সুনীল গাভাস্কারের জীবনী - Sunil Gavaskar Biography in Bengali
সুনীল গাভাস্কারের জীবনী - Sunil Gavaskar Biography in Bengali

সুনীল গাভাস্কারের জীবনী

Sunil Gavaskar Biography in Bengali

সুনীল গাভাস্কারের জীবনী – Sunil Gavaskar Biography in Bengali : শতাব্দীর শ্রেষ্ঠ ব্যাটম্যান সুনীলমনোহর গাভাসকার পুরো নাম সুনীলমনোহর গাভাসকার বা সুনীল গাভাস্কার (Sunil Gavaskar) নামে পরিচিত । ডাক নাম সানি । সুনীল গাভাস্কার (Sunil Gavaskar) বিংশ শতাব্দীর শ্রেষ্ঠ ব্যাটম্যান হিসাবে বিশ্বব্যাপী চিহ্নিত হয়ে আছেন । সুনীল গাভাস্কার (Sunil Gavaskar) এর জীবনের কৃতিত্ব পর্যালোচনা করে বলা যায় সুনীল গাভাস্কার (Sunil Gavaskar) বিংশ শতাব্দীর সেরা ওপেনারও । বিশ্ব টেষ্ট ক্রিকেটে ব্যাটসম্যানদের গড় রান সংখ্যার দিক দিয়ে ডোনাল্ড ব্র্যাডম্যানকে ছাড়াতে না পারলেও সেঞ্চুরির সংখ্যার দিক দিয়ে সুনীল গাভাস্কার (Sunil Gavaskar) অবশ্যই তাঁকে ছাড়িয়ে গেছেন । সুনীল গাভাস্কার (Sunil Gavaskar) টেস্টে মোট ৩৪ টি সেঞ্চুরি করেন । যেখানে ব্রাডম্যানের সেঞ্চুরির সংখ্যা ২৯ টি ।

  শতাব্দীর শ্রেষ্ঠ ব্যাটম্যান সুনীল মনোহর গাভাস্কার বা সুনীল গাভাস্কার এর একটি সংক্ষিপ্ত জীবনী । সুনীল গাভাস্কার এর জীবনী – Sunil Gavaskar Biography in Bengali বা সুনীল গাভাস্কার এর আত্মজীবনী বা (Sunil Gavaskar Jivani Bangla. A short biography of Sunil Gavaskar. Sunil Gavaskar Birth, Place, Life Story, Life History, Biography in Bengali) সুনীল গাভাস্কার এর জীবন রচনা সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো।

সুনীল গাভাস্কার কে ? Who is Sunil Gavaskar ?

সুনীল গাভাস্কার (Sunil Gavaskar) হলেন ভারত জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক ও প্রথিতযশা ব্যাটসম্যান। সুনীল গাভাস্কারকে (Sunil Gavaskar) ক্রিকেট ইতিহাসের অন্যতম সেরা উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান হিসেবে ধরা হয়। সুনীল গাভাস্কার (Sunil Gavaskar) সর্বাধিকসংখ্যক টেস্ট রান ও সেঞ্চুরি নিয়ে ক্রীড়াজীবন শেষ করেন। ২০০৫ সালে আরেক ভারতীয় ক্রিকেটার শচীন তেন্ডুলকর তার গড়া টেস্ট রেকর্ড ভেঙ্গে ফেলেন। ১৯৮৩ সালের ভারতীয় ক্রিকেট দলের সদস্য হয়ে সুনীল গাভাস্কার (Sunil Gavaskar) আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ জয় করেন।

শতাব্দীর শ্রেষ্ঠ ব্যাটম্যান সুনীল মনোহর গাভাস্কার এর জীবনী – Sunil Gavaskar Biography in Bengali :

নাম (Name) সুনীল মনোহর গাভাস্কার বা সুনীল গাভাস্কার (Sunil Gavaskar)
জন্ম (Birthday) ১০ জুলাই ১৯৪৯ (10th July 1949)
জন্মস্থান (Birthplace) বোম্বাই, ভারত 
ডাকনাম সানি
উচ্চতা ৫ ফুট ৫ ইঞ্চি
ব্যাটিংয়ের ধরন ডানহাতি 
বোলিংয়ের ধরন ডানহাতি মিডিয়াম
ভূমিকা উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান
টেস্ট অভিষেক ৬ মার্চ ১৯৭১ বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ
শেষ টেস্ট ১৩ মার্চ ১৯৮৭ বনাম পাকিস্তান

সুনীল গাভাস্কার এর জন্ম – Sunil Gavaskar Birthday :

 সুনীল গাভাসকারের জন্ম হয়েছিল বোম্বাইতে , ১৯৪৯ সালের ১০ জুলাই । 

সুনীল গাভাস্কার এর প্রথম টেস্ট – Sunil Gavaskar First Test Match :

 ১৯৭১ সালের ৬ মার্চ ওয়েস্টইন্ডিজের বিরুদ্ধে পোর্ট অব স্পেনে টেস্ট খেলতে নামেন । সুনীল গাভাস্কার (Sunil Gavaskar) ১২৫ টি টেস্টে ১০১২২ টি রান করেছেন , সেঞ্চুরি ৩৪ টি এবং সর্বোচ্চ ২৩৬। ৪৭ টি টেস্টে অধিনায়কত্ব করে ৯ টি জিতেছেন , পরাজয় ৮ টি এবং ড্র ৩০ টি । একদিনের ক্রিকেটে ১০৮ ম্যাচ খেলে ৩০৯২ রান করেছেন , সর্বোচ্চ ১৩০ নট আউট এবং সেঞ্চুরি একটি । প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে ৫৬৩ ইনিংসে ২৫৮৩৪ রান , সর্বোচ্চ ৩৪০ ।

সুনীল গাভাস্কার এর নেতৃত্বে ভারতের হেজেস মিনি বিশ্বকাপ প এশিয়া কাপ জয় : 

 সুনীল গাভাস্কার (Sunil Gavaskar) এর নেতৃত্বে ভারতীয় দল ১৯৮৫ সালে বেনসন এ্যান্ড হেজেস মিনি বিশ্বকাপ এবং ১৯৮৫ সালে এশিয়া কাপ জয় করেছিলো ।

 গাভাসকারের জীবনে নানা অঘটন ঘটে গেছে । প্রথম দিকেই তার জীবনটা একেবারে পালটে যেত , যদি কাকা না দেখতেন । মি . নারায়ণ মাসুরেকার সম্পর্কে গাভাসকারের কাকা । তিনি শিশু গাভাসকারকে হাসপাতালে দেখতে গিয়েছিলেন । মায়ের পাশে বাচ্চাদের খাটে যে শিশুটি শুয়েছিল , তাকে আদর করতে গিয়ে অবাক – হয়ে গেলেন । নারায়ণ কাকা বলে উঠলেন “ না না , এ তো সে নয় । ” সঙ্গে সঙ্গে শুরু হয়ে গেল হৈ চৈ । ছেলে বদল হয়ে গেছে ।

 কিন্তু এই ব্যাপারে এতটা নিশ্চিন্ত কী করে হলেন মি . মাসুরেকার । প্রথম দিন সকালে হাসপাতালে দেখতে এসে তিনি আবিষ্কার করেছিলেন , শিশু গাভাসকারের কানে একটা ছোট্ট ফুটো আছে । সুনীলের মায়ের পাশে যে বাচ্চাটি ছিল , সেটা আসলে সুনীল নয় , সেটা নারায়ণ কাকা বুঝতে পেরেছিলেন । কারণ তার কানে কোনো ফুটো ছিল না । খোঁজাখুঁজি শুরু হল । এক দোলনার পাশে পরম নিশ্চিত্তে শুয়ে আছেন সুনীল , বাচ্চাদের স্নান করানোর সময় গোলমালটা হয়েছিল ।

সুনীল গাভাস্কার এর শৈশবকাল – Sunil Gavaskar Childhood :

 পরিণত বয়সে এই ঘটনাটার কথা বারবার ভেবেছেন সুনীল । সুনীলের বাবা মনোহর গাভাসকার ছিলেন নামকরা ক্লাব ক্রিকেটার । ছেলের উন্নতির পেছনে তার অবদানের কথা আমরা কখনো ভুলতে পারব না । তাঁর কাকা মাধব মন্ত্রীর নাম অনেকেই জানেন । তিনি ভারতের হয়ে গোটা চারেক টেস্ট ম্যাচে অংশ নিয়েছিলেন । বলা যায় সুনীলের চারপাশে ছিল ক্রিকেটের বাতাবরণ । তার মাও উৎসাহ জুগিয়েছেন । কিন্তু একবার মায়ের সঙ্গে খেলতে গিয়ে একটা মস্ত বড়ো দুর্ঘটনা ঘটে গেল । টেনিস বল দিয়ে তাঁর মা মীনা গাভাসকার বল করছিলেন । হাঁটু গেড়ে বসেই বল করতে হচ্ছিল তাকে । একটা বল হাঁকাতেই লাগল মায়ের নাকে । নাক দিয়ে রক্ত বের হতে লাগলো । মা কিন্তু সেদিন এতটুকুও বকেননি । বেসিনে নাক ধুয়ে আবার খেলা শুরু করলেন । মার এই সাহস দেখে সেদিনের ছোটো শিশু সুনীল অবাক হয়ে গিয়েছিলেন । 

সুনীল গাভাস্কার এর শিক্ষাজীবন – Sunil Gavaskar Education Life :

 কাকা মাধব মন্ত্রীর বাড়িতে গেলে সুনীল অবাক হয়ে যেতেন । কাকার আলমারীতে এত পদক , তিনি ভাবতেন , কবে আমি এইসব পদকগুলো জিততে পারব ? একদিন কাকার কাছে বললেন “ তোমার তো অনেকগুলো পুলওভার আছে , আমাকে একটা দেবে ? ” কাকা বলেছিলেন “ অনেক ঘাম ঝরিয়ে ইন্ডিয়া কালার অর্জন করেছি । তুমিও পাবে , যদি আমার মতো পরিশ্রম করতে পারো । ” শুরু হল সুনীলের একক লড়াই । আউট হতে ভীষণ অনীহা ছিল তার । ঘন্টার পর ঘণ্টা পিচ কামড়ে পড়ে থাকতেন । ভরতি হলেন সেন্ট জেভিয়ার্স স্কুলে । স্কুলের পড়াশুনার মধ্যেও তিনি ক্রিকেট খেলতেন । স্কুলের সিনিয়ার টিম তখন অত্যন্ত শক্তিশালী । জুনিয়ারদের দল থেকে সিনিয়ারদের গ্রুপে উঠে হ্যারিস শিল্ডে খেলতে হবে এটাই ছিল কিশোর সুনীলের একমাত্র স্বপ্ন ।

 বাবার সাথে পরিচয় ছিল বিখ্যাত কোচ কমল ভ্যানভারগর্বের । তিনি সুনীলকে কমলের হাতে সঁপে দিলেন । এবার হ্যারিস শিল্ডে খেলার সুযোগটা জুটে গেল । মিলান রেগে নামে এক খেলোয়াড় বসন্ত রোগে আক্রান্ত হলেন । ফাইনালে এগার নম্বরে ব্যাট করার সুযোগ পেলেন সুনীল । নট আউট থাকলেন ৩০ রানে । পরের দিন খবরের কাগজের পাতায় নিজের নাম দেখে অবাক হয়ে গেলেন সুনীল গাভাসকার । 

 বোম্বাই দলে জায়গা পেয়েও বাদ গেলেন বাজে ফিল্ডিং – এর কারণে । এই বাদ পড়াটা হয়তো তাঁর কাছে আশীর্বাদ হয়ে দাঁড়িয়েছিল । সুনীল বুঝতে পারলেন , শুধু ব্যাট করলেই চলবে না , ক্লোজিং পজিশনে ফিল্ডিং করতে হবে । আরও বেশি করে কনসেনট্রেশন করতেই হবে ।

সুনীল গাভাস্কার এর ক্রিকেটারের সন্মান :

 ধীরে ধীরে সুনীল স্কুল পর্যায়ে এক বিখ্যাত ক্রিকেটার হয়ে উঠলেন । ভারত সফররত ইংল্যান্ড স্কুলের বিরুদ্ধে ভারতীয় দলে সুযোগ পেলেন । বেস্ট স্কুল ক্রিকেটারের সম্মান এল তার ঝুলিতে । এটাই হল তাঁর প্রথম পুরস্কার ।

সুনীল গাভাস্কার এর ইংল্যান্ড স্কুলের বিরুদ্ধে খেলা – Sunil Gavaskar Playing Against England School Team :

 ইংল্যান্ডের স্কুলের বিরুদ্ধে খেলতে নেমে করলেন ১১৬ রান । ওই ম্যাচে তাঁর উরুতে বেস জোরে বল লেগে ছিল । তিনি কিন্তু তখন থাইপ্যাড পরতেন না । বিপক্ষ দলের ক্যাপ্টেন বারবার বোলারকে বললেন – -ওখানে আবার মারো । শব্দটি কানে যাবার সঙ্গে সঙ্গে সুনীল খেপে গেলেন । শারীরিক আঘাতকে তুচ্ছ করে বাউন্ডারি হুকিয়ে দিলেন । 

[আরও দেখুন, সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের জীবনী – Sourav Ganguly Biography in Bengali]

সুনীল গাভাস্কার এর টেস্ট ম্যাচ ও শতরান :

 ৫ টির মধ্যে ৪ টি টেস্টে সুনীল ৩০৯ রান করেছিলেন । এবার এলেন সেন্ট জেভিয়ার্স কলেজে । বোম্বাই বিশ্ববিদ্যালয়ের হয়ে মাঠে নামলেন । দুটি ম্যাচে সেঞ্চুরি হাঁকালেন । এবার বোধহয় টেস্টের দরজা খুলে যাবে । তার আগে রনজি ট্রফির কথা শুনে নেওয়া যাক । রনজি ট্রফিতে মাহিশোরের বিরুদ্ধে খেলতে নামলেন । কিন্তু ৫ টা বল খেলার পর শূন্য রানে আউট হয়ে গেলেন । আবার নতুন করে শুরু হল অনুশীলন ৷ পরের ম্যাচে রাজস্থানের বিরুদ্ধে সুনীল করলেন ১১৪ রান । এটাই হল প্রথম শ্রেণীর ম্যাচে তার প্রথম শতরান। 

সুনীল গাভাস্কার এর ভারতীয় ক্রিকেট দলে প্রবেশ – Sunil Gavaskar Selected for Indian Team :

 এবার ভারতীয় টেস্ট দলে ঢুকতে হবে । অবশেষে সেই স্বপ্ন সফল হল সুনীল মনোহর গাভাসকারের । ১৯৭১ সালে বহু আকাঙ্খিত ইন্ডিয়া ক্যাপ মাথায় পরলেন । আবির্ভাব সিরিজেই ৭৭৪ রান করে বিশ্বরেকর্ড করলেন । টেস্টের উভয় ইনিংসে ৩ বার শতরান করে বিশ্বরেকর্ড করেছেন । এক ক্যালেন্ডার বছরে চার – চারবার এক হাজার রান করেছেন । এছাড়া সুনীল হলেন ক্যারিং দ্য ব্যাটের একমাত্র নজির । অর্থাৎ ওপেন করে শেষ পর্যন্ত অপরাজিত ছিলেন । ১৯৮২ ৮৩ সালে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ফৈজলাবাদে । ক্রিকেট বিষয় নিয়ে বেশ কয়েকটি বই লিখেছেন — সানি ডেজ , আইডলস , রানস অ্যান্ড রুইনস , ওয়ান ডে ওয়ান্ডারস । 

[আরও দেখুন, শচীন টেন্ডুলকারের জীবনী – Sachin Tendulkar Biography in Bengali]

সুনীল গাভাস্কার এর সন্মান ও পুরস্কার – Sunil Gavaskar Honour and Prizes :

 ক্রিকেটে ‘ লিটল মাস্টার ‘ হিসাবে খ্যাত সুনীল গাভাসকার উইজডেন সম্মান লাভ করেন ১৯৮০ সালে এবং পদ্মভূষণ হন ১৯৮০ সালে । অর্জুন পুরস্কার লাভ করেন ১৯৭৫ সালে । সুনীল গাভাসকার ১৯৮৭ সালে ক্রিকেট খেলা থেকে অবসর গ্রহণ করেন , সুনীল গাভাস্কার (Sunil Gavaskar) বর্তমানে ক্রিকেট ভাষ্যকার হিসাবে নিজেকে ক্রিকেট জগতের সঙ্গে ব্যাপৃত রেখেছেন । ২০১০ সালে স্যার ডন ব্রাডম্যান সম্মান পেয়েছেন সুনীল গাভাসকার । এখনও পর্যন্ত শুধু অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটাররাই এই সম্মান পেয়েছেন । অস্ট্রেলিয়ার বাইরে গাভাসকরই প্রথম ক্রিকেটার যিনি এই বিরল সম্মানে সম্মানিত হয়েছেন । এই পুরস্কারের মানপত্রে বলা হয়েছে স্যার ডন ব্রাডম্যানের সাহস , সততা , নম্রতা ও দৃঢ়তার উত্তরাধিকারী হলেন সুনীলমনোহর গাভাসকার । ২০ শে অক্টোবর ২০১০ সিডনিতে তার হাতে মানপত্র তুলে দেওয়া হয় । সুনীল গাভাস্কার (Sunil Gavaskar) ক্রিকেট খেলা থেকে অবসর নিলেও ক্রিকেটের ইতিহাসে তার নাম স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে । সুনীল গাভাস্কার (Sunil Gavaskar) ক্রিকেট ক্রীড়ামোদীদের কাছে স্মরণীয় ব্যক্তিত্ব হিসাবে অমর হয়ে থাকবেন ।

সুনীল গাভাস্কার এর জীবনী – Sunil Gavaskar Biography in Bengali FAQ :

  1. সুনীল গাভাস্কার কে ?

Ans: সুনীল গাভাস্কার হলেন ভারতের প্রাক্তন ক্রিকেটার।

  1. সুনীল গাভাস্কার এর জন্ম কোথায় হয় ?

Ans: সুনীল গাভাস্কার এর জন্ম হয় বোম্বাই এ ।

  1. কবে সুনীল গাভাস্কার জন্মগ্রহণ করেন ?

Ans: ১০ জুলাই ১৯৪৯ সালে সুনীল গাভাস্কার জন্মগ্রহণ করেন ।

  1. সুনীল গাভাস্কার এর পিতার নাম কী ?

Ans: সুনীল গাভাস্কার এর পিতার নাম মনোহর গাভাস্কার ।

  1. সুনীল গাভাস্কার প্রথম টেস্ট কার বিরুদ্ধে খেলেন ?

Ans: সুনীল গাভাস্কার প্রথম টেস্ট ওয়েস্ট ইন্ডিজ এর বিরুদ্ধে খেলেন ।

  1. সুনীল গাভাস্কার শেষ টেস্ট কার বিরুদ্ধে খেলেন ?

Ans: সুনীল গাভাস্কার শেষ টেস্ট পাকিস্তান বিরুদ্ধে খেলেন ।

  1. সুনীল গাভাস্কার কবে অর্জুন পুরস্কার পান ?

Ans: সুনীল গাভাস্কার ১৯৭৫ সালে অর্জুন পুরস্কার পান।

  1. সুনীল গাভাস্কার কবে পদ্মভূষণ পান ?

Ans: সুনীল গাভাস্কার ১৯৮০ সালে পদ্মভূষণ পান ।

  1. সুনীল গাভাস্কার এর নেতৃত্বে ভারত কবে এশিয়া কাপ জিতেন ?

Ans: সুনীল গাভাস্কার এর নেতৃত্বে ভারত ১৯৮৫ সালে এশিয়া কাপ জিতেন ।

[আরও দেখুন, মিলখা সিং এর জীবনী – Milkha Singh Biography in Bengali

আরও দেখুন, মারাদোনা এর জীবনী – Diego Maradona Biography in Bengali

আরও দেখুন, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর জীবনী – Rabindranath Tagore Biography in Bengali

আরও দেখুন, ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর জীবনী – Ishwar Chandra Vidyasagar Biography in Bengali

আরও দেখুন, ইমরান খানের জীবনী – Imran Khan Biography in Bengali]

সুনীল গাভাস্কার এর জীবনী – Sunil Gavaskar Biography in Bengali

   অসংখ্য ধন্যবাদ সময় করে আমাদের এই ” সুনীল গাভাস্কার এর জীবনী – Sunil Gavaskar Biography in Bengali  ” পােস্টটি পড়ার জন্য। সুনীল গাভাস্কার এর জীবনী – Sunil Gavaskar Biography in Bengali পড়ে কেমন লাগলো কমেন্টে জানাও। আশা করি এই সুনীল গাভাস্কার এর জীবনী – Sunil Gavaskar Biography in Bengali পোস্টটি থেকে উপকৃত হবে। এই ভাবেই BhugolShiksha.com ওয়েবসাইটের পাশে থাকো যেকোনো প্ৰশ্ন উত্তর জানতে এই ওয়েবসাইট টি ফলাে করো এবং নিজেকে  তথ্য সমৃদ্ধ করে তোলো , ধন্যবাদ।

Subscribe Our YouTube Channel

Join Our Telegram Channel

E-mail Subscription