মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন - উচ্চমাধ্যমিক বাংলা প্রশ্ন ও উত্তর | HS Bengali Mahuar Desh Question and Answer
মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন - উচ্চমাধ্যমিক বাংলা প্রশ্ন ও উত্তর | HS Bengali Mahuar Desh Question and Answer

মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন

উচ্চমাধ্যমিক বাংলা প্রশ্ন ও উত্তর | HS Bengali Mahuar Desh Question and Answer

মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন – উচ্চমাধ্যমিক বাংলা প্রশ্ন ও উত্তর | HS Bengali Mahuar Desh Question and Answer : মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন – উচ্চমাধ্যমিক বাংলা প্রশ্ন ও উত্তর | HS Bengali Mahuar Desh Question and Answer নিচে দেওয়া হলো। এই দ্বাদশ শ্রেণীর বাংলা প্রশ্ন ও উত্তর – WBCHSE Class 12 Bengali Mahuar Desh Question and Answer, Suggestion, Notes – মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন থেকে বহুবিকল্পভিত্তিক, সংক্ষিপ্ত, অতিসংক্ষিপ্ত এবং রোচনাধর্মী প্রশ্ন উত্তর (MCQ, Very Short, Short, Descriptive Question and Answer) গুলি আগামী West Bengal Class 12th Twelve XII Bengali Examination – পশ্চিমবঙ্গ উচ্চমাধ্যমিক বাংলা পরীক্ষার জন্য খুব ইম্পর্টেন্ট।

 তোমরা যারা মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন – উচ্চমাধ্যমিক বাংলা প্রশ্ন ও উত্তর | HS Bengali Mahuar Desh Question and Answer খুঁজে চলেছ, তারা নিচে দেওয়া প্রশ্ন ও উত্তর গুলো ভালো করে পড়তে পারো। 

শ্রেণী দ্বাদশ শ্রেণী – উচ্চমাধ্যমিক (HS Class 12)
বিষয় উচ্চমাধ্যমিক বাংলা (HS Bengali)
কবিতা মহুয়ার দেশ (Mahuar Desh)
লেখক সমর সেন (Samar Sen)

মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন – উচ্চমাধ্যমিক দ্বাদশ শ্রেণীর বাংলা প্রশ্ন ও উত্তর | West Bengal HS Class 12th Bengali Mahuar Desh Question and Answer 

MCQ | মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন – উচ্চমাধ্যমিক বাংলা প্রশ্ন ও উত্তর | HS Bengali Mahuar Desh Question and Answer :

  1. ‘ মহুয়ার দেশ ‘ কবিতাটি লেখা হয়েছিল—

(A) ১৯৩৫ খ্রিস্টাব্দে

(B) ১৯৩৪ খ্রিস্টাব্দে

(C) ১৯৪৬ খ্রিস্টাব্দে

(D) ১৯৩৭ খ্রিস্টাব্দে

Ans: (D) ১৯৩৭ খ্রিস্টাব্দে

  1. ‘ মহুয়ার দেশ ‘ কবিতাটি সমর সেনের যে – কাব্যগ্রন্থে আছে , তা হলো – 

(A) গ্রহণ

(B) কয়েকটি কবিতা

(C) নানাকথা

(D) খোলা চিঠি

Ans: (B) কয়েকটি কবিতা

  1. ‘ গলিত সোনার মতো উজ্জ্বল আলোর স্তম্ভ ‘ – কে এঁকে দেয় – 

(A) ডুবন্ত সূর্য 

(B) উদীয়মান সূর্য

(C) অলস সূর্য

(D) দুপুরের সূর্য

Ans: (C) অলস সূর্য

  1. অলস সূর্য ছবি এঁকে দেয় –

(A) সন্ধ্যার জলস্রোতে 

(B) মেঘলা দুপুরে 

(C) সমুদ্রের ঢেউয়ে 

(D) আকাশজুড়ে

Ans: (A) সন্ধ্যার জলস্রোতে

  1. উজ্জ্বল আলোর স্তম্ভ –

(A) শীতের দুঃস্বপ্নের মতো

(B) গলিত সোনার মতো 

(C) সূর্যের আগ্নেয় শরীরের মতো

(D) মহুয়া ফুলের মতো

Ans: (B) গলিত সোনার মতো

  1. পড়ন্ত সূর্যের আলোর আগুন লাগে –

(A) জলের গভীরে 

(B) জলের গভীরে ধূসর ফেনায় 

(C) জলের অশ্বকারে ধূসর ফেনায় 

(D) জলের অন্ধকারে ধূসর শ্যাওলায়

Ans: (D) জলের অন্ধকারে ধূসর শ্যাওলায়

  1. শীতের দুঃস্বপ্নের মতো ঘুরে ফিরে আসে –

(A) ধোঁয়ার নিশ্বাস 

(B) ধোঁয়ার বঙ্কিম ঘ্রাণ 

(C) ধোঁয়ার বঙ্কিম প্রশ্বাস 

(D) ধোঁয়ার বঙ্কিম নিশ্বাস

Ans: (D) ধোঁয়ার বঙ্কিম নিশ্বাস

  1. কখন ধোঁয়ার বঙ্কিম নিশ্বাস ঘুরে ফিরে আসে ? 

(A) সন্ধ্যার উজ্জ্বল স্তন্দ্বতায়

(B) সন্ধ্যার নিবিড় অন্ধকারে

(C) সন্ধ্যার স্নান দুঃস্বপ্নে 

(D) সন্ধ্যার অস্পষ্ট আলোয়

Ans: (A) সন্ধ্যার উজ্জ্বল স্তন্দ্বতায়

  1. ‘ ধোঁয়ার বঙ্কিম নিঃশ্বাস ঘুরে ফিরে আসে –

(A) নির্জন নিঃসঙ্গতার মতো 

(B) উজ্জ্বল সন্দ্বতার মতো 

(C) সমুদ্রের দীর্ঘশ্বাসের মতো 

(D) শীতের দুঃস্বপ্নের মতো

Ans: (D) শীতের দুঃস্বপ্নের মতো

  1. ‘ অলস সূর্য ‘ – কবি সূর্যের সামনে ‘ অলস ‘ বিশেষণটি প্রয়োগ করেছেন কারণ –

(A) বয়স বোঝাতে 

(B) লাল রং বোঝাতে 

(C) অস্তগামী সূর্য বোঝাতে 

(D) সন্ধ্যা বোঝাতে

Ans: (C) অস্তগামী সূর্য বোঝাতে

  1. মহুয়ার দেশটি হল – 

(A) মেঘের কোলে

(B) মেঘ – মন্থর 

(C) মেঘ – মদির 

(D) মেঘ – মধুর

Ans: (C) মেঘ – মদির

  1. ‘ মেঘ – মদির মহুয়ার দেশ ‘ কোথায় আছে ? 

(A) অনেক , অনেক দূরে 

(B) পথের দু – ধারে 

(C) খুব , খুব কাছে 

(D) নির্জন অরণ্যে 

Ans: (A) অনেক , অনেক দূরে

অথবা , ‘ মেঘ – মদির মহুয়ার দেশ  ‘ আছে— 

(A) খুব , খুব কাছে 

(B) নিবিড় অরণ্যে

(C) অনেক , অনেক দূরে 

(D) প্রান্তরের শেষে

Ans: (C) অনেক , অনেক দূরে

  1. ‘ মেঘ – মদির মহুয়ার দেশ ‘ বলতে কবি বুঝিয়েছেন –

(A) বর্ষায় পূর্ণ এক স্থানকে

(B) ছায়াময় রহস্যে পূর্ণ এক সৌন্দর্যে ভরা অঞ্চলকে 

(C) মেঘের মত্ততায় পূর্ণ এক অঞ্চলকে

(D) রহস্যময় ছায়া সুনিবিড় মহুয়া গাছে ঘেরা সৌন্দর্যকে 

Ans: (D) রহস্যময় ছায়া সুনিবিড় মহুয়া গাছে ঘেরা সৌন্দর্যকে

  1. মহুয়ার দেশে সমস্তক্ষণ পথের দু – ধারে কী ঘটে ? 

(A) ফুল ঝরে পড়ে 

(B) ছায়া পড়ে 

(C) দেবদারুর ছায়া পড়ে 

(D) অস্পষ্ট আওয়াজ ভাসে 

Ans: (C) দেবদারুর ছায়া পড়ে

  1. মহুয়ার দেশে পথের দু – ধারে ছায়া ফেলে –

(A) দেবদারু গাছ

(B) কদম গাছ 

(C) অর্জুন গাছ

(D) মহুয়া গাছ

Ans: (A) দেবদারু গাছ

আরোও দেখুন:-

HS Bengali Suggestion 2023 Click here

  1. মহুয়ার দেশে দীর্ঘ রহস্যে পূর্ণ হল –

(A) দেবদারু গাছ 

(B) উইলো গাছ 

(C) পাইন গাছ 

(D) ফার গাছ 

Ans: (A) দেবদারু গাছ

  1. দূর সমুদ্রের দীর্ঘশ্বাস –

(A) রাত্রির অন্ধকারকে আলোড়িত করে 

(B) রাত্রির নিঃসঙ্গ অন্ধকারকে আলোড়িত করে

(C) রাত্রির নির্জন নিঃসঙ্গতাকে আলোড়িত করে 

(D) রাত্রির শীতের দুঃস্বপ্নকে আলোড়িত করে

Ans: (C) রাত্রির নির্জন নিঃসঙ্গতাকে আলোড়িত করে

  1. ‘ মহুয়ার দেশ ‘ কবিতায় রাতের নির্জন – নিঃসঙ্গতাকে আলোড়িত করে— 

(A) নিশাচরের কোলাহর 

(B) শিকারীর পদসঞ্চার 

(C) অবসন্ন মানুষের আনাগোনা 

(D) সমুদ্রের দীর্ঘশ্বাস

Ans: (D) সমুদ্রের দীর্ঘশ্বাস

  1. ‘ আমার ক্লান্তির উপরে ঝরুক’— 

(A) বকুল ফল 

(B) শিউলি ফল

(C) মহুয়া ফুল

(D) এদের কোনোটিই নয়

Ans: (C) মহুয়া ফুল

  1. মহুয়ার গন্ধ নেমে আসবে – 

(A) কবির বাগানের ওপর 

(B) মহুয়ার দেশে 

(C) কবির দেহের ওপর 

(D) কবির ক্লান্তির ওপর 

Ans: (D) কবির ক্লান্তির ওপর

  1. মহুয়ার দেশে নেমে আসে –

(A) গুমোট অন্ধকার 

(B) রহস্যময় অন্ধকার

(C) নিবিড় অন্ধকার

(D) নিকষ অন্ধকার

Ans: (C) নিবিড় অন্ধকার

  1. ‘ মাঝে মাঝে শুনি ‘ – কী শোনা যায় ? 

(A) ধামসা – মাদলের আওয়াজ 

(B) কয়লাখনির গভীর বিশাল শব্দ

(C) জঙ্গলের জন্তুদের ডাক 

(D) দূর সমুদ্রের দীর্ঘশ্বাস

Ans: (B) কয়লাখনির গভীর বিশাল শব্দ

  1. কয়লাখনির গভীর বিশাল শব্দ ভেসে আসে –

(A) জঙ্গলের ভিতর থেকে 

(B) মহুয়া বনের ধার থেকে

(C) মহুয়া বনের ভিতর থেকে

(D) নদীর ধার থেকে

Ans: (B) মহুয়া বনের ধার থেকে

  1. মহুয়ার দেশে সকাল –

(A) কুয়াশার হিমে আচ্ছন্ন 

(B) বৃষ্টিতে জলে ভাসমান 

(C) সূর্যের আলোয় উজ্জ্বল 

(D) শিশিরে – ভেজা সবুজ 

Ans: (D) শিশিরে – ভেজা সবুজ

  1. মহুয়ার দেশের মানুষের শরীরে ফুটে ওঠে –

(A) সপ্রতিভতা 

(B) স্বাস্থ্য ও সাহস 

(C) উন্মত্ততা 

(D) অবসন্নতা

Ans: (D) অবসন্নতা

  1. মহুয়ার দেশের ক্লান্ত মানুষের শরীরে লেগে আছে –

(A) মাঠের কাদা 

(B) লাল মাটির দাগ 

(C) জঙ্গলের বিষাদ 

(D) ধুলোর কলঙ্ক

Ans: (D) ধুলোর কলঙ্ক

  1. ‘ অবসন্ন মানুষের শরীরে দেখি’— 

(A) ধুলোর কলঙ্ক 

(B) পোড়া দাগ 

(C) অপমানের কলঙ্ক

(D) চাঁদের কলঙ্ক

Ans: (A) ধুলোর কলঙ্ক

  1. ‘ অবসন্ন মানুষের শরীরে দেখি ধুলোর কলঙ্ক , ‘ –সময়টা— 

(A) দুপুর 

(B) সকাল 

(C) রাত্রি

(D) বিকেল

Ans: (B) সকাল

  1. মহুয়ার দেশের মানুষের চোখ –

(A) লাল 

(B) তন্দ্রাচ্ছন্ন 

(C) ঘুমহীন

(D) অস্থির

Ans: (C) ঘুমহীন

  1. মহুয়ার দেশের মানুষের ঘুমহীন চোখে হানা দেয়— 

(A) ক্লান্ত দুঃস্বপ্ন 

(B) ক্লান্তির ঘুম 

(C) ক্লান্ত আবেশ

(D) সমুদ্রের দীর্ঘশ্বাস 

Ans: (A) ক্লান্ত দুঃস্বপ্ন

  1. মহুয়া বনের ধারে রয়েছে –

(A) কয়লাখনি 

(B) সাঁওতাল গ্রাম 

(C) নদী

(D) মন্দির

Ans: (A) কয়লাখনি

  1. সবুজ সকাল কীসে ভেজা ?

(A) শিশিরে 

(B) মেঘে

(C) জলে 

(D) ভোরের আলোয়

Ans: (A) শিশিরে

  1. ‘ কীসের ক্লান্ত দুঃস্বপ্ন ‘ — এই দুঃস্বপ্ন কীসের ? 

(A) দুর্ঘটনার দুঃস্বপ্ন 

(B) শহীদের মৃত্যুর দুঃস্বপ্ন 

(C) অরণ্যের অধিকার হারানোর দুঃস্বপ্ন

(D) নাগরিক জীবনের দুঃস্বপ্ন

Ans: (C) অরণ্যের অধিকার হারানোর দুঃস্বপ্ন

অতিসংক্ষিপ্ত প্রশ্নোত্তর | মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন – উচ্চমাধ্যমিক বাংলা প্রশ্ন ও উত্তর | HS Bengali Mahuar Desh Question and Answer : 

  1. ‘ মাঝে মাঝে সন্ধ্যার জলস্রোতে কী ঘটে ? 

Ans: ‘ মহুয়ার দেশ ‘ কবিতা অনুসারে মাঝে মাঝে সন্ধ্যার জলস্রোতে অলস সূর্য গলিত আলোকস্তম্ভ এঁকে দেয় ।

  1. ‘ অলস সূর্য দেয় এঁকে ‘ — এখানে ‘ অলস ‘ শব্দটি ব্যবহার করা হয়েছে কেন ? 

Ans: কবি সমর সেন ‘ ‘ মহুয়ার দেশ ‘ কবিতায় দিন শেষে } = অস্তগামী সূর্যের ক্লান্ত – বিষণ্ণ রূপ ফুটিয়ে তুলতে ‘ অলস ’ বিশেষণটি = প্রয়োগ করেছেন ।

  1. ‘ অলস সূর্য দেয় এঁকে ‘ — অলস সূর্য কী এঁকে দেয় ?

Ans: ‘ মহুয়ার দেশ ‘ কবিতা অনুসারে অলস সূর্য সন্ধ্যার জলস্রোতে উজ্জ্বল আলোকস্তম্ভ এঁকে দেয় ।

  1. ‘ অলস সূর্য দেয় এঁকে ‘ — ‘ অলস সূর্য ‘ কী আঁকে ? সূর্যকে ‘ অলস ’ বলার কারণ কী ?

Ans: আধুনিক কবি সমর সেন বিরচিত ‘ মুহুয়ার দেশ ’ কবিতা অনুসারে অলস সূর্য সন্ধ্যার জলস্রোতে উজ্জ্বল আলোকস্তম্ভ এঁকে দেয় । দিনান্তে সূর্য পশ্চিম দিগন্তে অস্তাচলগামী । তাই কবির কথায় সূর্য ‘ অলস ‘ ।

  1. ‘ জলের অন্ধকারে ধূসর ফেনায় ।’— কী ঘটে ? 

Ans: ‘ মহুয়ার দেশ ’ কবিতা অনুসারে পড়ন্ত সূর্যের লাল আলোয় জলের অন্ধকারে ধূসর ফেনায় আগুন লাগে ।

  1. ‘ গলিত সোনার মতো উজ্জ্বল আলোর স্তম্ভ ‘ বলতে কবি কী বুঝিয়েছেন ?

Ans: অস্তমিত সূর্যের আলোয় সন্ধ্যায় জলস্রোত গলানো সোনার মতোই উজ্জ্বল হয়ে ওঠে । উদ্ধৃত পক্তির মাধ্যমে কবি সমর সেন সন্ধ্যার জলস্রোতের সেই স্বর্ণালি রূপকেই বুঝিয়েছেন ।

  1. ‘ সেই উজ্জ্বল স্তব্ধতায় ‘ — এখানে কীসের কথা বলা হয়েছে ? 

Ans: ‘ মহুয়ার দেশ ‘ কবিতায় কবি সমর সেন পড়ন্ত সূর্যের আলোয় সন্ধ্যার জলস্রোতে অন্ধকার ধূসর ফেনায় যে আগুন লাগে , তাকে ফুটিয়ে তুলতে ‘ উজ্জ্বল স্তব্ধতা ’ শব্দবন্ধ ব্যবহার করেছেন ।

  1. ‘ সেই উজ্জ্বল স্তব্ধতায় ’ — ‘ উজ্জ্বল স্তব্ধতা ’ বলার কারণ কী ? 

Ans: কবি সমর সেন ‘ মহুয়ার দেশ ’ কবিতায় বিদায়ী সূর্যের স্বর্ণালি আলোয় উদ্ভাসিত সান্ধ্য মুহূর্তে মুগ্ধ মৌনতাকে বোঝাতে ‘ উজ্জ্বল স্তব্ধতা ’ শব্দবন্ধ ব্যবহার করেছেন ।

  1. ‘ ধোঁয়ার বঙ্কিম নিঃশ্বাস ঘুরে ফিরে ঘরে আসে ’ — ‘ ধোঁয়ার বঙ্কিম নিঃশ্বাস ’ বলতে কবি কী বুঝিয়েছেন ?

Ans: ‘ মহুয়ার দেশ ’ কবিতায় কবি , আধুনিক সভ্যতায় নগরজীবনের দূষণকে ‘ ধোঁয়ার বঙ্কিম নিঃশ্বাস ’ বলে বিদ্রূপ করেছেন ।

  1. ধোঁয়ার বঙ্কিম নিঃশ্বাস কীভাবে কবির কাছে আসে ?

Ans: ‘ মহুয়ার দেশ ‘ কবিতা অনুসারে মধ্যবিত্ত শহুরে জীবনে সভ্যতা ও যান্ত্রিকতার দুষিত এবং হতশ্রী ছবি যেন ধোঁয়ার বঙ্কিম নিশ্বাসের মতো ঘুরে ফিরে আসে ।

  1. কবি কাকে ‘ শীতের দুঃস্বপ্ন ‘ বলেছেন ।

Ans: কবি সমর সেন তাঁর ‘ মহুয়ার দেশ ‘ কবিতায় ‘ ধোঁয়ার বঙ্কিম নিঃশ্বাস ’ – কে ‘ শীতের দুঃস্বপ্ন ’ বলেছেন । 

12 ‘ সেই উজ্জ্বল স্তখতা ‘ কেন স্থায়ী হয় না ?

Ans: নগরজীবনের দুষিত , দম বন্ধ করা ধোঁয়া , শীতের দুঃস্বপ্নের মতো ঘুরে ফিরে আসায় , অস্তগামী সূর্যের আলোর ‘ উজ্জ্বল স্তব্ধতা ‘ দীর্ঘস্থায়ী হয় না ।

  1. অনেক , অনেক দুরে — কী আছে ?

Ans: সমর সেনের ‘ মহুয়ার দেশ ‘ কবিতা অনুসারে ‘ অনেক , অনেক দূরে ’ আছে মেঘ – মদির মহুয়ার দেশ ।

  1. ‘ মেঘ – মদির মহুয়ার দেশ , ‘ বলার কারণ কী ? 

Ans: ‘ মহুয়ার দেশ ’ কবিতা অনুসারে দুষিত নাগরিক জীবনের আবদ্ধতার বিপরীতে প্রকৃতির রহস্যময় সৌন্দর্যের মায়াময়তা ফুটিয়ে তুলতে কবি সমর সেন ‘ মেঘ – মদির মহুয়ার দেশ বলেছেন ।

  1. ‘ মহুয়ার দেশ ” বলতে কবি সমর সেন কোন জায়গাকে বোঝাতে চেয়েছেন ?

Ans: কবি সমর সেন শাল ও মহুয়া তরুর স্নিগ্ধ ছায়ায় মোহময় হয়ে ওঠা তাঁর স্বপ্নকল্পনার সাঁওতাল পরগনাকে ‘ মহুয়ার দেশ ’ বলে অভিহিত করেছেন ।

  1. ‘ পথের দুধারে ছায়া ফেলে ‘ — কী ছায়া ফেলে ? 

Ans: মহুয়ার দেশে পথের দু – ধারে দীর্ঘ দেবদারু গাছ রহস্যময় ছায়া ফেলে ।

  1. ‘ অনেক , অনেক দূরে আছে মেঘ – মদির মহুয়ার দেশ , এখানে ‘ মহুয়ার দেশ ’ কীসের প্রতীক হয়ে ওঠে ? 

Ans: পাঠ্য কবিতায় কবি মধ্যবিত্ত নাগরিক জীবনের দূষিত , যান্ত্রিক ও একঘেয়ে বন্দিত্ব থেকে মুক্তির ও পরিত্রাণের প্রতীক হিসেবে ‘ মহুয়ার দেশ ’ – কে ফুটিয়ে তোলেন ।

  1. ‘ সমস্তক্ষণ সেখানে …’— কী ঘটে ?

Ans: মহুয়ার দেশে পথের দু – ধারে সমস্তক্ষণ দীর্ঘ দেবদারু গাছ । রহস্যময় ছায়া ফেলে ।

  1. ‘ দেবদারুর দীর্ঘ রহস্য , ‘ বলার কারণ কী ?

Ans: সমর সেন ‘ মহুয়ার দেশ ‘ কবিতায় , দীর্ঘ দেবদারু গাছের ছায়ায় পরিপূর্ণ রহস্যময় বিস্তৃতি ও সৌন্দর্যের ছবি প্রশ্নোদ্ধৃত অংশটির মাধ্যমে ফুটিয়ে তুলেছেন ।

  1. ‘ আর দূর সমুদ্রের দীর্ঘশ্বাস ’ বলার তাৎপর্য কী ?

Ans: ‘ মহুয়ার দেশ ‘ কবিতায় আরও দূর সমুদ্রের ঢেউয়ের আলোড়নকে নিঃসঙ্গ হৃদয়ে অনুভব করার কথা বলতে গিয়ে কবি সমর সেন ‘ সমুদ্রের দীর্ঘশ্বাস ‘ শব্দবন্ধটি ব্যবহার করেছেন ।

  1. রাত্রের নির্জন নিঃসঙ্গতাকে আলোড়িত করে ।’— কীভাবে ?

Ans: সমর সেনের ‘ মহুয়ার দেশ ‘ কবিতায় আরও দূর সমুদ্রের দীর্ঘশ্বাস রাত্রের নির্জন নিঃসঙ্গতাকে আলোড়িত করে ।

  1. রাত্রের নির্জন নিঃসঙ্গতা ‘ বলতে কবি কী বুঝিয়েছেন ?

Ans: ‘ রাত্রের নির্জন নিঃসঙ্গতা ‘ বলতে কবি সমর সেন মধ্যবিত্ত শহুরে জীবনের ক্লান্তি , বিচ্ছিন্নতা , যান্ত্রিকতা এবং দুঃসহ একাকিত্বকে বুঝিয়েছেন । 

  1. আমার ক্লান্তির উপরে ঝরুক ‘ — কী করবে ?

Ans: ‘ মহুয়ার দেশ ‘ কবিতা অনুসারে কবির ক্লান্তির ওপর মহুয়া ফুল ঝরে পড়ার কথা বলা হয়েছে ।

  1. ‘ মহুয়ার দেশ ‘ – এ কবি কীসের আকাঙ্ক্ষার কথা প্রকাশ করেছেন ?

Ans: ‘ মহুয়ার দেশ ‘ কবিতায় কবি সমর সেন ক্লান্তির ওপরে মহুয়া ফুল ঝরে পড়া এবং মহুয়ার গন্ধ নেমে আসার আকাঙ্ক্ষা প্রকাশ করেছেন । 

  1. এখানে অসহ্য , নিবিড় অন্ধকারে / মাঝে মাঝে শুনি ‘ — বস্তুা কী শোনেন ?

Ans: ‘ মহুয়ার দেশ ‘ কবিতায় অসহ্য নিবিড় অন্ধকারে বক্তা কয়লাখনির গভীর ও বিশাল শব্দ শোনেন ।

  1. ‘ এখানে অসহ্য , নিবিড় অন্ধকারে ‘ — অন্ধকারকে অসহ্য এবং নিবিড় বলার কারণ কী ?

Ans: ‘ মহুয়ার দেশ ‘ কবিতায় মধ্যবিত্ত জীবনের ক্লান্তি , বিবর্ণতা ও হতাশাকে কবি সমর সেন নিবিড় ও অসহ্য অন্ধকারের মধ্য দিয়ে প্রকাশ করেছেন ।

  1. গভীর , বিশাল শব্দ , ‘ —কী গভীর এবং সেখানে কীসের শব্দ হয় ।

Ans: কবি সমর সেনের ‘ মহুয়ার দেশ ’ কবিতায় বর্ণিত কয়লাখনি গভীর এবং সেখানে খনিগর্ভ থেকে কয়লা উত্তোলনের উৎকট ও যান্ত্রিক শব্দ ধ্বনিত হয় ।

  1. ‘ গভীর , বিশাল শব্দ , কয়লাখনির শব্দকে ‘ গভীর ’ এবং ‘ বিশাল ’ বলার কারণ কী ?

Ans: কবি সমর সেন ‘ মহুয়ার দেশ ’ কবিতায় শান্ত প্রকৃতির নির্মল পটভূমিতে যান্ত্রিকতার সামঞ্জস্যহীন বৈপরীত্যকে স্পষ্ট করে তোলার জন্য কয়লাখনির শব্দকে ‘ গভীর ’ এবং ‘ বিশাল ’ বলে উল্লেখ করেছেন ।

  1. ‘ শিশিরে – ভেজা সবুজ সকালে ‘ — বক্তা কী দেখেন ?

Ans: কবি সমর সেন ‘ মহুয়ার দেশ ’ কবিতায় কবি স্বয়ং শিশিরে ভেজা সবুজ সকালে অবসন্ন মানুষের শরীরে ধুলোর কলঙ্ক দেখতে পান ।

  1. ‘ ঘুমহীন তাদের চোখে হানা দেয় – কাদের চোখে কী হানা দেয় ?

Ans: মহুয়ার দেশের মানুষদের ঘুমহীন চোখে ক্লান্ত দুঃস্বপ্ন 

  1. ‘ ঘুমহীন তাদের চোখে ‘ — তাদের চোখ ঘুমহীন কেন ? 

Ans: সমর সেনের ‘ মহুয়ার দেশ ’ কবিতায় মহুয়ার দেশের খনি – শ্রমিকদের চোখ আধুনিক সভ্যতার ক্লান্তি ও বিপন্নতায় ঘুমহীন ।

  1. ‘ কীসের ক্লান্ত দুঃস্বপ্ন ‘ — এই দুঃস্বপ্ন কীসের ?

Ans: কবি সমর সেনের ‘ মহুয়ার দেশ ‘ কবিতায় বর্ণিত ক্লান্ত – শ্রান্ত খনি – শ্রমিকদের বিনিদ্র চোখে যে দুঃস্বপ্ন হানা দেয় তা আসলে অরণ্যের অধিকার হারানোর আতঙ্ক ।

রচনাধর্মী প্রশ্নোত্তর | মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন – উচ্চমাধ্যমিক বাংলা প্রশ্ন ও উত্তর | HS Bengali Mahuar Desh Question and Answer : 

1. ‘ মাঝে মাঝে সন্ধ্যার জলস্রোতে / অলস সূর্য দেয় এঁকে — দৃশ্যটির তাৎপর্য বুঝিয়ে দাও । এই দৃশ্যটি কবিমনে কী প্রভাব বিস্তার করে আলোচনা করো । 

অথবা , ‘ গলিত সোনার মতো উজ্জ্বল আলোর স্তম্ভ / আর আগুন লাগে জলের অন্ধকারে ধূসর ফেনায় / কীসের কথা বলা হয়েছে । এমন পরিস্থিতিতে কবির মনে কোন ভাবনার উদয় হয় ?

Ans: প্রশ্নোদ্ভূত অংশটি কবি সমর সেনের ‘ মহুয়ার দেশ ‘ কবিতা থেকে গৃহীত । কবি এখানে শহরের সূর্যাস্তের তাৎক্ষণিক সৌন্দর্যের এক অসামান্য ছবি এঁকেছেন । সারাদিন পরিক্রমা শেষে অলস সূর্য সন্ধ্যার জলস্রোতে আলোর মায়াজাল বিস্তার করে । জলে প্রতিফলিত সূর্যালোককে মনে হয় গলিত সোনার উজ্জ্বল আলোকস্তম্ভের মতো । তা অন্ধকার জলের ধূসর ফেনায় যেন আগুন জ্বালিয়ে দেয় । ঘনায়মান সন্ধ্যার বুকে সমাগত এই ‘ উজ্জ্বল স্তব্ধতা ‘ – র মায়ালোক কবিকে মুহূর্তের জন্য বিহ্বল করে । 

   নগরজীবনে সৌন্দর্যের এই পটভূমি ভঙ্গুর ও স্বল্পস্থায়ী । ধোঁয়ার বঙ্কিম নিশ্বাসের মতো চারপাশের যান্ত্রিকতা ও সর্বগ্রাসী দূষণ তাকে নিমেষেই গ্রাস করে । তখন পরিপার্শ্বকে কবির ‘ শীতের দুঃস্বপ্নের মতো মনে হয় তাঁর হৃদয় । ‘ মেঘ – মদির মহুয়ার দেশ ‘ – এর কথা ভেবে উন্মুখ হয়ে ওঠে । সে – দেশের পথের দু – ধার রহস্যময় দেবদারুর দীর্ঘ ছায়ায় আবৃত । সেখানে দূর সমুদ্রের দীর্ঘশ্বাসে রাত্রের নির্জন নিঃসঙ্গতা আলোড়িত হয় । শহুরে জীবনের একঘেয়ে বন্দিদশার ক্লান্তির ওপর কবি চান মহুয়া ফুল নির্মল আনন্দ হয়ে ঝরে পড়ুক । মহুয়ার মত্ত সুঘ্রাণ তাঁর অবসন্ন মনে এক সতেজ উন্মাদনা ছড়িয়ে দিক । কবির কাছে মহুয়ার দেশ যেন বিশুদ্ধ জীবনের মুক্তির ঠিকানা ও প্রতীক হয়ে ধরা দেয় । 

2. ‘ ধোঁয়ার বঙ্কিম নিঃশ্বাস ঘুরে ফিরে ঘরে আসে / শীতের দুঃস্বপ্নের মতো ।’— ‘ মহুয়ার দেশ ” কবিতায় মধ্যবিত্ত নগরজীবনের যে ছবি প্রকাশ পেয়েছে , উদ্ধৃতাংশটির আলোকে তা আলোচনা করো ।

Ans: কবি সমর সেন নাগরিক মধ্যবিত্ত মানসের ক্লান্তি – হতাশা ও সংকটকে ‘ মহুয়ার দেশ ’ কবিতায় এক ভিন্ন ব্যঞ্জনা দান করেছেন— আধুনিক সভ্যতার ধুলো – ধোঁয়ার ধূসরতায় ক্লান্ত কবি নগরজীবনের কৃত্রিমতা , প্রাণহীনতা তুলে ধরেছেন । কবিতার শুরুতেই অস্তগামী সূর্যের আলোয় প্রকৃতির অপরূপ সৌন্দর্য প্রকাশ পায় । শহরে ঘনায়মান সন্ধ্যার জলস্রোতে , গলিত সোনার মতো উজ্জ্বল আলোকস্তম্ভ ফুটে ওঠে । মনে হয় ‘ অলস ‘ লাল সূর্য জলের অন্ধকার ধূসর ফেনায় যেন আগুন জ্বালিয়ে দিয়ে চলে যাচ্ছে । শান্ত প্রকৃতির অনাবিল চিত্র অস্তগামী সূর্যের ‘ উজ্জ্বল স্তব্ধতা ‘ দীর্ঘস্থায়ী হয় না । আধুনিক যন্ত্রসভ্যতার দূষিত ধোঁয়া সমস্ত সৌন্দর্যকে দ্রুত গ্রাস করে । যান্ত্রিকতায় বন্দি এ জীবনকে কবির ‘ শীতের দুঃস্বপ্নের মতো ’ বলে মনে হয় । তিনি পরিত্রাণের আশায় কল্পনার মহুয়ার দেশে দেবদারুর দীর্ঘ ছায়ায় লুকোতে চান , নাগরিক হৃদয়ের ক্লান্তির উপশম খোঁজেন । মহুয়ার গন্ধে । তবে কবির রোমান্টিক ভাববিলাস বাস্তবতার আঘাতে ভেঙে যায় । তিনি শোনেন গভীর – বিশাল কয়লাখনির একঘেয়ে শব্দে প্রতিনিয়ত চূর্ণবিচূর্ণ হয় । তাঁর স্বপ্নের মহুয়ার দেশ । সেখানে শিশিরভেজা সকালেও , মানুষের গায়ে ধুলোর মলিনতা লাগে । বেঁচে থাকার চাপে কোণঠাসা সেই রাতজাগা মানুষগুলির চোখেও হানা দেয় একই ক্লান্ত দুঃস্বপ্ন । 

   এভাবেই যন্ত্রসভ্যতার আগ্রাসনে , নগরায়ণের ইশারায় স্বপ্নের মহুয়ার দেশ হারিয়ে যায় । জীবনযন্ত্রণার ‘ ক্লান্ত দুঃস্বপ্নে ’ বিপন্ন বাস্তবে কোনো মুক্তির ঠিকানা খুঁজে পাওয়া কখনোই সম্ভব হয় না ।

3. ‘ মহুয়ার দেশ ” কবিতায় কবি শহরে ‘ ধোয়ার বঙ্কিম নিঃশ্বাস এবং মহুয়ার দেশে ‘ ধুলোর কলঙ্ক ‘ দেখেছেন আবার যেখানে মহুয়ার গন্ধ নেমে আসার কথা বলেন , সেখানেই কয়লার খনির / গভীর , বিশাল শব্দ শুনতে পান — এ ধরনের বিপরীতধর্মিতা কবিতার কোন্ ব্যঞ্জনাকে প্রকাশ করে আলোচনা করো ।

Ans: কবি সমর সেনের কবিতার একটি অন্যতম বৈশিষ্ট্যই হল । বৈপরীত্যের মাধ্যমে জীবনের বাস্তবতার উন্মোচন । ‘ মহুয়ার দেশ কবিতাটিও এর ব্যতিক্রম নয় । 

   নাগরিক সভ্যতার আগ্রাসন ‘ মহুয়ার দেশ ’ কবিতার মূলভাব হল ধূসর – হতশ্রী নাগরিক জীবনের ক্লান্ত একঘেয়েমির হাত থেকে মুক্তি । শহুরে জীবনের দূষিত – রুক্ষ – নির্মমতাকে কবির ‘ ধোঁয়ার বঙ্কিম নাগরিক জীবন থেকে নিঃশ্বাস ‘ – এর মতো বলে মনে হয় । তাই এই মুক্তির আকুলতা দুঃস্বপ্নের জীবন থেকে পরিত্রাণের জন্য সৌন্দর্যে – পবিত্রতায় পরিপূর্ণ মহুয়ার দেশে কবি আশ্রয় খোঁজেন । সেখানে পথের দু – ধারে দেবদারুর দীর্ঘ রহস্য তাঁকে হাতছানি দিয়ে ডাকে । তিনি শহুরে অবসন্নতার কাছ থেকে নিষ্কৃতির আশায় হৃদয়ে ধারণ করতে চান মহুয়ার সতেজ সুঘ্রাণ । রূঢ় বাস্তবের মুখোমুখি দাঁড়িয়ে রোমান্টিক কবির স্বপ্নের সলিল সমাধি ঘটে । তিনি অসহ্য অন্ধকারে বসে শোনেন মহুয়া বনের ধারে কয়লাখনির ‘ গভীর , বিশাল শব্দ ’ । সেখানেও মানুষের গায়ে ধুলোর কলঙ্ক আর রাতজাগা চোখে জীবনের অনিশ্চয়তার ‘ ক্লান্ত দুঃস্বপ্ন ‘ । কবিতায় ব্যবহৃত এই অসামঞ্জস্য ও বিপরীতধর্মিতাই অত্যন্ত সহজে ফুটিয়ে তোলে যান্ত্রিক নগরসভ্যতার নীরব বিস্তৃতিকে । এর গভীর – বিশাল বিস্তার প্রান্তবর্তী প্রকৃতিকেও গ্রাস করে । কবি বুঝিয়ে দেন মানুষ কেবল স্বপ্ন দেখে ; কিন্তু বাস্তবজীবনের বিপন্ন – বিবর্ণতাকে সে কোথাও অতিক্রম করতে পারে না । 

4. ‘ অনেক দূরে আছে মেঘ – মদির মহুয়ার দেশ –কবিতা অবলম্বনে ‘ মেঘ – মদির মহুয়ার দেশ ’ – এর সৌন্দর্য ও তাৎপর্য বিশ্লেষণ করো ।

Ans: মহুয়ার দেশের ছায়াময় লাবণ্য , সৌন্দর্য এবং রহস্যময়তাকে ফুটিয়ে তোলে এই ‘ মেঘ – মদির ’ শব্দবন্ধটি । পাঠ্য ‘ মহুয়ার দেশ ’ কবিতাটি ছাড়াও কবি সমর সেন ‘ সাঁওতাল পরগনার মেঘ – মদির আকাশ ‘ – এর কথা একাধিক কবিতায় উল্লেখ করেছেন । আক্রয়সন্ধান কবি সমর সেন তেমনই এক দেশে আশ্রয় খোঁজেন , নগরজীবনের বিবর্ণতা , বিপন্নতা এবং অবক্ষয় , প্রকৃতির যে স্বর্গরাজ্যকে এখনও স্পর্শ করতে পারেনি ; যেখানে বেঁচে থাকার অসহ্য ক্লান্তি ‘ শীতের দুঃস্বপ্নের মতো মানুষকে তাড়া করে ফেরে না ; যে দেশে পথের দু – ধারে ছায়া ফেলে রহস্যময় দীর্ঘ দেবদারু ; যেখানে দূর সমুদ্রের দীর্ঘশ্বাসের মতো বাতাসে রাত্রির নির্জন নিঃসঙ্গতা আলোড়িত হয় । কবি স্বপ্ন দেখেন , সেই নৈসর্গিক মহুয়ার দেশের ফুলে – গন্ধে আধুনিক নাগরিক মধ্যবিত্তের সমস্ত ক্লান্তি আর নৈরাশ্য যেন ধুয়ে – মুছে নির্মল হয়ে উঠবে । 

   স্বপ্নের সওদাগর সমর সেন তাঁর স্বপ্নকল্পনার ‘ মেঘ – মদির মহুয়ার । দেশ ‘ – এ পৌঁছে হতাশ হন । সেখানে মহুয়া বনের ধার থেকে ভেসে আসা কয়লাখনির যান্ত্রিক একঘেয়ে শব্দ শোনেন কবি । তাঁর চোখে । ধরা পড়ে সেখানকার ধুলোর কলঙ্কমাখা মানুষের রাতজাগা চোখে বিপন্ন পৃথিবীর ‘ ক্লান্ত দুঃস্বপ্ন ‘ । নাগরিক যন্ত্রসভ্যতার আগ্রাসনে ‘ মহুয়ার দেশ ’ এক কল্পরাজ্য হয়েই থেকে যায় ; আর সর্বত্র মানুষের দৈনন্দিন বর্তমানকে আচ্ছন্ন করে বিপন্নতা , বিকৃতি ও ক্লান্তি ।

5. ‘ আমার ক্লান্তির উপরে ঝরুক মহুয়া – ফুল / নামুক মহুয়ার গন্ধ ।— ‘ আমার ’ বলতে কার কথা বলা হয়েছে ? এমন কামনার কারণ কী ? 

অথবা , ‘ সমস্তক্ষণ সেখানে পথের দুধারে ছায়া ফেলে / দেবদারুর দীর্ঘ রহস্য – নাগরিক জীবনের ক্লান্তি ও আবদ্ধতা থেকে শান্তির প্রত্যাশা কবিতায় কেমনভাবে প্রকাশ পেয়েছে , তা উদ্ধৃতাংশটির আলোকে বিচার করো ।

Ans: সমর সেনের লেখা ‘ মহুয়ার দেশ ’ কবিতা থেকে গৃহীত প্রশ্নোধৃত অংশে ‘ আমার ‘ বলতে কবি নিজেকে বোঝাতে চেয়েছেন । 

   অস্তগামী সূর্যের এক করুণ ও উজ্জ্বল ছবি দিয়ে পাঠ্য ‘ মহুয়ার দেশ ’ কবিতাটি শুরু হয় । ঘনায়মান সন্ধ্যায় অলস সূর্যের আলো , গলিত সোনার মতো অন্ধকার জলতলের ধূসর ফেনায় যেন আগুন লাগিয়ে দিয়ে যায় । কিন্তু বিবর্ণ শহরের ‘ ধোঁয়ার বঙ্কিম নিঃশ্বাসে তা দ্রুত হারিয়ে যেতে থাকে । ক্লান্ত নাগরিক হৃদয়ে শীতের দুঃস্বপ্নের মতো ’ তাড়া করে বেঁচে থাকার অবসাদ , একঘেয়েমি ও হতাশা । মধ্যবিত্ত মন তখন যেন অনেক দূরের মহুয়ার দেশের মেঘ – মদির সৌন্দর্য আর বিশুদ্ধতার খোঁজে ব্যাকুল হয়ে ওঠে । নাগরিক জীবন ‘ মহুয়ার দেশ ’ কবির কাছে হয়ে ওঠে এই বন্দিদশা থেকে মুক্তির একমাত্র প্রতীক । সেখানে দীর্ঘ দেবদারুর রহস্যময় ছায়াবৃত পথের দু – ধারে আলো – আঁধারির এক অপরূপ মায়ালোক সৃষ্টি করে । দূর সমুদ্রের দীর্ঘশ্বাসে রাত্রির নির্জন – নিঃসঙ্গতা আলোড়িত হয় । নির্মল প্রকৃতির হাওয়ায় , জীবনের আলো – ছায়ায় যেন অবসন্নতা – নৈরাশ্য ঘুচে যায় । মহুয়া ফুলের সুঘ্রাণের মধ্যে কবি ক্লান্তির উপশম খুঁজে পান । তাই তিনি প্রার্থনা করেন , ‘ আমার ক্লান্তির উপরে ঝরুক মহুয়া ফুল , / নামুক মহুয়ার গন্ধ ‘ । নগরসভ্যতার ক্লান্তিকর আয়োজন থেকে পরিত্রাণের খোঁজে তিনি স্বপ্নের স্নিগ্ধ – সজীব মহুয়ার দেশে আশ্রয় নেওয়ার বাসনাই প্রকাশ করেন । 

6. ‘ ঘুমহীন তাদের চোখে হানা দেয় / কীসের ক্লান্ত দুঃস্বপ্ন । –কাদের কথা বলা হয়েছে ? তাদের ঘুমহীন চোখে ক্লান্ত দুঃস্বপ্ন হানা দেয় কেন ? 

অথবা , ‘ অবসন্ন মানুষের শরীরে দেখি ধুলোর কলঙ্ক , কাদের কথা বলা হয়েছে ? উদ্ধৃতাংশটির তাৎপর্য আলোচনা করো । 

Ans: অবসন্ন মানুষের পরিচয় ‘ মহুয়ার দেশ ‘ কবিতায় কবি সমর সেন আধুনিক সভ্যতায় মানুষের জীবনযন্ত্রণায় ক্লান্ত , বিপন্ন ও বিধ্বস্ত অবস্থাটিকে ফুটিয়ে তুলেছেন । প্রশ্নোদৃত অংশে মহুয়ার দেশের কয়লাখনির শ্রমিক তথা সাধারণ মানুষের কথা বলা হয়েছে । 

   যান্ত্রিক নাগরিক জীবনের ক্লান্তি , দুষণ ধোঁয়ার মতোই প্রকৃতির নৈসর্গিকতাকে গ্রাস করে । ধূসর বিবর্ণতায় কবি সমর সেনের মন বিষণ্ণ হয়ে ওঠে । এখান থেকে পরিত্রাণ লাভের আশায় তাঁর চেতনায় জেগে ওঠে মেঘ – মদির মহুয়ার দেশের কথা । সেখানে পথের দু – ধারে ছায়া ফেলে রহস্যময় দেবদারু । কবি চান , তাঁর ক্লান্তির ওপরে ঝরে পড়ুক মহুয়া ফুল । ইট – কাঠ – কংক্রিটের নগরে যে – স্নিগ্ধ প্রাণময়তার অভাব , তা তিনি মহুয়ার দেশে খুঁজে পাবেন বলে ভাবেন । বাস্তবের আঘাতে কবির এই স্বপ্নকল্পনা দীর্ঘস্থায়ী হয় না । কবি শোনেন মহুয়া বনের ধারে ভেসে আসা কয়লাখনির একঘেয়ে শব্দ । সেখানে শিশিরে সমুজ্জ্বল সবুজ সকালেও মানুষের গায়ে লেগে থাকে ধুলোর কলঙ্ক । তাদের রাতজাগা চোখেও বেঁচে থাকার একই দুঃসহ ক্লান্তি এবং আধুনিক জীবনের অনিশ্চয়তা হানা দেয় । অরণ্য প্রকৃতির নির্মল কোলে বেড়ে ওঠা মানুষেরা যান্ত্রিক নগরসভ্যতার কোপে এইভাবে ক্রমে যন্ত্রমানবে পরিণত হয় । বর্তমান পৃথিবীর ক্লান্তি , ক্ষয় , সংকট ও বিপন্নতার হাত থেকে মহুয়ার দেশও মুক্তি পায় না । এই বন্দিত্ব এবং মুক্তির ঠিকানাহীন বেঁচে থাকার বেদনাবহ সত্যকে প্রকাশ করার কবিতাই হল ‘ মহুয়ার দেশ ‘ ।

7. ‘ অবসন্ন মানুষের শরীরে দেখি ধুলোর কলঙ্ক এখানে কোন মানুষদের কথা বলা হয়েছে ? তাঁরা অবসন্ন কেন ? ‘ ধুলোর কলঙ্ক ’ বলতে কবি কী বুঝিয়েছেন ? 

Ans: নাগরিক জীবনের সার্থক রূপকার কবি সমর সেনের ‘ মহুয়ার দেশ ’ কবিতা থেকে গৃহীত উদ্ধৃত পঙ্ক্তিতে কবি কয়লাখনির ক্লান্ত , অবসন্ন শ্রমজীবী মানুষদের কথা বলেছেন । 

   অবসন্ন কেন শহরের ধূসর নাগরিক জীবনে অভ্যস্ত কবি ক্লান্তি থেকে মুক্তির স্বাদ পেতে ছুটে যান স্বপ্নকল্পনার মেঘ – মদির মহুয়ার দেশে । কবি চান তাঁর ক্লান্তিকে ভুলিয়ে দিক মহুয়ার গন্ধ । কিন্তু কবি যখন খুব কাছ থেকে মহুয়ার দেশকে দেখেন , উপলব্ধি করেন বর্তমান সভ্যতার রুঢ় বাস্তবতা সেখানেও গ্রাস করেছে । নিবিড় অন্ধকারেও তিনি শুনেছেন কয়লাখনির মর্মভেদী শব্দ । শিশিরধৌত নির্মল সকালে দেখেছেন খনি থেকে বেড়িয়ে আসা অবসন্ন শ্রমজীবী মানুষগুলির ধূলিমলিন দেহ । পুঁজিবাদের আগ্রাসনে মহুয়ার দেশের প্রকৃতিলগ্ন মানুষগুলির নির্মম আত্মসমর্পণ কবির যাবতীয় স্বপ্নকল্পনাকে বাস্তবে এনে দাঁড় করিয়েছে । সারারাত শ্রম দিয়েও ভালো থাকতে না পারার যন্ত্রণার এই ক্লান্ত – শ্রান্ত মহুয়ার দেশের মানুষগুলির শরীর অবসন্ন হয়ে পরেছে । 

   রূঢ় বাস্তবের মুখোমুখি দাঁড়িয়ে রোমান্টিক কবির স্বপ্নের সলিল সমাধি ঘটে । প্রকৃতির উদার সান্নিধ্যেও মহুয়ার দেশের মানুষ সরল জীবনযাপন করতে পারে না । পুঁজিবাদী সভ্যতার দাপটে সেখানেও মানুষের গায়ে ধুলোর কলঙ্ক আর রাতজাগা চোখে জীবনের অনিশ্চয়তার ‘ ক্লান্ত দুঃস্বপ্ন ‘ । প্রগতির কাছে অসহায়ভাবে আত্মসমর্পণ করতেই হয় প্রকৃতিকে । অরণ্যপ্রকৃতির নির্মল কোলে বেড়ে ওঠা মানুষেরাও যান্ত্রিক নগরসভ্যতার কোপে এইভাবে ‘ ধুলোর কলঙ্ক গায়ে মেখে ক্রমে যন্ত্রমানবে পরিণত হয় । কবির সহজ উপস্থাপনায় ও নির্মোহ দৃষ্টিভঙ্গির গুণে ধনতান্ত্রিক সমাজকাঠামোয় গঠিত বর্বর নগরসভ্যতার সর্বগ্রাসী চেহারাটি প্রকট হয়ে উঠেছে । 

8. ‘ মহুয়ার দেশ ‘ কবিতাটির নামকরণের সার্থকতা বিচার করো ।

Ans: ‘ নামকরণের তাৎপর্য ‘ অংশটি দ্যাখো ।

9. ‘ মহুয়ার দেশ ” কবিতা অবলম্বনে কবি সমর সেনের কবিপ্রতিভা , রচনাশৈলী এবং রোমান্টিক মনের যে প্রকাশ ঘটেছে , তা আলোচনা করো ।

Ans: কবি সমর সেন আদ্যন্ত নাগরিক । তাঁর লেখায় শহুরে “ মধ্যবিত্ত জীবনের ক্লান্তি , বিক্ষোভ ও বিকৃতির আশ্চর্য প্রকাশ দেখা যায় । ‘ মহুয়ার দেশ ’ কবিতায় সেই ক্লান্ত সহ – নাগরিকের বেদনা – স্বপ্ন ও দীর্ঘশ্বাসের শব্দ ধ্বনিত হয়ে ওঠে । স্বপ্ন ও স্বপ্নভঙ্গের অলস সূর্যের উজ্জ্বল স্তব্ধতার মোহ মুছে দিয়ে , দূষিত হতশ্রী শহর কবিমনকে ‘ শীতের দুঃস্বপ্নের মতো ’ চেপে ধরে । তখন সৌন্দর্য ও বিশুদ্ধতার খোঁজে তাঁর হৃদয় ‘ মহুয়ার দেশ ’ – এ আশ্রয় খোঁজে । যান্ত্রিক বিবর্ণতা ত্যাগ করে তিনি দেবদারুর দীর্ঘ ছায়ায় গিয়ে দাঁড়াতে চান । এখানে বক্তব্য ও চিত্রকল্পকে কবি গদ্যছন্দে এমন নিপুণভাবে ব্যবহার করেছেন যে , ‘ ক্লান্তির উপরে ঝরুক মহুয়া ফুল ’ 

   পঙ্ক্তিটি এক আশ্চর্য মোহময় আবেশ সৃষ্টি করে । কিন্তু সচেতন শিল্পী মাত্রেই নন বর্তমান তার রূঢ় বা আসলে মানুষের স্বপ্নভঙ্গের ভিত্তিভূমি । তাই রোমান্টিক কল্পনা ভেঙে চুরমার করে মহুয়া বনের ধার থেকে ভেসে আসে কয়লাখনির গভীর ক্লান্তিকর শব্দ । সেই মানুষগুলোর গায়ে তিনি দেখেন নির্মলতার পরিবর্তে ‘ ধুলোর কলঙ্ক ’ আর চোখে অবসন্ন দুঃস্বপ্ন । কবি সহজ উপস্থাপনায় ও নির্মোহ দৃষ্টিভঙ্গির গুণে মানুষের ক্লান্তি – বিপন্নতা এবং হতশ্রী অবস্থাটি যেমন স্পষ্ট হয়ে ওঠে , তেমনই বর্বর নগরসভ্যতার সর্বগ্রাসী চেহারাটিও ভয়াবহ প্রকট হয়ে দেখা দেয় ।

উচ্চমাধ্যমিক বাংলা প্রশ্ন ও উত্তর – West Bengal HS Class 12th Bengali Question and Answer / Suggestion / Notes Book

আরোও দেখুন :-

উচ্চমাধ্যমিক বাংলা সমস্ত অধ্যায়ের প্রশ্নউত্তর Click Here

HS Suggestion 2023 | উচ্চ মাধ্যমিক সাজেশন ২০২৩

আরোও দেখুন:-

HS Bengali Suggestion 2023 Click here

আরোও দেখুন:-

HS English Suggestion 2023 Click here

আরোও দেখুন:-

HS History Suggestion 2023 Click here

আরোও দেখুন:-

HS Geography Suggestion 2023 Click here

আরোও দেখুন:-

HS Political Science Suggestion 2023 Click here

আরোও দেখুন:-

HS Philosophy Suggestion 2023 Click here

আরোও দেখুন:-

HS Sanskrit Suggestion 2023 Click here

আরোও দেখুন:-

HS Education Suggestion 2023 Click here

আরোও দেখুন:-

HS Sociology Suggestion 2023 Click here

আরোও দেখুন:-

HS Physics Suggestion 2023 Click here

আরোও দেখুন:-

HS Chemistry Suggestion 2023 Click here

আরোও দেখুন:-

HS Mathematics Suggestion 2023 Click here

আরোও দেখুন:-

HS Biology Suggestion 2023 Click here

মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন অধ্যায় থেকে আরোও প্রশ্ন ও উত্তর দেখুন :

Update

[আমাদের YouTube চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন Subscribe Now]

Info : মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন উচ্চমাধ্যমিক বাংলা সাজেশন প্রশ্ন ও উত্তর

 HS Bengali Suggestion  | West Bengal WBCHSE Class Twelve XII (Class 12th) Bengali Qustion and Answer Suggestion   

” মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন – উচ্চমাধ্যমিক বাংলা প্রশ্ন উত্তর  “ একটি অতি গুরুত্বপূর্ণ টপিক উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা (West Bengal Class Twelve XII  / WB Class 12  / WBCHSE / Class 12  Exam / West Bengal Council of Higher Secondary Education – WB Class 12 Exam / Class 12 Class 12th / WB Class 12 / Class 12 Pariksha  ) এখান থেকে প্রশ্ন অবশ্যম্ভাবী । সে কথা মাথায় রেখে Bhugol Shiksha .com এর পক্ষ থেকে উচ্চমাধ্যমিক বাংলা পরীক্ষা প্রস্তুতিমূলক সাজেশন এবং প্রশ্ন ও উত্তর ( উচ্চমাধ্যমিক বাংলা সাজেশন / উচ্চমাধ্যমিক বাংলা প্রশ্ও উত্তর । HS Bengali Suggestion / HS Bengali Mahuar Desh Question and Answer / Class 12 Bengali Suggestion / Class 12 Pariksha Bengali Suggestion  / Bengali Class 12 Exam Guide  / MCQ , Short , Descriptive  Type Question and Answer  / HS Bengali Suggestion  FREE PDF Download) উপস্থাপনের প্রচেষ্টা করা হলাে। ছাত্রছাত্রী, পরীক্ষার্থীদের উপকারে লাগলে, আমাদের প্রয়াস উচ্চমাধ্যমিক বাংলা পরীক্ষা প্রস্তুতিমূলক সাজেশন এবং প্রশ্ন ও উত্তর (HS Bengali Suggestion / West Bengal Twelve XII Mahuar Desh Question and Answer, Suggestion / WBCHSE Class 12th Bengali Mahuar Desh Suggestion  / HS Bengali Mahuar Desh Question and Answer  / Class 12 Bengali Suggestion  / Class 12 Pariksha Suggestion  / HS Bengali Exam Guide  / HS Bengali Suggestion 2022, 2023, 2024, 2025, 2026, 2027, 2021, 2020, 2019, 2017, 2016, 2015, 2028, 2029, 2030 / HS Bengali Mahuar Desh Suggestion  MCQ , Short , Descriptive  Type Question and Answer. / HS Bengali Mahuar Desh Suggestion  FREE PDF Download) সফল হবে।

FILE INFO : মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন – উচ্চমাধ্যমিক বাংলা প্রশ্ন ও উত্তর | HS Bengali Mahuar Desh Question and Answer with FREE PDF Download Link

PDF File Name মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন – উচ্চমাধ্যমিক বাংলা প্রশ্ন ও উত্তর | HS Bengali Mahuar Desh Question and Answer PDF
Prepared by Experienced Teachers
Price FREE
Download Link 1 Click Here To Download
Download Link 2 Click Here To Download

মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন প্রশ্ন ও উত্তর  

মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন – প্রশ্ন ও উত্তর | মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন HS Bengali Mahuar Desh Question and Answer Suggestion  উচ্চমাধ্যমিক বাংলা প্রশ্ন ও উত্তর  – মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন প্রশ্ন ও উত্তর।

মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন MCQ প্রশ্ন ও উত্তর | উচ্চমাধ্যমিক বাংলা 

মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন MCQ প্রশ্ন ও উত্তর | মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন HS Bengali Mahuar Desh Question and Answer Suggestion  উচ্চমাধ্যমিক বাংলা প্রশ্ন ও উত্তর  – মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন MCQ প্রশ্ন উত্তর।

মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন SAQ সংক্ষিপ্ত প্রশ্ন ও উত্তর | দ্বাদশ শ্রেণির বাংলা 

মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন SAQ সংক্ষিপ্ত প্রশ্ন ও উত্তর | মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন HS Bengali Mahuar Desh Question and Answer Suggestion  উচ্চমাধ্যমিক বাংলা প্রশ্ন ও উত্তর  – মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন SAQ সংক্ষিপ্ত প্রশ্ন উত্তর।

মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন MCQ প্রশ্ন উত্তর – দ্বাদশ শ্রেণি বাংলা | HS Class 12 Bengali Mahuar Desh 

দ্বাদশ শ্রেণি বাংলা (HS Bengali Mahuar Desh) – মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন – প্রশ্ন ও উত্তর | মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন | HS  Bengali Mahuar Desh Suggestion  দ্বাদশ শ্রেণি বাংলা  – মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন প্রশ্ন উত্তর।

উচ্চমাধ্যমিক বাংলা প্রশ্ন ও উত্তর  | দ্বাদশ শ্রেণির বাংলা প্রশ্ন ও উত্তর  – মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন প্রশ্ন উত্তর | HS Bengali Mahuar Desh Question and Answer Question and Answer, Suggestion 

উচ্চমাধ্যমিক বাংলা প্রশ্ন ও উত্তর – মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন | উচ্চমাধ্যমিক বাংলা প্রশ্ন ও উত্তর – মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন | পশ্চিমবঙ্গ উচ্চমাধ্যমিক বাংলা প্রশ্ন ও উত্তর – মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন | উচ্চমাধ্যমিক বাংলা সহায়ক – মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন – প্রশ্ন ও উত্তর । HS Bengali Mahuar Desh Question and Answer, Suggestion | HS Bengali Mahuar Desh Question and Answer Suggestion  | HS Bengali Mahuar Desh Question and Answer Notes  | West Bengal HS Class 12th Bengali Mahuar Desh Question and Answer Suggestion. 

উচ্চমাধ্যমিক বাংলা প্রশ্ন ও উত্তর   – মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন MCQ প্রশ্ন উত্তর | WBCHSE Class 12 Bengali Mahuar Desh Question and Answer, Suggestion 

উচ্চমাধ্যমিক বাংলা প্রশ্ন ও উত্তর  – মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন প্রশ্ন উত্তর প্রশ্ন ও উত্তর  | মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন । WBCHSE Class 12 Bengali Mahuar Desh Question and Answer Suggestion.

WBCHSE Class 12th Bengali Mahuar Desh Suggestion  | উচ্চমাধ্যমিক বাংলা প্রশ্ন ও উত্তর   – মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন

WBCHSE HS Bengali Mahuar Desh Suggestion উচ্চমাধ্যমিক বাংলা প্রশ্ন ও উত্তর  – মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন প্রশ্ন উত্তর প্রশ্ন ও উত্তর  । মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন | HS Bengali Mahuar Desh Suggestion  উচ্চমাধ্যমিক বাংলা প্রশ্ন ও উত্তর – মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন – প্রশ্ন উত্তর প্রশ্ন ও উত্তর ।

HS Bengali Mahuar Desh Question and Answer Suggestions  | উচ্চমাধ্যমিক বাংলা প্রশ্ন ও উত্তর – মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন | উচ্চমাধ্যমিক বাংলা প্রশ্ন ও উত্তর 

HS Bengali Mahuar Desh Question and Answer  উচ্চমাধ্যমিক বাংলা প্রশ্ন ও উত্তর – মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন উচ্চমাধ্যমিক বাংলা প্রশ্ন ও উত্তর  HS Bengali Mahuar Desh Question and Answer উচ্চমাধ্যমিক বাংলা প্রশ্ন ও উত্তর  প্রশ্ন ও উত্তর – মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন MCQ, সংক্ষিপ্ত, রোচনাধর্মী প্রশ্ন ও উত্তর  । 

WB Class 12 Bengali Mahuar Desh Suggestion  | উচ্চমাধ্যমিক বাংলা প্রশ্ন ও উত্তর   – মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন MCQ প্রশ্ন উত্তর প্রশ্ন ও উত্তর 

HS Bengali Mahuar Desh Question and Answer Suggestion উচ্চমাধ্যমিক বাংলা প্রশ্ন ও উত্তর – মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন MCQ প্রশ্ন ও উত্তর । HS Bengali Mahuar Desh Question and Answer Suggestion  উচ্চমাধ্যমিক বাংলা প্রশ্ন ও উত্তর।

West Bengal Class 12  Bengali Suggestion  Download WBCHSE Class 12th Bengali short question suggestion  . HS Bengali Mahuar Desh Suggestion   download Class 12th Question Paper  Bengali. WB Class 12  Bengali suggestion and important question and answer. Class 12 Suggestion pdf.পশ্চিমবঙ্গ দ্বাদশ শ্রেণীর বাংলা পরীক্ষার সম্ভাব্য সাজেশন ও শেষ মুহূর্তের প্রশ্ন ও উত্তর ডাউনলোড। উচ্চমাধ্যমিক বাংলা পরীক্ষার জন্য সমস্ত রকম গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন ও উত্তর।

Get the HS Bengali Mahuar Desh Question and Answer Question and Answer by Bhugol Shiksha .com

HS Bengali Mahuar Desh Question and Answer Question and Answer prepared by expert subject teachers. WB Class 12  Bengali Suggestion with 100% Common in the Examination .

Class Twelve XII Bengali Mahuar Desh Suggestion | West Bengal Council of Higher Secondary Education (WBCHSE) Class 12 Exam 

HS Bengali Mahuar Desh Question and Answer, Suggestion Download PDF: West Bengal Council of Higher Secondary Education (WBCHSE) Class 12 Twelve XII Bengali Suggestion  is provided here. HS Bengali Mahuar Desh Question and Answer Suggestion Questions Answers PDF Download Link in Free has been given below. 

মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন – উচ্চমাধ্যমিক বাংলা প্রশ্ন ও উত্তর | HS Bengali Mahuar Desh Question and Answer 

        অসংখ্য ধন্যবাদ সময় করে আমাদের এই ” মহুয়ার দেশ (কবিতা) সমর সেন – উচ্চমাধ্যমিক বাংলা প্রশ্ন ও উত্তর | HS Bengali Mahuar Desh Question and Answer  ” পােস্টটি পড়ার জন্য। এই ভাবেই Bhugol Shiksha ওয়েবসাইটের পাশে থাকো যেকোনো প্ৰশ্ন উত্তর জানতে এই ওয়েবসাইট টি ফলাে করো এবং নিজেকে  তথ্য সমৃদ্ধ করে তোলো , ধন্যবাদ।

Download Our Android App

Subscribe Our YouTube Channel

Join Our Telegram Channel