সমুদ্রজলে উষ্ণতা (সমুদ্রবিদ্যা - ভূগোল) প্রশ্ন ও উত্তর | Temperature of Ocean Water - Oceanography Geography
সমুদ্রজলে উষ্ণতা (সমুদ্রবিদ্যা - ভূগোল) প্রশ্ন ও উত্তর | Temperature of Ocean Water - Oceanography Geography

সমুদ্রবিদ্যা – ভূগোল প্রশ্ন ও উত্তর

সমুদ্রজলে উষ্ণতা | Temperature of Ocean Water – Oceanography (Geography) Question and Answer in Bengali

সমুদ্রজলে উষ্ণতা (সমুদ্রবিদ্যা – ভূগোল) প্রশ্ন ও উত্তর | Temperature of Ocean Water (Oceanography – Geography) : সমুদ্রবিদ্যা – Oceanography (ভূগোল – Geography) সমুদ্রজলে উষ্ণতা – Temperature of Ocean Water প্রশ্ন ও উত্তর  নিচে দেওয়া হল। এই (সমুদ্রজলে উষ্ণতা – Temperature of Ocean Water – সমুদ্রবিদ্যা Oceanography – ভূগোল Geography) প্রশ্নোত্তর গুলি স্কুল, কলেজ ও বিভিন্ন প্রতিযোগিতা মূলক পরীক্ষার জন্য খুব ইম্পর্টেন্ট। তোমরা যারা সমুদ্রজলে উষ্ণতা – Temperature of Ocean Water – সমুদ্রবিদ্যা – Oceanography (ভূগোল – Geography) অতিসংক্ষিপ্ত প্রশ্ন ও উত্তর (Short Question and Answer) খুঁজে চলেছো, তারা নিচে দেওয়া প্রশ্নউত্তর ভালো করে পড়তে পারো। 

সমুদ্রজলে উষ্ণতা (Temperature of Ocean Water) সমুদ্রবিদ্যা – ভূগোল প্রশ্ন ও উত্তর

1. সমুদ্রপৃষ্টের জলের উষ্ণতা কিসের সাহায্যে পরিমাপ করা হয়?

Ans: সমুদ্রপৃষ্টের জলের উষ্ণতা প্রমাণ থার্মোমিটারের সাহায্যে পরিমাপ করা হয় ।

2. সমুদ্রজলের গভীরে উষ্ণতা কিসের সাহায্যে পরিমাপ করা হয়?

Ans: সমুদ্রজলের গভীরে উষ্ণতা রিভার্সিন থার্মোমিটারের সাহায্যে পরিমাপ করা হয় ।

3. থার্মোগ্রাফ এর  সাহায্যে কি পরিমাপ করা হয়?

Ans: থার্মোগ্রাফ এর  সাহায্যে অন্তঃ স্তরিয় জলের উষ্ণতা পরিমাপ করা হয় ।

4. সমুদ্রজলে উষ্ণতার তারতম্যের কারণগুলি লিখুন ।

Ans: উষ্ণতার তারতম্যের কারণগুলি হল-

  • i) সমুদ্রস্রোত : উষ্ণ সমুদ্রস্রোত উষ্ণতা বাড়াতে এবং শীতল সমুদ্রস্রোত উষ্ণতা কমাতে সাহায্য করে ।
  • ii) বাষ্পীভবন ও অধঃক্ষেপণ : বাষ্পীভবন বাড়লে উষ্ণতা বাড়ে এবং অধঃক্ষেপণের পরিমাণ বাড়লে উষ্ণতা কমে । 
  • iii) বায়ুপ্রবাহ : বায়ুপ্রবাহের দ্বারা ওপরের উষ্ণ জল অপসারিত হলে নীচের শীতল জল সমুদ্রজলের উষ্ণতা কমিয়ে দেয় । 
  • iv) লবণতা ও ঘনত্ব : লবণতা ও ঘনত্ব যত বেশি হবে সমুদ্রজলে উষ্ণতা তত বেশি হবে ।
  • v) হিমশৈলের উপস্থিতি : সমুদ্রজলে হিমশৈলের উপস্থিতি জলের উষ্ণতা কমিয়ে দেয় । এ ছাড়া সমুদ্রের আকৃতি ও উন্মুক্ততা , অক্ষাংশ , সূর্যরশ্মির পতন কোণ , শৈলশিরার অবস্থান , আগ্নেয়গিরির অগ্ন্যুৎপাত উষ্ণতাকে প্রভাবিত করে । 

5. সমুদ্রজলের উষ্ণতার নিয়ন্ত্রকগুলির নাম লিখুন । 

Ans: সমুদ্রজলের উষ্ণতার নিয়ন্ত্রকগুলির নাম হল – সমুদ্রজলের ঘনত্ব , উষ্ণ ও শীতল স্রোতের মিলিত প্রবাহ , মগ্নশৈলের উপস্থিতি ও সমুদ্রজলের অবাধ মিশ্রণ , সূর্যরশ্মির পতনকোণের তারতম্য , প্রত্যক্ষ সূর্যতাপ ও অ্যালবেডোর পরিমাণ , স্থানীয় জলবায়ুর প্রভাব , বাষ্পীভবন ও অধঃক্ষেপণের পরিমাণ , সমুদ্রের আকৃতি ও ভৌগোলিক অবস্থান , স্থানীয় বায়ুপ্রবাহ ও ঝড় , জলের পরিমাণ সমুদ্রজলের উষ্ণতাকে নিয়ন্ত্রণ করে । 

6. সমুদ্রজলে উষ্ণতার উৎস গুলি কি কি?

Ans: পৃথিবীর বিভিন্ন বাহ্যিক ও আভ্যন্তরীন কারণে সমুদ্রের জল উক্ত হয় ।

( a ) মুখ্য উৎস : ইনসোলেশান বা সূর্যরশ্মির তাপীয় ফল । 

( b ) গৌণ উৎস : ( i ) নিমজ্জিত আগ্নেয়গিরি থেকে নির্গত তাপ ; ( ii ) জলীয় বাষ্পের ঘনীভবনের লীনতাপ ; ( iii ) সমুদ্রজলে রাসায়নিক বিক্রিয়া ; ( iv ) সমুদ্রজলে পারমাণবিক পরীক্ষানিরীক্ষা ; ( v ) সমুদ্রস্রোত ও জোয়ারভাটা থেকে সৃষ্ট গতিশক্তি তাপশক্তিতে রূপান্তরের ফলে সমুদ্রের জল উষ্ণ হয় । 

7. সমুদ্রজলের উষ্ণতার গুরুত্ব লেখ ?

Ans: সমুদ্রজলের উষ্ণতার গুরুত্বগুলি হল-

i) মৎস্যচারণ ক্ষেত্র : নাতিশীতোষ্ণমণ্ডলের মাঝারি উষ্ণতায় মহীসোপান অঞ্চলে মৎস্যচারণ ক্ষেত্র গড়ে উঠেছে । 

ii) সামুদ্রিক উদ্ভিদ ও প্রাণীর সৃষ্টি : সমুদ্রজলের উষ্ণতা ও লবণতার ওপর নির্ভর করে নানান সামুদ্রিক উদ্ভিদ ও প্রাণীর জন্ম , বৃদ্ধি নিয়ন্ত্রিত হয়।

iii) জাহাজ চলাচল ও জাহাজডুবি : উষ্ণতা জাহাজ চলাচলকে নিয়ন্ত্রণ করে । যেমন , হিমাঙ্কের নীচে তাপমাত্রা জাহাজ চলাচলের পরিপন্থী । হিমশৈলের অবস্থান জাহাজডুবি ঘটাতে পারে । 

iv) ঘন কুয়াশা ও ঝড় – ঝঞ্ঝা : সমুদ্রের জলের উষ্ণতা ও শীতলতা ঘন কুয়াশা ও ঝড় – ঝঞ্ঝা ঘটাতে সাহায্য করে । 

v) বরফ জমাট ও বরফমুক্তি : উষ্ণস্রোত বরফমুক্তি ও শীতলস্রোত বরফ জমাটিকরণে সাহায্য করে । 

8. ক্রান্তীয় অঞ্চলের পশ্চিমাংশে ও নাতিশীতোষ্ণ অঞ্চলের পূর্বাংশের সমুদ্র জলের উষ্ণতা বেশি কেন ? 

Ans: কর্কটক্রান্তীয় অঞ্চলে উত্তর – পূর্ব আয়নবায়ু এবং মকরক্রান্তীয় অঞ্চলে দক্ষিণ – পূর্ব আয়নবায়ু , পূর্বদিক থেকে পশ্চিমদিকে অগ্রসর হয় । বায়ুপ্রবাহের সঙ্গে সামঞ্জস রেখে ক্রান্তীয় অঞ্চলের উষ্ণ সমুদ্রস্রোত পূর্ব থেকে পশ্চিমে সরে যায় ।

  অপরপক্ষে , উত্তর নাতিশীতোষ্ণমণ্ডলে দক্ষিণ পশ্চিম পশ্চিমাবায়ু ও দক্ষিণ নাতিশীতোষ্ণমণ্ডলে উত্তর পশ্চিম পশ্চিমাবায়ু পশ্চিমদিক থেকে পূর্বদিকে অগ্রসর হয় । এর সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে উষ্ণ সমুদ্রস্রোতও পশ্চিমদিক থেকে পূর্বদিকে অগ্রসর হয় । ফলে , ক্রান্তীয় অঞ্চলের পশ্চিমাংশে এবং নাতিশীতোয় অঞ্চলের পূর্বাংশে জলের উষ্ণতা বেশি ।

9. ‘আরব সাগরের তুলনায় লোহিত সাগরের জল উষ্ণ” – ব্যাখ্যা কর । 

Ans: আরব সাগরের তুলনায় লোহিত সাগরের জল উষ্ণ । এর কারণগুলি হল –

( A ) মগ্ন শৈলশিরার অবস্থান : আরব সাগর ও লোহিত সাগরের সংযোগস্থল বাব – এল – মন্দেব নামক প্রণালীতে সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে মাত্র 350 মিটার গভীর একটি মগ্ন শৈলশিরা অবস্থান করার ফলে আরব সাগরের শীতল জল উষ্ণ লোহিত সাগরে প্রবেশ করতে পারে না । তাই সমুদ্রপৃষ্ঠে এই দুই সমুদ্রে উষ্ণতা একই হলেও  2100 মি . গভীরতায় আরব সাগরের উষ্ণতা যেখানে 2 ° C সেখানে একই গভীরতায় লোহিত সাগরের উষ্ণতা হয় 21 ° C ।

( B ) সমুদ্রের অবস্থান : লোহিত সাগরের অবস্থান ক্রান্তীয় মণ্ডলে । কিন্তু আরব সাগর নিরক্ষীয় অঞ্চলের প্রান্তভাগে অবস্থিত ও পরিচলন বৃষ্টির জন্য উষ্ণতা কম । 

( C ) গভীরতা : লোহিত সাগরের গভীরতা আরব সাগরের অপেক্ষা কম , তাই গভীরতা কম হওয়ায় জলের পরিমাণ কম বলে উষ্ণতা বেশি । 

10. প্রায় একই গভীরতায় অবস্থিত হওয়া সত্ত্বেও ভূমধ্যসাগরের জল আটলান্টিক মহাসাগরের জলের তুলনায় বেশি উষ্ণ কেন ? 

Ans: সমুদ্রের উন্মুক্ততা : ভূমধ্যসাগর আবদ্ধ , কিন্তু আটলান্টিক মহাসাগর উন্মুক্ত হওয়ায় জলের অবাধ সঞ্চালন দেখা যায় । 

নদীর পতন : ভূমধ্যসাগর অপেক্ষা আটলান্টিক মহাসাগরে অনেক বড়ো নদী পতিত হওয়ায় জলের পরিমাণ বেশি ও বাষ্পীভবনের পরিমাণ কম । 

মগ্ন শৈলশিরার অবস্থান : জিব্রাল্টার প্রণালীর মুখে সিল নামক একটি মগ্ন শৈলশিরার অবস্থানের জন্য আটলান্টিক মহাসাগরের শীতল জলরাশি ভূমধ্যসাগরে ঢুকতে পারে না।

11. ভারত মহাসাগরের তুলনায় লোহিত সাগরের জল উষ্ণতর কেন ? 

Ans: আন্তঃসাগরীয় শৈলশিরার অবস্থান : ভারত মহাসাগর ও লোহিত সাগরের মিলনস্থলে একটি মগ্ন আন্তঃসাগরীয় শৈলশিরার অবস্থানের দরুন ভারত মহাসাগরের শীতল জল লোহিত সাগরে ঢুকতে পারে না । 

স্থলবেষ্টন : লোহিত সাগর প্রায় পুরোপুরি স্থলবেষ্টিত হওয়ায় উত্তপ্ত ভূখণ্ড থেকে তাপ পরিবহন ও বিকিরণের মাধ্যমে জল উষ্ণতর হয়ে ওঠে । 

শীতল স্রোতের মিশ্রণ : ভারত মহাসাগরে কুমেরু , পশ্চিম অস্ট্রেলীয় প্রভৃতি শীতল স্রোতের মিশ্রণ ঘটেছে , কিন্তু লোহিত সাগরে এরুপ শীতল স্রোতের মিশ্রণ দেখা যায় না । 

12. সমুদ্রজলে উন্নতার অনুভূমিক বণ্টন বা অক্ষাংশপত বণ্টন বলতে কী বোঝায় ? 

Ans: বিভিন্ন সাগর ও মহাসাগরের পৃষ্ঠীয় স্তরের জলের উষ্ণতার বণ্টনকে জলের অনুভূমিক বণ্টন বলে । 

13. সমুদ্রজলে উষ্ণতার উল্লম্ব বণ্টন বলতে কী বোঝেন ? 

Ans: সমুদ্রের গভীরতা অনুযায়ী উষ্ণতার হ্রাসবৃদ্ধিকে উষ্ণতার উল্লম্ব বণ্টন বলে ।

বৈশিষ্ট্য : সাধারণত 200 মিটার গভীরতা পর্যন্ত উষ্ণতা একই রকম থাকে , কিন্তু তারপর কমতে থাকে । 200 মিটারের নীচে সূর্যালোকের কোনো কার্যকরী প্রভাব থাকে না ।  সূর্যের তাপশক্তির প্রায় 90 শতাংশ 200 মিটারের মধ্যে শোষিত হয় । 

14. সমুদ্রজলের উষ্ণতার দৈনিক প্রসর কী ? 

Ans: সমুদ্রজলের দৈনিক উষ্ণতার প্রসর মাত্র 1 ° সে । সাধারণত সমুদ্রজল সর্বাধিক উষ্ণ হয় দুপুর ২ টার সময় এবং সবচেয়ে কম হয় বিকাল 5 টার সময় ।

নির্ভরশীল বিষয়সমূহ : আকাশের মেঘাচ্ছন্নতা ,  সমুদ্রজলের উষ্ণয়ন ও শীতলীভবন ,  সমুদ্র জলের স্তরায়ন , বায়ুপ্রবাহের স্থায়িত্ব , জলের ঘনত্ব প্রভৃতি বিষয়ের ওপর সমুদ্রজলের উষ্ণতার দৈনিক প্রসর নির্ভরশীল । 

উদাহরণ : নিম্ন অক্ষাংশীয় অঞ্চলে দৈনিক উষ্ণতার প্রসর 0.30 ° সে থেকে 0.40 ° সে । 

15. উষ্ণতার তারতম্য অনুযায়ী সমুদ্রকে বিভিন্ন গভীরতা অঞ্চলে বিভক্ত কর ?

Ans: উষ্ণতার তারতম্য অনুযায়ী সমুদ্রকে তিনটি গভীরতা অঞ্চলে বিভক্ত করা হয় । 

মিশ্র উপরিস্তর : সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে 500 মিটার গভীরতা পর্যন্ত সমুদ্রতরঙ্গ ও স্রোত প্রবাহের প্রভাব বেশি থাকায় এখানে তেমন উষ্ণতার পরিবর্তন দেখা যায় না । 

তাপনতি অঞ্চল : প্রায় 500-1,200 মিটার গভীরতা পর্যন্ত উষ্ণতা দ্রুত হারে নামতে থাকে । 

গভীর অঞ্চল : 1,200 মিটারের নীচে তাপহ্রাসের হার অত্যন্ত কম । 

FILE INFO : সমুদ্রজলে উষ্ণতা – Temperature of Ocean Water | সমুদ্রবিদ্যা – ভূগোল প্রশ্নোত্তর (Oceanography – Geography)

File Details:

PDF Name : সমুদ্রজলে উষ্ণতা – Temperature of Ocean Water | সমুদ্রবিদ্যা – ভূগোল প্রশ্নোত্তর (Oceanography – Geography)

Price : FREE

Download Link : Click Here To Download

INFO : Geography – Oceanography – Question and Answer | ভূগোল – সমুদ্রবিদ্যা – সমুদ্রজলে উষ্ণতা (Temperature of Ocean Water) প্রশ্নোত্তর

 ” ভূগোল (Geography) – সমুদ্রবিদ্যা (Oceanography) – সমুদ্রজলে উষ্ণতা – Temperature of Ocean Water “ একটি অতি গুরুত্বপূর্ণ টপিক বিভিন্ন শ্রেনীর পরীক্ষা (Class 5, 6, 7, 8, 9,  Madhyamik, Class 11, Higher Secondary – HS, College & University Exam) এবং বিভিন্ন চাকরির (WBCS, WBSSC) পরীক্ষায় এখান থেকে প্রশ্ন অবশ্যম্ভাবী । সে কথা মাথায় রেখে BhugolShiksha.com এর পক্ষ থেকে ভূগোল পরীক্ষা প্রস্তুতিমূলক প্রশ্নো ও উত্তর উপস্থাপনের প্রচেষ্টা করা হলাে। ছাত্রছাত্রী, পরীক্ষার্থীদের উপকারে লাগলে, আমাদের প্রয়াস  ভূগোল (Geography) সমুদ্রবিদ্যা (Oceanography) – সমুদ্রজলে উষ্ণতা – Temperature of Ocean Water / সমুদ্রজলে উষ্ণতা সংক্ষিপ্ত ছোট প্রশ্ন ও উত্তর / সমুদ্রজলে উষ্ণতা (সমুদ্রবিদ্যা – ভূগোল) প্রশ্ন ও উত্তর | Temperature of Ocean Water (Oceanography – Geography)  SAQ / Short Question and Answer / সমুদ্রজলে উষ্ণতা (সমুদ্রবিদ্যা – ভূগোল) প্রশ্ন ও উত্তর | Temperature of Ocean Water (Oceanography – Geography) Quiz / সমুদ্রজলে উষ্ণতা (সমুদ্রবিদ্যা – ভূগোল) প্রশ্ন ও উত্তর | Temperature of Ocean Water (Oceanography – Geography) QNA / সমুদ্রজলে উষ্ণতা (সমুদ্রবিদ্যা – ভূগোল) প্রশ্ন ও উত্তর | Temperature of Ocean Water (Oceanography – Geography) Question and Answer FREE PDF Download ) পরীক্ষা প্রস্তুতিমূলক প্রশ্নোত্তর সফল হবে।

সমুদ্রজলে উষ্ণতা (সমুদ্রবিদ্যা – ভূগোল) প্রশ্ন ও উত্তর | Temperature of Ocean Water (Oceanography – Geography) Question and Answer in Bengali

  আশা করি এই ” সমুদ্রজলে উষ্ণতা (সমুদ্রবিদ্যা – ভূগোল) প্রশ্ন ও উত্তর | Temperature of Ocean Water – Oceanography Geography ”  পোস্টটি থেকে উপকৃত হয়েছেন। স্কুল, কলেজ ও বিভিন্ন ছাত্রছাত্রীদের পড়াশোনার ডিজিটাল মাধ্যম BhugolShiksha.com । এর প্রধান উদ্দেশ্য পঞ্চম শ্রেণী থেকে নবম শ্রেণী, মাধ্যমিকউচ্চ মাধ্যমিক সমস্ত বিষয় এবং গ্রাজুয়েশনের শুধুমাত্র ভূগোল বিষয়কে  সহজ বাংলা ভাষায় আলোচনার মাধ্যমে ছাত্রছাত্রীদের কাছে সহজ করে তোলা। 

সমুদ্রজলে উষ্ণতা (সমুদ্রবিদ্যা – ভূগোল) প্রশ্ন ও উত্তর | Temperature of Ocean Water (Oceanography – Geography)

        আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ সময় করে আমাদের এই ” সমুদ্রজলে উষ্ণতা (সমুদ্রবিদ্যা – ভূগোল) প্রশ্ন ও উত্তর | Temperature of Ocean Water (Oceanography – Geography) ” পােস্টটি পড়ার জন্য। এই ভাবেই আমাদের ভূগোল শিক্ষা – Bhugol Shiksha – BhugolShiksha.com ওয়েবসাইটের পাশে থাকুন। ভূগোল বিষয়ে যেকোনো প্ৰশ্ন উত্তর জানতে এই ওয়েবসাইটটি ফলাে করুন এবং নিজেকে ভৌগোলিক  তথ্য সমৃদ্ধ করে তুলুন , ধন্যবাদ।

Subscribe Our YouTube Channel

Join Our Telegram Channel

E-mail Subscription