মধ্যগামিতা বা কেন্দ্রীয় প্রবণতা নির্ণয় (ব্যবহারিক ভূগোল - ভূগোল) প্রশ্ন ও উত্তর | Measures Of Central Tendency (Practical Geography) Geography
মধ্যগামিতা বা কেন্দ্রীয় প্রবণতা নির্ণয় (ব্যবহারিক ভূগোল - ভূগোল) প্রশ্ন ও উত্তর | Measures Of Central Tendency (Practical Geography) Geography

ব্যবহারিক ভূগোল – ভূগোল প্রশ্ন ও উত্তর

মধ্যগামিতা বা কেন্দ্রীয় প্রবণতা নির্ণয় | Measures Of Central Tendency – Practical Geography (Geography) Question and Answer in Bengali

মধ্যগামিতা বা কেন্দ্রীয় প্রবণতা নির্ণয় (ব্যবহারিক ভূগোল – ভূগোল) প্রশ্ন ও উত্তর | Measures Of Central Tendency (Practical Geography – Geography) : ব্যবহারিক ভূগোল – Practical Geography (ভূগোল – Geography) মধ্যগামিতা বা কেন্দ্রীয় প্রবণতা নির্ণয় – Measures Of Central Tendency প্রশ্ন Oও উত্তর  নিচে দেওয়া হল। এই (মধ্যগামিতা বা কেন্দ্রীয় প্রবণতা নির্ণয় – Measures Of Central Tendency – ব্যবহারিক ভূগোল Practical Geography – ভূগোল Geography) প্রশ্নোত্তর গুলি স্কুল, কলেজ ও বিভিন্ন প্রতিযোগিতা মূলক পরীক্ষার জন্য খুব ইম্পর্টেন্ট। তোমরা যারা মধ্যগামিতা বা কেন্দ্রীয় প্রবণতা নির্ণয় – Measures Of Central Tendency – ব্যবহারিক ভূগোল – Practical Geography (ভূগোল – Geography) অতিসংক্ষিপ্ত প্রশ্ন ও উত্তর (Short Question and Answer) খুঁজে চলেছো, তারা নিচে দেওয়া প্রশ্নউত্তর ভালো করে পড়তে পারো।

মধ্যগামিতা বা কেন্দ্রীয় প্রবণতা নির্ণয় (Measures Of Central Tendency) ব্যবহারিক ভূগোল – ভূগোল প্রশ্ন ও উত্তর

1. মধ্যগামিতা ( CENTRAL TENDENCY ) কী ? 

Ans: রাশিবিজ্ঞানে কোন রাশিতথ্যের বন্টনগত বিশেষ বৈশিষ্ট্য থাকে । দেখা যায় যে , বন্টনের মধ্যে মানগুলির তারতম্য থাকা সত্ত্বেও কোনো একটি মানকে ঘিরে অন্য মানগুলির কেন্দ্রীভবনের প্রবণতা ঘটেছে । রাশিতথ্যের এই প্রবণতাকে কেন্দ্রীয় প্রবণতা বলে । কেন্দ্রীয় প্রবণতার মাপকের মান পরিসংখ্যা বিভাজনের অবস্থিতি ( Location ) কিছুটা নির্দেশ করে , এইজন্য একে অনেক সময় অবস্থিতি মাপকও ( Measure of location ) বলা হয় ।

2. গড়ের সুবিধা ( ADVANTAGE OF MEAN ) কী ? 

A ) সহজসাধ্য : এটি খুবই সহজসাধ্য ও সহজে বোধগম্য এবং সহজে নির্ণয় করা যায় । B ) চলকের প্রতিনিধি : এখানে চলকের প্রত্যেক রাশির মান ব্যবহার করা হয় বলে একে চলকের প্রতিনিধি বলে । C ) তুলনা : এর সাহায্যে দুই বা ততোধিক রাশিমালার বৈশিষ্ট্যের তুলনা করা হয় । D ) রাশিতথ্যের প্রতিভূ : এই পদ্ধতিতে নির্ণীত মধ্যককে রাশিতথ্যের প্রতিভূরূপে গণ্য করা হয় ।

3. গড়ের অসুবিধা ( DISADVANTAGE OF MEAN ) কী ? 

Ans: i ) সাধারণভাবে রাশিতথ্যের মানের সঙ্গে মিনের কোন মিল নেই । ii ) কোন তথ্যরাশিকে শুধুমাত্র পর্যবেক্ষণ করে মিল বের করা যায় না । iii ) চলকের পরিমাণ বেশী থাকলে খুব তাড়াতাড়ি এর মান নির্ণয় সম্ভব নয় । iv ) পূর্ণ তথ্য থাকে না বলে এর থেকে সিদ্ধান্ত অনেক সময় ত্রুটিপূর্ণ হয় ।

4. মধ্যমা ব্যবহারের সুবিধা ( MERITS OF MEDIAN ) কী ?

Ans: i ) মধ্যমা সহজেই নির্ণয় করা যায় ও সহজসাধ্য । ii ) এই ক্ষেত্রে সর্বমধ্য মানটিকে প্রকাশ করা যায় , ফলে কেন্দ্রীয় প্রবণতার সঠিক পরিমাপ সম্ভব । iii ) তথ্য সংখ্যার সাহায্যে প্রকাশ করা যায় বলে কোন বৈশিষ্ট্যের পরিমাপ করা অতি সহজ । iv ) চিত্রের মাধ্যমেও মধ্যমা নির্ণয় করা যায় । v )

বুদ্ধি , বিদ্যা , গুণ ইত্যাদি গুণবাচক তথ্যও মধ্যমার

মাধ্যমে নির্ণয় সম্ভব ।

5. মধ্যমা ব্যবহারের অসুবিধা ( DEMERITS OF MEDIAN ) কী ? 

Ans: i ) রাশিতথ্যের মানসমূহকে ঊর্ধ্বক্রমে সাজিয়ে করতে হয় । ii ) এর মান নির্ণয়ে বীজগণিতের নিয়মাবলী সহজে প্রয়োগ সম্ভব নয় iii ) রাশিতথ্যের মান সাজাতে প্রত্যেকটি রাশির ব্যবহার হয় না । iv ) অনেক সময় সঠিক মান নির্ণয় করা সম্ভব হয় না ।

6. প্রচুরক বা ভূয়িষ্ঠক বা সংখ্যাগুরু মানের সুবিধা ( ADVANTAGE OF MODE ) কী ? 

Ans: i ) মোড – এর ব্যবহার খুব সহজ ও অতি শীঘ্র মান নির্ধারণ করা যায় । ii ) মিন ও মিডিয়ামের তুলনায় এর ব্যবহার বেশি । iii ) লৈখিক পদ্ধতিতে সহজেই মোডের মান নির্ণয় করা যায় । iv ) মোডের মান চলকের মান দ্বারা প্রভাবিত হয় না ।

7. প্রচুরক বা ভূয়িষ্ঠক বা সংখ্যাগুরু মানের অসুবিধা ( DISADVANTAGE OF MODE ) কী ? 

Ans: i ) মান নির্ণয়ের ক্ষেত্রে গাণিতিক নিয়মাবলী ততটা সহজসাধ্য হয় না । ii ) মান নির্ণয়ের ক্ষেত্রে রাশিতথ্যের সকল রাশির ব্যবহার হয় না । iii ) তথ্যরাশি কম হলে মোড নাও থাকতে পারে । iv ) রাশিতথ্যের এক বা একাধিক মোড মান থাকতে পারে যার ফলে তার দ্বারা সংখ্যা তথ্যের নির্ণয় তেমন পরিষ্কার হয় না ।

8. বিক্ষেপ চিত্র ( SCATTER DIAGRAM ) 

Ans: দুটি বিষয়ের মধ্যে সম্পর্ক নির্ণয়ের জন্য এই বিশেষ লেখচিত্র তৈরি করা হয় । সাধারণত স্বাধীন বিষয়টিকে x অক্ষ বরাবর এবং এর সাপেক্ষে y অক্ষ বরাবর নির্ভরশীল বিষয়টিকে বিন্দুর মাধ্যমে দেখানো হয় । বিন্দুগুলির মধ্য বিভাজনরেখা এই দুটি বিষয়ের মধ্যে সম্পর্ক নির্দেশ করে ।

9. সহ – পরিবর্তন ( CO – RRELATION ) কী ? 

Ans: কোন ক্ষেত্রে দেখা যায় একটি চলকের মানের পরিবর্তন ঘটলে অন্য চলকেরও মানের পরিবর্তন ঘটে , এই ধরনের পরিবর্তনকে সহ – পরিবর্তন বলে । সহ – পরিবর্তন চারটি উপায়ে উপস্থাপিত করা যায়— মানচিত্রাঙ্কন বিদ্যা * ৬৮৩ ( a ) বিক্ষেপ চিত্রের মাধ্যমে ( By Scatter Diagram ) , ( b ) লৈখিত পদ্ধতির মাধ্যমে ( By Graphical , Method ) ; ( c ) কার্ল – পিয়ারসন – এর সহ – পরিবর্তন গুণাঙ্ক পদ্ধতির মাধ্যমে ( By Karl Pearson’s Co – rrelation Co – efficient Method ) ; ( d ) সারিবদ্ধ সহ – পরিবর্তন গুণাঙ্ক পদ্ধতির মাধ্যমে ( By Rank Co – rrelation Co – efficient Method ) .

10. নির্ভরণ তত্ত্ব ( REGRESSION ANALYSIS ) করো । 

Ans: দুটি বিষয়ের মধ্যে সম্পর্কের ভিত্তি Regression analysis ধরে বের করা যায় । এক্ষেত্রে বিষয়দুটির মধ্যে যেটি স্বাধীন তা ‘ x ’ অক্ষ বরাবর ও নির্ভরশীল বিষয়কে ‘ y ‘ অক্ষ বরাবর বসানো হয় এবং প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে মধ্যবিভাজন রেখা দ্বারা সম্পর্ক অনুধাবন করার চেষ্টা করা হয় ।

11. TIME SERIES কী ?

Ans: সময়ের সাপেক্ষে কোন বস্তুর হ্রাস – বৃদ্ধি যে লেখচিত্র দ্বারা দেখানো হয় তাকে Time series বলে । এক্ষেত্রে সময়কে পর্যায়ক্রমিকভাবে ‘ x ‘ অক্ষ বরাবর এবং বিষয়টির পরিমানকে নির্দিষ্ট স্কেলে ‘ y ‘ অক্ষ বরাবর রেখা দ্বারা দেখানো হয় ।

12. TIME SERIES- এর উপযোগিতা কী ?

Ans: Time Series- এর মাধ্যমে দ্রুত সহজেই সময় অনুপাতে বিষয়টির হ্রাস – বৃদ্ধি বোঝা যায় এবং Time series- এ বিষয়টির ভবিষ্যৎ প্রকৃতি সম্বন্ধে জানা যায় ।

13. গড় ব্যবধান ( MEAN DEVIATION ) কী ?

Ans: গড় ব্যবধান হল বিশেষ প্রকার বিস্তৃতির পরম পরিমাপ পদ্ধতি । কোন তথ্যরাশির মিন , মিডিয়ান বা মোড থেকে ঐ রাশিগুলির ধনাত্মক পার্থক্যের মিনকে গড় ব্যবধান বলে । অর্থাৎ , বিভিন্ন পরিসংখ্যান এই পরিসংখ্যানের গড় থেকে কতটা বিচ্যুত হয়েছে তার গড়কে গড় ব্যবধান বলে ।

14. পরিমিত ব্যবধান ( STANDARD DEVIATION ) কী ? 

Ans: পরিমিত ব্যবধান হল কোন পরিসংখ্যানগুচ্ছের মান গড় কেন্দ্রীয় মান থেকে কতটা করে বিচ্যুত হয়েছে তার সম্যক মান । অর্থাৎ , কোন রাশিতথ্যের গড় থেকে প্রত্যেক সংখ্যার বিচ্যুতি বা frequency- সহ বিচ্যুতির বর্গের সমষ্টিকে মোট রাশির সংখ্যা বা মোট frequency দ্বারা ভাগ করলে যে ফল পাওয়া যায় , তার বর্গমূলকে পরিমিত ব্যবধান বলে । এটি থেকে বিচ্যুতির আপেক্ষিক পরিমাপ বের করা যায় ।

FILE INFO : মধ্যগামিতা বা কেন্দ্রীয় প্রবণতা নির্ণয় – Measures Of Central Tendency | ব্যবহারিক ভূগোল – ভূগোল প্রশ্নোত্তর (Practical Geography – Geography)

File Details:

PDF Name : মধ্যগামিতা বা কেন্দ্রীয় প্রবণতা নির্ণয় – Measures Of Central Tendency | ব্যবহারিক ভূগোল – ভূগোল প্রশ্নোত্তর (Practical Geography – Geography)

Price : FREE

Download Link : Click Here To Download

INFO : Geography – Practical Geography – Question and Answer | ভূগোল – ব্যবহারিক ভূগোল – মধ্যগামিতা বা কেন্দ্রীয় প্রবণতা নির্ণয় (Measures Of Central Tendency) প্রশ্নোত্তর

” ভূগোল (Geography) – ব্যবহারিক ভূগোল (Practical Geography) – মধ্যগামিতা বা কেন্দ্রীয় প্রবণতা নির্ণয় – Measures Of Central Tendency “ একটি অতি গুরুত্বপূর্ণ টপিক বিভিন্ন শ্রেনীর পরীক্ষা (Class 5, 6, 7, 8, 9,  Madhyamik, Class 11, Higher Secondary – HS, College & University Exam) এবং বিভিন্ন চাকরির (WBCS, WBSSC) পরীক্ষায় এখান থেকে প্রশ্ন অবশ্যম্ভাবী । সে কথা মাথায় রেখে BhugolShiksha.com এর পক্ষ থেকে ভূগোল পরীক্ষা প্রস্তুতিমূলক প্রশ্নো ও উত্তর উপস্থাপনের প্রচেষ্টা করা হলাে। ছাত্রছাত্রী, পরীক্ষার্থীদের উপকারে লাগলে, আমাদের প্রয়াস  ভূগোল (Geography) ব্যবহারিক ভূগোল (Practical Geography) – মধ্যগামিতা বা কেন্দ্রীয় প্রবণতা নির্ণয় – Measures Of Central Tendency / মধ্যগামিতা বা কেন্দ্রীয় প্রবণতা নির্ণয় সংক্ষিপ্ত ছোট প্রশ্ন ও উত্তর / মধ্যগামিতা বা কেন্দ্রীয় প্রবণতা নির্ণয় (ব্যবহারিক ভূগোল – ভূগোল) প্রশ্ন ও উত্তর | Measures Of Central Tendency (Practical Geography – Geography)  SAQ Practical Geography / Short Question and Answer / মধ্যগামিতা বা কেন্দ্রীয় প্রবণতা নির্ণয় (ব্যবহারিক ভূগোল – ভূগোল) প্রশ্ন ও উত্তর | Measures Of Central Tendency (Practical Geography – Geography) Quiz / মধ্যগামিতা বা কেন্দ্রীয় প্রবণতা নির্ণয় (ব্যবহারিক ভূগোল – ভূগোল) প্রশ্ন ও উত্তর | Measures Of Central Tendency (Practical Geography – Geography) QNA / মধ্যগামিতা বা কেন্দ্রীয় প্রবণতা নির্ণয় (ব্যবহারিক ভূগোল – ভূগোল) প্রশ্ন ও উত্তর | Measures Of Central Tendency (Practical Geography – Geography) Question and Answer FREE PDF Download ) পরীক্ষা প্রস্তুতিমূলক প্রশ্নোত্তর সফল হবে।

মধ্যগামিতা বা কেন্দ্রীয় প্রবণতা নির্ণয় (ব্যবহারিক ভূগোল – ভূগোল) প্রশ্ন ও উত্তর | Measures Of Central Tendency (Practical Geography – Geography) Question and Answer in Bengali

স্কুল, কলেজ ও বিভিন্ন ছাত্রছাত্রীদের পড়াশোনার ডিজিটাল মাধ্যম BhugolShiksha.com । এর প্রধান উদ্দেশ্য পঞ্চম শ্রেণী থেকে নবম শ্রেণী, মাধ্যমিকউচ্চ মাধ্যমিক সমস্ত বিষয় এবং গ্রাজুয়েশনের শুধুমাত্র ভূগোল বিষয়কে  সহজ বাংলা ভাষায় আলোচনার মাধ্যমে ছাত্রছাত্রীদের কাছে সহজ করে তোলা।

মধ্যগামিতা বা কেন্দ্রীয় প্রবণতা নির্ণয় (ব্যবহারিক ভূগোল – ভূগোল) প্রশ্ন ও উত্তর | Measures Of Central Tendency (Practical Geography – Geography)

আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ সময় করে আমাদের এই ” মধ্যগামিতা বা কেন্দ্রীয় প্রবণতা নির্ণয় (ব্যবহারিক ভূগোল – ভূগোল) প্রশ্ন ও উত্তর | Measures Of Central Tendency (Practical Geography – Geography) ” পােস্টটি পড়ার জন্য। এই ভাবেই আমাদের ভূগোল শিক্ষা – Bhugol Shiksha – BhugolShiksha.com ওয়েবসাইটের পাশে থাকুন। ভূগোল বিষয়ে যেকোনো প্ৰশ্ন উত্তর জানতে এই ওয়েবসাইটটি ফলাে করুন এবং নিজেকে ভৌগোলিক  তথ্য সমৃদ্ধ করে তুলুন , ধন্যবাদ।

Subscribe Our YouTube Channel

Join Our Telegram Channel

E-mail Subscription