Madhyamik Physical Science
Madhyamik Physical Science

Madhyamik Physical Science Suggestion

মাধ্যমিক ভৌতবিজ্ঞান সাজেশন

Madhyamik Physical Science Suggestion (মাধ্যমিক ভৌতবিজ্ঞান সাজেশন – আলো (অধ্যায়-৫) প্রশ্ন উত্তর নিচে দেওয়া হলো। এই Madhyamik Physical Science Suggestion (মাধ্যমিক  ভৌতবিজ্ঞান সাজেশন) – আলো (অধ্যায়-৫) MCQ, সংক্ষিপ্ত, অতিসংক্ষিপ্ত এবং রোচনাধর্মী প্রশ্ন উত্তর  গুলি আগামী West Bengal Madhyamik Physical Science Examination পশ্চিমবঙ্গ মাধ্যমিক ভৌতবিজ্ঞান সালের পরীক্ষার জন্য খুব ইম্পর্টেন্ট। আপনারা যারা মাধ্যমিক দশম শ্রেণীর ভৌতবিজ্ঞান পরীক্ষার সাজেশন খুঁজে চলেছেন, তারা নিচে দেওয়া প্রশ্নপত্র ভালো করে পড়তে পারেন। এই পরীক্ষা তে কোশ্চেন গুলো আসার সম্ভাবনা খুব বেশি।

আলো (অধ্যায়-৫) MCQ, সংক্ষিপ্ত, অতি সংক্ষিপ্ত এবং রচনাধর্মী প্রশ্ন উত্তর | Madhyamik Physical Science Suggestion – মাধ্যমিক ভৌতবিজ্ঞান সাজেশন 

বহুবিকল্পভিত্তিক প্রশ্নোত্তর : (মান – 1) আলো (অধ্যায়-৫) প্রশ্নউত্তর – মাধ্যমিক ভৌতবিজ্ঞান সাজেশন

  1. মানুষের চোখের নিকট বিন্দু ও দূরবিন্দু দুটির দূরত্ব যথাক্রমে – a. 50 cm,অসীম b. 25 cm, 50 cm c. 0, 25 Cm d. 25 cm, অসীম

উত্তরঃ[d] 25 cm, অসীম

  1. যখন আমরা চোখ দিয়ে দেখি,তখন রেটিনাতে বস্তুর যে প্রতিবিম্ব গঠিতহয় তা হল – a. সদ, অবশীর্ষ b. অসদ, সমশীর্ষ c. অসদ, অবশীর্ষ d. সদ, সমশীর্ষ

উত্তরঃ[a] সদ, অবশীৰ্ষ

  1. এক ব্যক্তি লাল রঙের জামা এবং সাদা রঙের প্যান্ট পরে আছে। নীল আলোকে জামা ও প্যান্টের রং হবে যথাক্রমে – a. লাল এবং সাদা b. নীল এবং সাদা c. কালো এবং নীল d. লাল এবং নীল

উত্তরঃ[c] কালো এবং নীল

  1. আলোর তড়িম্বকীয় তত্ত্বের জনক – a. ম্যাক্স প্ল্যাক b. ম্যাক্সওয়েল c. নিউটন d. হাইগেনস

উত্তরঃ[b] ম্যাক্সওয়েল

  1. উত্তল দর্পণ দ্বারা গঠিত প্রতিবিম্ব হবে – a. সমশীর্ষ ও ক্ষুদ্র b. সমশীর্ষ ও বড়ো c. অবশীর্ষ ও ক্ষুদ্র d. অবশীর্ষ ও বড়ো

উত্তরঃ[a] সমশীর্ষ ও ক্ষুদ্র

  1. মোটর গাড়ির হেডলাইটে কী ধরনের দর্পণ ব্যবহার করা হয়? – a. সমতল দর্পণ b. উত্তল দর্পণ c. অবতল দর্পণ d. অধিবৃত্তীয় দর্প

উত্তরঃ[d] অধিবৃত্তীয় দর্পণ

7.একটি অবতল দর্পণের বক্রতা ব্যাসার্ধ 10 cm হলে ফোকাস দৈর্ঘ্য হবে – a. 10 cm b. 5 cm c. 20 cm d. 15 c

উত্তরঃ[b] 5 cm

  1. গাড়ির পিছনের দৃশ্য দেখার জন্য চালকের সামনে যে দর্পণ ব্যবহার করা হয় তা হল – a. অবতল  b. সমতল c. উত্তল d. অধিবৃত্তাকার

উত্তরঃ[c] উত্তল

  1. সূর্যোদয়ের পূর্বে ও সূর্যাস্তের পরেও কিছুক্ষণ সূর্যকে দেখা যায়। এর কারণ, আলোকের – a. বিছুরণ b. বিক্ষেপণ c.প্রতিফলন d. প্রতিসরণ

উত্তরঃ[d] প্রতিসরণ

  1. একটি আলোকরশ্মি ঘনতর মাধ্যমে প্রবেশ করলে – a. কম্পাক বাড়ে b. তরঙ্গদৈর্ঘ্য বাড়ে c. বেগ কমে d. অভ্যন্তরীণ পূর্ণ প্রতিফলনহতে পারে

উত্তরঃ[c] বেগ কমে

  1. একটি রশ্মি বায়ু থেকে কাচের ফলকে প্রবেশ করলে এর – a. তরঙগদৈর্ঘ্য কমে যায় b. তরঙ্গগদৈর্ঘ্য বেড়ে যায় c. কম্পাঙ্ক বেড়ে যায় d. তরঙগদৈর্ঘ্য এবং কম্পাঙ্ক উভয়ই

উত্তরঃ[a] তরঙ্গগদৈর্ঘ্য কমে যায়

  1. প্রিজমে নীচের কোন বর্ণের আলোর চ্যুতি সর্বাপেক্ষা বেশি? – a. হলুদ b. নীল c. সবুজ d. কমলা

উত্তরঃ[b] নীল

  1. একটি সমান্তরাল কাচ ফলকের ফোকাস দূরত্ব হল – a. শূন্য b. 100 cm c. 200 cm d. অসীম

উত্তরঃ[d] অসীম

  1. উত্তল লেন্স দ্বারা গঠিত কোনো বস্তুর প্রতিবিম্বের ক্ষেত্রে কোনটি সম্ভব নয়? – a.  বিবর্ধিত, সমশীর্ষ b. খর্বাকৃতি, সমশীর্ষ c. বিবর্ধিত, অবশীৰ্ষ d. খর্বাকৃতি, অবশির্ষ

উত্তরঃ[b] খর্বাকৃতি, সমশীর্ষ

  1. বস্তুর সকল অবস্থানেই অসদ এবং সমশীর্য প্রতিবিম্ব গঠন করতে পারে – a. উত্তল লেন্স b. অবতল লেন্স c.  অবতল দর্পন d. কোনোটিই নয়

উত্তরঃ[b] অবতল লেন্স

শূন্যস্থান পূরণ করো: (মান – 1) আলো (অধ্যায়-৫) প্রশ্নউত্তর – মাধ্যমিক ভৌতবিজ্ঞান সাজেশন

  1. দীর্ঘদৃষ্টি ত্রুটিযুক্ত চোখে________ ক্ষমতাযুক্ত চশমা ব্যবহারকরে ত্রুটিমুক্ত করা হয়।

উত্তরঃ[ধনাত্মক]

2.লেন্সের দুটি বক্রতা কেন্দ্রের সংযোগী সরলরেখাকে লেন্সটির________ বলে।

উত্তরঃ[বক্রতা কেন্দ্র]

  1. দুটি নির্দিষ্ট মাধ্যমের বিভেদতলে একটি নির্দিষ্ট বর্ণের আলোর  প্রতিসরণ হলে আপতন কোণের সাইন ও প্রতিসরণ কোণের সাইনের অনুপাত সর্বদা________ ।

উত্তরঃ[ধ্রুবক]

  1. যে লেন্সের মধ্যভাগ মোটা ও দুই দিক ক্রমশ সরু তাকে________ লেন্স বলে।

উত্তরঃ[উত্তল]

  1. উত্তল লেন্সে বস্তু অসীমে থাকলে, প্রতিবিম্ব________ অবস্থান করে।

উত্তরঃ[ফোকাসে]

সত্য বা মিথ্যা নির্বাচন করো: (মান – 1) আলো (অধ্যায়-৫) প্রশ্নউত্তর – মাধ্যমিক ভৌতবিজ্ঞান সাজেশন

  1. সুস্থ মানুষের চোখের দূর বিন্দুর অবস্থান 100 cm [F]
  2. উপাক্ষীয় রশ্মির ক্ষেত্রে  =  [F]
  3. প্রিজমের যে-কোনো প্রান্তরেখার বিপরীত তলকে প্রিজমের ভূমি বলে। [T]
  4. স্বল্পসৃষ্টি ত্রুটি যুক্ত চোখে ঋণাত্মক চশমা ব্যবহার করা হয়। [T]
  5. রঙিন কাচ মিহিভাবে চূর্ণ করলে বেগুনি দেখায়।  [T]
  6. দৃশ্যমান আলোর তরঙ্গ দৈর্ঘ্যার পাল্ল 410-7m  8 10-7।        [T]

অতি সংক্ষিপ্ত প্রশ্নোত্তর: (মান – 1) আলো (অধ্যায়-৫) প্রশ্নউত্তর – মাধ্যমিক ভৌতবিজ্ঞান সাজেশন

  1. দৃশ্যমান আলোর তরঙ্গগদৈর্ঘ্য কত?

উত্তরঃ দৃশ্যমান আলোর তরঙ্গ দৈর্ঘ্য প্রায় 4000 A থেকে 8000 A পর্যন্ত বিস্তৃত।

  1. শূন্য মাধ্যমে আলোর বেগের মান কত?

উত্তরঃ 3 108ms-1 ।

  1. – রশ্মির একটি ব্যবহার লেখো।

উত্তরঃ রেডিয়োথেরাপিতে  রশ্মি ব্যবহৃত হয়।

  1. একগুচ্ছ লাল গোলাপফুলকে নীল আলোয় দেখলে কী রং দেখাবে?

উত্তরঃ কালো ।

  1. দন্ত চিকিৎসক কোন ধরনের দর্পণ ব্যবহার করেন ?

উত্তরঃ অবতল দর্পণ ।

  1. সুস্থ ব্যক্তির নিকট বিন্দুর দূরত্ব কত?

উত্তরঃ 25 cm ।

  1. দীর্ঘদৃষ্টি ত্রুটির ক্ষেত্রে কী ধরনের লেন্স ব্যবহার করা হয়?

উত্তরঃ উত্তল লেন্স।

  1. দীর্ঘদৃষ্টিসম্পন্ন ব্যক্তি কী ধরনের চশমা ব্যবহার করেন?

উত্তরঃ ধনাত্মক ক্ষমতাযুক্ত চশমা।

  1. সাদা আলো প্রিজমে পড়লে কোন বর্ণের আলো বেশি কোণে বেঁকে যায়?

উত্তরঃ বেগুনি বর্ণের আলো।

  1. কোন দর্পণ সর্বদা অসদ ও খর্বাকৃতি প্রতিবিম্ব গঠন করে?

উত্তরঃ উত্তল দর্পণ।

  1. কোন বর্ণের প্রতিসরাংক নিদিষ্ট মাধ্যমের ক্ষেত্রে সর্বাধিক?

উত্তরঃ বেগুনি বর্ণের।

  1. শূন্যস্থানের পরম প্রতিসরাঙ্ক কত?

উত্তরঃ শূন্যস্থানের পরম প্রতিসরাঙ্ক 1।

  1. সমান্তরাল কাচ ফলকে প্রতিসরণের ফলে আপতিত রশ্মির চ্যুতি কত হয়?

উত্তরঃ আপতিত রশ্মির চুতি শূন্য হয়।

  1. কোন শর্তে উত্তল লেন্স পর্দায় সদ প্রতিবিম্ব সৃষ্টি করে?

উত্তরঃ বস্তু ফোকাস দূরত্বের চেয়ে বেশি দূরত্বে থাকলে।

  1. জলের ভিতরে উৎপন্ন বায়ু বুদবুদ অভিসারী না অপসারী লেন্সের মতো আচরণ করে?

উত্তরঃ অপসারী লেন্সের মতো আচরণ করে।

  1. লেন্সের আলোককেন্দ্রের একটি বৈশিষ্ট্য লেখো ।

উত্তরঃ লেন্সের আলোককেন্দ্র দিয়ে নির্গত রশ্মি কোনো চুতি হয় না।

  1. বিবর্ধক কাচে কী ধরনের লেন্স ব্যবহৃত হয়?

উত্তরঃ উত্তল লেন্স।

  1. ক্যামেরায় কোন ধরনের লেন্স ব্যবহার করা হয়?

উত্তরঃ উত্তল লেন্স বা উত্তল লেন্স সমবায়।

সংক্ষিপ্ত প্রশ্নোত্তর: (মান – 2) আলো (অধ্যায়-৫) প্রশ্নউত্তর – মাধ্যমিক ভৌতবিজ্ঞান সাজেশন

  1. ফোকাস কাকে বলে?

উত্তরঃ গোলীয় দর্পণের ওপর একগুচ্ছ সমান্তরাল আলোকরশ্মি প্রধান অক্ষের সমান্তরালভাবে দর্পণের উপর পড়লে প্রতিফলনের পর তারা প্রধান অক্ষের ওপর যে বিন্দুতে মিলিত হয় বা যে বিন্দু থেকে অপসৃত হচ্ছে বলে মনে হয় তাকে মুখ্য ফোকাস বা ফোকাস বলে।

  1. আলোর প্রতিসরণ কাকে বলে?

উত্তরঃ আলোকরশ্মি যখন একটি সমসত্ত্ব স্বচ্ছ মাধ্যম থেকে ভিন্ন ঘনত্বের অপর একটি সমসত্ত্ব স্বচ্ছ মাধ্যমের ওপর তির্যকভাবে পড়ে তখন ওই দ্বিতীয় মাধ্যমের বিভেদতল থেকে আলোকরশ্মির গতির অভিমুখের পরিবর্তন ঘটে। ওই ঘটনাকে আলোর প্রতিসরণ বলে।

  1. প্রতিসরণ কোণ কাকে বলে?

উত্তরঃ প্রতিসৃত রশ্মি অভিলম্বের সঙ্গে যে কোন উৎপন্ন করে তাকে প্রতিসরণ কোণ বলে।

  1. প্রতিসারক কোণ কাকে বলে?

উত্তরঃ প্রতিসারক কোণ : দুটি প্রতিসারক তল মিলিত হয়ে যে কোণ উৎপন্ন করে তাকে প্রিজমের প্রতিসারক কোণ বলে।

  1. লেন্সের বক্রতা ব্যাসার্ধ কাকে বলে?

উত্তরঃ বক্রতা ব্যাসার্ধ (Centre of curvature) : লেন্সের কোনো গোলীয় তল যে গোলকের অংশ সেই গোলকের ব্যাসার্ধকে ওই তলের বক্রতা ব্যাসার্ধ বলে।

  1. অবতল লেন্সকে অপসারী লেন্স বলা হয় কেন?

উত্তরঃ অবতল লেন্স আপতিত সমান্তরাল রশ্মিগুচ্ছকে অপসারী রশ্মিগুচ্ছে পরিণত করে বলে অবতল লেন্সকে অপসারী লেন্স বলে। মাধ্যমের প্রতিসরাঙ্কে লেন্সের উপাদানের প্রতিসরাঙ্কের চেয়ে বেশি হলে উত্তল লেন্স অপসারী লেন্সের মতো এবং অবতল লেন্স অভিসারী লেন্সের মতো আচরণ করে।

  1. ফোকাস দূরত্ব কাকে বলে? অথবা, উত্তল লেন্সের ফোকাস দূরত্ব বলতে কী বোঝো? চিত্রের সাহায্যে দেখাও।

উত্তরঃ লেন্সের আলোক কেন্দ্র থেকে প্রধান ফোকাস পর্যন্ত দূরত্বকে ফোকাস দূরত্ব (OF) বলে। একে ‘ f ‘ চিহ্ন দ্বারা প্রকাশ করা হয়।

  1. সূর্যের আলোয় সবুজ পাতা সবুজ দেখায় কেন?

উত্তরঃ সবুজ পাতার ওপর সাদা আলো পড়লে পাতাগুলি সবুজবর্ণের আলো ছাড়া অন্য সকল বর্ণের আলো শোষণ করে নেয় কিন্তু সবুজ বর্ণের আলোকে প্রতিফলিত করে ফলে পাতাগুলি সবুজ দেখায়।

  1. নীল কাচের মধ্য দিয়ে তাকালে একটি লাল ফুলকে কালো দেখায় কেন?

উত্তরঃ লাল ফুল সাদা আলোর কেবলমাত্র লাল বর্ণের প্রতিফলিত করে, বাকি বর্ণগুলি শোষণ করে। লাল ফুল থেকে নির্গত লাল বর্ণ নীল কাচ কর্তৃক শোষিত হওয়ায় চোখে কোনো আলো এসে পৌছায় না। তাই নীল কাচের মধ্য দিয়ে তাকালে। লাল ফুলকে কালো দেখায়।

  1. তরঙ্গদৈর্ঘ্যের সংজ্ঞা দাও।

উত্তরঃ কম্পাঙ্ক : এক সেকেন্ডে কোনো মাধ্যমের মধ্যে যতগুলি পূর্ণতরঙ্গেগর সৃষ্টি হয়—সেই সংখ্যাকেই ওই তরঙ্গেগর কম্পাঙ্ক বলে। কম্পাঙ্কের SI একক হল হার্জ (hertz বা Hz)।

  1. আলোর বিক্ষেপণ কাকে বলে?

উত্তরঃ বায়ুমণ্ডলে অবস্থিত বিভিন্ন গ্যাসীয় অণু অপেক্ষাকৃত দীর্ঘ তরঙ্গদৈর্ঘ্যবিশিষ্ট সূর্যালোক শোষণ করে এবং শোষিত আলোকরশ্মিকে চর্তুদিকে বিস্তার ঘটায়, এই পদ্ধতিতে আলোর চারদিকে বিস্তৃত হওয়াকেই আলোর বিক্ষেপণ বলে।

  1. কোনো সবুজ বস্তুকে সাদা আলোর দ্বারা আলোকিত করলে সবুজ দেখায় কেন? বস্তুটিকে হলুদ আলোর দ্বারা আলোকিত করলে বস্তুটির রং কী দেখাবে?

উত্তরঃ সবুজ বস্তুর উপর সাদা আলো পড়লে বস্তুটি সবুজ বর্ণের আলো প্রতিফলিত করে। এবং অন্যান্য বর্ণের আলো শোষণ করে। সেজন্য বস্তুটিকে সবুজ দেখায়। বস্তুটিকে হলুদ আলোর দ্বারা আলোকিত করলে বস্তুটি ওই আলো শোষণ করে নেবে। ফলে বস্তুটিকে কালো দেখাবে।

দীর্ঘ প্রশ্নোত্তর : (মান – 3) আলো (অধ্যায়-৫) প্রশ্নউত্তর – মাধ্যমিক ভৌতবিজ্ঞান সাজেশন

  1. প্রতিসরাংক কাকে বলে?

উত্তরঃ প্রতিসরাক : একটি নির্দিষ্ট বর্ণের আলো ও দুটি নির্দিষ্ট মাধ্যমের জন্য প্রথম মাধ্যমে আপতন কোণের Sine ও দ্বিতীয় মাধ্যমে প্রসরণ কোণের Sine -এর অনুপাতকে প্রতিসরাকে বলা হয়। চিহ্ন দ্বারা প্রতিসরাককে প্রকাশ করা হয়। অর্থাৎ,    

  1. একটি একবণী আলোক রশ্মিগুচ্ছ শূন্যস্থান থেকে  প্রতিসরাঙ্কের কোনো মাধ্যমে প্রতিসৃত হল। আপতিত তরঙ্গদৈর্ঘ্য ও প্রতিসৃত তরঙ্গগদৈর্ঘ্যের মধ্যে সম্পর্ক কীরূপ?

অথবা,

আপতিত আলো এবং প্রতিসৃত আলোর তরঙ্গদৈর্ঘ্যের অনুপাত হল মাধ্যমের প্রতিসরাঙ্ক-ব্যাখ্যা করো।

উত্তরঃ আমরা জানি ,কোনো মাধ্যমের প্রতিসরাঙ্ক  =  যেখানে c ও v  হল যথাক্রমে শূন্য মাধ্যমে ও উক্ত মাধ্যমে আলোর বেগ। আবার, তরঙ্গবে = তরঙ্গের কম্পাঙ্ক  তরঙ্গদৈর্ঘ্য হওয়ায়

 =  =  =  , যেখানে  ও হল যথাক্রমে শুন্য মাধ্যমে উক্ত মাধ্যমের আলোর তরঙ্গদৈর্ঘ্য।

∴ প্রতিসরাঙ্ক হল আপতিত আলো প্রতিসৃত আলোর তরঙ্গদৈর্ঘ্যর অনুপাত।

  1. ও অবতল লেন্সের মধ্যে দুটি পার্থক্য উল্লেখ করো।

উত্তরঃ

উত্তল লেন্স

অবতল লেন্স

  1. এই লেন্সের মধ্যভাগ মোটা ও দুইপ্রান্ত ক্রমশ সরু।
  2. এই লেন্সের মধ্যভাগ সরু ও প্রান্ত ক্রমশ মোটা।
  3. উত্তল লেন্স সমান্তরাল আলোকরশ্মি গুচ্ছকে অভিসারী রশ্মিতে পরিণত করে।
  4. অবতল লেন্স সমান্তরাল রশ্মিগুচ্ছকে অপসারী রশ্মিগুচ্ছকে অপসারী রশ্মিতে পরিণত করে।
  5. স্নেলের সূত্রের সাহায্যে আলোর বিছুরণের ব্যাখ্যা দাও।

Ans  স্নেলের সূত্রানুযায়ী    = ধ্রুবক (i = আপতণ কোণ, r = প্রতিসরণ কোণ) এই দ্রুবকটিকে প্রথম মাধ্যমের সাপেক্ষে দ্বিতীয় মাধ্যমের প্রতিসরাঙ্ক বলে। এই প্রতিসরাঙ্কের মান- (i) আপতিত রশ্মির বর্ণের ওপর এবং (ii) প্রথম ও দ্বিতীয় মাধ্যমের প্রকৃতির ওপর নির্ভর করে। এখন শূন্য বা বায়ু মাধ্যমে প্রতিটি বর্ণের আলোর বেগ সমান হলেও কোনো আলোকীয় মাধ্যমে ভিন্ন বর্ণের আলোর বেগ ভিন্ন হয়। দৃশ্যমান আলোর ক্ষেত্রে বেগুণি আলোর জন্য মাধ্যমের প্রতিসরাঙ্ক সর্বোচ্চ ও লাল আলোর জন্য সর্বনিম্ন হয়। প্রতিসরাকের এই পরিবর্তনের জন্য প্রতিসরণের ফলে ভিন্ন বর্ণের আলো ভিন্ন কোণে বেঁকে যায়। একই আপতন কোণের জন্য তাই সাদা আলোর মধ্যে উপস্থিত বিভিন্ন বর্ণের আলোর প্রতিসরণ বিভিন্ন হয়। এই কারণে সাদা আলো বিছুরিত হয়।

5.কাচের পরম প্রতিসরাঙ্ক 1.5 বলতে কী বোঝো ?

অথবা,

জলের প্রতিসরাঙ্ক  1.33 বলতে কী বোঝো?

উত্তরঃ কাচের পরম প্রতিসরাঙ্ক 1.5 বলতে বোঝায় যে, কোনো আলোকরশ্মি যখন বায়ু

থেকে কাচে প্রতিসৃত হয় তখন আপতন কোণের সাইন এবং প্রতিসরণ কোণের সাইনের অনুপাত 1.5 হয়। অন্যভাবে বললে শূন্য মাধ্যমে আলোর বেগ এবং কাচ মাধ্যমে আলোর বেগের অনুপাত 1.5 অর্থাৎ আলোর বেগের অনুপাত 1.5 অর্থাৎ  = 1.5  ।

Madhyamik Suggestion 2023 | মাধ্যমিক সাজেশন ২০২৩

আরোও দেখুন:-

Madhyamik Bengali Suggestion 2023 Click here

আরোও দেখুন:-

Madhyamik English Suggestion 2023 Click here

আরোও দেখুন:-

Madhyamik History Suggestion 2023 Click here

আরোও দেখুন:-

Madhyamik Geography Suggestion 2023 Click here

আরোও দেখুন:-

Madhyamik Mathematics Suggestion 2023 Click here

আরোও দেখুন:-

Madhyamik Physical Science Suggestion 2023 Click here

আরোও দেখুন:-

Madhyamik Life Science Suggestion 2023 Click here

আরোও দেখুন:-

Madhyamik Suggestion 2023 Click here

WB Madhyamik Physical Science Suggestion | মাধ্যমিক ভৌতবিজ্ঞান সাজেশন – আলো (অধ্যায়-৫) MCQ প্রশ্ন উত্তর সাজেশন 

        আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ সময় করে আমাদের এই ” Madhyamik Physical Science Suggestion – আলো (অধ্যায়-৫) প্রশ্ন উত্তর – মাধ্যমিক ভৌতবিজ্ঞান সাজেশন ” পােস্টটি পড়ার জন্য। এই ভাবেই BhugolShiksha.com ওয়েবসাইটের পাশে থাকুন। যেকোনো প্ৰশ্ন উত্তর জানতে এই ওয়েবসাইট টি ফলাে করুন এবং নিজেকে  তথ্য সমৃদ্ধ করে তুলুন , ধন্যবাদ।

Download Our Android App

Subscribe Our YouTube Channel

Join Our Telegram Channel