সক্রেটিসের জীবনী - Socrates Biography in Bengali
সক্রেটিসের জীবনী - Socrates Biography in Bengali

সক্রেটিসের জীবনী – Socrates Biography in Bengali

সক্রেটিসের জীবনী – Socrates Biography in Bengali : সত্য প্রচারের অপরাধে তৎকালীন রাজার বিচারে অপরাধী সাব্যস্ত হয়ে যে মহামতি জ্ঞানসাধককে বিষপানে আত্মাহুতি দিতে হয়েছিলো সক্রেটিস (Socrates) হলেন প্রাচীন গ্রীসের মহাজ্ঞানী সক্রেটিস । দর্শনশাস্ত্রের জনক বলে সেই আদিকাল থেকে আজ পর্যন্ত যিনি বিশ্বের সর্বত্র স্বীকৃতি ও সম্মানিত ।

  জ্ঞান সাধক মহান দার্শনিক সক্রেটিস এর একটি সংক্ষিপ্ত জীবনী । সক্রেটিস এর জীবনী – Socrates Biography in Bengali বা সক্রেটিস এর আত্মজীবনী বা (Socrates Jivani Bangla. A short biography of Socrates. Socrates Birth, Place, Life Story, Life History, Biography in Bengali) সক্রেটিস এর জীবন রচনা সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো।

সক্রেটিস কে ছিলেন ? Who is Socrates ?

সক্রেটিস (Socrates) ছিলেন একজন প্রাচীন গ্রিক দার্শনিক। এই মহান দার্শনিকের সম্পর্কে তথ্য লিখিতভাবে পাওয়া যায় কেবলমাত্র সক্রেটিস (Socrates) শিষ্য প্লেটোর ডায়ালগ এবং সৈনিক জেনোফনের রচনা থেকে। তৎকালীন শাসকদের কোপানলে পড়ে সক্রেটিসকে (Socrates) হেমলক বিষ পানে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়। সক্রেটিসকে (Socrates) পশ্চিমি দর্শনের ভিত্তি স্থাপনকারী হিসেবে চিহ্নিত করা হয়। সক্রেটিস (Socrates) এমন এক দার্শনিক চিন্তাধারার জন্ম দিয়েছেন যা দীর্ঘ ২০০০ বছর ধরে পশ্চিমা সংস্কৃতি, দর্শন ও সভ্যতাকে প্রভাবিত করেছে। সক্রেটিস ছিলেন এক মহান সাধারণ শিক্ষক, যিনি কেবল শিষ্য গ্রহণের মাধ্যমে শিক্ষা প্রদানে বিশ্বাসী ছিলেননা। সক্রেটিস (Socrates) কোনো নির্দিষ্ট শিক্ষায়তন ছিলনা। যেখানেই যাকে পেতেন তাকেই মৌলিক প্রশ্নগুলোর উত্তর বোঝানোর চেষ্টা করতেন। তিনি মানব চেতনায় আমোদের ইচ্ছাকে নিন্দা করেছেন, কিন্তু সৌন্দর্য দ্বারা নিজেও আনন্দিত হয়েছেন।

জ্ঞান সাধক মহান দার্শনিক সক্রেটিসের জীবনী – Socrates Biography in Bengali :

নাম (Name) সক্রেটিস (Socrates)
জন্ম (Born) ৪৫৯ খ্রিস্টপূর্ব (459 BC)
জন্মস্থান (Birthplace) গ্রিস
অভিভাবক (Parents)/ পিতা ও মাতা সফ্রোনিস্কাস (পিতা)

ফিনারিটি (মাতা)

যুগ  প্রাচীন দর্শন
অঞ্চল পশ্চিমি দর্শন
ধারা চিরায়ত গ্রিক, সক্রেটীয় ধারা
প্রধান আগ্রহ epistemology, নৈতিকতা
উল্লেখযোগ্য অবদান সক্রেটীয় পদ্ধতি, Socratic irony
মৃত্যু (Death) ৩৯৯ খ্রিস্টপূর্ব

সক্রেটিসের জন্ম – Socrates Birthday :

 সক্রেটিসের জন্ম হয়েছিলো একেবারে একটি সাধারণ পরিবারে । গ্রীসের তৎকালীন সমৃদ্ধ শহর এথেন্সে ৪৬৯ খ্রীষ্টপূর্বাব্দে এই মহামনীষীর জন্ম হয় ।

সক্রেটিসের শিক্ষাজীবন – Socrates Education Life :

 সক্রেটিসের শিক্ষা – দীক্ষা লাভের তেমন সুযোগ হয়নি । সক্রেটিস (Socrates) মানুষ হিসাবে ছিলেন খুবই সাধারণ । জন্ম হয়েছিলো দরিদ্র পরিবারে । কিন্তু তবু সেই সাধারণের মধ্যেই তিনি স্বীয় বুদ্ধি – বিবেক , মেধা মননের সাহায্যে সৃষ্টি করেছিলেন নিজস্ব এক গভীর জ্ঞানভান্ডার । তার জ্ঞানের গভীরতা , বিচক্ষণতা , বৃদ্ধিবৃত্তি এবং যুক্তিবাদী মানসিকতার জন্য সক্রেটিস (Socrates) সাধারণের মধ্যে থেকেও ছিলেন অনন্যসাধারণ এক আলাদা জগতের মানুষ ।

সক্রেটিসের পরিচয় – The identity of Socrates :

  সক্রেটিস দেখতেও ছিলেন খুব সাদামাটা গোছের । খাটো আর বিশ্রী রকমের মোটা ছিলো তার দেহের গড়ন ৷ একটা মাত্র কোট ছিলো তাঁর । শীত , গ্রীষ্ম , বর্ষা সকল ঋতুতেই কোটটা থাকতো তাঁর পরিধানে ৷ কোট দিয়ে তাঁকে চেনা যেতো । ওটাই ছিলো তাঁর পরিচয় । সক্রেটিস কখনো জুতো পায়ে দিতেন না । কোট পরে খালি পায়ে ঘুরে বেড়াতেন পথে – প্রান্তরে । আর যাকেই সামনে পেতেন তাকেই শোনাতেন তাঁর নতুন জ্ঞান আর ভাবনা চিন্তার কথা । এথেন্সের লোকেরা তাঁর মুখ থেকে যুক্তিপূর্ণ নতুন চিন্তাধারার কথা শুনে বিস্মিত অভিভূত হয়ে যেতো ।

 এমনি করেই দেশে তার জনপ্রিয়তা ও সম্মান বৃদ্ধি পেতে থাকলো । শহরের বড় বড় ধনী ও শিক্ষিত ব্যক্তিরা পর্যন্ত জ্ঞানসাধক নতুন দর্শনের দিশারী সক্রেটিসকে আদর করে খাওয়াতেন । তাঁর মুখে নতুন জ্ঞানের কথা শুনতেন । সক্রেটিস (Socrates) এর অতি সাধারণ পোশাকের ব্যাপারে কেউ প্রশ্ন করলে সক্রেটিস (Socrates) বলতেন — পোশাক দিয়ে কী হবে ? পোশাক তো মানুষের বাইরের আবরণ মাত্র । জ্ঞানই হলো মানুষের আসল সৌন্দর্য প্রকৃত রূপ ‘

[আরও দেখুন, আর্কিমিডিস এর জীবনী – Archimedes Biography in Bengali]

সক্রেটিসের বাণী – The words of Socrates :

  তৎকালে গ্রীসের রাজাদের ছিলো দোর্দন্ড প্রতাপ । তাঁরা কথায় কথায় নির্যাতন চালাতেন মানুষের উপর । গর্দান নিতেন যখন – তখন যার – তার । তখন রাজারা বলতেন , তারা হলো ঈশ্বরের প্রতিনিধি । তাদের কথা মানেই ঈশ্বরের কথা । তাই তারা ঈশ্বরের মতো মর্যাদা ও সম্মান পাবার অধিকারী । কিন্তু সক্রেটিস রাজাদের এ – কথা মানতেন না । সক্রেটিস (Socrates) বলতেন — ‘ না , কখনোই না । মানুষ কখনো ঈশ্বর হতে পারে না । এ প্রতারণা মাত্র । সব মানুষই ঈশ্বরের সৃষ্টি । ঈশ্বরের কাছে রাজা – প্রজা সবাই সমান । ‘ 

 সক্রেটিসের এইসব সাম্যবাদী কথা সাধারণ মানুষের খুব ভালো লাগতো । বিশেষ করে দেশের তরুণ সমাজ সক্রেটিসের আদর্শকে মনে – প্রাণে গ্রহণ করতে লাগলো । তরুণরা দলে দলে এসে তার শিষ্যত্ব গ্রহণ করতে লাগলো । এতে রাজা প্রমাদ গুনলেন । রাজার অনুচরেরা সক্রেটিসের বিরুদ্ধে কুৎসা রটাতে ও দুর্নাম প্রচার করতে লাগলো । তারা প্রচার করলো — সক্রেটিস নাস্তিক । সে দেশের মানুষের তথা তরুণ সমাজের মস্তিষ্ক নষ্ট করে দিচ্ছে । তাদের মাথায় নানারকম রাষ্ট্র ও সমাজবিরোধী স্বাধীন নীতি ও ভ্রান্ত ধারণা ঢুকিয়ে দেওয়া হচ্ছে ।

সক্রেটিসের গল্প – Socrates Story :

 রাজার রক্ষণশীল ও অনুগত অনুচরেরা রাজার কাছে সক্রেটিসের বিরুদ্ধে অভিযোগ জানালো । তারা সক্রেটিসের নস্তিক্যপরায়ণতার উপযুক্ত শাস্তি দাবি করলো রাজার কাছে ।

 রাজা তার বিরুদ্ধে ক্ষেপে গেলেন । ধর্ম ও দেশদ্রোহিতার অভিযোগে তাকে গ্রেফতার করা হলো । তাকে কারাগারে নিক্ষেপ করা হলো । তার বিচার করা হবে ।

[আরও দেখুন, জেমস ওয়াট এর জীবনী – James Watt Biography in Bengali]

হেমলক বিষপান – Hemlock poisoning :

 একমাস পর বিচারের নামে একটা প্রহসন করা হলো । আদালতে তাঁকে বলা হলো সক্রেটিস যদি রাজদ্রোহিতা থেকে , তার দর্শনও মতামত প্রচার থেকে বিরত থাকেন , রাজাকে তিনি যদি ঈশ্বরের

প্রতিনিধি হিসাবে মেনে নেন , তাহলে তাকে ক্ষমা করা হবে । অন্যথায় হেমলক বিষ পান করে তার মৃত্যুদণ্ড হবে ।

 সক্রেটিস মিথ্যার কাছে মাথা নোয়ালেন না । যা সত্য বলে জেনেছেন , বুঝেছেন , মেনেছেন — তাকে আঁকড়ে ধরলেন । তিনি আদালতের রায় অনুযায়ী হেমলকের বিষ পান করে মৃত্যুকে আলিঙ্গন করে সত্যকে মহিমান্বিত করে গেলেন ।

সক্রেটিসের মৃত্যু – Socrates Death :

 সক্রেটিস মারা গেছেন , কিন্তু তাঁর আদর্শকে মারা যায়নি । অমর অক্ষয় হয়ে আছে তাঁর দর্শন মতামত । তার এক মহান শিষ্য প্লেটো এবং তদীয় শিষ্য এরিস্টটল তাঁর তত্বকে পরবর্তীকালে বিশ্বময় প্রতিষ্ঠিত করেন । কিছুকাল আগে গ্রীস জাতি সক্রেটিসের প্রতি অবিচার করা হয়েছিলো বলে স্বীকার করে বিশ্ববাসীর কাছে ক্ষমাপ্রার্থনা করেছেন ।

 শেষে বলা যায় মতবাদীকে হত্যা করা যায় , মতবাদকে নয় । সক্রেটিস মৃত , কিন্তু তার মতবাদ , দর্শন , আদর্শ চিরন্তন সত্য হয়ে আছে ।

সক্রেটিসের জীবনী – Socrates Biography in Bengali FAQ :

  1. সক্রেটিস কে ছিলেন ?

Ans: সক্রেটিস ছিলেন প্রাচীন গ্রিক দার্শনিক ।

  1. সক্রেটিসের জন্ম কবে হয় ?

Ans: সক্রেটিসের জন্ম হয় আনুমানিক ৪৫৯ খ্রিস্টপূর্ব।

  1. সক্রেটিসের পিতার নাম কী ?

Ans: সক্রেটিসের পিতার নাম সফ্রোনিস্কাস ।

  1. সক্রেটিসের মাতার নাম কী ?

Ans: সক্রেটিসের মাতার নাম ফিনারিটি ।

  1. সক্রেটিস কোন যুগের দার্শনিক ছিলেন ?

Ans: সক্রেটিস প্রাচীন দর্শন যুগের দার্শনিক ছিলেন ।

  1. সক্রেটিস কবে মারা যান ?

Ans: সক্রেটিস মারা যান আনুমানিক ৩৯৯ খ্রিস্টপূর্ব ।

[আরও দেখুন, জুসেপ্পে গেরিবলদির জীবনী – Giuseppe Garibaldi biography in Bengali

আরও দেখুন, উইলিয়াম শেকসপিয়র এর জীবনী – William Shakespeare Biography in Bengali

আরও দেখুন, আলবার্ট আইনস্টাইন জীবনী – Albert Einstein Biography in Bengali

আরও দেখুন, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর জীবনী – Rabindranath Tagore Biography in Bengali

আরও দেখুন, ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর জীবনী – Ishwar Chandra Vidyasagar Biography in Bengali]

সক্রেটিস এর জীবনী – Socrates Biography in Bengali

   অসংখ্য ধন্যবাদ সময় করে আমাদের এই ” সক্রেটিস এর জীবনী – Socrates Biography in Bengali  ” পােস্টটি পড়ার জন্য। সক্রেটিস এর জীবনী – Socrates Biography in Bengali পড়ে কেমন লাগলো কমেন্টে জানাও। আশা করি এই সক্রেটিস এর জীবনী – Socrates Biography in Bengali পোস্টটি থেকে উপকৃত হবে। এই ভাবেই BhugolShiksha.com ওয়েবসাইটের পাশে থাকো যেকোনো প্ৰশ্ন উত্তর জানতে এই ওয়েবসাইট টি ফলাে করো এবং নিজেকে  তথ্য সমৃদ্ধ করে তোলো , ধন্যবাদ।

Subscribe Our YouTube Channel

Join Our Telegram Channel

E-mail Subscription