এরিস্টটল এর জীবনী – Aristotle Biography in Bengali

29
এরিস্টটল এর জীবনী - Aristotle Biography in Bengali
এরিস্টটল এর জীবনী - Aristotle Biography in Bengali

এরিস্টটল এর জীবনী – Aristotle Biography in Bengali

এরিস্টটল এর জীবনী – Aristotle Biography in Bengali : প্রাচীন পৃথিবীর যে ক’জন ব্যক্তি সম্পর্কে না জানলেই নয় তাদের মধ্যে অ্যারিস্টটল সম্ভবত সবার উপরেই থাকবেন। তাকে আপনি একটি শব্দে তো নয়ই, একটি বিশ্বকোষ লিখেও বর্ণনা করতে পারবেন কিনা সন্দেহ আছে। তিনি বিজ্ঞানী ছিলেন, ছিলেন দার্শনিক, এমনকি রাষ্ট্রবিজ্ঞানীও। বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী হিসেবে অ্যারিস্টটলের চেয়ে ভাল উদাহরণ আর কে-ইবা হতে পারে? এসব পরিচয় ছাড়াও তার আরো একটি পরিচয় আছে। তিনি দ্বিগ্বীজয়ী বীর আলেকজান্ডার দ্য গ্রেট এর শিক্ষক ছিলেন, আবার বিখ্যাত দার্শনিক প্লেটোর ছাত্র ছিলেন। বই লিখে অনেক খ্যাতি অর্জন করেছিলেন তিনি। তার লেখার বিষয়ের মধ্যে ছিল পদার্থবিজ্ঞান, অধিবিজ্ঞান, দর্শন, রাষ্ট্রবিজ্ঞান, রাজনীতি, ভাষা, সঙ্গীত, থিয়েটার, উদ্ভিদবিজ্ঞান, প্রাণীবিজ্ঞান, রসায়ন, জোতির্বিজ্ঞান ইত্যাদি। বলা হয়ে থাকে তিনিই ছিলেন তার সময়ের শেষ ব্যক্তি যিনি জ্ঞানের সকল পরিচিত শাখায় দক্ষ ছিলেন! জ্ঞান-বিজ্ঞানের প্রায় সকল শাখায় তার বিস্ময়কর অবদান তাকে করেছে পৃথিবীর সর্বকালের অন্যতম প্রভাবশালী এক ব্যক্তিত্বে। নিজের সময়ের চেয়ে তিনি কতটা অগ্রসর ছিলেন তা বোঝাতে তাকে কেবল আইনস্টাইন আর আর্কিমিডিস এর সাথেই তুলনা করা যেতে পারে।

 বিশ্ববিখ্যাত বিজ্ঞানী এরিস্টটল এর একটি সংক্ষিপ্ত জীবনী । এরিস্টটল এর জীবনী – Aristotle Biography in Bengali বা এরিস্টটল এর আত্মজীবনী বা এরিস্টটল এর (Aristotle Jivani) জীবন রচনা সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো।

এরিস্টটল কে ছিলেন ? Who is Aristotle ?

এরিস্টটল (Aristotle) ছিলেন বিশ্ববিখ্যাত গ্রিক বিজ্ঞানী ও দার্শনিক। তাঁকে প্রাণিবিজ্ঞানের জনক বলা হয়। এছাড়া প্লেটোর সাথে যৌথভাবে তাঁকে “পশ্চিমা দর্শনের জনক” বলে অভিহিত করা হয়। এরিস্টটল সক্রেটিস ও প্লেটোর দর্শনসহ তাঁর পূর্বের সময়ের বিদ্যমান বিভিন্ন দর্শনের জটিল ও সদৃশ সমন্বয় দেখান।

বিশ্ববিখ্যাত বিজ্ঞানী এরিস্টটল এর জীবনী – Aristotle Biography in Bengali :

নাম (Name) এরিস্টটল (Aristotle)
জন্ম (Born) খ্রীষ্টপূর্ব ৩৮৪ অব্দে (384 BC)
পিতা/মাতা নিকোম্যাকাস(পিতা)

ফায়েস্তিসও (মাতা)

জন্মস্থান (Birthplace) গ্রীস
যুগ প্রাচীন দর্শন
ধারা পেরিপ্যাটেটিক দার্শনিক ধারাকে উদ্বুদ্ধ করেন এবং এরিস্টটলবাদ এর জন্ম দেন
আগ্রহ রাজনীতি, অধিবিদ্যা, বিজ্ঞান, যুক্তিবিদ্যা, নীতিবিদ্যা
অবদান  গোল্ডেন ম্যান, কারণ, যুক্তি, জীববিজ্ঞান, অনুরাগ
মৃত্যু (Death) খ্রীষ্টপূর্ব ৩২২ (322 BC)

এরিস্টটল এর জন্ম – Aristotle Birthday :

 খ্রীষ্টপূর্ব ৩৮৪ অব্দে এথেন্স থেকে প্রায় দুইশত মাইল উত্তরে মেসিডােনিয়ার অন্তর্গত স্টোগিরা নগরে মহামতি এরিস্টটল জন্মগ্রহণ করেন । প্রাচীন বিজ্ঞানী ও দার্শনিকদের মধ্যে বিশ্বে এরিস্টটলইসর্ব – অগ্রগণ্য তাকে বিজ্ঞান , জ্যোতির্বিজ্ঞানের ও দর্শনের গুরুও বলা হয় ।

এরিস্টটল এর পরিবার – Aristotle Family :

 এই মনীষীর পিতা ছিলেন আলেকজান্ডারের দাদা ( পিতামহ ) , মেসিডােনিয়ার রাজা এরিমনটাসের বন্ধু ও চিকিৎসক ।

[আরও দেখুন, আগাথা ক্রিস্টি এর জীবনী – Agatha Christie Biography in Bengali]

এরিস্টটল শৈশবকাল – Aristotle Childhood :

 শৈশবকাল থেকেই চিকিৎসাবিদ্যা চর্চার পরিবেশে মানুষ হওয়ায় এরিস্টটল পিতার মতাে বিজ্ঞানমনস্ক হয়ে পড়েন । তবে সেই প্রাচীন যুগে বিজ্ঞান চর্চার মাধ্যম ছিলাে কোনাে যন্ত্রপাতি নয় — শুধু জ্ঞানী ও বিত্ত মানুষের অসাধারণ মেধা ও পর্যবেক্ষণ শক্তির দক্ষতা । যে জন্য আধুনিক যুগের একজন গ্রীক বিশেষজ্ঞ এবং লেখক পেলার এরিস্টটল সম্পর্কে বলেছেন , তিনি ঘড়ি ছাড়া সময় নির্ণয় করতে , থার্মোমিটার ছাড়া আবহাওয়া পরীক্ষা করতে বাধ্য ছিলেন । কারণ , যে সবের উপর আধুনিক বিজ্ঞানের ব্যবহারিক মতামত প্রতিষ্ঠিত তার কিছুই তাে তখন আবিষ্কৃত হয়নি ।

 এজন্যে একটা দূরবীক্ষণ যন্ত্রের অভাবে এরিস্টটলের জ্যোতির্বিদ্যা -চর্চা হয়ে পড়েছে ছেলেমানুষী কল্পনাপ্রসূত । এক অণুবীক্ষণের অভাবে তার জীববিদ্যা হয়ে পড়েছে লক্ষহীন আর বিপথগামী । বিভিন্ন দিকে তার সময়কালে অতুলনীয় সাফল্য সত্বেও গ্রীস শিল্প ও কারিগরী আবিষ্কারের ক্ষেত্রে অনেক পিছনে পড়ে ছিলাে । সম্ভবত এ কারণেই এরিস্টটল কদাচিৎ পরীক্ষা নিরীক্ষার কথা বলেছেন কারণ পরীক্ষা নিরীক্ষার যন্ত্রপাতিই তাে তখন আবিষ্কৃত হয়নি । বড় জোর তিনি অবিরাম এবং সার্বিক পর্যবেক্ষণেরই শুধু ব্যবহার করতে পারতেন ।

এরিস্টটল এর গ্রন্থ – Aristotle Books :

 তবুও এসব সীমাবদ্ধতা সত্বেও এরিস্টটল অক্লান্ত চেষ্টা , পরিশ্রম এবং নিজস্ব অসাধারণ মেধার সঙ্গে তার অন্যান্য সহযােগীদের সাহায্যে যে – সব বিপুল তথ্যরাজির সংগ্রহ রেখে গেছেন মাত্র ৬২ বছরের জীবনকালে , তাতে বিস্ময়ে মানুষকেহতবাক হতে হয় । তিনি বিভিন্ন বিষয়ের উপর লিখে গেছেন অজস্র গ্রন্থ ।কেউ বলেন চারশােটি , কেউ বলেন হাজার খানেক । তার রচনার একটা অংশ । মাত্র সংরক্ষিত হয়েছে — তবুও তা – ই একটা লাইব্রেরীর সমতুল্য ।

এরিস্টটল এর রচনাবলী – Aristotle Essays :

 প্রথমেই রয়েছে তার লজিক বা যুক্তিবিদ্যা সম্বন্ধীয় রচনাবলী । এরপর রয়েছে তার বিজ্ঞান সম্বন্ধীয় রচনাবলী । যেমন পদার্থবিদ্যা , জ্যোতির্বিদ্যা , আবহাওয়াবিদ্যা , বিকাশ ও অবক্ষয় , প্রাকৃতিক ইতিহাস , আত্মা সম্বন্ধে , জীবজন্তুর অঙ্গ , জীবজন্তুর গতিবিধি এবং জীব প্রজনন । তৃতীয়ত আছে তার সৌন্দর্য – তত্ব সম্বন্ধীয় রচনাবলী । যেমন — অলঙ্কার ’ আর ‘ কাব্যশাস্ত্র ’ । চতুর্থত আছে তার বিভিন্ন দর্শনতত্বমূলক রচনাবলী । যেমন — নীতিবিদ্যা , রাজনীতি , এবং পরাবিদ্যা ।

 যদিও অবশ্য দেখা যায় তার কালের অন্যান্য দার্শনিকদের বিবেচনায় আনলে তার রচনাসমগ্রে ভুলভ্রান্তিযথেষ্ট আছে , বৈজ্ঞানিক তথ্যাদিতেও অনেক ভ্রমাত্মক সিদ্ধান্ত তিনি টেনেছেন , কিন্তু তবুও তার রচনাবলীতে জ্ঞান ও মতের যে অভূতপূর্ব সমন্বয় সাধন ঘটেছে , তা আধুনিককালের বিচারেও অতুলনীয় ঐশ্বর্যে সমৃদ্ধ ।

এরিস্টটল এর গুরু প্লেটো – Aristotle’s Master Pleto :

 এরিস্টটলেরজ্ঞানের রাজ্যে বিশ্ববিজয় একদিকদিয়ে চিন্তায় আনলে । তাঁর এককালীন ছাত্র মহামতি আলেকজান্ডারের চেয়েও বেশি গৌরবের । যদিও এরিস্টটল তার গুরু প্লেটোর তুলনায় বহুমুখি প্রতিভার স্বাক্ষর রেখেছেন বেশি , একই সঙ্গে দার্শনিক ও বৈজ্ঞানিক রচনাবলীর একবিশাল ভান্ডার বিশ্বকেদান করেছেন । তবে এরিস্টটল তার গবেষণাকর্মের্তার ছাত্র আলেকজান্ডারের কাছ থেকে আর্থিক সহবহুদিক দিয়ে অনেক সাহায্য সহযােগিতা পেয়েছিলেন — যা প্লেটো পাননি ।

এরিস্টটল এর মৃত্যু – Aristotle Death :

 এরিস্টটল খ্রীষ্টপূর্ব ৩২২ সনে ৬২ বছর বয়সে মৃত্যুমুখে পতিত হন ।

এরিস্টটল এর জীবনী (প্রশ্ন ও উত্তর) – Aristotle Biography in Bengali (FAQ):

  1. এরিস্টটল এর জন্ম কবে হয় ?

Ans: ৩৮৪ খ্রিস্ট পূর্ব ।

  1. এরিস্টটল এর গুরু কে ছিলেন ?

Ans: প্লেটো ছিলেন ।

  1. এরিস্টটল এর পিতার নাম কী ?

Ans: নিকোম্যাকাস ।

  1. এরিস্টটল এর মাতার নাম কী ?

Ans: ফায়েস্তিসও ।

  1. এরিস্টটল কে ছিলেন ?

Ans: একজন গ্রিক দার্শনিক ও বিজ্ঞানী ।

  1. এরিস্টটল এর মৃত্যু কবে হয় ?

Ans: ৩২২ খ্রিস্ট পূর্ব ।

[আরও দেখুন, আলবার্ট আইনস্টাইন জীবনী – Albert Einstein Biography in Bengali

আরও দেখুন, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর জীবনী – Rabindranath Tagore Biography in Bengali

আরও দেখুন, জেমস ওয়াট এর জীবনী – James Watt Biography in Bengali

আরও দেখুন, ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর জীবনী – Ishwar Chandra Vidyasagar Biography in Bengali]

এরিস্টটল এর জীবনী – Aristotle Biography in Bengali

   অসংখ্য ধন্যবাদ সময় করে আমাদের এই ” এরিস্টটল এর জীবনী – Aristotle Biography in Bengali  ” পােস্টটি পড়ার জন্য। এরিস্টটল এর জীবনী – Aristotle Biography in Bengali পড়ে কেমন লাগলো কমেন্টে জানাও। আশা করি এই এরিস্টটল এর জীবনী – Aristotle Biography in Bengali পোস্টটি থেকে উপকৃত হবে। এই ভাবেই BhugolShiksha.com ওয়েবসাইটের পাশে থাকো যেকোনো প্ৰশ্ন উত্তর জানতে এই ওয়েবসাইট টি ফলাে করো এবং নিজেকে  তথ্য সমৃদ্ধ করে তোলো , ধন্যবাদ।