অতীশ দীপঙ্করের জীবনী - Atisa Dipankar Biography in Bengali
অতীশ দীপঙ্করের জীবনী - Atisa Dipankar Biography in Bengali

অতীশ দীপঙ্করের জীবনী

Atisa Dipankar Biography in Bengali

অতীশ দীপঙ্করের জীবনী – Atisa Dipankar Biography in Bengali : জ্ঞান তাপস অতীশ দীপঙ্কর শ্রীজ্ঞান শ্রীজ্ঞান অতীশ দীপঙ্কর তার অগাধ পাণ্ডিত্য , সুতীক্ষ্ম মনীষা এবং আধ্যাত্ম মহিমায় বঙ্গের মানুষের মনে চিরস্মরণীয় হয়ে আছেন । ধর্ম , দর্শন ও সাহিত্য ক্ষেত্রেও অতীশ দীপঙ্কর (Atisa Dipankar) এর অবদান অসামান্য ও বিস্ময়কর । শুধু বঙ্গদেশেই নয় , বিশ্বের সর্বশ্রেষ্ঠ মাত্র পাঁচজন জ্ঞানসাধকের নামও যদি করতে হয় , তবে অতীশ দীপঙ্কর (Atisa Dipankar) এর মধ্যে একজন অবশ্যই হবেন বাংলার কুলগৌরব অতীশ দীপঙ্কর শ্রীজ্ঞান । সেই প্রাচীন কাল থেকে আজও অতীশ দীপঙ্কর (Atisa Dipankar) এর জ্ঞান- তপস্যার ইতিহাস বাংলার বুকে অম্লান হয়ে আছে ।

  জ্ঞান তাপস অতীশ দীপঙ্কর এর একটি সংক্ষিপ্ত জীবনী । অতীশ দীপঙ্কর এর জীবনী – Atisa Dipankar Biography in Bengali বা অতীশ দীপঙ্কর এর আত্মজীবনী বা (Atisa Dipankar Jivani Bangla. A short biography of Atisa Dipankar. Atisa Dipankar Birth, Place, Life Story, Life History, Biography in Bengali) অতীশ দীপঙ্কর এর জীবন রচনা সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো।

অতীশ দীপঙ্কর কে ছিলেন ? Who is Atisa Dipankar ?

অতীশ দীপঙ্কর শ্রীজ্ঞান (Atisa Dipankar) হলেন একজন প্রখ্যাত পণ্ডিত যিনি পাল সাম্রাজ্যের আমলে একজন বৌদ্ধ ভিক্ষু এবং বৌদ্ধধর্মপ্রচারক ছিলেন।

জ্ঞান তাপস অতীশ দীপঙ্করের জীবনী – Atisa Dipankar Biography in Bengali :

নাম (Name) অতীশ দীপঙ্কর (Atisa Dipankar)
জন্ম (Birthday) ৯৮২ খ্রিস্টপূর্ব
জন্মস্থান (Birthplace) বিক্রমপুর (অধুনা বাংলাদেশ)
অভিভাবক (Parents)/পিতামাতা কল্যাণশ্রী (পিতা)

প্রভাবতী দেবী (মাতা)

উপাধি অতীশ

গুহ্যজ্ঞানবজ্র

ধর্ম বৌদ্ধ ধর্ম
জাতীয়তা বাঙালি
সন্তান পুণ্যশ্রী
পেশা বৌদ্ধ ভিক্ষু, ধর্মগুরু, শিক্ষক, পণ্ডিত, লেখক, দার্শনিক, বিতার্কিক, বাগ্মী
মৃত্যু (Death) ১০৫৪ খ্রিস্টপূর্ব

অতীশ দীপঙ্করের জন্ম – Atisa Dipankar Birthday :

 মহাজ্ঞানী অতীশ দীপঙ্কর (Atisa Dipankar) ৯৮০ খ্রীষ্টাব্দে মতান্তরে ৯৮২ খ্রীষ্টাব্দে বিক্রমপুর জেলার ব্রহ্মযোগী গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন ।

অতীশ দীপঙ্করের পিতামাতা – Atisa Dipankar Parents :

 অতীশ দীপঙ্কর (Atisa Dipankar) এর পিতা জমিদার ছিলেন । পিতার নাম কল্যাণশ্রী এবং মায়ের নাম প্রভাবতী ৷ অতীশ দীপঙ্করের পিতৃপ্রদত্ত নাম ‘ চন্দ্রগর্ভ ” ।

অতীশ দীপঙ্করের শৈশবকাল – Atisa Dipankar Childhood :

অতীশ দীপঙ্কর (Atisa Dipankar) শৈশব থেকেই অতীশ দীপঙ্কর অত্যন্ত মেধাবী ও জ্ঞানপিপাসু ছিলেন । জেতারী নামের এক পণ্ডিতের কাছে তিনি অল্পবয়সে হীনযান ও মহাযান মতের ত্রিপিটক , মাধ্যমিক এবং যোগাচার দর্শনের চতুষ্টয় ও অন্যান্য শাখায় জ্ঞানার্জন করেন । জ্ঞানার্জনের সাথে সাথে তাঁর জ্ঞানক্ষুধাও বৃদ্ধি পেতে থাকে । জ্ঞানতৃষ্ণা নিবারণের জন্য একদিন অতীশ দীপঙ্কর (Atisa Dipankar) গৃহত্যাগ করে পথে বের হয়ে পড়লেন । এলেন বিখ্যাত শাস্ত্রজ্ঞ পণ্ডিত কৃষ্ণগিরির রাহুল গুপ্তের কাছে । তার কাছে আধ্যাত্ম শিক্ষা লাভ করে গেলেন দন্ডপুরির মহাবিহারের মাহাচার্য শীল রক্ষিতের কাছে । এই রক্ষিতই চন্দ্রগৰ্ভকে বৌদ্ধ ধর্মে দীক্ষা দান করেন । 

অতীশ দীপঙ্করের অধ্যয়ন :

 তখন থেকেই তাঁর নাম হয় দীপঙ্কর শ্রীজ্ঞান । তখন তাঁর বয়স মাত্র উনিশ বছর । শুরু হয় তার জ্ঞানসাধনা । জ্ঞানসাধনার জন্য তিনি দেশত্যাগ করে চলে যান সুমাত্রায় । সেখানকার মহাজ্ঞানী মহাযোগী চন্দ্রকীর্তির কাছে তিনি অধ্যয়ন করেন দর্শনশাস্ত্র , অভিস্ময়ংলকার এবং বোধিচর্যার বহু গ্রন্থাদি । 

অতীশ দীপঙ্করের ধর্মপাল উপাধি – Atisa Dipankar Dharmapal Title :

 সুমাত্রা দ্বীপে তিনি সুদীর্ঘ বারো বছর জ্ঞানান্বেষণে অতিবাহিত করেন । তারপর ধর্মশাস্ত্র , এবং আধ্যাত্ম সাধনায় পরম পারদর্শিতা লাভ করে তেতাল্লিশ বছর বয়সে ফিরে আসেন প্রাচীন ভারতের মগধে । মগধের রাজা ও জনগণ তার অসাধারণ পান্ডিত্য দেখে মুগ্ধ হন এবং তাঁকে ‘ ধর্মপাল ’ উপাধিতে ভূষিত করেন । মগধের রাজা ন্যায়পাল দেব পরে অতীশ দীপঙ্করকে বিক্রমশীলা মহাবিহারের প্রধান আচার্যের পদে নিয়োগ করেন ।

 অতীশ দীপঙ্করের পান্ডিত্যের কথা , ধর্মীয় ও রাষ্ট্রীয় কাজে তাঁর দক্ষতার কথা এবং সুনাম ছড়িয়ে পড়তে থাকে নানাদিকে । মগধে অবস্থানকালেই বৌদ্ধধর্মকে পুনরুজ্জীবিত করার জন্য তাঁকে তিব্বতে যাবার আমন্ত্রণ জানিয়ে তিব্বত রাজ বিক্রমশীলায় দূত প্রেরণ করেন । এই সময়ে বৌদ্ধধর্মের খুব সঙ্কট চলছিলো । কিন্তু হাতে প্রচুর কাজ থাকায় তিনি তিব্বতে যেতে পারেননি সে সময়ে । তিব্বতরাজের দূত ফিরে গেলেন ব্যর্থমনোরথ হয়ে ।

 তিব্বত রাজ পরে নিজের বিদ্রোহী প্রজাদের হাতে নিহত হলে তাঁর পুত্র চুংছুপ তিব্বতের রাজা হন । তিনিও একদিন অতীশ দীপঙ্করকে তিব্বতে এসে বৌদ্ধধর্ম পুনরুজ্জীবিত করার আমন্ত্রণ জানালেন । অতীশ দীপঙ্কর এবারে তিব্বতে যেতে রাজি হলেন ।

[আরও দেখুন, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর জীবনী – Rabindranath Tagore Biography in Bengali]

অতীশ দীপঙ্করের ভট্টারক উপাধি – Atisa Dipankar Bhattarak Title :

 ১০৪০ সালে সুদীর্ঘ পর্বতসঙ্কুল পথ পাড়ি দিয়ে তিনি তিব্বতের গু – জে নামক প্রদেশে গিয়ে উপস্থিত হন । তখন সেখানে রাজকীয় অশ্বারোহী বাহিনী তাঁকে স্বাগত অভ্যর্থনা জানায় । স্বয়ং তিব্বত রাজও সেখানে উপস্থিত ছিলেন । পরে রাজপ্রাসাদে তাঁর পূর্ণাঙ্গ সম্বর্ধনা জানানো হয় । অতীশ দীপঙ্কর (Atisa Dipankar) এর অসাধারণ পান্ডিত্যের স্বীকৃতিস্বরূপ তাঁকে ‘ হো – বো – জে ’ অর্থাৎ ভট্টারক ’ উপাধি প্রদান করা হয় ।

অতীশ দীপঙ্করের তিব্বতে বৌদ্ধ ধর্ম প্রতিষ্ঠা – Atisa Dipankar Established Buddhism in Tibet :

 ১০৪২ সাল থেকে অতীশ দীপঙ্কর তিব্বতে বৌদ্ধধর্ম পুনঃপ্রতিষ্ঠার কাজ শুরু করেন । তিনি সারা তিব্বতের শহরে , গ্রামে গঞ্জে , ধর্মীয় পীঠস্থানে ধর্ম প্রচার কার্য চালাতে থাকেন । অতীশ দীপঙ্কর (Atisa Dipankar) এর বিপুল পান্ডিত্য ও অসাধারণ বাগ্মিতায় দেশের মানুষ মুগ্ধ হয়ে যায় এবং তারা হারানো বিশ্বাস ফিরে পেতে থাকে । 

 কথা ছিলো অতীশ দীপঙ্কর (Atisa Dipankar) তিব্বতে তিন বছর থাকবেন । কাজ শেষ করে আবার ফিরে আসবেন । কিন্তু তিব্বতে গিয়ে সেখানকার মানুষজনকে এমনভাবে ভালোবেসেছিলেন যে , তিব্বতীয়রা তাঁকে এমন শ্রদ্ধার আসনে বসিয়েছিলো যে , অতীশ দীপঙ্কর (Atisa Dipankar) আর সেসব ছেড়ে দেশে ফিরতে পারেন নি । 

 অতীশ দীপঙ্কর লামা ধর্মের প্রবর্তক হওয়া সত্ত্বেও তিনি কখনো লামা উপাধি গ্রহণ করেননি । 

[আরও দেখুন, শ্রীরামকৃষ্ণ এর জীবনী – Ramakrishna Biography in Bengali]

অতীশ দীপঙ্করের গ্রন্থ – Atisa Dipankar Books :

 বৌদ্ধধর্মের অনেক গ্রন্থ দীপঙ্কর তিব্বতি ভাষায় অনুবাদ করেন । তার রচিত ও অনূদিত গ্রন্থের সংখ্যা প্রায় দুই শতাধিক । অতীশ দীপঙ্কর (Atisa Dipankar) সহজ সরল সুললিত ভাষায় বৌদ্ধ ধর্মের সুগভীর দার্শনিক তত্ত্বগুলি বিশ্লেষণ ও প্রচার করে সকলের শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা লাভ করেন । 

অতীশ দীপঙ্করের মৃত্যু – Atisa Dipankar Death :

 ১০৫৪ সালে তিব্বতের ন্যাথাং বিহারেই মহাজ্ঞানী অতীশ দীপঙ্কর প্রায় ৭৪ বছর বয়সে মহাপ্রয়ান করেন । ১৯৭৮ সালে চীনে রক্ষিত তাঁর চিতাভস্ম বাংলাদেশে এনে কমলাপুর বৌদ্ধবিহারে রাখা হয়েছে ।

অতীশ দীপঙ্করের জীবনী – Atisa Dipankar Biography in Bengali FAQ :

  1. অতীশ দীপঙ্কর কে ছিলেন ?

Ans: অতীশ দীপঙ্কর ছিলেন একজন প্রখ্যাত পণ্ডিত যিনি পাল সাম্রাজ্যের আমলে একজন বৌদ্ধ ভিক্ষু এবং বৌদ্ধধর্মপ্রচারক ছিলেন ।

  1. অতীশ দীপঙ্করের জন্ম কোথায় হয় ?

Ans: অতীশ দীপঙ্করের জন্ম কোথায় বিক্রমপুরে ।

  1. অতীশ দীপঙ্কর কবে জন্মগ্রহণ করেন ?

Ans: অতীশ দীপঙ্কর জন্মগ্রহণ করেন ৯৮২ খ্রিস্টপূর্ব।

  1. অতীশ দীপঙ্করের পিতার নাম কী ?

Ans: অতীশ দীপঙ্করের পিতার নাম কল্যাণশ্রী ।

  1. অতীশ দীপঙ্করের মাতার নাম কী ?

Ans: অতীশ দীপঙ্করের মাতার নাম প্রভাবতী দেবী ।

  1. অতীশ দীপঙ্করের গ্রন্থের সংখ্যা কত ?

Ans: অতীশ দীপঙ্করের গ্রন্থের সংখ্যা প্রায় দুই শতাধিক ।

  1. অতীশ দীপঙ্করের সন্তানের নাম কী ?

Ans: অতীশ দীপঙ্করের সন্তানের নাম পুণ্যশ্রী ।

  1. অতীশ দীপঙ্কর তার গ্রন্থ কোন ভাষায় অনুবাদ করেন ?

Ans: অতীশ দীপঙ্কর তার গ্রন্থ কোন ভাষায় অনুবাদ করেন ।

  1. অতীশ দীপঙ্কর কবে মারা যান ?

Ans: অতীশ দীপঙ্কর মারা যান ১০৫৪ সালে ।

[আরও দেখুন, গৌতম বুদ্ধের জীবনী – Gautam Buddha Biography in Bengali

আরও দেখুন, ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর জীবনী – Ishwar Chandra Vidyasagar Biography in Bengali

আরও দেখুন, স্বামী বিবেকানন্দ এর জীবনী – Swami Vivekananda Biography in Bengali

আরও দেখুন, সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের জীবনী – Sourav Ganguly Biography in Bengali

আরও দেখুন, শচীন টেন্ডুলকারের জীবনী – Sachin Tendulkar Biography in Bengali]

অতীশ দীপঙ্কর এর জীবনী – Atisa Dipankar Biography in Bengali

   অসংখ্য ধন্যবাদ সময় করে আমাদের এই ” অতীশ দীপঙ্কর এর জীবনী – Atisa Dipankar Biography in Bengali  ” পােস্টটি পড়ার জন্য। অতীশ দীপঙ্কর এর জীবনী – Atisa Dipankar Biography in Bengali পড়ে কেমন লাগলো কমেন্টে জানাও। আশা করি এই অতীশ দীপঙ্কর এর জীবনী – Atisa Dipankar Biography in Bengali পোস্টটি থেকে উপকৃত হবে। এই ভাবেই BhugolShiksha.com ওয়েবসাইটের পাশে থাকো যেকোনো প্ৰশ্ন উত্তর জানতে এই ওয়েবসাইট টি ফলাে করো এবং নিজেকে  তথ্য সমৃদ্ধ করে তোলো , ধন্যবাদ।

Subscribe Our YouTube Channel

Join Our Telegram Channel

E-mail Subscription