বিশ্বনাথন আনন্দ এর জীবনী - Viswanathan Anand Biography in Bengali
বিশ্বনাথন আনন্দ এর জীবনী - Viswanathan Anand Biography in Bengali

বিশ্বনাথন আনন্দ এর জীবনী

Viswanathan Anand Biography in Bengali

বিশ্বনাথন আনন্দ এর জীবনী – Viswanathan Anand Biography in Bengali : বিশ্বসেরা দাবারু বিশ্বনাথন আনন্দ (Viswanathan Anand) ভারতের সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ দাবা খেলোয়াড় কে ? এই প্রশ্নের উত্তরে আমরা সবাই চোখ বন্ধ করে বিশ্বনাথন আনন্দ (Viswanathan Anand) নাম বলব । এক আশ্চর্য শিশু দাবাড়ু হিসাবে দাবার জগতে আত্মপ্রকাশ করেছিলেন বিশ্বনাথন আনন্দ (Viswanathan Anand) । 

  বিশ্বসেরা দাবারু বিশ্বনাথন আনন্দ এর একটি সংক্ষিপ্ত জীবনী । বিশ্বনাথন আনন্দ এর জীবনী – Biswanathan Anand Biography in Bengali বা বিশ্বনাথন আনন্দ এর আত্মজীবনী বা (Biswanathan Anand Jivani Bangla. A short biography of Biswanathan Anand. Biswanathan Anand Birth, Place, Life Story, Life History, Biography in Bengali) বিশ্বনাথন আনন্দ এর জীবন রচনা সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো।

বিশ্বনাথন আনন্দ কে ? Who is Biswanathan Anand ?

বিশ্বনাথন আনন্দ (Viswanathan Anand) হলেন একজন ভারতীয় দাবা গ্র্যান্ডমাস্টার। জানুয়ারি ২০১২-এর ফিদে তালিকা অনুযায়ী বিশ্বনাথন আনন্দ (Viswanathan Anand) এর ইলো রেটিং ২৭৯৯, আর র‌্যাংকিং-এ তার অবস্থান চতুর্থ (ভ্লাদিমির ক্রামনিকের পেছনে)। ইলো রেটিং-এর ইতিহাসে ২৮০০ পয়েন্টের বেশি পাওয়া মাত্র চার জন দাবাড়ুর মধ্যে আনন্দ একজন। বিশ্বনাথন আনন্দ (Viswanathan Anand) ১৯৯৪ সাল থেকে আজ পর্যন্ত বিশ্বের সেরা তিন ধ্রুপদী দাবাড়ুর একজন এবং একই সময়কালের বেশির ভাগ অংশ জুড়ে বিশ্বের সেরা দ্রুতগতির দাবাড়ু হিসেবে পরিগণিত।

বিশ্বসেরা দাবারু বিশ্বনাথন আনন্দ এর জীবনী – Biswanathan Anand Biography in Bengali :

নাম (Name) বিশ্বনাথন আনন্দ (Viswanathan Anand)
জন্ম (Birthday) ১১ ডিসেম্বর ১৯৬৯ (11th December 1969)
জন্মস্থান (Birthplace) চেন্নাই, ভারতবর্ষ
অভিভাবক (Parents)/পিতামাতা বিশ্বনাথন আইয়ার

সুশীলা বিশ্বনাথন

জাতীয়তা ভারতীয়
নাগরিকত্ব ভারতীয়
পেশা (Occupation) খেলা
পরিচিতির কারণ দাবা খেলায়ার 
পুরস্কার পদ্মবিভূষণ (২০০৮)

বিশ্বনাথন আনন্দ এর জন্ম – Biswanathan Anand Birthday :

 ১৯৬৯ সালের ১১ ডিসেম্বর তামিলনাড়ুতে জন্ম হয়েছিল বিশ্বনাথন আনন্দ (Viswanathan Anand)। 

বিশ্বনাথন আনন্দ এর পিতামাতা – Biswanathan Anand Parents :

 পিতা ও মাতার নাম যথাক্রমে বিশ্বনাথন আইয়ার ও মাতার নাম সুশীলা বিশ্বনাথন । পরবর্তীকালে তিনি ভারতের চেজ গ্র্যান্ড মাস্টার হয়ে ওঠেন এবং তিনি বিশ্বদাবা চ্যাম্পিয়ান হয়েছিলেন ।

বিশ্বনাথন আনন্দ এর খেতাব – Biswanathan Anand Titles :

 ২০০০-২০০২ সাল পর্যন্ত FIDA ওয়ার্ল্ড চেজ চ্যাম্পিয়ানশিপে জয়যুক্ত হয়েছিলেন বিশ্বনাথন আনন্দ (Viswanathan Anand) । ২০০৭ সালে হয়েছেন বিশ্বচ্যাম্পিয়ান । ২০০৮ সালেও বিশ্বনাথন আনন্দ (Viswanathan Anand) এই পদক ধরে রেখেছিলেন । ২০১০ সালেও তার বিজয় অভিযান অব্যাহত থাকে ।

 র্যাপিড দাবায় বিশ্বসেরা হয়েছেন ২০০৩ সালে । চেজ অস্কার জিতেছেন চার বার ১৯৯৭ , ১৯৯৮ , ২০০৩ , ২০০৪ সালে । কোরাস . চ্যাম্পিয়নশিপ ৫ বার খেতাব জিতেছেন ।

বিশ্বনাথন আনন্দ এর রাজীব গান্ধী খেল রত্ন – Biswanathan Anand Rajiv Gandhi Khel Ratna :

 প্রসঙ্গত বলা যায় যে , ১৯৮৭ সালে বিশ্বনাথন আনন্দ (Viswanathan Anand) হলেন প্রথম ভারতীয় গ্রান্ড মাস্টার । বিশ্বনাথন আনন্দকে (Viswanathan Anand) ১৯৯২ সালে রাজীব গান্ধী খেলরত্ন পুরস্কারে পুরস্কৃত করা হয় । 

 এপ্রিল ২০০৬ ভিশির কেরিয়ারের সর্বোচ্চ পয়েন্ট এলো ২৮০৩ , পরের কয়েকমাসে অনেকটাই কমে দাঁড়ায় ২৭৫০ পয়েন্টের কাছাকাছি । ২০০৭ সালের বিশ্বজয় বিশ্বনাথন আনন্দকে (Viswanathan Anand) আবার ২৮০০ – র বৃত্তে ঢুকিয়ে দিল ৷ 

বিশ্বনাথন আনন্দ এর শৈশবকাল – Biswanathan Anand Childhood :

 ছোটোবেলা থেকেই দাবা খেলার প্রতি অসম্ভব আকর্ষণ ছিল বিশ্বনাথন আনন্দের । মেধাবী ছাত্র হিসাবে পরিচিত ছিলেন বিশ্বনাথন আনন্দ (Viswanathan Anand) । অঙ্কে দারুণ মাথা ছিল । চোখ বন্ধ করে ত্রিকোণমিতির কঠিন ফর্মুলা বলে দিতে পারতেন । বীজগণিত ছিল তাঁর প্রিয় বিষয় । বিশ্বনাথন আনন্দ (Viswanathan Anand) বলেছেন , “ দাবা খেলার আসরে সাফল্য অর্জন করতে হলে অঙ্কে মাথাটা পরিষ্কার থাকা দরকার । কারণ দাবাও হল এক ধরনের অঙ্ক । ”

 কিশোর বয়সেই বিশ্বনাথনের প্রতিভার স্ফুরণ আমাদের চোখে পড়ে । মা বাবার একান্ত উৎসাহে যোগ দিয়েছিলেন আন্তঃস্কুল দাবা খেলার আসরে । প্রথম অভিযানেই কিস্তিমাত করেন । বিশ্বনাথন আনন্দ (Viswanathan Anand) এর দুর্ধর্য মস্তিষ্কের সামনে কেউ দাঁড়াতেই পারে না । বিশ্বনাথনের সব থেকে বড়ো অস্ত্র হল , তাঁর মগজাস্ত্র , যে মগজাস্ত্র প্রয়োগ করে বিশ্বনাথন আনন্দ (Viswanathan Anand) বিরোধীদের পরাস্ত করেছেন বারবার । তাই সারা পৃথিবীর কাছে এখন তার নাম ছড়িয়ে পড়েছে । 

[আরও দেখুন, সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের জীবনী – Sourav Ganguly Biography in Bengali]

বিশ্বনাথন আনন্দ এর বিশ্ব দাবা খেলার খেতাব – Biswanathan Anand World Chess Title :

 বুলগেরিয়ার রাজধানী সোফিয়ায় আয়োজিত বিশ্ব দাবার খেতাব জিতলেন ভারতের বিশ্বনাথন আনন্দ । বুলগেরিয়ারই ভেসেলিন টোপালভকে হারিয়ে খেতাব জিতলেন আনন্দ । প্রতিদ্বন্দ্বী টোপালভের সঙ্গে এক পয়েন্টের ব্যবধানে ( আনন্দ ৬.৫ , টোপালভ ৫.৫ ) প্রথম হলেন তিনি । ২০১০ সালে এক নম্বর জায়গায় ফিরে এলেন বিশ্বনাথন আনন্দ । নভেম্বরের রেটিং তালিকায় আবার শীর্ষে পৌঁছলেন আনন্দ । তখন তাঁর রেটিং ছিল ২৮০৪। এটাই তার সর্বোচ্চ রেটিং । দু’নম্বরে ছিলেন নরওয়ের ম্যাগনান্স কার্লসেন ( ২৮০২ ) ও তিনে আর্মেনিয়ার লেভন অরোনিয়ান ( ২৮০১ ) । ২০১০ সাল পর্যন্ত ।

বিশ্বনাথন আনন্দ পাঁচবার বিশ্বচাম্পিয়ান – Biswanathan Anand Five Time Wolrd Champion :

 বিশ্বনাথন আনন্দ টাইব্রেকারে ইজরায়েলের বরিস গেলফাকে হারিয়ে ৩০ মে ২০১২ বিশ্ব দাবা চ্যাম্পিয়নশিপ জিতলেন ভারতের প্রথম গ্রান্ডমাস্টার বিশ্বনাথন আনন্দ । এই নিয়ে টানা চারবার সহ মোট পাঁচবার বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হলেন বিশ্বনাথন আনন্দ (Viswanathan Anand)

[আরও দেখুন, মেরি কম এর জীবনী – Mary Kom Biography in Bengali]

বিশ্বনাথন আনন্দ এর পদ্মবিভূষণ – Biswanathan Anand Padma Bhushan :

 বিশ্বনাথন আনন্দ (Viswanathan Anand) এর এই সাফল্যের জন্য ২০০৭-২০০৮ সালে তাকে পদ্মবিভূষণ উপাধিতে ভূষিত করা হয় । বিশ্বনাথন আনন্দ (Viswanathan Anand) হলেন ভারতের প্রথম দাবা খেলোয়াড় , যাঁকে এই ধরনের পুরস্কার দেওয়া হল । বিশ্বনাথন আনন্দ বিশ্বের এক নম্বর খেলোয়ারের স্বীকৃতি , শ্রদ্ধা ও সম্ভ্রম অর্জন করেছেন । ভারতবাসী হিসাবে আমরা বিশ্বনাথন আনন্দ (Viswanathan Anand) এর এই সাফল্যের জন্য অত্যস্ত গর্ব বোধ করি । 

বিশ্বনাথন আনন্দ এর জীবনী – Biswanathan Anand Biography in Bengali FAQ :

  1. বিশ্বনাথন আনন্দ কে ?

Ans: বিশ্বনাথন আনন্দ হলেন একজন ভারতীয় দাবা গ্র্যান্ডমাস্টার ।

  1. বিশ্বনাথন আনন্দ এর জন্ম কোথায় হয় ?

Ans: বিশ্বনাথন আনন্দ এর জন্ম হয় চেন্নাই এ ।

  1. বিশ্বনাথন আনন্দ এর জন্ম কবে হয় ?

Ans: বিশ্বনাথন আনন্দ এর জন্ম ১১ ডিসেম্বর ১৯৬৯ সালে হয় ।

  1. বিশ্বনাথন আনন্দ এর পিতার নাম কী ?

Ans: বিশ্বনাথন আনন্দ এর পিতার নাম বিশ্বনাথন আইয়ার ।

  1. বিশ্বনাথন আনন্দ এর মাতার নাম কী ?

Ans: বিশ্বনাথন আনন্দ এর মাতার নাম সুশীলা বিশ্বনাথন ।

  1. বিশ্বনাথন আনন্দ কতবার বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ?

Ans: বিশ্বনাথন আনন্দ ৫ বার বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ।

  1. বিশ্বনাথন আনন্দ কত সালে পদ্মবিভূষণ পান ?

Ans: বিশ্বনাথন আনন্দ ২০০৮ সালে পদ্মবিভূষণ পান।

  1. বিশ্বনাথন আনন্দ কত সালে রাজীব গান্ধী খেল রত্ন পান ?

Ans: বিশ্বনাথন আনন্দ ১৯৯২ সালে রাজীব গান্ধী খেল রত্ন পান ।

[আরও দেখুন, সত্যেন্দ্রনাথ বসুর জীবনী – Satyendra nath Bose Biography in Bengali

আরও দেখুন, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর জীবনী – Rabindranath Tagore Biography in Bengali

আরও দেখুন, ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর জীবনী – Ishwar Chandra Vidyasagar Biography in Bengali

আরও দেখুন, আইজ্যাক নিউটন এর জীবনী – Isaac Newton Biography in Bengali

আরও দেখুন, শচীন টেন্ডুলকারের জীবনী – Sachin Tendulkar Biography in Bengali]

বিশ্বনাথন আনন্দ এর জীবনী – Biswanathan Anand Biography in Bengali

   অসংখ্য ধন্যবাদ সময় করে আমাদের এই ” বিশ্বনাথন আনন্দ এর জীবনী – Biswanathan Anand Biography in Bengali  ” পােস্টটি পড়ার জন্য। বিশ্বনাথন আনন্দ এর জীবনী – Biswanathan Anand Biography in Bengali পড়ে কেমন লাগলো কমেন্টে জানাও। আশা করি এই বিশ্বনাথন আনন্দ এর জীবনী – Biswanathan Anand Biography in Bengali পোস্টটি থেকে উপকৃত হবে। এই ভাবেই BhugolShiksha.com ওয়েবসাইটের পাশে থাকো যেকোনো প্ৰশ্ন উত্তর জানতে এই ওয়েবসাইট টি ফলাে করো এবং নিজেকে  তথ্য সমৃদ্ধ করে তোলো , ধন্যবাদ।

Subscribe Our YouTube Channel

Join Our Telegram Channel

E-mail Subscription