ইন্দিরা গান্ধীর জীবনী – Indira Gandhi Biography in Bengali

38
ইন্দিরা গান্ধীর জীবনী - Indira Gandhi Biography in Bengali
ইন্দিরা গান্ধীর জীবনী - Indira Gandhi Biography in Bengali

ইন্দিরা গান্ধীর জীবনী

Indira Gandhi Biography in Bengali

ইন্দিরা গান্ধীর জীবনী – Indira Gandhi Biography in Bengali : লৌহমানবী ভারত রত্ন ইন্দিরা গান্ধী । বিশ্বের কয়েকজন মহিলা প্রধানমন্ত্রীর মধ্যে ভারতের প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী অন্যতম । ভারতের প্রধান মন্ত্রী থাকা কালে তিনি লৌহ মানবী বলে খ্যাত হন । বাংলাদেশের স্বাধীনতা আন্দোলনে ইন্দিরাগান্ধীর সক্রীয় সমর্থন ও সহযােগিতার কথা ঐ দেশের জনগণ কোনাে দিন ভুলবে না । 

  ভারতের প্রথম মহিলা প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী এর একটি সংক্ষিপ্ত জীবনী । ইন্দিরা গান্ধী এর জীবনী – Indira Gandhi Biography in Bengali বা ইন্দিরা গান্ধী এর আত্মজীবনী বা (Indira Gandhi Jivani Bangla. A short biography of Indira Gandhi. Indira Gandhi Birth, Place, Life Story, Life History, Biography in Bengali) ইন্দিরা গান্ধী এর জীবন রচনা সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো।

ইন্দিরা গান্ধী কে ছিলেন ? Who is Indira Gandhi ? 

ইন্দিরা গান্ধী (Indira Gandhi) ভারতের ৪র্থ প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন। ইন্দিরা গান্ধী (Indira Gandhi) ভারতের প্রথম ও আজ পর্যন্ত একমাত্র মহিলা প্রধানমন্ত্রী। প্রভাবশালী নেহেরু পরিবারে জন্মগ্রহণ করায়, ইন্দিরা গান্ধী (Indira Gandhi) এক রাজনৈতিক পরিমণ্ডলে বেড়ে উঠেন। তার পিতামহ মতিলাল নেহেরু একজন প্রথম সারির কংগ্রেস নেতা ছিলেন। তার পিতা জওহরলাল নেহেরু ভারতের প্রথম প্রধানমন্ত্রী। তার ছেলে রাজীব গান্ধী ভারতের প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। ১৯৪১ সালে অক্সফোর্ড থেকে ফিরে এসে ইন্দিরা গান্ধী পিতার সাথে ভারতের স্বাধীনতা আন্দোলনে অংশগ্রহণ করেন। ১৯৫০ সাল থেকে অপেশাগত ভাবে জওহরলাল নেহেরুর অফিস সহকারীর কাজ করে আসছিলেন। ১৯৬৪ সালের জওহরলাল নেহেরুর মৃত্যুর পর ভারতের রাষ্ট্রপতি ইন্দিরা গান্ধীকে (Indira Gandhi) রাজ্যসভার সদস্য হিসেবে নিয়োগ দেন। তখন ইন্দিরা লাল বাহাদুর শাস্ত্রীর মন্ত্রীসভায় তথ্য ও প্রচার মন্ত্রনালয়ের দায়িত্ব পালন করেন।

ভারতের প্রথম মহিলা প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর সংক্ষিপ্ত জীবনী – Indira Gandhi Short Biography in Bengali :

নাম (Name) ইন্দিরা গান্ধী (Indira Gandhi)
জন্ম (Birthday) ১৯ নভেম্বর ১৯১৭ (19th November 1917)
জন্মস্থান (Birthplace) এলাহাবাদ, ভারত
অভিভাবক (Parents)/পিতামাতা জওহরলাল নেহ্‌রু

কমলা নেহেরু

দাম্পত্য সঙ্গী (Spouse) ফিরোজ গান্ধী
রাজনৈতিক দল  ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস
সন্তান  রাজীব গান্ধী

সঞ্জয় গান্ধী

প্রাক্তন শিক্ষার্থী বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয় (অন্তর্হিত)

Somerville College, Oxford (অন্তর্হিত)

ধর্ম  হিন্দু
পুরস্কার  ভারতরত্ন (১৯৭১)
মৃত্যু (Death) ৩২ অক্টোবর ১৯৮৪ (19th October 1984)

ইন্দিরা গান্ধীর জন্ম – Indira Gandhi Birthday :

 ভারতের প্রথম মহিলা প্রধান মন্ত্রী প্রিয়দর্শিনী ইন্দিরা গান্ধী । ১৯১৭ খ্রিঃ ১৯ নভেম্বর উত্তর প্রদেশের এলাহাবাদে এক ঐতিহ্যবাহী সমৃদ্ধিশালী রাজনৈতিক পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন।

ইন্দিরা গান্ধীর পিতামাতা – Indira Gandhi Parents :

 ইন্দিরা ভারতবর্ষের প্রথম প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহরু এবং তার স্ত্রী কমলা নেহরুর একমাত্র কন্যা । ইন্দিরা গান্ধী (Indira Gandhi) পশ্চিমবঙ্গের শান্তিনিকেতন , জেনেভা এবং অক্সফোর্ডে শিক্ষালাভ করেন ।

ইন্দিরা গান্ধীর কর্মজীবন – Indira Gandhi Work Life :

 জাতীয় চেতনায় উদ্বুদ্ধ পারিবারিক পরিবেশে লালিত হয়ে এবং পিতা জওহরলালের উৎসাহে বাল্যবয়স থেকে ইন্দিরার মনে স্বদেশ প্রীতির বীজ রােপিত হয় । ১২ বছর বয়সে ১৯৩০ খ্রিঃ তিনি ‘ চরকা সংঘ ‘ গঠন করেন । পরে প্রায় ৬০০০ ছেলেমেয়ে নিয়ে জাতীয় কংগ্রেসের কিশাের বাহিনী ‘ বানর সেনা ‘ সৃষ্টি করেন । 

ইন্দিরা গান্ধীর কংগ্রেসের সদস্য – Indira Gandhi Member Of Congress party :

 ১৯৩৮ খ্রিঃ ইন্দিরা কংগ্রেসের সদস্য হন । ফিরােজ গান্ধীর সঙ্গে বিবাহ হয় ১৯৪২ খ্রিঃ । বিবাহের কিছুদিন পরে ‘ অন্তর্ঘাতমূলক ’ কাজ করার অভিযােগে তিনি ১৩ মাসের জন্য কারাদন্ডে দন্ডিত হন ।

 ১৯৫৫ খ্রিঃ ‘ ইন্দিরা কংগ্রেসের কার্যকরী সমিতির সদস্যা এবং ১৯৫৯-৬০ খ্রিঃ জাতীয় কংগ্রেসের সভাপতি পদে বৃত হন । 

[আরও দেখুন, জহরলাল নেহেরু জীবনী – Jawaharlal Nehru Biography in Bengali]

ইন্দিরা গান্ধী রাজ্যসভার সভাপতি : 

 ১৯৬৪ খ্রিঃ তিনি রাজ্যসভার সদস্য নির্বাচিত হন । জওহরলালের মৃত্যুর পরে লালবাহাদুর শাস্ত্রী প্রধান মন্ত্রী হন । ১৯৬৪-৬৬ খ্রিঃ শাস্ত্রীজির মন্ত্রিসভায় তথ্য ও বেতার দপ্তরের মা হন ইন্দিরা । 

 লালবাহাদুর শাস্ত্রীর মৃত্যুর পরে কংগ্রেসের কার্যকরী সমিতির অধিকাংশ সদস্যের ইচ্ছায় তিনি প্রধানমন্ত্রী পদে নির্বাচিত হন । 

 ১৯৬৯ খ্রিঃ রাষ্ট্রপতি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে কংগ্রেস কার্যকরী সমিতির সঙ্গেতার মনােমালিন্য সৃষ্টি হয় । তিনি দলীয় প্রার্থী নীলম সঞ্জীব রেড্ডিকে সমর্থন না করে দলীয় সদস্যদের বিবেক – ‘ অনুযায়ী নির্দল প্রার্থী ভি . ভি . গিরিকে ভােট দিতে অনুরােধ করেন । 

 প্রধানত তারই আগ্রহ এবং চেষ্টায় ভি . ভি . গিরি জয়যুক্ত হন । এই ঘটনা এবং মােরারজী দেশাইয়ের অর্থ দপ্তর স্বয়ং গ্রহণ এবং দেশাইয়ের মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগকে কেন্দ্র করে জাতীয় কংগ্রেস সংগঠন কংগ্রেস বা আদি কংগ্রেস এবং নব কংগ্রেস — এই দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে পড়ে ।

 শ্ৰীমতী গান্ধী নব কংগ্রেসের নেতৃত্ব গ্রহণ করেন এবং ১৯৭১ খ্রিঃ লােকসভা নির্বাচনে দলকে জয়ী করতে সমর্থ হন ।

 জনপ্রতিনিধিত্ব আইনের ( Representation of People Act ) ১২৩ ( ৭ ) ধারা মতে নির্বাচনে অন্যায়ভাবে জয়ের অপরাধে এলাহাবাদ হাইকোর্ট তার নির্বাচনকে অবৈধ বলে ঘােষণা করলেও সুপ্রীম কোর্ট তা বৈধ বলে ঘােষণা করেন । 

 অতঃপর শ্রীমতী গান্ধী ধৈর্য ও নিষ্ঠার সঙ্গে সরকারের প্রধান রূপে কাজ চালাতে থাকেন ।

 ১৯৭৫ খ্রিঃ ২৬ শে জুন ইন্দিরা গান্ধী (Indira Gandhi) সারা দেশে জরুরী অবস্থা জারী করেন । ১৯৭৭ খ্রিঃ লােকসভার নির্বাচনে ইন্দিরা গান্ধী (Indira Gandhi) পরাজিত হন । ইন্দিরা গান্ধীর (Indira Gandhi) দলও শােচনীয়ভাবে পরাজিত হয় । ফলে কেন্দ্রে ৩০ বছরের কংগ্রেসী শাসনের ছেদ ঘটে। 

 মােরারজী দেশাইয়ের নেতৃত্বে কেন্দ্রে জনতা সরকার প্রতিষ্ঠিত হয় । ১৯৭৮ খ্রিঃ ১ লা জানুয়ারী কংগ্রেস দল পুনরায় দুটি ভাগে বিভক্ত হয় । শ্রীমতী গান্ধী কংগ্রেসের বৃহৎ গােষ্ঠীর নেতৃত্বে অবিচল থাকেন এবং তার একান্ত অনুরাগীগণ এবং কনিষ্ঠপুত্র সঞ্জয় গান্ধী । তাকেচরম বিপদের দিনেও সর্বতােভাবে সাহায্য করতে থাকেন ।

 তাদের আপ্রাণ চেষ্টা ও শ্রীমতী গান্ধীর প্রতি আনুকুল্য , স্বয়ং ইন্দিরা গান্ধীর মনােবল , দৃঢ়তা ও জনতা সরকারের তীব্র অন্তর্ধম্বের ফলে ১৯৮০ খ্রিঃ লােকসভা নির্বাচনে শ্রীমতী গান্ধী স্বয়ং এবং তার দল জয়ী হয়ে কেন্দ্রে ফিরে আসেন ।

 এর পরবর্তী ইতিহাস হল , শ্রীমতী গান্ধী আমৃত্যু প্রধানমন্ত্রীরূপেই কেন্দ্রীয় সরকারের প্রধান হয়ে কাজ করে গেছেন । এছাড়া ইন্দিরা গান্ধী (Indira Gandhi) তার দলেরও সভাপতির পদ অলঙ্কৃত করেছেন । 

ইন্দিরা গান্ধীর কর্মকাণ্ডগুলো : Indira Gandhi Works :

 শ্ৰীমতী গান্ধীর প্রধানমন্ত্রীত্বের প্রথম ১০ বছরের উল্লেখযােগ্য কর্মকাণ্ডগুলির মধ্যে রয়েছে ব্যাঙ্ক এবং কয়লাখনি রাষ্ট্রীয়করণ , রাজন্য ভাতা বিলােপ , পাকিস্তানের সঙ্গে সীমান্ত সংঘর্যে উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ , বাংলাদেশের মুক্তিসংগ্রামে সাহায্য দান , ইন্দো – সােভিয়েতচুক্তি , বিশদফা কর্মসূচী ৰূপায়ণের মাধ্যমে ভূমি সংস্কার , ভূমিহীন কৃষককে জমি দান এবং সেচ ও বিদ্যুৎ ব্যবস্থার উন্নতিকরণ ।

 শ্ৰীমতী গান্ধীর দ্বিতীয় দফা প্রধানমন্ত্রীত্বের কয়েক বছরের উল্লেখযােগ্য কাজের মধ্যে আছে যােগাযােগ ব্যবস্থার উন্নতি বিধান ছাড়াও ১৯৮২ খ্রিঃ দিল্লীতে নবম এশিয়াডের সফল অনুষ্ঠান । 

 ১৯৮১ খ্রিঃ কনিষ্ঠপুত্র সঞ্জয় গান্ধীর অকালমৃত্যু শ্রীমতী গান্ধীর জীবনে একটি বেদনাদায়ক ঘটনা । এই ঘটনার পরে তার জ্যেষ্ঠপুত্র । রাজীব গান্ধী শ্রীমতী গান্ধীকেসর্বপ্রকার সাহায্য করার কাজে এগিয়ে আসেন। 

[আরও দেখুন, মাদার তেরেসার জীবনী – Mother Teresa Biography in Bengali]

ইন্দিরা গান্ধীর ভারত রত্ন – Indira Gandhi Bharat Ratna :

শ্ৰীমতী গান্ধী ১৯৬৫ খ্রিঃ ইতালীয় ইসাবেলা পুরস্কার এবং ১৯৭২ খ্রিঃ ভারতরত্ন উপাধি লাভ করেন । শান্তিনিকেতন থেকে দেশিকোত্তম উপাধিতেও তাকে ভূষিত করা হয় ।

ইন্দিরা গান্ধীর মৃত্যু – Indira Gandhi Death :

 এছাড়াও ইন্দিরা গান্ধী (Indira Gandhi) দেশ ও বিদেশের বহু সম্মানজনক পদ ও উপাধি লাভ করেন । ১৯৮৪ খ্রিঃ ৩১ শে অক্টোবর শ্রীমতী গান্ধী তার সরকারী বাসভবনের প্রাঙ্গণেই দুজন উগ্রপন্থী শিখ দেহরক্ষী বিয়ান্ত সিং ও সতবম্ভসিং – এর গুলিতে নিহত হন । তার এই আকস্মিকহত্যাকান্ডের পরেই জ্যেষ্ঠপুত্র রাজীব গান্ধী ভারতের প্রধানমন্ত্রীরূপে শপথ গ্রহণ করেন । 

 জোটনিরপেক্ষ আন্দোলনের সভানেত্রীরূপে জীবনের শেষভাগে । শ্ৰীমতী গান্ধী বিশ্বের অন্যতম বরেণ্য নেত্রীর মর্যাদা ও স্বীকৃতি লাভ করেন । ইন্দিরাগান্ধী একজন দৃঢ়চেতা ও সুদক্ষ রাষ্ট্রনায়ক হিসাবে ভারতের ইতিহাসে অমর হয়ে থাকবেন ।

ইন্দিরা গান্ধীর জীবনী (প্রশ্ন ও উত্তর) – Indira Gandhi Biography in Bengali (FAQ):

  1. ইন্দিরা গান্ধীর জন্ম কবে হয় ?

Ans: ইন্দিরা গান্ধীর জন্ম হয় ১৯ নভেম্বর ১৯১৭ সালে ।

  1. ইন্দিরা গান্ধীর পিতার নাম কী ?

Ans: ইন্দিরা গান্ধীর পিতার নাম জহরলাল নেহেরু ।

  1. ইন্দিরা গান্ধীর মাতার নাম কী ?

Ans: ইন্দিরা গান্ধীর মাতার নাম কমলা নেহেরু ।

  1. ইন্দিরা গান্ধীর রাজনৈতিক দলের নাম কী ?

Ans: ইন্দিরা গান্ধীর রাজনৈতিক দলের নাম ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস ।

  1. ইন্দিরা গান্ধীর জন্ম কোথায় হয় ?

Ans: ইন্দিরা গান্ধীর জন্ম হয় এলাহাবাদ এ ।

  1. ইন্দিরা গান্ধী কবে ভারত রত্ন পান ?

Ans: ইন্দিরা গান্ধী ১৯৭১ সালে ভারত রত্ন পান।

  1. ইন্দিরা গান্ধী কত সালে রাজ্যসভার সভাপতি হন ?

Ans: ইন্দিরা গান্ধী ১৯৬৪ সালে রাজ্যসভার সভাপতি হন।

  1. ইন্দিরা গান্ধী কবে জন্মগ্রহণ করেন ?

Ans: ইন্দিরা গান্ধী ১৯ নভেম্বর ১৯১৭ সালে জন্মগ্রহণ করেন।

  1. ভারতের প্রথম মহিলা প্রধানমন্ত্রীর নাম কি ?

Ans: ভারতের প্রথম মহিলা প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী।

  1. ইন্দিরা গান্ধীর মৃত্যু কবে হয় ?

Ans: ইন্দিরা গান্ধীর মৃত্যু হয় ১৯৮৪ খ্রিঃ ৩১ শে অক্টোবর ।

[আরও দেখুন, বিধানচন্দ্র রায়ের জীবনী – Bidhan Chandra Ray Biography in Bengali

আরও দেখুন, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর জীবনী – Rabindranath Tagore Biography in Bengali

আরও দেখুন, গোপালচন্দ্র ভট্টাচার্যের জীবনী – Gopal Chandra Bhattacharya Biography in Bengali

আরও দেখুন, ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর জীবনী – Ishwar Chandra Vidyasagar Biography in Bengali

আরও দেখুন, হরগোবিন্দ খোরানার জীবনী – Har Gobind Khorana Biography in Bengali]

ইন্দিরা গান্ধী এর জীবনী – Indira Gandhi Biography in Bengali

   অসংখ্য ধন্যবাদ সময় করে আমাদের এই ” ইন্দিরা গান্ধী এর জীবনী – Indira Gandhi Biography in Bengali  ” পােস্টটি পড়ার জন্য। ইন্দিরা গান্ধী এর জীবনী – Indira Gandhi Biography in Bengali পড়ে কেমন লাগলো কমেন্টে জানাও। আশা করি এই ইন্দিরা গান্ধী এর জীবনী – Indira Gandhi Biography in Bengali পোস্টটি থেকে উপকৃত হবে। এই ভাবেই BhugolShiksha.com ওয়েবসাইটের পাশে থাকো যেকোনো প্ৰশ্ন উত্তর জানতে এই ওয়েবসাইট টি ফলাে করো এবং নিজেকে  তথ্য সমৃদ্ধ করে তোলো , ধন্যবাদ।