তেনজিং নোরগের জীবনী - Tenzing Norgay Biography in Bengali
তেনজিং নোরগের জীবনী - Tenzing Norgay Biography in Bengali

তেনজিং নোরগের জীবনী

Tenzing Norgay Biography in Bengali

তেনজিং নোরগের জীবনী – Tenzing Norgay Biography in Bengali : প্রথম এভারেস্ট শৃঙ্গ বিজয়ী শেরপা তেনজিং নোরগে (Tenzing Norgay) যুগে যুগে মানুষ অভিযান চালিয়েছে সমুদ্রে , মহাকাশে , মেরুপ্রদেশে , পর্বতে , গিরিগুহায় । একে একে সব জয় করেছে মানুষ । সুউচ্চ হিমালয়ের পর্বতশৃঙ্গ এভারেস্ট পৃথিবীর সর্বোচ্চ শৃঙ্গ ২৯,০২৮ ফুট উঁচু পর্বতশৃঙ্গ । এই শৃঙ্গও একদিন মানুষ জয় করে । একদিন যা কল্পনা ছিলো , স্বপ্ন ছিলো ১৯৫৩ সালের ২৯ শে মে তা – ও মানুষের পদতলে মাথা নোয়ালো স্বপ্ন হলো সত্যি । যে দু’জন মানুষ প্রথম পৃথিবীর সর্বোচ্চ শৃঙ্গে আরোহণ করেন তাঁদের একজন হলেন শেরপা তেনজিং নোরগে (Tenzing Norgay) । অন্যজন নিউজিল্যান্ডের এডমন্ড হিলারী ।

  প্রথম এভারেস্ট শৃঙ্গ বিজয়ী শেরপা তেনজিং নোরগে এর একটি সংক্ষিপ্ত জীবনী । তেনজিং নোরগে এর জীবনী – Tenzing Norgay Biography in Bengali বা তেনজিং নোরগে এর আত্মজীবনী বা (Tenzing Norgay Jivani Bangla. A short biography of Tenzing Norgay. Tenzing Norgay Birth, Place, Life Story, Life History, Biography in Bengali) তেনজিং নোরগে এর জীবন রচনা সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো।

তেনজিং নোরগে কে ছিলেন ? Who is Tenzing Norgay ?

তেনজিং নোরগে (Tenzing Norgay) ছিলেন একজন নেপালী শেরপা পর্বতারোহী ছিলেন। তেনজিং নোরগে (Tenzing Norgay) এবং এডমন্ড হিলারি ১৯৫৩ সালের ২৯ শে মে যৌথভাবে বিশ্বে সর্বপ্রথম পৃথিবীর সর্বোচ্চ শৃঙ্গ এভারেস্ট পর্বত জয় করেন।

প্রথম এভারেস্ট শৃঙ্গ বিজয়ী শেরপা তেনজিং নোরগের জীবনী – Tenzing Norgay Biography in Bengali :

নাম (Name) তেনজিং নোরগে (Tenzing Norgay)
জন্ম (Birthday) ২৯ মে ১৯১৪ (29th May 1914)
জন্মস্থান (Birthplace) নেপাল
অভিভাবক (Parents)/পিতামাতা খাংলা মিংমা (পিতা)

দোকমো কিন-জোম (মাতা)

পেশা  পর্বতারোহী
জাতীয়তা নেপালী, ভারতীয়
দাম্পত্য সঙ্গী দাওয়া ফুটি, আং লামু, দাক্কু
সন্তান পেম পেম, নিমা, জামলিং, নোরবু
বিখ্যাত জুটি এডমন্ড হিলারি
মৃত্যু (Death) ১৯ মে ১৯৮৬ (19th May 1986)

তেনজিং নোরগে জন্ম – Tenzing Norgay Birthday :

 শেরপা তেনজিং নরগে ১৯১৪ সালে নেপালে জন্মগ্রহণ করেন । তেনজিং নোরগে (Tenzing Norgay) জন্মসূত্রে যদিও একজন নেপালী , কিন্তু পরবর্তীকালে তেনজিং নোরগে (Tenzing Norgay) ভারতের নাগরিকত্ব গ্রহণ করেন । ১৯৩৩ সালে মাত্র উনিশ বছর বয়সে তেনজিং নোরগে (Tenzing Norgay) ভারতের নাগরিক হন । 

তেনজিং নোরগে শৈশবকাল – Tenzing Norgay Childhood :

 ছোটবেলায় তেনজিং নোরগে (Tenzing Norgay) এর ডাক নাম ছিলো নামগ্যাল ভাগাড়ি । এছাড়াও তেনজিং নোরগেকে (Tenzing Norgay) অন্য আর একটা নাম ছিলো কুমজং ভূটিয়া শেরপা তেনজিং নরগে বৌদ্ধধর্মের অনুসারী ছিলেন । স্বদেশে অভাবের তাড়নায় টিকতে না পেরে ভাগ্যান্বেষনে তেনজিং নোরগে (Tenzing Norgay) ভারতে চলে আসেন এবং সেদেশে স্থায়ীভাবে বসবাস করতে থাকেন ।

তেনজিং নোরগে বিশ্বের প্রথম এভারেস্ট জয়ী :

 পর্বতারোহণের ক্ষেত্রে শেরপা তেনজিং নরগের নাম চিরকাল স্বর্ণাক্ষরে লিপিবদ্ধ থাকবে । কারণ তেনজিং নোরগে (Tenzing Norgay) শুধু ভারতীয়দের মধ্যে প্রথম নয় , বিশ্বের প্রথম মানব যিনি যুগ্মভাবে পৃথিবীর সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ এভারেস্ট জয় করেছিলেন ( উচ্চতায় ২৯,০২৮ ফুট বা ৮,৮৪৮ মিটার ) । তেনজিং নোরগে (Tenzing Norgay) এর সঙ্গে অপর আর একজন যিনি এভারেস্ট শৃঙ্গে আরোহণ করেছিলেন তিনি নিউজিল্যান্ডের স্যার এ্যাডমন্ড হিলারী । অবশ্য তাদের পুরো দলের নেতৃত্বে ছিলেন কর্নেল জন হান্ট কিন্তু তিনি শীর্ষে উঠতে সক্ষম হননি ।

তেনজিং নোরগে এভারেস্ট অভিযান – Everest expedition to Tenzing Norgay :

 শেরপা তেনজিং নরগে সেবার হিমালয় অভিযানে বেরিয়েছিলেন বৃটিশ পর্বতারোহী দলের একজন বেতনভূক শেরপা বা সাহায্যকারী হিসাবে । শেরপাদের কাজ পর্বতারোহীদের পথ দেখানো এবং তাদের মালপত্র বহন করা । অর্থাৎ শেরপাদের জীবন ছিলো খুব শ্রমের , কষ্টের । অবশ্য নেপালী গুর্খারা জগতের সবচেয়ে কষ্টসহিষ্ণু জাতি হিসাবে বরাবরই সুপরিচিত । নেপালের বেকার জীবনের দুঃখ – কষ্ট ও বিড়ম্বনা এড়াতেই তারা পশ্চিমবঙ্গের দার্জিলিং শহরে এসে শেরপার পেশা বেছে নিতো জীবিকার তাগিদে । শেরপা হিসাবে তেনজিং আগে ১৯৩৬ সাল থেকে কাজ করতেন ।

 এভারেস্ট শৃঙ্গ জয়ের পর বিশ্ববাসী অবাক হয়ে গিয়েছিলো সেদিন । ইথারে যখন খবরটা সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছিলো , মানুষ ভেবেছিলো সত্যি ! এ – ও কি সম্ভব ? বিপদসঙ্কুল সুউচ্চ পর্বতশৃঙ্গ জয় করেছে মানুষ ?

[আরও দেখুন, জেমস কুক এর জীবনী – James Cook Biography in Bengali]

তেনজিং নোরগের সারা বিশ্বে সন্মান :

 সারা বিশ্ব শেরপা তেনজিং নরগে এবং এডমন্ড হিলারীর এভারেস্ট জয়কে অসাধারণ অনবদ্য বিস্ময়কর বলে স্বীকৃতি দিয়েছিলো সেদিন । ভারত সরকার ছাড়াও নেপাল এবং বৃটিশ সরকার তাদেরকে বিভিন্ন উপাধিতে সম্মানিত করেছিলো ।

তেনজিং নোরগে পুরস্কার – Tenzing Norgay Prize :

 শেরপা তেনজিং নরগেকে পর্বতারোহণের ক্ষেত্রে বিস্ময়কর কৃতিত্বের স্বীকৃতি হিসাবে ‘ জর্জ ’ পদকও পুরষ্কার দেওয়া হয়েছিলো ।

[আরও দেখুন, অ্যাডলফ হিটলার এর জীবনী – Adolf Hitler Biography in Bengali]

ভারত সরকার পশ্চিমবঙ্গের দার্জিলিং – এ ‘ হিমালয় পর্বতারোহণ ইনস্টিটিউট ’ প্রতিষ্ঠা :

 পর্বতারোহণে অন্যান্যদের প্রশিক্ষণ দেওয়ার জন্য ভারত সরকার পশ্চিমবঙ্গের দার্জিলিং – এ ১৯৫৪ সালে ‘ হিমালয় পর্বতারোহণ ইনস্টিটিউট ’ প্রতিষ্ঠা করে এবং তেনজিংকে এই প্রতিষ্ঠানের ডিরেক্টর পদে নিয়োজিত করে । 

তেনজিং নোরগে মৃত্যু – Tenzing Norgay Death :

 তেনজিংকে ‘ বরফের বাঘ ’ হিসাবে আখ্যায়িত করা হয়েছিলো । এভারেস্ট বিজয়ী প্রথম মানুষের অন্যতম একজন তেনজিং নরগে ১৯৮৬ সালে ৭২ বছর বয়সে মৃত্যুবরণ করেন ।

তেনজিং নোরগে জীবনী – Tenzing Norgay Biography in Bengali FAQ :

  1. তেনজিং নোরগে কে ছিলেন ?

Ans: তেনজিং নোরগে ছিলেন একজন নেপালী শেরপা পর্বতারোহী ছিলেন ।

  1. তেনজিং নোরগে কোথায় জন্মগ্রহণ করেন ?

Ans: তেনজিং নোরগে জন্মগ্রহণ করেন নেপাল এ ।

  1. কত সালে তেনজিং নোরগে জন্মগ্রহণ করেন ?

Ans: ২৯ মে ১৯১৪ সালে তেনজিং নোরগে জন্মগ্রহণ করেন ।

  1. তেনজিং নোরগে পিতার নাম কী ?

Ans: তেনজিং নোরগে পিতার নাম খাংলা মিংমা ।

  1. তেনজিং নোরগে মাতার নাম কী ?

Ans: তেনজিং নোরগে মাতার নাম দোকমো কিন-জোম।

  1. বিশ্বের প্রথম এভারেস্ট জয়ী কে ?

Ans: বিশ্বের প্রথম এভারেস্ট জয়ী তেনজিং নোরগে।

  1. তেনজিং নোরগে জুটি কে ছিলেন ?

Ans: তেনজিং নোরগে জুটি ছিলেন এডমন্ড হিলারি ।

  1. তেনজিং নোরগে কবে মারা যান ?

Ans: তেনজিং নোরগে মারা যান ১৯ মে ১৯৮৬ সালে।

[আরও দেখুন, আলবার্ট আইনস্টাইন জীবনী – Albert Einstein Biography in Bengali

আরও দেখুন, মার্কো পোলো এর জীবনী – Marco Polo Biography in Bengali

আরও দেখুন, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর জীবনী – Rabindranath Tagore Biography in Bengali

আরও দেখুন, রাজা রামমোহন রায় জীবনী – Ram Mohan Roy Biography in Bengali

আরও দেখুন, ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর জীবনী – Ishwar Chandra Vidyasagar Biography in Bengali]

তেনজিং নোরগে এর জীবনী – Tenzing Norgay Biography in Bengali

   অসংখ্য ধন্যবাদ সময় করে আমাদের এই ” তেনজিং নোরগে এর জীবনী – Tenzing Norgay Biography in Bengali  ” পােস্টটি পড়ার জন্য। তেনজিং নোরগে এর জীবনী – Tenzing Norgay Biography in Bengali পড়ে কেমন লাগলো কমেন্টে জানাও। আশা করি এই তেনজিং নোরগে এর জীবনী – Tenzing Norgay Biography in Bengali পোস্টটি থেকে উপকৃত হবে। এই ভাবেই BhugolShiksha.com ওয়েবসাইটের পাশে থাকো যেকোনো প্ৰশ্ন উত্তর জানতে এই ওয়েবসাইট টি ফলাে করো এবং নিজেকে  তথ্য সমৃদ্ধ করে তোলো , ধন্যবাদ।

Subscribe Our YouTube Channel

Join Our Telegram Channel

E-mail Subscription