উচ্চ মাধ্যমিক রাষ্ট্রবিজ্ঞান – স্থানীয় স্বায়ত্তশাসন (দশম অধ্যায়) প্রশ্নোত্তর সাজেশন | Higher Secondary Political Science Suggestion

6459
উচ্চ মাধ্যমিক রাষ্ট্রবিজ্ঞান - স্থানীয় স্বায়ত্তশাসন (দশম অধ্যায়) প্রশ্নোত্তর সাজেশন | Higher Secondary Political Science Suggestion

Higher Secondary Political Science Suggestion | WBCHSE HS Exam Qustion and Answer | উচ্চ মাধ্যমিক রাষ্ট্রবিজ্ঞান (দ্বাদশ শ্রেণীর) প্রশ্নোত্তর সাজেশন

স্থানীয় স্বায়ত্তশাসন (দশম অধ্যায়)

MCQ প্রশ্নোত্তর [ মান – ১]

সঠিক উত্তরটি নির্বাচন করো।

1. পঞ্চায়েত ব্যবস্থার–স্তর হলো পঞ্চায়েত সমিতি।

(a) প্রথম (b) দ্বিতীয় (c) তৃতীয় (d) চতুর্থ

Ans. (b) দ্বিতীয়

2. পৌরসভার নির্বাচিত প্রতিনিধিদের বলা হয়

(a) মেয়র (b) কাউন্সিলর (c) সভাপতি (d) চেয়ারম্যান

Ans. (b) কাউন্সিলর

3. গ্রাম পায়েতের প্রথম সভা আহ্বান করেন—

(a) পঞ্চায়েত প্রধান (b) বিডিও (c) সভাপতি (d) সভাধিপতি

Ans. (b) বিডিও

4. পৌরসভার স্থায়ী কমিটির সংখ্যা –

(a) ৩ (b) ৪ (c) ৫ (d) ৬ ন্যায়

Ans. (a) ৩

5. পঞ্চায়েতের বিচারকদের কার্যকালের মেয়াদ কত?

(a) ৫ বছর (b) ৬ বছর (c) ৭ বছর (d) ৮ বছর

Ans. (a) ৫ বছর

6. পশ্চিমবঙ্গে ত্রিস্তর পঞ্চায়েত ব্যবস্থা চালু হয় –

(a) ১৯৭৭ সালে (b) ১৯৭৮ সালে (c) ১৯৮০ সালে (d) ১৯৮৫ সালে

Ans. (b) ১৯৭৮ সালে

7. পঞ্চায়েত ব্যবস্থার সর্বোচ্চ স্তর হলো।

(a) পঞ্চায়েত সমিতি (b) গ্রাম পঞ্চায়েত (c) জেলা পরিষদ (d) গ্রাম সংসদ

Ans. (c) জেলা পরিষদ

8. সংবিধানের ৭৪ তম সংশোধন আইন কোন বছর থেকে কার্যকর হয় ?

(a) ১৯৯৩ সাল (b) ১৯৯৪ সাল (c) ১৯৯৫ সাল (d) ১৯৯৬ সাল

Ans. (a) ১৯৯৩ সাল

9. পশ্চিমবঙ্গের জেলা পরিষদগুলিতে প্রতিটি ব্লক থেকে কতজন সদস্য জনগণের দ্বারা নির্বাচিত হন?

(a) ২ জন (b) ৩ জন (c) ৪ জন (d) ৫ জন

Ans. (a) ২ জন

10. পশ্চিমবঙ্গের পঞ্চায়েত আইন প্রণীত হয় –

(a) ১৯৪৭ সালে (b) ১৯৭৩ সালে (c) ১৯৭৭ সালে (d) এর কোনোটিই নয়

Ans. (b) ১৯৭৩ সালে

11. বর্তমানে কলকাতা পৌরনিগমে কাউন্সিলরের সংখ্যা হলো –

(a) ১৪১ (b) ১৪২ (c) ১৪৫ (d) ১৫০

Ans. (a) ১৪১

12. পশ্চিমবঙ্গের পায়ে ব্যবস্থার স্তর সংখ্যা –

(a) ২ (b) ৩ (c) ৪ (d) কোনো স্তর নেই

Ans. (b) ৩

13. গ্রাম পঞ্চায়েতের কার্যাবলি –

(a) ৩ ভাগে বিভক্ত (b) ৪ ভাগে বিভক্ত। (c) ৫ ভাগে বিভক্ত (d) ৬ ভাগে বিভক্ত

Ans. (a) ৩ ভাগে বিভক্ত

14. কলকাতাতে কত সালে কপোরেশন গড়ে ওঠে?

(a) ১৯০২ সালে (b) ১৯১০ সালে (c) ১৯২০ সালে (d) ১৯২৭ সালে

Ans. (d) ১৯২৭ সালে

15. বর্তমানে পশ্চিমবঙ্গে মোট পৌরসভার সংখ্যা কত?

(a) ১১৮ (b) ১১৯ (c) ১২০ (d) ১২১

Ans. (d) ১২১

16. গ্রাম পঞ্চায়েতের সর্বাধিক সদস্যসংখ্যা –

(a) ১০ (b) ১৫ (c) ২০ (d) ৩০

Ans. (d) ৩০

17. ভারতীয় সংবিধানের কত নং ধারায় গ্রাম পঞ্চায়েত গঠনের কথা বলা হয়েছে?

(a) ৩৬ নং ধারা। (b) ৩৮ নং ধারা (c) ৩৯ নং ধারা (d) ৪০ নং ধারা

Ans. (d) ৪০ নং ধারা

18. ভারতে প্রথম পঞবার্ষিকী পরিকল্পনা কত সালে শুরু হয়?

(a) ১৯৪৮ সাল(b) ১৯৪৯ সাল (c) ১৯৫০ সাল (d) ১৯৫১ সাল

Ans. (d) ১৯৫১ সাল

19. সংবিধানের ৭৪তম সংশোধনী কবে করা হয়?

(a) ১৯৯১ সালে (b) ১৯৯২ সালে। (c) ১৯৯৩ সালে (d) ১৯৯৪ সালে

Ans. (a) ১৯৯১ সালে

20. জাতীয় উন্নয়ন পরিষদ কবে গঠিত হয়?

(a) ১৯৫৫ সালে (b)১৯৫৬ সালে । (c) ১৯৫৭ সালে (d) ১৯৫৮ সালে

Ans. (d) ১৯৫৮ সালে

21. গ্রাম সংসদের সভায় কোরামের জন্য কতজন সদস্যের উপস্থিতি প্রয়োজন?

(a) এক-তৃতীয়াংশ (b) এক-চতুর্থাংশ (c) এক-পঞমাংশ (d) একের কুড়ি অংশ

Ans. (d) একের কুড়ি অংশ

22. জেলা পরিষদের মুখ্য পদাধিকারী হলেন—

(a) প্রধান (b) সভাপতি (c) সভাধিপতি (d) কেউই নন

Ans. (c) সভাধিপতি

23. গ্রাম পঞ্চায়েতের সদস্যদের কার্যকালের মেয়াদ –

(a) ৫ বছর (b) ৬ বছর (c) ৭ বছর (d) ৯ বছর

Ans. (a) ৫ বছর

24. পঞ্চায়েত সমিতির প্রশাসনিক প্রধান হলেন –

(a) চেয়ারম্যান (b) বিডিও (c) এসডিও (d) সভাধিপতি

Ans. (b) বিডিও

25. কলকাতা কর্পোরেশনের ‘স-পরিষদ মেয়র’-এর। সদস্যসংখ্যা –

(a) ১০ (b) ১২ (c) ১৪ (d) ১৫

Ans. (b) ১২

26. পশ্চিমবঙ্গে গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধানকে বলা হয় –

(a) গ্রামপ্রধান (b) সরপ (c) সভাপতি (d) চেয়ারম্যান।

Ans. (a) গ্রামপ্রধান

27. গ্রাম পঞায়েতের কার্যকাল হলো –

(a) ৩ বছর (b) ৪ বছর (c) ৫ বছর (d) ৬ বছর

Ans. (c) ৫ বছর

28. পঞ্চায়েত সমিতির প্রধান হলেন –

(a) সভাপতি (b) সভাধিপতি (c) প্রধান (d) এসডিও

Ans. (b) সভাধিপতি

29. ৭৪তম সংবিধান সংশোধনী আইন পাশ হয় –

(a) ১৯৯২ সালে (b) ১৯৯৩ সালে (c) ১৯৯৫ সালে (d) ১৯৯৮ সালে

Ans. (a) ১৯৯২ সালে

30. পঞ্চায়েত সমিতির প্রশাসনিক আধিকারিক হলেন –

(a) এসডিও (b) বিডিও (c) সভাপতি (d) ডিএম গ্রাম

Ans. (b) বিডিও

31. পঞ্চায়েত গঠিত হয় –

(a) ৫-৩০ জন সদস্য নিয়ে (b) ৫-৩৫ জন সদস্য নিয়ে (c) ৩-৩০ জন সদস্য নিয়ে (d) ৫-৪০ জন সদস্য নিয়ে

Ans. (a) ৫-৩০ জন সদস্য নিয়ে
অতিসংক্ষিপ্ত প্রশ্নোত্তর [ মান – ১ ]

1.ক্ষুদ্র জেলাশাসক’ কাকে বলা হয়?

Ans. ক্ষুদ্র জেলাশাসক বলা হয় মহকুমা শাসককে (SDO)।

2. পশ্চিমবঙ্গের পৌরসভাগুলির আয়ের দুটি উৎস উল্লেখ করো।

Ans. পশ্চিমবঙ্গের পৌরসভাগুলির আয়ের দুটি উৎস হলো— (a) শহরবাসীর জমি ও বাড়ির ওপর ধার্য কর এবং (b) রাজ্য সরকারের কাছ থেকে প্রাপ্ত অর্থ সাহাৰ্য্য।

3. কর্পোরেশনের দু’টি অবশ্যকরণীয় কাজ কী?

Ans. কর্পোরেশনের দু’টি অবশ্যকরণীয় কাজ হলো— জল সরবরাহের ব্যবস্থা করা, ৩ আবর্জনা নিষ্কাশনের ব্যবস্থা করা। 4. নতুন পৌর আইনে পৌরসভার সদস্যদের কী বলা হয়?

Ans. পৌরসভার সদস্যদের নতুন আইনে কাউন্সিলর বলা হয়।

5. ব্লক প্রশাসনের দুটি কাজ লেখো।

Ans. ব্লক প্রশাসনের দুটি কাজ হলো — ব্লক স্তরে উন্নয়ন প্রকল্পগুলির দেখভাল করা এবং প্রশাসনের সঙ্গে জনগণের সরাসরি সংযোগ রক্ষার মাধ্যম হিসেবে কাজ করা।

6. গ্রাম সংসদের কাজ কী?

Ans. গ্রাম পঞ্চায়েতের নির্বাচনি এলাকার সব ভোটারকে নিয়ে গ্রাম সংসদ গাঠত হয়। এর কাজ হলো— নিজ নিজ এলাকার উন্নয়ন এবং ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠাকল্পে প্রয়োজনীয়। নির্দেশ ও উপদেশ দেওয়া; গ্রাম পঞ্চায়েতের বাজেট, বিগত ও পরবর্তী বছরের কাজকর্মের রিপোর্ট পর্যালোচনা করে প্রস্তাব দেওয়া ইত্যাদি।

7. গ্রাম পঞ্চায়েতের দুটি প্রধান কাজ উল্লেখ করো।

Ans. গ্রাম পায়েতের দু’টি কাজ হলো— পানীয় জল সরবরাহ করা, জলাধার পরিষ্কার ও জীবাণুমুক্ত রাখা। গ্রামের কুঁয়ো, পুকুর ও দিঘি খনন।

8. ন্যায় পঞ্চায়েত কী ?

Ans. ন্যায় পঞ্চায়েত বলতে বোঝায় গ্রাম স্তরে ছোটোখাটো দেওয়ানি ও ফৌজদারি মামলাগুলি নিষ্পত্তির জন্য গঠিত একটি স্বায়ত্তশাসিত সংস্থা। গ্রাম পঞ্চায়েত কর্তৃক নির্বাচিত পাঁচজন সদস্যকে নিয়ে ন্যায় পঞ্চায়েত গঠিত হয়।

9. জেলা পরিষদের স্থায়ী কমিটির গঠন পদ্ধতি ব্যাখ্যা করো।

Ans. জেলা পরিষদের স্থায়ী কমিটিগুলি জেলা পরিষদের সভাধিপতি, জেলা পরিষদ থেকে নির্বাচিত তিন থেকে পাঁচ জন সদস্য এবং সর্বাধিক তিন জন রাজ্য সরকারি কর্মচারী দ্বারা গঠিত।

10. নতুন পৌর আইনে কী হারে তপশিলি জাতি ও উপজাতিভুক্ত মহিলাদের জন্য। আসন সংরক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়েছে?

Ans. নতুন পৌর আইন অনুসারে পৌরসভার মোট জনসংখ্যার আনুপাতিক হারে মোট আসনের এক-তৃতীয়াংশ আসন তপশিলি জাতি ও উপজাতির মহিলাদের জন্য সংরক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

11. নতুন পৌর আইনে পৌরসভার দৈনন্দিন কাজকর্ম পরিচালনার জন্য যে তিনটি কর্তৃপক্ষের সৃষ্টি করা হয়েছে সেই তিনটি কর্তৃপক্ষ কী?

Ans. নতুন পৌর আইনে দৈনন্দিন কার্য সম্পাদনের জন্য সৃষ্ট তিনটি কর্তৃপক্ষ লো— পৌরসভা, সভাপতি, স-পরিষদ সভাপতি।

12. কলকাতা কর্পোরেশনের সভা পরিচালনার দায়িত্ব কার? তিনি কত বছরের জন্য নির্বাচিত হন?

Ans. কলকাতা কর্পোরেশনের সভা পরিচালনার দায়িত্ব সভাপতি বা চেয়ারম্যানের। তিনি পাঁচ বছরের জন্য নির্বাচিত হন।

13. পঞ্চায়েত ব্যবস্থা ভারতীয় সংবিধানের কোন অংশে অন্তর্ভূক্ত হয়েছে?

Ans. সংবিধানের নবম অংশে।

14. পৌরসভার দুটি আবশ্যিক কাজ উল্লেখ করো। অথবা, মিউনিসিপ্যালিটির দুটি অবশ্যকরণীয় কাজ উল্লেখ করো।

Ans. পৌরসভার দুটি বাধ্যতামূলক কাজ হলো – জল সরবরাহ ও জল নিষ্কাশনের ব্যবস্থা করা এবং রাস্তাঘাট নির্মাণ।

15. পশ্চিমবঙ্গের পৌর অঞ্চলে তিনটি কর্তৃপক্ষ কী ?

Ans. পৌর অঞলের তিনটি কর্তৃপক্ষ হলো – পৌরসভা, স-পরিষদ চেয়ারম্যান এবং চেয়ারম্যান।

16. পৌরসভায় কয় প্রকার কমিটি আছে এবং সেগুলি কী?

Ans. পৌর আইন অনুসারে বর্তমানে পৌরসভায় ছয় ধরনের কমিটি আছে। যথা— ওয়ার্ড কমিটি, বরো কমিটি, যৌথ কমিটি, স্থায়ী কমিটি, ঐতিহ্য সংরক্ষণ কমিটি এবং বিশেষ কমিটি।

17. পৌরসভার চেয়ারম্যান কীভাবে নিযুক্ত হন?

Ans. নির্বাচনের পর কাউন্সিলর পরিষদের প্রথম সভায় চেয়ারম্যান নির্বাচন করা হয়। সাধারণ সংখ্যাগরিষ্ঠতার ভিত্তিতে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন অর্থাৎ চেয়ারম্যান নির্বাচনে যে সদস্য সর্বাধিক ভোট পান সংশ্লিষ্ট পৌরসভার চেয়ারম্যান হিসেবে তাকেই নিয়োগ করা হয়।

18. ওয়ার্ড কমিটি কীভাবে গঠিত হয়?

Ans. পৌরসভার প্রত্যেক ওয়ার্ডে একটি করে ওয়ার্ড কমিটি গঠন করা হয়। ওয়ার্ডের কাউন্সিলর এবং অন্য কয়েকজন সদস্য নিয়ে এই কমিটি গঠিত হয়। ওয়ার্ড কমিটিতে কাউন্সিলর ব্যতীত সর্বাধিক ১৪ জন সদস্য থাকতে পারেন।

19. স্বায়ত্তশাসনের মূল লক্ষ্য কী?

Ans. ক্ষমতার বিকেন্দ্রীকরণের মাধ্যমে জনগণের ব্যাপক কল্যাণসাধন করা এবং গণতন্ত্রকে বিকশিত করে সর্বস্তরের মানুষের বেশিমাত্রায় যোগদান সুনিশ্চিত করাহ স্বায়ত্তশাসনের মূল লক্ষ্য।

20. কলকাতা কর্পোরেশনের তিনটি কর্তৃপক্ষ কী কী?

Ans. কলকাতা কর্পোরেশনের তিনটি কর্তৃপক্ষ হলো— কর্পোরেশন, স-পরিষদ মেয়র এবং মেয়র।

21. রাজ্য নির্বাচন কমিশনার কার দ্বারা নিযুক্ত হবেন?

Ans. রাজ্যপাল।

22. গ্রাম পঞ্চায়েতের নির্ণায়ক ভোট কী?

Ans. গ্রাম পঞ্চায়েতের কোনো সভায় কোনো প্রস্তাবের পক্ষে ও বিপক্ষে সমসংখ্যক ভোট পড়লে সভাপতি যে ভোট দিয়ে প্রস্তাবটির নিষ্পত্তি করেন, সেই ভোটকেই নির্ণায়ক ভোট বলে।

23. পঞ্চায়েত সমিতির স্থায়ী সমিতি’ কাদের নিয়ে গঠিত হয়?

Ans. পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি, পঞ্চায়েত সমিতির ৩-৫ জন সদস্য এবং রাজ্য সরকারের মনোনীত ৩ জন সরকারি কর্মচারী নিয়ে স্থায়ী সমিতি গঠিত হয়।

24. গ্রাম পঞ্চায়েত কীভাবে গঠিত হয়?

Ans. ১৯৭৩ সালের নতুন পঞ্চায়েত আইন অনুযায়ী কোনো একটি মৌজা বা সেটির কোনো অংশ অথবা পরস্পরের লাগোয়া কয়েকটি মৌজার সমষ্টি বা সেগুলির অংশ নিয়ে একটি গ্রাম পঞ্চায়েত গড়ে ওঠে। এর সদস্যসংখ্যা রাজ্য সরকারের ভারপ্রাপ্ত আধিকারিক ঠিক করেন।

25. গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান ও উপপ্রধান কীভাবে নির্বাচিত হন?

Ans. নির্বাচনের পর নবগঠিত গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রথম সভায় সদস্যরা নিজেদের মধ্যে থেকে একজন প্রধান এবং একজন উপপ্রধান নির্বাচন করেন।

26. গ্রামসভা কাকে বলে?

Ans. গ্রাম পঞ্চায়েতের নির্বাচনি কেন্দ্রের সব নির্বাচককে নিয়ে যে সভা গঠিত হয় তাকে গ্রামসভা বলে।

27. গ্রাম সংসদ কী?

Ans. ১৯৯৪ সালের পঞ্চায়েত (সংশোধনী) আইন অনুসারে, পশ্চিমবঙ্গে প্রত্যেক গ্রাম পঞ্চায়েতের নির্বাচন কেন্দ্রের মধ্যে সব ভোটারকে নিয়ে গঠিত একটি সংস্থা হলো গ্রাম সংসদ।

28. গ্রাম সংসদের একটি কাজ লেখো।

Ans. গ্রাম সংসদের একটি কাজ এলাকার বিভিন্ন প্রকল্পের জন্য প্রয়োজনীয় নির্দেশ ও উপদেশ প্রদান।

29. পঞ্চায়েত ব্যবস্থার একটি গুরুত্ব লেখো।

Ans. পঞ্চায়েত ব্যবস্থায় জনগণের সরাসরি অংশগ্রহণ এবং নেতৃত্বদান সমাজের নিম্নবর্গের মানুষের মধ্যে একটি উল্লম্ব সামাজিক সচলতা সৃষ্টি করেছে।

30. গ্রাম সংসদের সভা কখন আহ্বান করা যায়?

Ans. গ্রাম সংসদের ষান্মাসিক সভা নভেম্বর মাসে ও বার্ষিক সভা মে মাসে আহূত হয়।

31. গ্রামসভা কাদের নিয়ে গঠিত হয়?

Ans. প্রতিটি গ্রাম পঞ্চায়েতের সকল ভোটদাতাকে নিয়ে গ্রামসভা গঠিত হয়।

32. পঞ্চায়েত সমিতির কার্যনির্বাহী আধিকারিক কে?

Ans. সংশ্লিষ্ট ব্লক উন্নয়ন আধিকারিক হলেন পঞ্চায়েত সমিতির কার্যনির্বাহী আধিকারিক।

33. ব্লক সংসদ কাদের নিয়ে গঠিত হয়?

Ans. পঞ্চায়েত সমিতির সব সদস্য এবং সংশ্লিষ্ট পঞ্চায়েত সমিতির অধীনস্থ সব গ্রাম পঞ্চায়েতের সদস্যদের নিয়ে ব্লক সংসদ গঠিত হয়।

34. জেলা পরিষদের প্রধান কে?

Ans. জেলা পরিষদের প্রধান হলেন সভাধিপতি।

35. গ্রাম পঞ্চায়েতের কার্যকালের মেয়াদ কতদিন?

Ans. নতুন সংশোধিত আইন অনুসারে পঞ্চায়েতের কার্যকাল ৫ বছর হয়েছে।

36. গ্রাম পয়েতের সদস্যদের কখন ও কেন অপসারণ করা যায়?

Ans. মহকুমা শাসক পঞ্চায়েতের যে সব সদস্য ফৌজদারি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত, পায়েতের তিনটি বৈঠকে অনুপস্থিত এবং যারা কর ফাঁকি দেয় তাদের পঞ্চায়েতের সদস্যপদ থেকে অপসারিত করতে পারে।

37. নবগঠিত গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রথম সভা কে আহ্বান করেন?

Ans. ব্লক উন্নয়ন আধিকারিক (B.D.O) নবগঠিত গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রথম সভা আহ্বান করতে পারেন।

38. পঞ্চায়েত সমিতির দুটি কাজ উল্লেখ করো।

Ans. সমিতির দু’টি কাজ হলো – গ্রামের জনহিতকর কার্যাবলি পরিচালনা করা। গ্রামের শিল্প, কৃষিকাজ, জনস্বাস্থ্য, জল সরবরাহ, শিক্ষার প্রসার প্রভৃতি বিষয় পরিচালনা করা।

39. পঞ্চায়েত সমিতির স্থায়ী কমিটিগুলি কাদের নিয়ে গঠিত হয়?

Ans. পঞ্চায়েতের স্থায়ী কমিটিগুলি সভাপতি ও সহ-সভাপতি দ্বারা গঠিত হয়।

40. জেলা পরিষদের দুটি কার্যাবলি উল্লেখ করো।

Ans. জেলা পরিষদের দু’টি কাজ হলো – রাজ্য সরকার প্রদত্ত কাজগুলি সম্পাদন করা। কৃষি, শিল্প, শিক্ষা, পশুপালন, সমবায় আন্দোলনের বিস্তার এবং জল সরবরাহ সুনিশ্চিত করা।




41. জেলা পরিষদের সভাধিপতির পদমর্যাদা কী ?

Ans. জেলা পরিষদের সভাধিপতির পদমর্যাদা একজন রাষ্ট্রমন্ত্রীর মর্যাদার সমান।

42. পৌরসভার দুটি স্বেচ্ছাধীন কাজের উল্লেখ করো।

Ans. পৌরসভার দুটি স্বেচ্ছাধীন কাজ হলো – পানীয় জল সরবরাহ পাঠাগার নির্মাণ করা।

43. জেলা পরিষদের দুটি প্রধান আয়ের উৎস উল্লেখ করো।

Ans. পশ্চিমবঙ্গে জেলা পরিষদের আয়ের দু’টি উৎস হলো – যানবাহন, খেয়াঘাট, সেচ প্রভৃতি থেকে সংগৃহীত কর এবং সরকারি ঋণ ও আর্থিক সাহায্য।

44. জেলা পরিষদের দুটি স্থায়ী কমিটির নাম লেখো।

Ans. জেলা পরিষদের দু’টি স্থায়ী কমিটি হলো – উন্নয়ন ও পরিকল্পনা-সংক্রান্ত। স্থায়ী কমিটি, পরিবেশ-সংক্রান্ত স্থায়ী কমিটি।

45. গ্রাম পঞ্চায়েতের আয়ের যেকোনো দুটি উৎস উল্লেখ করো।

Ans. গ্রাম পঞ্চায়েতের আয়ের দুটি উৎস হলো— কেন্দ্রীয় ও রাজ্য সরকারের সাহায্য, অনুদান ও ঋণ এবং ৩ জমি ও ঘরবাড়ির থেকে প্রাপ্ত অর্থ।

46. পঞ্চায়েত সমিতির আয়ের দুটি উৎস লেখো।

Ans. পঞ্চায়েত সমিতির আয়ের দুটি উৎস হলো— রাজ্য সরকার কর্তৃক প্রদত্ত ভূমিরাজস্বের অংশ, কেন্দ্রীয় ও রাজ্য সরকারের দেওয়া ঋণ ইত্যাদি।

47. কলকাতা পৌরনিগমের ‘স-পরিষদ মেয়র’ কীভাবে গঠিত হয়?

Ans. কলকাতা পৌরনিগমের মেয়র, ডেপুটি মেয়র এবং অনধিক ১০ জন মেয়র পারিষদ। সহ মোট ১২ জনকে নিয়ে কলকাতা পৌরনিগমের ‘স-পরিষদ মেয়র’ গঠিত হয়।
আরোও দেখুন:-

Higher Secondary Political Science Suggestion | উচ্চ মাধ্যমিক রাষ্ট্রবিজ্ঞান সাজেশন

উচ্চ মাধ্যমিক রাষ্ট্রবিজ্ঞান – আন্তর্জাতিক সম্পর্ক (প্রথম অধ্যায়) Click here
উচ্চ মাধ্যমিক রাষ্ট্রবিজ্ঞান – দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ পরবর্তী পর্বের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক (দ্বিতীয় অধ্যায়) Click here
উচ্চ মাধ্যমিক রাষ্ট্রবিজ্ঞান – বিদেশনীতি (তৃতীয় অধ্যায়) Click here
         ” উচ্চ মাধ্যমিক রাষ্ট্রবিজ্ঞান – স্থানীয় স্বায়ত্তশাসন (দশম অধ্যায়) “ একটি অতি গুরুত্বপূর্ণ টপিক উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা (Higher Secondary / HS Exam / WBCHSE – West Bengal Council of Higher Secondary Education / Class XII 12 / Uccha Madhyamik Pariksha) এবং বিভিন্ন চাকরির (WBCS, WBSSC, RAIL, PSC, DEFENCE) পরীক্ষায় এখান থেকে প্রশ্ন অবশ্যম্ভাবী । সে কথা মাথায় রেখে BhugolShiksha.com এর পক্ষ থেকে উচ্চমাধ্যমিক রাষ্ট্রবিজ্ঞান পরীক্ষা (দ্বাদশ শ্রেণী) প্রস্তুতিমূলক প্রশ্নোত্তর এবং সাজেশন (Higher Secondary Political Science Suggestion / WBCHSE – West Bengal Council of Higher Secondary Education / HS Class XII 12 / Uccha Madhyamik Pariksha / HS Exam Guide / MCQ , Short , Descriptive  Type Question and Answer / FREE PDF Download) উপস্থাপনের প্রচেষ্টা করা হলাে। ছাত্রছাত্রী, পরীক্ষার্থীদের উপকারেলাগলে, আমাদের প্রয়াস  উচ্চ মাধ্যমিক রাষ্ট্রবিজ্ঞান পরীক্ষা (দ্বাদশ শ্রেণী) প্রস্তুতিমূলক প্রশ্নোত্তর এবং সাজেশন (Higher Secondary Political Science Suggestion / WBCHSE – West Bengal Council of Higher Secondary Education / HS Class XII 12 / Uccha Madhyamik Pariksha / HS Exam Guide / MCQ , Short , Descriptive  Type Question and Answer / FREE PDF Download) সফল হবে।
    স্কুল, কলেজ ও বিভিন্ন ছাত্রছাত্রীদের পড়াশোনার ডিজিটাল মাধ্যম BhugolShiksha.com । এর প্রধান উদ্দেশ্য পঞ্চম শ্রেণী থেকে দ্বাদশ শ্রেণীর সমস্ত বিষয় এবং গ্রাজুয়েশনের শুধুমাত্র ভূগোল বিষয়কে  সহজ বাংলা ভাষায় আলোচনার মাধ্যমে ছাত্রছাত্রীদের কাছে সহজ করে তোলা। এছাড়াও সাধারণ-জ্ঞান, পরীক্ষা প্রস্তুতি, ভ্রমণ গাইড, আশ্চর্যজনক তথ্য, সফল ব্যাক্তিদের জীবনী, বিখ্যাত ব্যাক্তিদের উক্তি,  প্রাণী জ্ঞান, কম্পিউটার, বিজ্ঞান ও বিবিধ প্রবন্ধের মাধ্যমে ছাত্রছাত্রীদের মননকে বিকশিত করে তোলা।
        আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ সময় করে আমাদের পােস্টটি পড়ার জন্য। এই ভাবেই ভূগোল শিক্ষা – BhugolShiksha.com ওয়েবসাইটের পাশে থাকুন। ভূগোল বিষয়ে যেকোনো প্ৰশ্ন উত্তর জানতে এই ওয়েবসাইট টি ফলাে করুন এবং নিজেকে  তথ্য সমৃদ্ধ করে তুলুন , ধন্যবাদ।
নিচের বাটনে ক্লিক করে শেয়ার করেন বন্ধুদের মাঝে