গল্পের রাজা ঈশপ এর জীবনী – Aesop Biography in Bengali

1
ঈশপের জীবনী - Aesop Biography in Bengali
ঈশপের জীবনী - Aesop Biography in Bengali

ঈশপের জীবনী – Aesop Biography in Bengali

ঈশপের জীবনী – Aesop Biography in Bengali :  ঈশপের একাধিক বা অসংখ্য গল্প পড়েনি বা শােনেনি এমন মানুষ বােধ হয় পৃথিবীতে কম আছে । শুধু শিক্ষিত নয় , অশিক্ষিত লােকেরাও কোনাে না কোনােভাবে ঈশপের গল্প শুনতে বাধ্য হয়েছেন । জীবনের কোন এক পর্যায়ে । – শৈশবে বা কৈশােরে । তাই তিনি উপদেশমূলক জনপ্রিয় গল্পের চিরস্মরণীয় গল্পকার হিসেবে স্বীকৃত । প্রায় আড়াই হাজার বছর আগে লেখা তার সুখপাঠ্য ও উপদেশমূলক সুন্দর – সুন্দর গল্পগুলাের জনপ্রিয়তা দেশে – দেশে কেবল বেড়েই চলেছে । তার সৃষ্ট গল্পগুলাে এমনই মজার যে , সর্বকালে , সর্বদেশে সকল শ্রেণীর পাঠকের ভালাে লাগে । 

গল্পের রাজা ঈশপের একটি সংক্ষিপ্ত জীবনী । ঈশপ জীবনী – Aesop Biography in Bengali বা ঈশপের আত্মজীবনী বা ঈশপ (Aesop Jivani) জীবন রচনা সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো।

ঈশপ কে ছিলেন ? Who is Aesop ?

ঈশপ (Aesop) ছিলেন একজন বিখ্যাত ও প্রাচীন গ্রীক গদ্যকার। তন্মধ্যে, এসপের উপ-কথাগুলো কবি বাব্রিয়াস কর্তৃক হেলেনীয় রোমান সময়কালে ১ম অথবা ২য় শতকে গ্রীক শ্লোকে পুণঃলিখিত হয়।

গল্পের রাজা ঈশপ এর জীবনী – Aesop Biography in Bengali :

নাম (Name) ঈশপ (Aesop)
জন্ম (Born) আনুমানিক খ্রিস্ট-পূর্ব ৬২০
পেশা (Occupation) দাস, পরবর্তীতে গদ্যকার
জাতীয়তা এথেন্স (প্রাচীন গ্রিস) 
ধরন উপকথা
উল্লেখযোগ্য রচনাবলী অনেকগুলো উপকথা যা একত্রিত হয়ে ঈশপের উপকথা নামে পরিচিত, পঞ্চতন্ত্র
মৃত্যু (Death) আনুমানিক খ্রিস্ট-পূর্ব ৫৬৪

গল্পের রাজা ঈশপ – Aesop The King of Story :

 বিশ্ববিশ্রুত এই মহান গল্পকারের জীবন সম্বন্ধে বেশি কিছু আজ আর জানার উপায় নেই । তার জীবনকথা প্রায় সবটাই হারিয়ে গেছে । বিস্মৃতির অতল গহ্বরে । তবে শােনা যায় তিনি নাকি একজন সামান্য ক্রীতদাস ছিলেন । তার আবির্ভাবকাল অনুমান করা হয় খ্রীষ্টপূর্ব ৬২০ থেকে ৫৬০ অব্দ পর্যন্ত । এক ধনী লােকের ক্রয় করা ক্রীতদাস ছিলেন তিনি । দেখতে ছিলেন অতি সাধারণ , কুৎসিত এবং কৃষ্ণকায় । কিন্তু এই কুৎসিত ব্যক্তির একটা অসাধারণ গুণ ছিলাে । তিনি বানিয়ে বানিয়ে মজার মজার গল্প বলতে পারতেন । যখন – তখন কেউ শুনতে চাওয়া মাত্র অবলীলায় গল্প রচনা করতে পারতেন মুখে মুখে । তিনি ছিলেন গল্পকথক । লােকেরা তার গল্প শুনে মুগ্ধ ও চমৎকৃত হয়ে যেতাে ।

গল্পের চরিত্র – character of Story :

 ঈশপের বড় বৈশিষ্ট্য ছিলাে তার গল্পের নায়ক – নায়িকারা অধিকাংশই ছিলাে ইতর প্রাণী বিশেষ । বন জঙ্গলের বাঘ , ভাল্লুক , শিয়াল – কুকুর , হরিণ – হায়েনা , কাক – ঈগল , বিড়াল – বানর ইত্যাদি ছিলাে তার গল্পের সব চরিত্র । এরাই তার গল্পে কথা বলতাে মানুষের মতাে আজও বলে । 

[আরও দেখুন, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর জীবনী – Rabindranath Tagore Biography in Bengali]

ঈশপের বাণী – Aesop’s Word :

 ঈশপের গল্পের আরাে একটা বড় বৈশিষ্ট্য হলাে , গল্পের শেষে থাকতাে সুন্দর করে সাজানাে একটি উপদেশ বাণী । একটি চমৎকার আদর্শের কথা । চিরন্তন শাশ্বত সেই উপদেশ বাণী সর্বকালে সর্বযুগে । সকল দেশের সকল মানুষের জন্য যা প্রযােজ্য । আসলে গল্প নয় । এই আদর্শের কথাটা , উপদেশ বাণীটা শােনাবার জন্যই তিনি গল্পের আবরণে ঢেলে দিয়ে সুন্দর করে পরিবেশন করতেন । যাতে মানুষের । বিরক্তির উদ্রেক করে । এখানেই ছিলাে তার মৌলিক বিশেষত্ব । সুন্দর সুন্দর গল্পের জন্যই হয়তাে সকলে কুৎসিত ক্রীতদাসকে ভালােবাসতাে । ভক্তি – শ্রদ্ধা করতাে । তার সঙ্গ পেলে খুশি হতাে ।

 ধীরে ধীরে ঈশপের সুনাম ছড়িয়ে পড়তে লাগলাে সারা শহরময় । মানুষের মুখে মুখে তার নাম । অবশেষে একদিন এমন হলাে দেশসুদ্ধ । লােক সব ছুটে আসতাে ক্রীতদাস ঈশপের মুখে গল্প শুনতে ও তাকে দেখতে । তার গুণে ও জনপ্রিয়তায় খুশি হয়ে একদিন তার মনিব তাকে দাসত্বের শৃংখল থেকে মুক্তি দিলেন । শুধু তাই নয় , মনিব স্বয়ং ঈশপকে নিয়ে গেলেন গ্রীসের লিডিয়া রাজ্যের রাজা ক্রোসাসের রাজ দরবারে।তাকে পরিচয় করিয়ে দিলেন রাজার সাথে । ক্রীতদাস ঈশপ ঠাই পেলেন রাজা ক্রোসাসের দরবারে অন্যতম সভাসদ হিসাবে । 

 রাজদরবারে কিছুদিন থাকার পর রাজা ক্রোসাস ঈশপকে ডেলফি নামক স্থানে এ্যাপােলাে দেবের মন্দিরে প্রেরন করেন । শােনা যায় ঐ মন্দিরে থাকার সময় নাকি তিনি ডেলফিবাদীদের রাজার বিরুদ্ধে উত্তেজিত করেন । তারা খুব ক্ষেপে ওঠে ৷ কিন্তু পরক্ষণেই একটি গল্প বলে উপদেশ দেন যে , রাজার বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করতে নেই । ঈশপ ছিলেন একেবারে নিরক্ষর । তিনি মুখে মুখে গল্প বানাতেন , মুখে – মুখেই মানুষকে সেই গল্প শােনাতেন । এভাবেই মানুষের কাছে । প্রচলিত ছিলাে তার গল্পগুলাে ।

 ঈশপের মৃত্যুর প্রায় দুশাে বছর পরে রাজধানী এথেন্সবাসীতার গল্পগুলােকে সংগ্রহ করে গ্রথিত করার চেষ্টা চালান । এরপর গ্রীসেরবা বরিয়াস নামক এক পণ্ডিতও অনুরূপ একটা গল্পের সংগ্রহ প্রকাশ করেন । বাবরিয়াস যে প্রচেষ্টা চালান সেটা ছিল একটা সত্যনিষ্ঠগ বেষণার কাজ । তার সঙ্কলনে ঈশপের প্রায় সমস্ত গল্পই সংকলিত হয়েছিলাে ।

পাণ্ডুলিপি – 

 এরপর প্রায় দীর্ঘ পাঁচশ বছর মানুষ এই সংকলনগুলাের কথা । প্রায় ভুলেই গিয়েছিল । সহসা অ্যাথােস পর্বতের এক মন্দিরে একটা পান্ডুলিপি আবিষ্কৃত হয় এবং তারপর থেকেই বিভিন্ন ভাষায় অনূদিত হয়ে গ্রন্থ আকারে ঈশপের গল্প পৃথিবীর দেশ থেকে দেশান্তরে ছড়িয়ে পড়তে থাকে ।

[আরও দেখুন, ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর জীবনী – Ishwar Chandra Vidyasagar Biography in Bengali]

ঈশপের গল্প অনুবাদ – Story Translation :

 ব্রিটেনে ঈশপের গল্প প্রথম অনুবাদ করেন ক্যাকটাস ১৪২৪ খ্রিঃ । ১৬২২ খ্রিঃ ফরাসী ভাষায় প্রকাশ করেন লা ফঁতেন । 

 বাংলা ভাষায় ১৮৫৬ খ্রিঃ কথামালা নামে প্রথম প্রকাশ করেন পন্ডিত ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর ।

 পঞ্চতন্ত্র -এর অনেক গল্পের সঙ্গে ঈশপের গল্পের সাদৃশ্য লক্ষ করবার মত । হিতােপদেশ কাহিনীতেও এরকম কিছু গল্পের সাদৃশ্য আছে ।

ঈশপের মৃত্যু – Aesop’s Death :

 ঈশপের জীবনকাল নিয়ে যতটা না রহস্য আছে তার চাইতে বেশি রহস্য কিংবা মতপার্থক্য আছে ঈশপের মৃত্যু নিয়ে। ঈশপের জীবনকাল নিয়ে গ্রিক দার্শনিক অ্যারিস্টটল আর ইতিহাসবেত্তা হিরোডোটাসের কাছ থেকে অনেক তথ্য জানা গেলেও ঈশপের মৃত্যু নিয়ে তাঁদের কাছ থেকে কিছুই জানা যায়নি।

ঈশপের জীবনী (প্রশ্ন ও উত্তর) – Aesop’s Biography in Bengali (FAQ):

  1. ঈশপের জন্মের সময়কাল কী?

Ans : আনুমানিক খ্রিস্ট-পূর্ব ৬২০ ।

  1. ঈশপ কে ছিলেন ?

Ans : একজন গল্পকার ।

  1. ঈশপের জন্ম কোথায় ?

Ans : এথেন্স প্রাচীন গ্রিস ।

  1. ঈশপের গল্পের নায়ক কারা ?

Ans : বাঘ, সিংহ, শিয়াল, ভাল্লুক এরাই ।

  1. ঈশপের গল্প প্রথম অনুবাদ কে করেন ?

Ans : ক্যাকটাস ১৪২৪ খ্রিস্টাব্দে ।

  1. বাংলা ভাষায় প্রথম কথামালা নামে কে প্রকাশ করেন ?

Ans : পন্ডিত ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর ।

  1. ঈশপের মৃত্যু কবে হয় ?

Ans : আনুমানিক ৫৬৪ খ্রিস্টাব্দে ।

[আরও দেখুন, মুকুন্দ দাস জীবনী – Mukunda Das Biography in Bengali

আরও দেখুন, জহরলাল নেহেরু জীবনী – Jawaharlal Nehru Biography in Bengali

আরও দেখুন, শিবরাম চক্রবর্তী জীবনী – Shibram Chakraborty Biography in Bengali

আরও দেখুন, সত্যজিৎ রায় জীবনী – Satyajit Ray Biography in Bengali]

🔘 প্রতিদিন আপডেট পেতে সাবস্ক্রাইব করুন 🔘
Join Our Telegram Channel Click Here
Subscribe Our YouTube Channel Click Here
Like Our Facebook Page Click Here

ঈশপ জীবনী – Aesop Biography in Bengali

   অসংখ্য ধন্যবাদ সময় করে আমাদের এই ” ঈশপ জীবনী – Aesop Biography in Bengali  ” পােস্টটি পড়ার জন্য। এই ভাবেই BhugolShiksha.com ওয়েবসাইটের পাশে থাকো যেকোনো প্ৰশ্ন উত্তর জানতে এই ওয়েবসাইট টি ফলাে করো এবং নিজেকে  তথ্য সমৃদ্ধ করে তোলো , ধন্যবাদ।