উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বিজ্ঞান – মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (১৯৫২-৫৩) (ষষ্ঠ অধ্যায়) প্রশ্নোত্তর সাজেশন | Higher Secondary Education Suggestion

2970
উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বিজ্ঞান - মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (১৯৫২-৫৩) (ষষ্ঠ অধ্যায়) প্রশ্নোত্তর সাজেশন | Higher Secondary Education Suggestion

Higher Secondary Education Suggestion | WBCHSE HS Exam Qustion and Answer | উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বিজ্ঞান (দ্বাদশ শ্রেণীর) প্রশ্নোত্তর সাজেশন

মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (১৯৫২-৫৩) (ষষ্ঠ অধ্যায়)

MCQ প্রশ্নোত্তর [মান ১] মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (১৯৫২-৫৩)

সঠিক উত্তরটি নির্বাচন করো

1. মুদালিয়র কমিশনের মতে কোন শ্রেণির ছাত্র-ছাত্রীরা পছন্দমতো পাঠ্যসমূহ নির্বাচনে সক্ষম?

(a) দশম শ্রেণি (b) অষ্টম শ্রেণি (c) দ্বাদশ শ্রেণি (d) নবম শ্রেণি

Ans. (d) নবম শ্রেণি

2. মুদালিয়র কমিশন গঠন করা হয়—

(a)১৯৪৮ খ্রিস্টাব্দে (b) ১৯৫০ খ্রিস্টাব্দে (c) ১৯৫১ খ্রিস্টাব্দে (d) ১৯৫২ খ্রিস্টাব্দে

Ans. (d) ১৯৫২ খ্রিস্টাব্দে

3. মুদালিয়র কমিশনের সদস্যসংখ্যা—

(a) ৫ (b) ৬ (c) ৭ (d) ৯

Ans. (d) ৯

4. মুদালিয়র কমিশনের রিপোর্ট সরকারের কাছে জমা পড়ে—

(a)১৯৫২ খ্রিস্টাব্দে (b) ১৯৫৩ খ্রিস্টাব্দে (c)১৯৫৬ খ্রিস্টাব্দে (d)১৯৬৫ খ্রিস্টাব্দে

Ans. (b) ১৯৫৩ খ্রিস্টাব্দে

5. মুদালিয়র কমিশনের রিপোর্টে অধ্যায় সংখ্যা—

(a) ৯ অধ্যায় (b) ১২ অধ্যায় (c) ১৬ অধ্যায় (d) ২০ অধ্যায়

Ans. (c) ১৬ অধ্যায়

6. মাধ্যমিক শিক্ষায় 7টি প্রবাহের অবতারণা করে—

(a) হান্টার কমিশন (b) মুদালিয়র কমিশন (c) বিশ্ববিদ্যালয় কমিশন (d) সার্জেন্ট কমিশন

Ans. (b) মুদালিয়র কমিশন

7. মুদালিয়র কমিশনে ভারতীয় সদস্যসংখ্যা

(a) ৪ (b) ৫ (c) ৭ (d) ৯

Ans. (c) ৭

8. ১৯৪৮ খ্রিস্টাব্দে মাধ্যমিক শিক্ষা পুনর্গঠনের জন্য কমিটি গঠনের প্রস্তাব দেয়

(a) রায়চাদ কমিটি (b) যশপাল কমিটি (c) তারাচাঁদ কমিটি (d) রেডিড কমিটি

Ans. (c) তারাচাঁদ কমিটি

9. মুদালিয়র কমিশনের মতে হায়ার সেকেন্ডারি বা উচ্চ মাধ্যমিক স্তর হবে

(a) ৬ বছরের জন্য (b) ৩ বছরের জন্য (c) ৪ বছরের জন্য (d) ৫ বছরের জন্য

Ans. (c) ৪ বছরের জন্য

10. মুদালিয়র কমিশনের মতে, জুনিয়র বেসিক বা নিম্নবুনিয়াদি স্তরের পর শিক্ষার্থীদের কোন ভাষা শেখানোর ব্যবস্থা করতে হবে?

(a) বাংলা ও ইংরেজি (b) বাংলা ও উর্দু (c) ইংরেজি ও হিন্দি (d) উর্দু ও হিন্দি

Ans. (c) ইংরেজি ও হিন্দি

11. মুদালিয়র কমিশন উচ্চ মাধ্যমিক স্তরে বিভিন্ন প্রবাহের (Stream) বিষয়গুলিকে ক’টি গ্রুপে ভাগ করেছে?

(a) ৫টি (b) ৬টি (c) ৭টি (d) ৯টি

Ans. (c) ৭টি

12. মুদালিয়র কমিশনের অপর নাম হলো –

(a) প্রাথমিক শিক্ষা কমিশন (c) মহাবিদ্যালয় শিক্ষা কমিশন (d) বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষা কমিশন

Ans. (b) মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন

অতিসংক্ষিপ্ত প্রশ্নোত্তর [মান ১] মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (১৯৫২-৫৩)

1. মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশনের শিরোনাম কী ছিল?

Ans. মাদ্রাজ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. লক্ষ্মণস্বামী মুদালিয়রের সভাপতিত্বে মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (১৯৫২) গঠিত হয়। সেজন্য এর শিরোনাম ছিল মুদালিয়র কমিশন।

2. CRC -এর পুরো কথাটি কী?

Ans. CRC – এর সম্পূর্ণ কথাটি হলো – Cumulative Record Card.

3. Core পাঠ্যক্রম কী ?

Ans. মুদালিয়র কমিশন মাধ্যমিক শিক্ষার পাঠক্রমকে ২টি অংশে বিভক্ত করে। এর একটি হলো মূল বা Core পাঠক্রম, অন্যটি ঐচ্ছিক অংশ। Core অংশে থাকবে (i) মাতৃভাষা অথবা হিন্দি / ইংরেজি (ii) সমাজবিজ্ঞান ও গণিত (iii) সাধারণ জ্ঞান (iv) হস্তশিল্প।

4. মুদালিয়র কমিশন প্রস্তাবিত মাধ্যমিক শিক্ষার দুটি গুরুত্বপূর্ণ উদ্দেশ্য উল্লেখ করো।

Ans. মাধ্যমিক শিক্ষার দুটি গুরুত্বপূর্ণ উদ্দেশ্য— (i) উপযুক্ত নাগরিক তৈরি করা (ii) জাতীয় সম্পদ বাড়িয়ে তোলা।

5. মুদালিয়র কমিশন প্রস্তাবিত উচ্চ মাধ্যমিক পাঠক্রমে ভাষা ব্যতীত অন্যান্য কেন্দ্রীয় বিষয়গুলি (Core Subject) কী?

Ans. সমাজবিজ্ঞান, গণিত ও সাধারণ বিজ্ঞান এবং হাতের কাজ বা হস্তশিল্প।

6. SABE-এর পুরো কথাটি কী?

Ans. স্টেট অ্যাডভাইসারি বোর্ড অব এডুকেশন।

7. প্রথম কোন কমিশন Cumulative Record card -এর কথা উল্লেখ করে?

Ans. মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন।

8. মুদালিয়র শিক্ষা কমিশন উচ্চতর মাধ্যমিক শিক্ষার জন্য কত সময় বরাদ্দ করেছে?

Ans. মুদালিয়র শিক্ষা কমিশন উচ্চতর মাধ্যমিক শিক্ষার জন্য ৪ বছরের সুপারিশ করেছে।

9. মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশনের পাঠক্রমের মূল বিভাগ কয়টি ভাগে বিভক্ত ও কী কী?

Ans. মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশনের পাঠক্রমের মূল বিভাগ ৭টি ভাগে বিভক্ত। সেগুলি হলো—মানবীয় বিদ্যা, বিজ্ঞান, কারিগরি বিদ্যা, বাণিজ্য, কৃষি, চারুকলা, গার্হস্থ্য বিজ্ঞান।

10. মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশনের একটি উল্লেখযোগ্য লক্ষ্য উল্লেখ করো।

Ans. শিক্ষার্থীদের মধ্যে এমন শিক্ষার প্রসার ঘটাতে হবে যাতে তারা গণতান্ত্রিক দেশের নাগরিক হিসাবে জাতি, ধর্ম নির্বিশেষে তাদের দায়িত্বগুলি সঠিকভাবে পালন করতে পারে।

রচনাধর্মী প্রশ্নোত্তর [মান ৮] মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (১৯৫২-৫৩)

1. মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন পরীক্ষা ও মূল্যায়ন ব্যবস্থা সম্পর্কে কী সুপারিশ করেছিল তা আলোচনা করো।

2. মুদালিয়র কমিশনের মাধ্যমিক শিক্ষার পাঠক্রম সম্পর্কে আলোচনা করো।

3. মুদালিয়র কমিশন বর্ণিত সাধারণ শিক্ষার কাঠামো সংক্রান্ত সুপারিশগুলি আলোচনা করো।

4. মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের বিভিন্ন রূপ ও সর্বার্থসাধক উচ্চবিদ্যালয় প্রসঙ্গে মুদালিয়র কমিশনের অভিমত সংক্ষেপে লেখো।
আরোও দেখুন:-

Higher Secondary Education Suggestion | উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বিজ্ঞান সাজেশন

উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বিজ্ঞান – Click here
         ” উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বিজ্ঞান – মাধ্যমিক শিক্ষা কমিশন (১৯৫২-৫৩) (ষষ্ঠ অধ্যায়) “ একটি অতি গুরুত্বপূর্ণ টপিক উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা (Higher Secondary / HS Exam / WBCHSE – West Bengal Council of Higher Secondary Education / HS Class 12th / Class XII / Uccha Madhyamik Pariksha) এবং বিভিন্ন চাকরির (WBCS, WBSSC, RAIL, PSC, DEFENCE) পরীক্ষায় এখান থেকে প্রশ্ন অবশ্যম্ভাবী । সে কথা মাথায় রেখে BhugolShiksha.com এর পক্ষ থেকে উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বিজ্ঞান পরীক্ষা (দ্বাদশ শ্রেণী) প্রস্তুতিমূলক প্রশ্নোত্তর এবং সাজেশন (Higher Secondary Education Suggestion / WBCHSE – West Bengal Council of Higher Secondary Education / HS Class 12th Education / Class XII Education / Uccha Madhyamik Pariksha / HS Exam Guide / MCQ , Short , Descriptive  Type Question and Answer / FREE PDF Download) উপস্থাপনের প্রচেষ্টা করা হলাে। ছাত্রছাত্রী, পরীক্ষার্থীদের উপকারেলাগলে, আমাদের প্রয়াস  উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বিজ্ঞান পরীক্ষা (দ্বাদশ শ্রেণী) প্রস্তুতিমূলক প্রশ্নোত্তর এবং সাজেশন (Higher Secondary Education Suggestion / WBCHSE – West Bengal Council of Higher Secondary Education / HS Class 12th Education / Class XII Education / Uccha Madhyamik Pariksha / HS Exam Guide / MCQ , Short , Descriptive  Type Question and Answer / FREE PDF Download) সফল হবে।
    স্কুল, কলেজ ও বিভিন্ন ছাত্রছাত্রীদের পড়াশোনার ডিজিটাল মাধ্যম BhugolShiksha.com । এর প্রধান উদ্দেশ্য পঞ্চম শ্রেণী থেকে দ্বাদশ শ্রেণীর সমস্ত বিষয় এবং গ্রাজুয়েশনের শুধুমাত্র ভূগোল বিষয়কে  সহজ বাংলা ভাষায় আলোচনার মাধ্যমে ছাত্রছাত্রীদের কাছে সহজ করে তোলা। এছাড়াও সাধারণ-জ্ঞান, পরীক্ষা প্রস্তুতি, ভ্রমণ গাইড, আশ্চর্যজনক তথ্য, সফল ব্যাক্তিদের জীবনী, বিখ্যাত ব্যাক্তিদের উক্তি,  প্রাণী জ্ঞান, কম্পিউটার, বিজ্ঞান ও বিবিধ প্রবন্ধের মাধ্যমে ছাত্রছাত্রীদের মননকে বিকশিত করে তোলা।
        আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ সময় করে আমাদের পােস্টটি পড়ার জন্য। এই ভাবেই ভূগোল শিক্ষা – BhugolShiksha.com ওয়েবসাইটের পাশে থাকুন। ভূগোল বিষয়ে যেকোনো প্ৰশ্ন উত্তর জানতে এই ওয়েবসাইট টি ফলাে করুন এবং নিজেকে  তথ্য সমৃদ্ধ করে তুলুন , ধন্যবাদ।
নিচের বাটনে ক্লিক করে শেয়ার করেন বন্ধুদের মাঝে