মার্কো পোলো এর জীবনী - Marco Polo Biography in Bengali
মার্কো পোলো এর জীবনী - Marco Polo Biography in Bengali

মার্কো পোলো এর জীবনী

Marco Polo Biography in Bengali

মার্কো পোলো এর জীবনী – Marco Polo Biography in Bengali : দুঃসাহসী ইতালীয় পর্যটক মার্কো পোলো (Marco Polo)। মার্কোপোলো হলেন প্রথম সেই দুঃসাহসী ব্যক্তি যিনি কবি নজরুলের ভাষায় থাকবো নাকো বদ্ধ ঘরে , দেখবো এবার জগৎটাকে ‘ বলে বিশ্বের অজানা দুর্গম পথে পাড়ি জমিয়েছিলেন । আবিষ্কার করেছিলেন কতো অজানা পথ , পৃথিবীর রহস্যময় হাজারো ইতিহাস । প্রাচ্য ও পাশ্চাত্যের সঙ্গে রচনা করেছিলেন মিলনসেতু । মার্কো পোলো (Marco Polo) ছিলেন একেবারে বংশগতভাবেই অভিযাত্রী যাযাবরের যাযাবর । মার্কো পোলো (Marco Polo) এর বাবাকে ব্যবসা – বাণিজ্যের কারণে দেশ বিদেশ ঘুরতে হতো সবসময় ৷ 

  দুঃসাহসী ইতালীয় পর্যটক মার্কো পোলো এর একটি সংক্ষিপ্ত জীবনী । মার্কো পোলো এর জীবনী – Marco Polo Biography in Bengali বা মার্কো পোলো এর আত্মজীবনী বা (Marco Polo Jivani Bangla. A short biography of Marco Polo. Marco Polo Birth, Place, Life Story, Life History, Biography in Bengali) মার্কো পোলো এর জীবন রচনা সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো।

মার্কো পোলো কে ছিলেন ? Who is Marco Polo ?

মার্কো পোলো (Marco Polo) ছিলেন একজন ভেনিসীয় পর্যটক এবং বণিক। পশ্চিমাদের মধ্যে সর্বপ্রথম সিল্ক রোড পাড়ি দিয়ে চীন দেশে এসে পৌঁছানো লোকজনের মধ্যে মার্কো পোলো (Marco Polo) ছিলেন অন্যতম। ইউরোপীয়দের কাছে চীনের তৎকালীন নাম ছিল ক্যাথে। এছাড়া মার্কো পোলো (Marco Polo) সর্বপ্রথম ইউরোপীয় হিসেবে মঙ্গোলদের সাম্রাজ্যে পদার্পণকারীদের অন্যতম। সে সময় মঙ্গোল সাম্রাজ্যের (চীন) সম্রাট ছিলেন কুবলাই খান। তার বই “লিভ্রে দেস মারভেলেস দ্যু মন্দে” (অর্থঃ বিস্বয়কর পৃথিবীর বর্ণনা) সমগ্র ইউরোপের কাছে এশিয়া এবং চীনের সাথে পরিচয় করিয়ে দেয়। মার্কো পোলোর ভ্রমণ সঙ্গী ছিল তার পিতা নিকোলো এবং চাচা মাফেও পোলো ।

দুঃসাহসী ইতালীয় পর্যটক মার্কো পোলো এর সংক্ষিপ্ত জীবনী – Marco Polo Short Biography in Bengali :

নাম (Name) মার্কো পোলো (Marco Polo)
জন্ম (Birthday) ১৫ সেপ্টেম্বর ১২৫৪ (15th September 1254)
জন্মস্থান (Birthplace) ভেনিস, ইতালী
অভিভাবক (Parents)/পিতামাতা মাতা: নিকোল আনা দেফুসে 

পিতা: নিকোলো পোলো

জাতীয়তা ভেনিশীয়
পেশা ব্যবসায়ী, অভিযাত্রী
পরিচিতির কারণ মার্কো পোলোর ভ্রমন
দাম্পত্য সঙ্গী দান্তা বাদোর
সন্তান  ফানতিনা, বেলেলা, এবং মোরতা
মৃত্যু (Death) ৮ জানুয়ারি ১৩২৪ (8th January 1324)

মার্কো পোলো এর জন্ম ও পরিবার – Marco Polo Birthday and Family :

 ১২৫৪ খ্রীস্টাব্দে মার্কোপোলো ইতালীতে জন্মগ্রহণ করেন । বাবার নাম নিকোলো পোলো । তাঁরা ইতালীর রাজধানী ভেনিস শহরে বসবাস করতেন । তাঁর জন্মের সময় তার বাবা – কাকা বাণিজ্য – সফরে বিদেশে ছিলেন । এক আধ বছর নয় , মার্কোপোলোর বয়স যখন ১৭ বছর , তখন তাঁর বাবা – কাকা দেশে ফিরে আসেন ।

 ইতালীর পোলোদের ছিলো এটাই জীবন । ওরা কখনো ঘরে থাকতো না । বংশানুক্রমে বেরিয়ে পড়তো দেশের বাইরে । কেউ স্থল পথে , কেউ বা জলপথে চলে আসতো তুরস্কের কনস্টান্টিনোপলে । কনস্টান্টিনোপল সেকালে ছিলো ইউরোপ ও এশিয়ার প্রধান বাণিজ্য কেন্দ্র । তুরস্কের ভেতর দিয়ে কেউ চলে আসতো আরো পুর্বদিকে তেহরান , খোরাসান , বোখারা , পামীর , কিরঘিজ প্রভৃতি শহরে । এসব দেশের রাজা – বাদশা খান সুলতানদের কাছে মূল্যবান মণি – মানিক্য , জিনিসপত্র বিক্রি করে ঘরে ফিরতো তারা । 

মার্কো পোলো এর জীবনের অভিযান – The adventures of Marco Polo’s life :

 তাতার সম্রাট কুবলাই খাঁ মার্কোপোলোর বাবা ও কাকাকে একবার ধর্ম প্রচারক নিযুক্ত করেছিলেন । যীশু খ্রীস্টের কবরের আলোর তেল নিয়ে তারা যখন কুবলাই খাঁর দরবারের উদ্দেশে যাত্রা করেছিলেন , তখন মার্কোপোলোও তাদের সঙ্গে গেলেন । শুরু হলো মার্কোপোলের জীবনের অভিযান । 

মার্কো পোলো দের যাত্রাপথ :

 মার্কো পোলো (Marco Polo) এর যাত্রাপথ সহজ ও সুগম ছিলো না । দুর্গম পথে হাজারো বিপদ আর রহস্য । পথে পড়েছে কখনো ধু – ধু মরুভূমি , কখনো পর্বতের সঙ্কীর্ণ ও বিপদসঙ্কুল পথ । উট , গাধা আর কুকুর নিয়ে মাসের পর মাস মার্কো পোলো (Marco Polo) হেঁটে চলেছেন এক দেশ থেকে আর এক দেশে । 

জর্জিয়ার পথের অদ্ভুত ঘটনা :

 আর্সেনিয়া তথা ইরাকের দক্ষিণে কুর্দিস্তান । মার্কো পোলো (Marco Polo) উত্তর পশ্চিমে জর্জিয়া । জর্জিয়ার পথে চলতে চলতে ঘটলো এক অদ্ভুত ঘটনা । কোথা থেকে উড়ে এলো এক পক্ষীরাজ । সে মার্কোদের তাঁবুর পাশে দাঁড়িয়ে থাকা তাদের মাল বহনের গাধা আর ঘোড়াগুলোকে ঠোটে করে নিয়ে গেল আকাশের দিকে , শূন্যে । সবাই ভেবেছিলো এটাই বুঝি সিন্দাবাদের বক পাখি । কিন্তু মার্কোর বাবা বুঝিয়ে দিয়েছিলেন না এটা কাল্পনিক রূপকথার বক পাখি নয় , এটা হলো বাস্তবের বড় জাতের রক্তপায়ী ‘ আভিগি ’ নামের শকুন । এরা যেমন হিংস্র তেমনি বিশাল । বড় বড় জন্তু শিকার করতে পারে । এই জর্জিয়া পাহাড়ে তারা দেখেছিলো আর এক আশ্চর্য বস্তু— জ্বলন্ত জল । যে জল জ্বলে ওঠে আসলে সেটা ছিলো জুলন্ত পেট্রোল । তারা সেদিন অবশ্য তা বুঝতে পারেনি ।

 এগিয়ে চলার বিরাম নেই তবু মার্কোদের । ক্রমে ক্রমে পিছনে ফেলে এলেন কোহিস্তানের পর্বতমালা , কাশগড় ইয়ারখন্দ , খেটান , পিয়েন , কারাকোরাম কিউনলুন । এরপর দীর্ঘ এক মাসে পাড়ি দিলেন বিপজ্জনক তাকালামাকান মরুভূমি । এসে পৌঁছলেন টাঙ্গুর হামি শহরে ৷ তারপর কান সু , সু – চৌ পার হয়ে পৌঁছলেন কান – চৌ শহরে । এখান থেকেই শুরু হয়েছে চীনের বিখ্যাত প্রাচীর । মহামান্য কুবলাই খানের সাম্রাজ্যের বিস্তৃতি এখান থেকেই পিছনে ফেলে এলেন সাম্রাজ্যের অভ্যন্তরে প্রবেশ করবার জন্য এখানে কয়েকদিন ব্যয় হল সম্রাটের ছাড়পত্র সংগ্রহ করতে । তারপর তারা যাত্রা করলেন অভীপ্সিত পথের দিকে ।

[আরও দেখুন, জেমস কুক এর জীবনী – James Cook Biography in Bengali]

মার্কো পোলো পৌঁছলেন কুবলাই খাঁর দরবারে – Marco Polo reached the court of Kublai Khan :

 নানা বিপদাপদে ও অজস্র অভিজ্ঞতার মধ্য দিয়ে একদিন তারা কুবলাই খাঁর দরবারে পৌঁছালেন । কুবলাই খাঁ তাঁদের সমাদর করলেন খুব । বেশি মুগ্ধ হলেন দারুণ বুদ্ধিদীপ্ত তরুণ সওদাগর মার্কোপোলোকে দেখে । তিনি মার্কোকে একান্ত সহকারী হিসাবে নিয়োগ করলেন । 

 তিনি তার বুদ্ধি অভিজ্ঞতা দক্ষতা আর সাহসিকতার পরিচয় দিয়ে একদিন কুবলাই খাঁর মন্ত্রীসভায়ও স্থান করে নিলেন । 

 তাতার দেশে সে – সময় ভূয়া তন্ত্র – মন্ত্রের বেশ প্রতাপ ছিলো । ছিলো অনেক যাদুকর । তারা যাদু দেখিয়ে ও ভূত – প্রেতের খেলা দেখিয়ে মানুষদের প্রতারণা করতো । ততে তাদের আয়ও হতো প্রচুর । এমন কি স্বয়ং রাজা কুবলাই খাঁও এদের ভয় করে চলতো । ওরা নাকি দেবতার দূত । অসীম ঐশী ক্ষমতা ওদের ।

 কিন্তু মার্কোপোলো একদিন তাদের জারিজুরি ধরে ফেললেন । একদিন মার্কো পোলো (Marco Polo) চাক্ষুস প্রমাণ করে দিলেন যাদুকর প্রতারকদের প্রতারনার ব্যাপার – স্যাপার । তারা মার্কোপোলের ওপর ক্ষেপে গেল খুব । তারা মার্কোপোলোকে তাদের দেশ থেকে তাড়িয়ে দেবার জন্য নানা ষড়যন্ত্র শুরু করে দিলো ।

মার্কো পোলো এর দেশে ফিরে আসা – 

 ইতিমধ্যে দীর্ঘ ঊনিশটি বছর পার হয়ে গেছে । মার্কো পোলো (Marco Polo) দেশে ফেরার মনস্থ করলেন । সম্রাট তার পুত্রের জন্য একটি পাত্রী খুঁজে দেওয়ার দায়িত্ব দিয়ে মার্কোপোলোকে জাহাজযোগে দেশে যেতে অনুমতি দিলেন ।

 পাত্রী খুঁজে দিয়ে এবং কুবলাই খাঁর মৃত্যু হওয়াতে মার্কো পরে আবারো দেশে ফিরে আসেন । ইতিমধ্যে তারা আন্দামান , শ্রীলঙ্কা , মালাবার দ্বীপ ভ্রমণ করা হয়ে গেছে । 

[আরও দেখুন, অ্যাডলফ হিটলার এর জীবনী – Adolf Hitler Biography in Bengali]

মার্কো পোলো এর বইলেখা – Marco Polo Writing Books :

 দেশে ফিরে এক যুদ্ধে গিয়ে মার্কোপোলো শত্রুদের হাতে বন্দী ও .কারাগারে নিক্ষিপ্ত হন । এতে অবশ্য তার একটা ভালো সুবিধে হয়েছিলো । কারাগারের অবসর সময়ে মার্কো পোলো (Marco Polo) তাঁর বহু বছরের দীর্ঘ ভ্রমণের রোমাঞ্চকর কাহিনী নিয়ে একটি বই লিখলেন । বিস্ময়কর ভ্রমণকাহিনী । 

মার্কো পোলো এর মৃত্যু – Marco Polo Death :

 এই মহান অভিযাত্রী মার্কোপোলোর মৃত্যু হয় ১৩২৩ খ্রীস্টাব্দে । মার্কো পোলো (Marco Polo) আজো তার রোমাঞ্চকর অভিযাত্রার জন্য বিখ্যাত হয়ে আছেন।

 মার্কো পোলো (Marco Polo) হলেন বিশ্বের প্রথম দুঃসাহসী অভিযাত্রী যিনি পায়ে হেঁটে প্রায় অর্ধেক পৃথিবী ভ্রমণ করেছিলেন ।

মার্কো পোলো এর জীবনী – Marco Polo Biography in Bengali FAQ :

  1. মার্কো পোলো কে ছিলেন ?

Ans: মার্কো পোলো ছিলেন একজন ভেনিসীয় পর্যটক এবং বণিক ।

  1. মার্কো পোলো পিতার নাম কী ?

Ans: মার্কো পোলো পিতার নাম নিকোলো পোলো ।

  1. মার্কো পোলো কবে জন্মগ্রহণ করেছিলেন ?

Ans: মার্কো পোলো জন্মগ্রহণ করেছিলেন ১৫ সেপ্টেম্বর ১২৫৪ সালে ।

  1. মার্কো পোলো মাতার নাম কী ?

Ans: মার্কো পোলো মাতার নাম নিকোল আনা দেফুসে।

  1. মার্কো পোলো এর স্ত্রীর নাম কী ?

Ans: মার্কো পোলো এর স্ত্রীর নাম দান্তা বাদোর ।

  1. মার্কো পোলো এর বই এর নাম কী ?

Ans: মার্কো পোলো এর বই এর নাম মার্কো পোলো অভিযান ।

  1. বিশ্বের প্রথম দুঃসাহসী অভিযাত্রী কে ?

Ans: বিশ্বের প্রথম দুঃসাহসী অভিযাত্রী মার্কো পোলো ।

  1. মার্কো পোলো মৃত্যু কবে হয় ?

Ans: মার্কো পোলো মৃত্যু হয় ৮ জানুয়ারি ১৩২৪ সালে।

[আরও দেখুন, আলবার্ট আইনস্টাইন জীবনী – Albert Einstein Biography in Bengali

আরও দেখুন, গৌতম বুদ্ধের জীবনী – Gautam Buddha Biography in Bengali

আরও দেখুন, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর জীবনী – Rabindranath Tagore Biography in Bengali

আরও দেখুন, রাজা রামমোহন রায় জীবনী – Ram Mohan Roy Biography in Bengali

আরও দেখুন, ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর জীবনী – Ishwar Chandra Vidyasagar Biography in Bengali]

মার্কো পোলো এর জীবনী – Marco Polo Biography in Bengali

   অসংখ্য ধন্যবাদ সময় করে আমাদের এই ” মার্কো পোলো এর জীবনী – Marco Polo Biography in Bengali  ” পােস্টটি পড়ার জন্য। মার্কো পোলো এর জীবনী – Marco Polo Biography in Bengali পড়ে কেমন লাগলো কমেন্টে জানাও। আশা করি এই মার্কো পোলো এর জীবনী – Marco Polo Biography in Bengali পোস্টটি থেকে উপকৃত হবে। এই ভাবেই BhugolShiksha.com ওয়েবসাইটের পাশে থাকো যেকোনো প্ৰশ্ন উত্তর জানতে এই ওয়েবসাইট টি ফলাে করো এবং নিজেকে  তথ্য সমৃদ্ধ করে তোলো , ধন্যবাদ।

Subscribe Our YouTube Channel

Join Our Telegram Channel

E-mail Subscription