা খুলে রাখলে কয়েকদিন পর গাছের বিটপ অংশকে জানালার দিকে বেঁকে বৃদ্ধি পেতে দেখা যাবে।

(ii) হাইড্রোট্রপিক চলন :

উদ্ভিদ অঙ্গের চলন যখন জলের উৎসের গতিপথ অনুসারে হয়, তখন তাকে হাইড্রোট্রপিক চলন বলে।
উদাহরণ—উদ্ভিদের মূল সর্বদা জলের উৎসের দিকে বৃদ্ধি পায়।

(iii) জিওট্রপিক চলন :

উদ্ভিদ অঙ্গেরচলন যখন মাধ্যাকর্ষণ শক্তির প্রভাবে অভিকর্ষের গতিপথ অনুসারে হয়, তখন তাকে জিওট্রপিক চলন বলে।

জিওট্রপিক চলন দুই প্রকার।

অনুকূল অভিকর্যবর্তী : উদ্ভিদের মূল সবসময় অভিকর্ষের টানে পৃথিবীর কেন্দ্রের দিকে অগ্রসর হয়।

প্রতিকূল অভিকর্ষবর্তী : উদ্ভিদের বিটপ পৃথিবীর ভরকেন্দ্রের বিপরীত দিকে বৃদ্ধি পায়।
2. পিটুইটারি গ্রন্থি নিঃসৃত হরমােনগুলির কাজ উল্লেখ করাে।

    উত্তর :
পিটুইটারি অগ্রখণ্ড থেকে ক্ষরিত হরমােন :
হরমােন    কাজ
1) সােমাটোট্রফিক হরমােন (STH)বা গ্রোথ হরমােন (GH)    অস্থি ও পেশির বৃদ্ধি ঘটানাে কম ক্ষরণে বামনত্ব ও অধিক ক্ষরণে অতিকায়ত্ব হয়।
2) থাইরয়েড স্টিমুলেটিং হরমােন (TSH)    থাইরয়েড গ্রন্থিকে হরমােন ক্ষরণে উদ্দীপনা দান। কম ক্ষরণে থাইরক্সিন ক্ষরন কমে এবং বেশি ক্ষরণে থাইরক্সিন ক্ষরণ বাড়ে।
3) অ্যাড্রিনােকর্টিকো ট্রফিক হরমােন (ACTH)    অ্যাড্রিনাল গ্রন্থির কর্টেক্স অলকে হরমােন ক্ষরণে উদ্দীপনা দান করে। অধিক ক্ষরণে কুশিং বর্ণিত রােগ হয়।
4) ফলিকল স্টিমুলেটিং হরমােন (FSH)    গ্রাফিয়ান ফলিকল-এর বৃদ্ধি ও হরমােন ক্ষরণে উদ্দীপনা দান করে। কম ক্ষরণে ডিম্বানু নিঃসরণ হয় না। ইস্ট্রোজেন ক্ষরণ হাস পায়।
5) লিউনাইজিং হরমােন (LH)    পীতগ্রন্থি গঠন ও হরমােন ক্ষরণে উদ্দীপনা দান। শুক্রাশয়ের লেডিগের কোশকে হরমােন ক্ষরণে উদ্দীপনা দান।
6) প্রােল্যাকটিন    মাতৃদেহের স্তন দুগ্ধ ক্ষরণে সাহায্য করে।

পিটুইটারির পশ্চাৎ খণ্ড থেকে ক্ষরিত হরমােন :
হরমােন    কাজ
1) অ্যান্টি ডাইইউরেটিক হরমােন (ADH) বা ভেসােপ্রেসিন    বৃক্ক নালিকায় জলের পুনঃ শােষণে বিশেষ ভূমিকা । গ্রহণ করে এবং রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে। কম ক্ষরণে বহুমূত্র বা ডায়াবেটিস ইনসিপিডাস রােগ হয়।
2) অক্সিটোসিন    পূর্ণ গর্ভবস্থায় জরায়ুর সংকোচন ঘটিয়ে শিশুর জন্ম হতে সহায়তা করে। দুগ্ধ নিঃসরণেও এর ভূমিকা আছে। কম ক্ষরণে জরায়ুর সংকোচন হাস পায়।
3. একটি নিউরােনের চিত্র অঙ্কন করে যে কোন এটি অংশ চিহ্নিত করাে।

    উত্তর : বই দেখে নিজেরা করাে।

4. অ্যামিবার গমন পদ্ধতির বিবরণ দাও। সিলিয়ার সাহায্যে প্যারামেসিয়াম-র গমন সংক্ষেপে উল্লেখ করাে।

    উত্তর : অ্যামিবা, এন্টামিবা প্রভৃতি এককোশী প্রাণীর গমন অঙ্গ হল সিউডােপােডিয়া বা ক্ষণপদ। দেহমধ্যস্থ প্রােটোপ্লাজমের ঘনত্বের পরিবর্তনের মাধ্যমে অ্যামিবা দেহের পরিধির দিকে অস্থায়ী পদে বা ক্ষণপদ সৃষ্টি করে। ক্ষণপদটি ধীরে ধীরে বর্ধিত হয়। এবং এর আঠালাে অগ্রভাগটি কোনাে কঠিন বস্তুর সঙ্গে আটকে দেয়। এরপর দেহমধ্যস্থ প্রােটোপ্লাজম ওই ক্ষণপদের মধ্যে ধীরে ধীরে প্রবাহিত করে ও পশ্চাদ্ভাগ ক্রমশ গুটিয়ে আনে। অবশেষে ক্ষণপদ অবলুপ্ত হয়। প্রাণীটি সামনের দিকে কিছুটা এগিয়ে যায়। এইভাবে পর্যায়ক্রমে ক্ষণপদ গঠনের মাধ্যমে প্রাণীটি স্থান পরিবর্তন করে। অ্যামিবার গমন পদ্ধতিকে অ্যামিবয়েড গমন পদ্ধতি বলে।

প্যারামেসিয়ামের গমন অঙ্গ সিলিয়া এবং এন্টামিবার গমন অঙ্গ হল ক্ষণপদ।

প্যারামেসিয়াম-এর গমন পদ্ধতি :

প্যারামেসিয়াম-এর সিলিয়া অনুদৈর্ঘ্য সারিতে সমগ্র দেহে বিন্যস্ত থাকে। এর সাহায্যে দু-রকম পদ্ধতিতে তারা গমন সম্পন্ন করে, যথা—ক্রিপিং বা হামাগুড়ি এবং সন্তরণ। উভয় প্রকার গমনই সিলিয়ার আন্দোলনের ফলে হয়।

ক্রিপিং বা হামাগুড়ি পদ্ধতিতে দেহের একদিকের সিলিয়ার সাহায্যে (মেটাক্রোনাস ছন্দে) কোনাে তলের ওপর গ্লাইডিং পদ্ধতিতে একস্থান থেকে অন্যস্থানে গমন। করে। সাধারণত দেহে যে প্রান্তে সাইটোস্টোম থাকে, সেইদিকের সিলিয়াই এই কাজে ব্যবহৃত হয়

সন্তরণ পদ্ধতিতে গমনের সময় সিলিয়ার বক্ৰচলনের মাধ্যমে সক্রিয় ঘাত ও প্রত্যাবর্তন ঘাতের দ্বারা জলের মধ্যে আঘাত সৃষ্টি করে। সক্রিয় ঘাত প্রাণীটিকে সামনের দিকে এগােতে সাহায্য করে, আবার রিকভারি বা প্রত্যাবর্তন ঘাতের সাহায্যে সিলিয়া আগের অবস্থানে ফিরে আসে। এভাবে পর্যায়ক্রমে মেটাক্রোনাস ও সিনক্রোনাস বিচলনের মাধ্যমে প্রাণীটি সামনের দিকে এগিয়ে যায়। এইভাবে সিলিয়া একস্থান থেকে অন্যস্থানে গমন করে।

5. মাছের গমনে সাহায্যকারী অঙ্গগুলির নাম লেখাে। মানুষের গমনে সাহায্যকারী | অস্থিপেশির নাম ও ভূমিকা লেখাে।

    উত্তর : মাছের গমনে সাহায্যকারী অঙ্গগুলির নাম হল—সাতটি রশ্মিযুক্ত পাখনা ও মায়ােটাম পেশি।

মানুষের গমনে বিভিন্ন কঙ্কালপেশি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। যেমন—

কঙ্কাল পেশির প্রকৃতি    কাজ
1) ফ্লেক্সর    এই ধরনের পেশি সংশ্লিষ্ট অঙ্গকে দু-ভাঁজ করে অর্থাৎ, পেশির একাংশ অপর অংশের ওপর বেঁকে যায়। পেশির এই ক্রিয়াকে ফ্লেক্সন বলে।
2) এক্সটেনশর    এই ধরনের পেশি অঙ্গকে প্রসারিত করে বা ছড়িয়ে দেয়। পেশির এই ক্রিয়াকে এক্সটেনশন বলে।
3) অ্যাবডাকটর    এই পেশি দেহ অক্ষ থেকে দেহ অঙ্গগুলিকে দূরে সরিয়ে নিয়ে যায়। পেশির এই ক্রিয়াকে অ্যাবডাকশন বলে।
4) অ্যাডাক্টর    এই পেশি কোনাে অঙ্গকে দেহঅক্ষের দিকে টেনে আনে। পেশির এই ক্রিয়াকে অ্যাডাকশন বলে।
5) রােটেটর    এই পেশি কোনাে অঙ্গকে প্রধান দেহ অক্ষের চারপাশে বা ডান বা বামদিকে বাঁকাতে পারে। পেশির এই ক্রিয়াকে রােটেশন বলে।
আরোও দেখুন:-
WBBSE Class 10th Life Science Suggestion Click here

আরোও দেখুন:-
WBBSE Class 10th All Subjects Suggestion Click here

বিনামূল্যে ডাউনলোড করুন:-
দশম শ্রেণী জীবন বিজ্ঞান সাজেশন | WBBSE Class 10th Life Science Suggestion Click here

Info : WBBSE Class 10th Life Science Suggestion | West Bengal Madhyamik Life Science Qustion and Answer.

দশম শ্রেণী জীবন বিজ্ঞান | মাধ্যমিক জীবন বিজ্ঞান – বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ – প্রশ্ন উত্তর 

” মাধ্যমিক  জীবন বিজ্ঞান –  বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ – প্রশ্ন উত্তর  “ একটি অতি গুরুত্বপূর্ণ টপিক মাধ্যমিক পরীক্ষা (Madhyamik / WB Madhyamik / MP Exam / West Bengal Board of Secondary Education – WBBSE Madhyamik Exam / Madhyamik Class 10th / Class X / Madhyamik Pariksha) এবং বিভিন্ন চাকরির (WBCS, WBSSC, RAIL, PSC, DEFENCE) পরীক্ষায় এখান থেকে প্রশ্ন অবশ্যম্ভাবী । সে কথা মাথায় রেখে BhugolShiksha.com এর পক্ষ থেকে মাধ্যমিক (দশম শ্রেণী) জীবন বিজ্ঞান পরীক্ষা প্রস্তুতিমূলক অনুশীলনীর প্রশ্ন ও উত্তর এবং সাজেশন (WBBSE Class 10th Life Science Suggestion / West Bengal Board of Secondary Education – WBBSE Life Science Suggestion / Madhyamik Class 10th Life Science Suggestion / Class X Life Science Suggestion / Madhyamik Pariksha Life Science Suggestion / Life Science Madhyamik Exam Guide / MCQ , Short , Descriptive  Type Question and Answer. / WBBSE Class 10th Life Science Suggestion FREE PDF Download) উপস্থাপনের প্রচেষ্টা করা হলাে। ছাত্রছাত্রী, পরীক্ষার্থীদের উপকারেলাগলে, আমাদের প্রয়াস মাধ্যমিক (দশম শ্রেণী) জীবন বিজ্ঞান পরীক্ষা প্রস্তুতিমূলক প্রশ্নোত্তর এবং সাজেশন (WBBSE Class 10th Life Science Suggestion / West Bengal Board of Secondary Education – WBBSE Life Science Suggestion / Madhyamik Class 10th Life Science Suggestion / Class X Life Science Suggestion / Madhyamik Pariksha Life Science Suggestion / WBBSE Class 10th Life Science Exam Guide / MCQ , Short , Descriptive  Type Question and Answer. / WBBSE Class 10th Life Science Suggestion FREE PDF Download) সফল হবে।

WBBSE Class 10th Life Science | মাধ্যমিক জীবন বিজ্ঞান – বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ – প্রশ্ন উত্তর 

WBBSE Class 10th Life Science (মাধ্যমিক জীবন বিজ্ঞান) – বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ – প্রশ্ন উত্তর 

WBBSE Class 10th Life Science Suggestion | দশম শ্রেণী জীবন বিজ্ঞান – বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ – প্রশ্ন উত্তর 

WBBSE Class 10th Life Science Suggestion (দশম শ্রেণী জীবন বিজ্ঞান) – বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ – প্রশ্ন উত্তর 

WBBSE Class 10th Life Science Question and Answer | মাধ্যমিক জীবন বিজ্ঞান প্রশ্ন ও উত্তর – বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ – প্রশ্ন উত্তর 

WBBSE Class 10th Life Science Question and Answer (মাধ্যমিক জীবন বিজ্ঞান প্রশ্ন ও উত্তর) – বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ – প্রশ্ন উত্তর 

WB WBBSE Class 10th Life Science Suggestion | দশম শ্রেণী জীবন বিজ্ঞান – বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ – প্রশ্ন উত্তর 

WB WBBSE Class 10th Life Science Suggestion (দশম শ্রেণী জীবন বিজ্ঞান) – বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ – প্রশ্ন উত্তর 

West Bengal WBBSE Class 10th Life Science Suggestion | দশম শ্রেণী জীবন বিজ্ঞান – বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ – প্রশ্ন উত্তর 

West Bengal WBBSE Class 10th Life Science Suggestion (দশম শ্রেণী জীবন বিজ্ঞান) – বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ – প্রশ্ন উত্তর 

WBBSE Class 10th WBBSE Class 10th Life Science Suggestion | দশম শ্রেণী জীবন বিজ্ঞান | মাধ্যমিক জীবন বিজ্ঞান | বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ – প্রশ্ন উত্তর 

WBBSE Class 10th WBBSE Class 10th Life Science Suggestion | দশম শ্রেণী জীবন বিজ্ঞান | মাধ্যমিক জীবন বিজ্ঞান | বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ – প্রশ্ন উত্তর 

West Bengal Madhyamik  Life Science Suggestion Download. WBBSE WBBSE Class 10th Life Science short question suggestion. WBBSE Class 10th Life Science Suggestion  download. Madhyamik Question Paper Life Science. WB Madhyamik 2019 Life Science suggestion and important questions. Madhyamik Suggestion pdf.পশ্চিমবঙ্গ মাধ্যমিক  জীবন বিজ্ঞান পরীক্ষার সম্ভাব্য প্রশ্ন উত্তর ও শেষ মুহূর্তের সাজেশন ডাউনলোড। মাধ্যমিক জীবন বিজ্ঞান পরীক্ষার জন্য সমস্ত রকম গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন।

Get the WBBSE Class 10th Life Science Suggestion by BhugolShiksha.com

 West Bengal WBBSE Class 10th Life Science Suggestion  prepared by expert subject teachers. WB Madhyamik Life Science Suggestion with 100% Common in the Examination.

West Bengal Board of Secondary Education (WBBSE) 

will organize Madhyamik (Madhyamik)  Examination on the last week of February and continue up to the middle of March. Like every year Team BhugolShiksha.com published Madhyamik  All subjects suggestion.

West Bengal Madhyamik Life Science Syllabus PDF

The Following document gives the topic wise complete syllabus for West Bengal Madhyamik exams for both Class 9 and 10. Candidates can refer to this PDF for any doubts regarding the syllabus. 

Madhyamik WBBSE Class 10th Life Science complete syllabus Click Here to Download

WBBSE Life Science Suggestion | West Bengal Madhyamik Exam

WBBSE Class 10th Life Science Suggestion  Download PDF: WBBSE Madhyamik Class 10th Life Science Suggestion is provided here. WB Madhyamik  Life Science Suggestion Questions Answers PDF Download.

Class 10th Life Science Suggestion

Class 10th Life Science Suggestion  has been provided here. Class 10th Life Science Suggestion questions are very much common for the upcoming WBBSE Class 10th Life Science examination. Download the solved Class 10th (X) question paper of Life Science Subject Provided here. These common questions can be downloaded free. Moreover, you can easily check West Bengal মাধ্যমিক জীবন বিজ্ঞান expected common questions for upcoming Madhyamik 10th Exam.

WBBSE Class 10th Life Science Suggestion

WB WBBSE Class 10th Life Science Suggestion Question and answer. The questions you should practice repeatedly however we can not guarantee that the questions will be 100% common. Hence, you should read the textbook of class 10th thoroughly for 100% sure suggestions. We also advise the WBBSE Madhyamik Students for  year that they read their textbook multiple times and solve the questions.

    স্কুল, কলেজ ও বিভিন্ন ছাত্রছাত্রীদের পড়াশোনার ডিজিটাল মাধ্যম BhugolShiksha.com । এর প্রধান উদ্দেশ্য পঞ্চম শ্রেণী থেকে দ্বাদশ শ্রেণীর (মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক) সমস্ত বিষয় এবং গ্রাজুয়েশনের শুধুমাত্র ভূগোল বিষয়কে  সহজ বাংলা ভাষায় আলোচনার মাধ্যমে ছাত্রছাত্রীদের কাছে সহজ করে তোলা। এছাড়াও সাধারণ-জ্ঞান, পরীক্ষা প্রস্তুতি, ভ্রমণ গাইড, আশ্চর্যজনক তথ্য, সফল ব্যাক্তিদের জীবনী, বিখ্যাত ব্যাক্তিদের উক্তি,  প্রাণী জ্ঞান, কম্পিউটার, বিজ্ঞান ও বিবিধ প্রবন্ধের মাধ্যমে ছাত্রছাত্রীদের মননকে বিকশিত করে তোলা।
        আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ সময় করে আমাদের এই (দশম শ্রেণী জীবন বিজ্ঞান | বংশগতি ও কয়েকটি সাধারণ জিনগত রোগ – প্রশ্ন উত্তর সাজেশন | WBBSE Class 10th Life Science Suggestion) পােস্টটি পড়ার জন্য। এই ভাবেই ভূগোল শিক্ষা – BhugolShiksha.com ওয়েবসাইটের পাশে থাকুন। বিভিন্ন বিষয়ের যেকোনো প্ৰশ্ন উত্তর জানতে এই ওয়েবসাইট টি ফলাে করুন এবং নিজেকে  তথ্য সমৃদ্ধ করে তুলুন , ধন্যবাদ।
নিচের বাটনে ক্লিক করে শেয়ার করেন বন্ধুদের মাঝে