বিপিনচন্দ্র পালের জীবনী – Bipin Chandra Paul Biography in Bengali

3
বিপিনচন্দ্র পালের জীবনী - Bipin Chandra Paul Biography in Bengali
বিপিনচন্দ্র পালের জীবনী - Bipin Chandra Paul Biography in Bengali

বিপিনচন্দ্র পালের জীবনী

Bipin Chandra Paul Biography in Bengali

বিপিনচন্দ্র পালের জীবনী – Bipin Chandra Paul Biography in Bengali : ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামের অন্যতম সেনানী বিপিনচন্দ্র পাল । বিপিনচন্দ্র পাল (Bipin Chandra Paul) এর জীবন নানা বিচিত্র ঘটনার আবর্তে ঘনীভূত । কখনও বিপিনচন্দ্র পাল (Bipin Chandra Paul) এক নেতা হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছেন । কখনও দেখা দিয়েছেন বাগ্মী হিসেবে । সাহিত্য সাধনার ক্ষেত্রেও আত্মনিয়ােগ করেছিলেন । বেশ কিছু দিন শুধুমাত্র সৃজনশীল লেখনীতে নিবেদিত ছিলেন বিপিনচন্দ্র পাল (Bipin Chandra Paul) । ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামের চরমপন্থী ত্রয়ী লাল – বাল – পালের অন্যতম বিপিনচন্দ্র ভারতীয় রাজনীতিতে আধুনিক চিন্তাধারা ও যুক্তিনির্ভর দৃষ্টিভঙ্গির সূচনা করেছিলেন ।

 দেশনায়ক বিপিনচন্দ্র পাল এর একটি সংক্ষিপ্ত জীবনী । বিপিনচন্দ্র পাল এর জীবনী – Bipin Chandra Paul Biography in Bengali বা বিপিনচন্দ্র পাল এর আত্মজীবনী বা (Bipin Chandra Paul Jivani Bangla. A short biography of Bipin Chandra Paul. Bipin Chandra Paul Birth, Place, Life Story, Life History, Biography in Bengali) বিপিনচন্দ্র পাল এর জীবন রচনা সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো।

বিপিনচন্দ্র পাল কে ছিলেন ? Who is Bipin Chandra Paul ?

বিপিনচন্দ্র পাল (Bipin Chandra Paul) প্রখ্যাত বাঙালি বাগ্মী, রাজনীতিবিদ, সাংবাদিক ও লেখক। ব্রিটিশ সরকারের বিরুদ্ধে বিপিনচন্দ্র পাল (Bipin Chandra Paul) অনলবর্ষী বক্তৃতা দিতেন, বিপিনচন্দ্র পাল (Bipin Chandra Paul) এর আহ্বানে হাজার হাজার যুবক স্বাধীনতা সংগ্রামে ঝাঁপিয়ে পড়ে।

দেশনায়ক বিপিনচন্দ্র পালের জীবনী – Bipin Chandra Paul Biography in Bengali :

নাম (Name) বিপিনচন্দ্র পাল (Bipin Chandra Paul)
জন্ম (Birthday) ৭ নভেম্বর ১৮৫৮ (7th November 1858)
জন্মস্থান (Birthplace) পইল গ্রাম, হবিগঞ্জ জেলা, ব্রিটিশ ভারত (অধুনা বাংলাদেশ)
অভিভাবক (Parents)/পিতামাতা রামচন্দ্র পাল (পিতা)
প্রতিষ্ঠান  ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস, ব্রাহ্মসমাজ
আন্দোলন  ভারতের স্বাধীনতা আন্দোলন
মৃত্যু (Death) ২০ মে ১৯৩২ (20th May 1932)

বিপিনচন্দ্র পালের জন্ম – Bipin Chandra Paul Birthday :

 বিপিনচন্দ্র পাল (Bipin Chandra Paul) এর জন্ম শ্রীহট্ট জেলায় , ১৮৫৮ খ্রিস্টাব্দের ৭ ই নভেম্বর । পিতার নাম রামচন্দ্র পাল । বিপিনচন্দ্র পাল (Bipin Chandra Paul) শিক্ষিত মধ্যবিত্ত পরিবারে সাংস্কৃতিক পরিমন্ডলের বাতাবরণের মধ্যে বড়াে হয়ে উঠেছিলেন ।

বিপিনচন্দ্র পালের শৈশবকাল – Bipin Chandra Paul Childhood :

 বিপিন পাল ছােটো থেকেই বােধহয় তাই এমন সুস্নাত ব্যক্তিত্বের অধিকারী হতে পেরেছিলেন । ছােটোবেলায় মৌলবীর কাছে পড়াশুনা করেছেন । পরে ভর্তি হলেন উচ্চ ইংরাজি বিদ্যালয়ে । পড়াশুনার গ্রন্থকীট ছিলেন বলা যায় , বিভিন্ন মনীষীর লেখা গ্রন্থ পাঠ করতে ভালােবাসতেন । বালক সুলভ খেলাধুলাের প্রতি বিন্দুমাত্র আকর্ষণ ছিল না । সবসময় ঘরের ভেতর নিজেকে বন্দী রাখতেন । বইয়ের পাতায় ডুবে থাকতেন অসম্ভব মেধা শক্তি ছিল বিপিনচন্দ্র । একবার যা পড়তেন সারা জীবন তা মনে রাখার চেষ্টা করতেন । ভালােবাসতেন বিভিন্ন সাহিত্যিকদের লেখা পড়তে বিশেষ করে বিপিনচন্দ্র পাল (Bipin Chandra Paul) ইংরাজি সাহিত্য জগতে প্রবেশের জন্য ছটফট করতেন । 

বিপিনচন্দ্র পালের শিক্ষাজীবন – Bipin Chandra Paul Education Life :

বিপিনচন্দ্র পাল (Bipin Chandra Paul) প্রবেশিকা পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলেন স্কলারশিপ লাভ করলেন । এবার এলেন শহর কলকাতায় ভর্তি হলেন বিশ্ববিখ্যাত প্রেসিডেন্সি কলেজে । সেখানে দু’বছর পড়াশুনা করেছিলেন চার্চ মিশনারী সােসাইটিতে একবছর পড়াশুনা করেন । গণিতে অসম্ভবভীতিবালয় আই এ পরীক্ষায় পাশ করতে পারেন নি ।

বিপিন চন্দ্র পালের কলকাতায় আসা – Bipin Chandra Paul Visit Kolkata :

বিপিনচন্দ্র পাল (Bipin Chandra Paul) কলকাতায় এসে জড়িয়ে পড়লেন সাংস্কৃতিক আন্দোলনের সঙ্গে । তখন এখানে সংস্কারপন্থী ব্রাহ্ম আন্দোলন ক্রমশ জোরদার হয়ে উঠছে । ব্রাহ্মধর্মীয় নেতারা হিন্দু পৌত্তলিকতাবাদকে তীব্রভাবে আক্রমণ করছেন । হিন্দুধর্মের নানা কুসংস্কারকে চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিচ্ছে বিপিনচন্দ্র এই ধর্মের প্রতি আকৃষ্ট হলেন।

বিপিনচন্দ্র পালের কর্মজীবন – Bipin Chandra Paul Work Life :

 ১৮৭৭ সালে শিবনাথ শাস্ত্রীর কাছে ব্রাহ্মধর্মে দীক্ষা নিলেন । এরজন্য তাকে চরম শাস্তি ভােগ করতে হয়েছিল । পিতা তাকে ত্যাজ্যপুত্র ঘােষণা করলেন । একুশ বছর বয়েসে দৃঢ়চেতা বিপিনচন্দ্রের কর্মজীবন শুরু হল এলেন কটকে । একটি স্কুলে প্রধান শিক্ষকের কাজ গ্রহণ করলেন । কর্তৃপক্ষের সঙ্গে মত পার্থক্য দেখা দিল স্বাধীনচেতা বিপিনচন্দ্র চাকরি ছেড়ে দিলেন শ্রীহট্ট , কলকাতা , ব্যাঙ্গালাের , বিভিন্ন বিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করলেন ।

 ইতিমধ্যে তিনি রাজনৈতিক আবর্তে জড়িয়ে পড়েছেন । জাতীয় মহাসমিতির তৃতীয় অধিবেশন ডাকা হল মাদ্রাজ শহরে ১৮৮৭ খ্রিস্টাব্দে । বিপিনচন্দ্র প্রতিনিধি হিসেবে উপস্থিত থেকে অস্ত্র আইন প্রত্যাহারের দাবী সমর্থন করে বক্তৃতা দিলেন ।

বিপিনচন্দ্র পালের ইংরেজি পত্রিকা সম্পাদনা – Bipin Chandra Paul English Magazine :

 ১৮৯৮ সালে বৃত্তি পেয়ে বিলেত গিয়ে এক বছর অক্সফোর্ডে থেকে তুলনামূলক ধর্মতত্ত্ব নিয়ে পড়াশুনা করলেন । ১৯০১ সালে ভারতে ফিরে এসে নিউ’ইন্ডিয়া নামে একটি ইংরাজি পত্রিকা সম্পাদনা করতে থাকলেন ।

বিপিনচন্দ্র পালের স্বাধীনতা আন্দোলন ও লাল বাল পাল – Bipin Chandra Paul Freedom Movement And Lal Bal Paul :

 বিপিনচন্দ্র সশস্ত্রবাদী আন্দোলনের প্রতি তার আনুগত্য ও ভালােবাসা দেখিয়েছিলেন । তখন দেশে জাতীয় আন্দোলন নতুন পথে এগিয়ে চলেছে । এলেন রাষ্ট্রগুরু সুরেন্দ্রনাথ । তিনি ছিলেন বিপিনচন্দ্রের দীক্ষা গুরু । বিপিনচন্দ্র বৈপ্লবিক সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত হলেন । বাংলাদেশে এবং মহারাষ্ট্রে স্থাপিত হল একাধিক গুপ্ত সমিতি । বঙ্গভঙ্গের প্রতিবাদে দেশ জুড়ে বিপ্লবের সৃষ্টি হল । বিপিন পাল এই আন্দোলনে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন । তিনি জ্বালাময়ী ভাষায় ভাষণ দিতেন । সর্বত্র দেখা দিল যুদ্ধের উন্মাদনা । শুরু হল জনসভা , মিছিল এবং বিলাতি কাপড়ে বহ্নি উৎসব । ইংরাজ সরকার শুরু করল দমন এবং পীড়নের মধ্য দিয়ে । আন্দোলনকে বানচাল করার চেষ্টা করা রাজনৈতিক মতবাদের দিক থেকে বিপিনচন্দ্র ছিলেন পরিপূর্ণ স্বরাজবাদী । তিনি বয়কট আন্দোলনের অন্যতম প্রবর্তক ছিলেন । তার সাথে যােগ দিয়েছিলেন পাঞ্জাবের লালা লাজপত রায় এবং মহারাষ্ট্রের বালগঙ্গাধর তিলক । তাদের তিনজনকে বলা হত লাল বাল – পাল ।

[আরও দেখুন, মহাত্মা গান্ধীর জীবনী – Mahatma Gandhi Biography in Bengali]

বিপিনচন্দ্র পাল বন্দেমাতরম পত্রিকা সম্পাদক – Bipin Chandra Paul Head Member Of Vandematram Magazine :

 এই লাল – বাল – পাল পরিচালিত চরমপন্থী দলের নেতৃত্ব গ্রহণ করেছিলেন শ্রীঅরবিন্দ । বিপিনচন্দ্র চরমপন্থীদের মুখপত্র ‘ বন্দেমাতরম ’ পত্রিকার সম্পাদক নিযুক্ত হলেন । পুলিশ তার ওপর তীক্ষ্ণ নজর রেখেছিলেন । মুরারিপুকুর বাগানে বােমার কারখানা । আবিষ্কৃত হল অরবিন্দ গ্রেপ্তার হলেন । তার বিরুদ্ধে রাজদ্রোহিতার মামলা দায়ের করা হল । বিপিনচন্দ্র সাক্ষীর কাঠগড়ায় দাঁড়িয়ে । মৌনতা অবলম্বন করলেন । আদালত অবমাননার দায়ে কারাদন্ড ভােগ করতে হল তাকে ।

 যােগ দিলেন তমলুক গঠনের আন্দোলনে । গান্ধীজির অসহযােগ আন্দোলনের বিরােধিতা করলেন । এরপর বিপিনচন্দ্র সক্রিয় রাজনীতি থেকে অবসর গ্রহন করেন।

বিপিন চন্দ্র পালের গ্রন্থাবলী – Bipin Chandra Paul Books :

 বিপিনচন্দ্রের প্রতিভা ছিল সর্বতােমুখী । ধর্ম অথবা ইতিহাস , সমাজবিজ্ঞান , সাহিত্য সর্বত্র ছিল তার অনায়াস বিচরণ । ১৯১২ সাল থেকে ১৯১৫ সাল পর্যন্ত লেখাই ছিল তার মুখ্য কাজ । তার লিখিত গ্রন্থাবলী হল ‘ ভারত সীমান্তে রুশ ’ , ‘ মহারাণী ভিক্টোরিয়ার জীবনী ’ , ‘ শােভনা ’ , ‘ নবযুগের বাংলা ’ , ‘ সত্তর বৎসর ’ , ‘ চরিত্র চিত্র ‘ , ‘ সাহিত্য ও সাধনা ’ , ‘ রাষ্ট্রনীতি ’ , ‘ মার্কিনে চারমাস ‘ । 

[আরও দেখুন, চিত্তরঞ্জন দাসের জীবনী – Chittaranjan Das Biography in Bengali]

বিপিনচন্দ্র পালের ইংরেজি বই – Bipin Chandra Paul English Books :

 এছাড়া বেশ কিছু ইংরাজি বই লিখেছেন বিপিনচন্দ্র পাল (Bipin Chandra Paul) । যেমন Indian Nationalism , Nationality and Empire , Swaraj and the present situation , The Basis of Social Reform , The Soul of India প্রভৃতি । বেশ কয়েকটি পত্রিকা সম্পাদনা করেছেন যেমন , পরিদর্শক , দি হিন্দু রিভিউ , দি ডেমােক্রাট , দি ইনডিপেনডেন্ট।

বিপিনচন্দ্র পালের মৃত্যু – Bipin Chandra Paul Death :

 ১৯৩২ সালের ২০ শে মে বিপিনচন্দ্র শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন । বিপিনচন্দ্র পালকে আমরা শুধুমাত্র এক বিপ্লবী হিসেবে চিহ্নিত করব না । বিপিনচন্দ্র পাল (Bipin Chandra Paul) ছিলেন মহান সংগঠক । বিপিন পালের ঐকান্তিক ইচ্ছা ছিল ভারতের সাধারণ মানুষের মধ্যে জনচেতনা জাগিয়ে তােলা । মানুষ যদি তত্ত্বগতভাবে বিপ্লবের কারণ উপলব্ধি করতে না পারে , তাহলে বিপ্লব কখনােই সৰ্ব্বাত্মক হতে পারে না । তাৎক্ষণিক আবেগ দ্বারা উদ্বুদ্ধ হয়ে বিপ্লবে অংশগ্রহণ করা যায় , কিন্তু সেই বিপ্লব স্বাভাবিক স্ফুরণ নয় । তাই বিপিনচন্দ্র পালকে আমরা একজন বিপ্লবী এবং দক্ষ সংগঠক হিসেবে চিহ্নিত করেছি ।

বিপিনচন্দ্র পালের জীবনী (প্রশ্ন ও উত্তর) – Bipin Chandra Paul Biography in Bengali (FAQ):

  1. বিপিনচন্দ্র পালের জন্ম কবে হয় ?

Ans: বিপিনচন্দ্র পালের জন্ম হয় ৭ নভেম্বর ১৮৫৮ সালে ।

  1. বিপিনচন্দ্র পালের পিতার নাম কী ?

Ans: বিপিনচন্দ্র পালের পিতার নাম রামচন্দ্র পাল ।

  1. বিপিনচন্দ্র কত সালে অক্সফোর্ড পড়তে যান ?

Ans: বিপিনচন্দ্র ১৮৯৮ সালে অক্সফোর্ড পড়তে যান ।

  1. বিপিনচন্দ্র পালের গ্রন্থাবলীর নাম কী ?

Ans: বিপিনচন্দ্র পালের গ্রন্থাবলীর নাম ‘ ভারত সীমান্তে রুশ ’ , ‘ মহারাণী ভিক্টোরিয়ার জীবনী ’ , ‘ শােভনা ’ , ‘ নবযুগের বাংলা ’ , ‘ সত্তর বৎসর ’ ।

  1. বিপিনচন্দ্র কোথায় জন্মগ্রহণ করেন ?

Ans: বিপিনচন্দ্র জন্মগ্রহণ করেন পইল গ্রাম, হবিগঞ্জ জেলা।

  1. বিপিন চন্দ্র পালের ইংরেজি বইটির নাম কী ?

Ans: বিপিন চন্দ্র পালের ইংরেজি বইটির নাম Indian Nationalism , Nationality and Empire , ইত্যাদি ।

  1. বিপিনচন্দ্র পাল কে ছিলেন ?

Ans: বিপিনচন্দ্র পাল ছিলেন ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামী ।

  1. বিপিনচন্দ্র পালের মৃত্যু কবে হয় ? 

Ans: বিপিনচন্দ্র পালের মৃত্যু হয় ১৯৩২ সলের ২৯ মে।

[আরও দেখুন, সূর্য সেনের জীবনী – Surya Sen Biography in Bengali

আরও দেখুন, জহরলাল নেহেরু জীবনী – Jawaharlal Nehru Biography in Bengali

আরও দেখুন, বাল গঙ্গাধর তিলকের জীবনী – Bal Gangadhar Tilak Biography in Bengali

আরও দেখুন, শ্রী অরবিন্দ এর জীবনী – Sri Aurobindo Biography in Bengali

আরও দেখুন, ক্ষুদিরাম বসুর জীবনী – Khudiram Bose Biography in Bengali]

বিপিনচন্দ্র পাল এর জীবনী – Bipin Chandra Paul Biography in Bengali

   অসংখ্য ধন্যবাদ সময় করে আমাদের এই ” বিপিনচন্দ্র পাল এর জীবনী – Bipin Chandra Paul Biography in Bengali  ” পােস্টটি পড়ার জন্য। বিপিনচন্দ্র পাল এর জীবনী – Bipin Chandra Paul Biography in Bengali পড়ে কেমন লাগলো কমেন্টে জানাও। আশা করি এই বিপিনচন্দ্র পাল এর জীবনী – Bipin Chandra Paul Biography in Bengali পোস্টটি থেকে উপকৃত হবে। এই ভাবেই BhugolShiksha.com ওয়েবসাইটের পাশে থাকো যেকোনো প্ৰশ্ন উত্তর জানতে এই ওয়েবসাইট টি ফলাে করো এবং নিজেকে  তথ্য সমৃদ্ধ করে তোলো , ধন্যবাদ।