মৃত্তিকা (ভারতের আঞ্চলিক ভূগোল - ভূগোল) প্রশ্ন ও উত্তর | Soil (Regional Geography of India) Geography
মৃত্তিকা (ভারতের আঞ্চলিক ভূগোল - ভূগোল) প্রশ্ন ও উত্তর | Soil (Regional Geography of India) Geography

ভারতের আঞ্চলিক ভূগোল – ভূগোল প্রশ্ন ও উত্তর

মৃত্তিকা | Soil – Regional Geography of India (Geography) Question and Answer in Bengali

মৃত্তিকা (ভারতের আঞ্চলিক ভূগোল – ভূগোল) প্রশ্ন ও উত্তর | Soil (Regional Geography of India – Geography) : ভারতের আঞ্চলিক ভূগোল – Regional Geography of India (ভূগোল – Geography) মৃত্তিকা – Soil প্রশ্ন Oও উত্তর  নিচে দেওয়া হল। এই (মৃত্তিকা – Soil – ভারতের আঞ্চলিক ভূগোল Regional Geography of India – ভূগোল Geography) প্রশ্নোত্তর গুলি স্কুল, কলেজ ও বিভিন্ন প্রতিযোগিতা মূলক পরীক্ষার জন্য খুব ইম্পর্টেন্ট। তোমরা যারা মৃত্তিকা – Soil – ভারতের আঞ্চলিক ভূগোল – Regional Geography of India (ভূগোল – Geography) অতিসংক্ষিপ্ত প্রশ্ন ও উত্তর (Short Question and Answer) খুঁজে চলেছো, তারা নিচে দেওয়া প্রশ্নউত্তর ভালো করে পড়তে পারো।

মৃত্তিকা (Soil) ভারতের আঞ্চলিক ভূগোল – ভূগোল প্রশ্ন ও উত্তর

1. কারেওয়া কী ? 

Ans: অবস্থান : জম্মু – কাশ্মীর রাজ্যে কাশ্মীর উপত্যকার এক প্রাচীন মৃত্তিকাযুক্ত স্থানকে কারেওয়া বলে ।

উৎপত্তি : ঝিলাম ও তার উপনদীগুলো দ্বারা প্রাচীনকাল থেকে বয়ে আনা হিমালয়ের ক্ষয়জাত পদার্থের সঞ্চয়ে কারেওয়া উৎপত্তি করেছে ।

বৈশিষ্ট্য : i ) প্রাচীন মৃত্তিকাযুক্ত স্থান । ii ) পলি সমৃদ্ধ মৃত্তিকা স্থান । iii ) মালভূমিময় ভূভাগ । iv ) কারেওয়া অনুর্বর । গুরুত্ব : কৃষির অন্তরায় হলেও বর্তমানে জলবৃদ্ধির কারণে কৃষিরও উন্নতি দেখা যাচ্ছে ।

2. রেগুর কী ? 

Ans: সংজ্ঞা দাক্ষিণাত্য মালভূমির কৃষ্ণমৃত্তিকাকে স্থানীয় ভাষায় ‘ রেগুর ‘ বলে । অবস্থান : মহারাষ্ট্র মালভূমি , গুজরাটের ব্রোচ , বরোদা , সুরাট , মধ্যপ্রদেশের পশ্চিমাংশ , কর্ণাটকের উত্তরভাগ , অন্ধ্রপ্রদেশের উত্তর – পশ্চিম ভাগ ।

উৎপত্তি : 13 কোটি বছর পূর্বে বিদার অগ্ন্যুৎপাতে নির্গত লাভা ছড়িয়ে পড়ে ‘ রেগুর ’ মৃত্তিকা সৃষ্টি করেছে ।

বৈশিষ্ট্য : i ) ব্যাসল্ট শিলায় গঠিত । ii ) এর রং কালো । iii ) কাদা ও পলি বেশি ; বালি কম । iv ) উর্বরতা ও জলধারণক্ষমতা বেশি ।

উৎপন্ন ফসল : তুলা , ইক্ষু , চীনাবাদাম , কমলালেবু , জোয়ার , পেঁয়াজ প্রভৃতি ।

3. ভারতে ল্যাটেরাইট মৃত্তিকার অবস্থান লেখো । 

Ans: অর্থ : ল্যাটিন শব্দ ‘ লেটার ‘ থেকে ল্যাটেরাইট কথাটি এসেছে , যার অর্থ পোড়া ইটের মতো লাল ।

অবস্থান : i ) পশ্চিমঘাট , কার্ডামম ও নীলগিরি পার্বত্য অঞ্চল । ii ) ছোটনাগপুর মালভূমি । iii ) ওড়িষার পাহাড়ী অঞ্চল । iv ) কর্ণাটকের কিছু স্থান । v ) পশ্চিমবঙ্গের বাঁকুড়া , পুরুলিয়া জেলার কিছু স্থান ।

4. ল্যাটেরাইট মাটির বৈশিষ্ট্য কী ? 

Ans: উৎপত্তি : উন্ন – আর্দ্র জলবায়ুতে ধৌত প্রক্রিয়া ও রাসায়নিক আবহবিকারের ফলে এই মাটির সৃষ্টি হয় ।

বৈশিষ্ট্য : ( i ) ধৌত প্রক্রিয়ায় দ্রবণশীল পদার্থ মাটির ‘ B ‘ স্তরে চলে যায় । ( ii ) লৌহ ও অ্যালুমিনিয়াম অক্সাইড বেশি থাকে । ( iii ) শক্ত ও অনুর্বর হয় । ( iv ) জলধারণ ক্ষমতা কম । ( v ) কাদা ও পলি কম এবং পাথরের ভাগ বেশি থাকে । উৎপন্ন ফসল : প্রচুর সার ও সেচ দ্বারা কিছু স্থানে চা , কফি , ভুট্টা , ধান , কাজুবাদাম চাষ হচ্ছে । গুরুত্ব : ল্যাটেরাইট থেকে প্রাপ্ত বক্সাইট হতে অ্যালুমিনিয়াম উৎপন্ন হয় ।

5. ভারতের সিরোজেম মৃত্তিকা কী ?

Ans: সংজ্ঞা : মরু ও মরুপ্রায় অঞ্চলের হালকা ধূসর বর্ণের উপবর্গের আঞ্চলিক মাটিকে সিরোজেম বলে । অবস্থান : আরাবল্লীর পশ্চিমভাগ , পাঞ্জাব ও হরিয়ানা রাজ্যের কিছু স্থান ; ক্ষ 42 হাজার বর্গকিমি স্থানে এই মাটি অবস্থান করছে । রাজস্থান মধুর বালুকারাশির যান্ত্রিক আবহবিকারে এর সৃষ্টি হয়েছে ।

বৈশিষ্ট্য : i ) ইহা ক্ষারধর্মী । ii ) লবণের ভাগ বেশি ও জৈব পদার্থ কম । iii ) মাটির কিছু স্থানে চুন ও লবণের স্তর থাকে । গুরুত্ব : বর্তমানে সেচের সম্প্রসারণ ও সার প্রয়োগে জোয়ার , বাজরা , কিছু খাদ্যশস্য , তুলা ( গঙ্গানগর জেলা ) প্রভৃতির চাষ হচ্ছে ।

6. পশ্চিমঘাট পর্বতের পশ্চিমাংশে ল্যাটেরাইট ও পূর্বাংশে কৃয়মৃত্তিকা দেখা যায় কারণ ব্যাখা করো । 

Ans: পশ্চিমঘাট পর্বতের পশ্চিমাংশে মহারাষ্ট্রের দক্ষিণে , কর্ণাটক , কেরলের কার্ডামম পাহাড় ও মালাবার অঞ্চলে ল্যাটেরাইট মাটি দেখা যায় । এখানে অধিক বৃষ্টিপাতের দরুণ এই মাটি সৃষ্টি হয়েছে । অধিক বৃষ্টিতে চুন ও সিলিকা ধৌত প্রক্রিয়ায় নিচে অপসৃত হয় ; উপরিভাগে অ্যালুমিনিয়াম ও আয়রণ অক্সাইড পড়ে থেকে এই মাটি সৃষ্টি হয় । অন্যদিকে পশ্চিমঘাটের পূর্বঢালে দাক্ষিণাত্যের মহারাষ্ট্র , কর্ণাটকের উত্তরাংশ , অন্ধপ্রদেশ ও মধ্যপ্রদেশের পশ্চিমাংশ , গুজরাটের কাথিয়াবাড় উপদ্বীপে কৃয় মৃত্তিকা দেখা যায় । কারণ কম বৃষ্টি বলে পটাশ , চুন , অ্যালুমিনিয়াম , ক্যালসিয়াম কার্বনেট , জৈব পদার্থ জমা থেকে এই মাটি সৃষ্টি করে । নিস্ ও শিষ্ট শিলা থেকে এর সৃষ্টি হয় ।

7. ছোটনাগপুর মালভূমি অঞ্চলের মৃত্তিকা পরিণত অথচ গাঙ্গেয় সমভূমি অঞ্চলের মাটি অপরিণত – কারণ ব্যাখ্যা করো । 

Ans: ছোটনাগপুর মালভূমিতে আম্লিক পেডালফার গোত্রের ল্যাটেরাইট মাটি গঠিত হয়েছে । এই মাটি পরিণত । মাটি সৃষ্টির সকল প্রক্রিয়া অতিক্রম করেছে বলে এর পরিলেখ সুগঠিত । মাটি দীর্ঘসময় প্রক্রিয়ায় সৃষ্টি হয়েছে । A , B , C স্তর সুগঠিত , নিজস্ব বৈশিষ্ট্যে এই মাটি সৃষ্ট হয়েছে । গাঙ্গেয় সমভূমিতে অপরিণত পলিগঠিত মাটি সৃষ্টি হয়েছে । এর পরিলেখ সুগ্রথিত ও সুগঠিত নয় । A , B , C স্তর সুগঠিত নয় । দীর্ঘকাল নদীবাহিত পলি সঞ্চয়ে এই মাটি সৃষ্টি হয়েছে ; যে কারণে মৃত্তিকা সৃষ্টির প্রক্রিয়ার প্রভাব কম ।

8. ভারতের কোন কোন অঞ্চলে ভূমিক্ষয় অধিক ? 

Ans: ভারত বিশ্বের সর্বাধিক ভূমিক্ষয়প্রবণ দেশ । এখানে প্রায় 18 কোটি হেক্টর জমি ভূমিক্ষয়ের কবলে । যেমন SIDE i ) চম্বল বা বীহড় উপত্যকা ( উন্মুক্ত কৃষিক্ষেত্রে ও প্রান্তরে বৃষ্টিপাতের ফলে ‘ খোয়াই ‘ ক্ষয়ের ফলে ) ; ii ) রাজস্থান সমভূমি , গুজরাটের পূর্বাংশ ও হিমালয়ের দক্ষিণসীমা ( নিরবিচ্ছিন্ন প্রবল বায়ুপ্রবাহ ও উন্নতার ফলে ) ; iii ) গঙ্গা – ব্রহ্মপুত্র সমভূমি ও দাক্ষিণাত্যের মালভূমি ( জলধারার দ্বারা স্তর ক্ষয় দ্বারা ) ; iv ) পশ্চিম রাজস্থান ও মধ্যপ্রদেশের পশ্চিম অংশ ( ধুলিঝড়ের আকারে বায়ুপ্রবাহ ) ; ( v ) হিমালয়ের পার্বত্য অঞ্চল ও মালভূমি অঞ্চল ( ঝুম চাষের জন্য ) ; এছাড়া ( vi ) পশ্চিমবঙ্গের দক্ষিণ – পশ্চিম অংশ : ( vii ) তামিলনাড়ু ( viii ) অন্ধ্ৰপ্ৰদেশ ; ( ix ) উপকূলীয় অঞ্চল প্রধান ভূমিক্ষয়প্রবণ অঞ্চল ।

9. ভারতে ভূমিক্ষয়ের প্রভাব লেখো । 

Ans: ভূমিক্ষয়ের ফলে ভারতে নিম্নলিখিত প্রতিকূল প্রভাব দেখা যায়

i ) মৃত্তিকার উর্বরতা হ্রাস : অতিরিক্ত ভূমিক্ষয়ে লোহিত ও পার্বত্য মৃত্তিকার উর্বরতা শক্তি হ্রাস পায় ।

ii ) বন্যার প্রাদুর্ভাব : দামোদর উপত্যকায় জলসঞ্চয় ক্ষমতা প্রতি বৎসর 15000 ঘনমিটার হ্রাস পেয়ে বন্যার সৃষ্টি হয়েছে ।

iii ) ভৌম জলস্তরের হ্রাস : 1991 খ্রিস্টাব্দের গণনা অনুযায়ী ভারতের সমভূমির ভৌম জলন্তর প্রায় 1.36 মিটার গভীরে চলে গেছে ।

iv ) মৃত্তিকার লবণাক্ততা বৃদ্ধি : হরিয়ানা , পাঞ্জাব ও উত্তর – পশ্চিম ভারতে পলি মৃত্তিকায় লবণের পরিমাণ 30 বৎসরে অধিক বৃদ্ধি পেয়েছে ।

v ) মরুকরণের পরিমাণ বৃদ্ধি : রাজস্থান মরুভূমির সম্প্রসারণ । এছাড়া ভূমিক্ষয়ের ফলে স্বাভাবিক উদ্ভিদ ও কৃষিজ ফসলের বিকাশ হয় না ।

10. শিবালিক অঞ্চলে মৃত্তিকাস্তর পাতলা ও তরাই অঞ্চলে গভীর বা পুরু – কারণ ব্যাখ্যা করো । 

Ans: ভারতের উত্তরে হিমালয় পর্বতের শিবালিক অংশে মৃত্তিকা স্তর অগভীর বা পাতলা হয় । এখানে মৃত্তিকা স্তর ৫০-৭৫ সেমির মতো । কারণ পাহাড়ী অঞ্চল বলে ভূমির ঢাল বেশী । এখানে ভূমির ঢাল ১৬-১৮ ভাগ । এখানে ভূমিঢাল বেশী বলে বলে অনুস্রবন কম ও ভূমিক্ষয় বেশী । তাই মৃত্তিকা পাতলা । অন্যদিকে শিবালিকের পাদদেশে তরাই সমভূমিতে ভূমিঢাল কম । এখানে ভূমিঢাল ৮ ভাগের কম । ফলে অনুষবন যেমন বেশী তেমনি ভূমিক্ষয় কম বলে মৃত্তিকাস্তর গভীর বা পুরু হয় ।

11. ভারতে ভূমিক্ষয় নিবারণে ব্যবস্থা লেখো । 

Ans: বিখ্যাত মৃত্তিকাবিজ্ঞানী H. Bennett- এর মতে , “ জাতীয় স্তরে ভূমি সংরক্ষণের জন্য উপযুক্তভাবে ভূমির ব্যবহারবিধি এবং কৃষিজমির বৈজ্ঞানিক ব্যবহার গুরুত্বপূর্ণ । ” বিভিন্ন পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনায় ভূমিক্ষয় রোধে ভারতে নিম্নলিখিত ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে—

( a ) প্রথম পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনায় সমোচ্চরেখা বাঁৰ , ধাপ কৃষির আওতায় 7 লক্ষ একর জমি আনা হয়েছে ও দেরাদুন , চণ্ডীগড় ও কোটাতে ভূমি সংরক্ষণাগার স্থাপিত হয় ;

( b ) দ্বিতীয় পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনায় লবণাক্ত ভূমি পুনরুদ্ধার , মরুভূমিতে বৃক্ষরোপণ করা হয় ;

( c ) তৃতীয় ও চতুর্থ পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনায় খোয়াই ও স্তর ক্ষয় নিবারণে ব্যবস্থা নেওয়া হয় ;

( d ) পঞ্চম পরিকল্পনায় মৃত্তিকা ও সেচ মানচিত্র প্রকাশ করা হয় ;

( e ) ষষ্ঠ পরিকল্পনায় ব্যাপক সামাজিক বনসৃজন করা হয় ;

( f ) সপ্তম , অষ্টম ও নবম পরিকল্পনায় যথাক্রমে 500 , 670 ও .777 কোটি টাকা ব্যয় করা হয় ও

( g ) দশম ও একাদশ পরিকল্পনায় মহাকাশ চিত্রের সাহায্যে বনসৃজন , ঝুমচাষ রোধ , জৈব সার ব্যবহার দ্বারা মৃত্তিকা সংরক্ষণের ব্যাপক উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে ।

  1. ভারতের অর্থনৈতিক জনজীবনে মৃত্তিকার প্রভাব লেখো ।

Ans: ভারতের মানুষের অর্থনৈতিক কার্যকলাপে মৃত্তিকার যথেষ্ট প্রভাব রয়েছে ; যেমন—

1 ) কৃষিতে প্রভাব : ( i ) গঙ্গা – সিন্ধু অববাহিকার পলিমাটিতে ধান , গম , পাট চাষ হয় । ( ii ) দাক্ষিণাত্যের কালো মাটিতে ভালো তুলা , গম , ইক্ষু চাষ হয় । ( iii ) পার্বত্য অঞ্চলের লোহিত মাটিতে চা , কফি চাষ হয় । ( iv ) উপকূলে নারকেল চাষ হয় ।

2 ) খনিজ সংগ্রহ : ( i ) ল্যাটেরাইট মাটি থেকে বক্সাইট সংগৃহিত হয় । ( ii ) কেরলের মোনাজাইট বালি থেকে আণবিক খনিজ পাওয়া যায় ।

3 ) শিল্পে প্রভাব : ( i ) অনুর্বর মাটি থেকে ইট ও টালি প্রস্তুত হয় । ( ii ) খড়িমাটি রং করতে ব্যবহৃত হয় । ( iii ) সিমেন্ট শিল্পে ব্যবহার হয় । ( iv ) এঁটেল মাটি মৃৎশিল্পে ব্যবহার হয় ।।

4 ) উদ্ভিদে প্রভাব  ঃ ( i ) লবণাক্ত মাটিতে নারকেল , ঝাউ ও ম্যানগ্রোভ বৃক্ষ জন্মে । ( ii ) পার্বত্য অঞ্চলের পডজল মাটিতে সরলবর্গীয় গাছ জন্মে ।

5 ) বাসস্থান নির্মাণে প্রভাব : ( i ) মাটির ঘরবাড়ি তৈরী হয় । ( ii ) ইট , টালি তৈরী হয় ।

FILE INFO : মৃত্তিকা – Soil | ভারতের আঞ্চলিক ভূগোল – ভূগোল প্রশ্নোত্তর (Regional Geography of India – Geography)

File Details:

PDF Name : মৃত্তিকা – Soil | ভারতের আঞ্চলিক ভূগোল – ভূগোল প্রশ্নোত্তর (Regional Geography of India – Geography)

Price : FREE

Download Link : Click Here To Download

INFO : Geography – Regional Geography of India – Question and Answer | ভূগোল – ভারতের আঞ্চলিক ভূগোল – মৃত্তিকা (Soil) প্রশ্নোত্তর

” ভূগোল (Geography) – ভারতের আঞ্চলিক ভূগোল (Regional Geography of India) – মৃত্তিকা – Soil “ একটি অতি গুরুত্বপূর্ণ টপিক বিভিন্ন শ্রেনীর পরীক্ষা (Class 5, 6, 7, 8, 9,  Madhyamik, Class 11, Higher Secondary – HS, College & University Exam) এবং বিভিন্ন চাকরির (WBCS, WBSSC) পরীক্ষায় এখান থেকে প্রশ্ন অবশ্যম্ভাবী । সে কথা মাথায় রেখে BhugolShiksha.com এর পক্ষ থেকে ভূগোল পরীক্ষা প্রস্তুতিমূলক প্রশ্নো ও উত্তর উপস্থাপনের প্রচেষ্টা করা হলাে। ছাত্রছাত্রী, পরীক্ষার্থীদের উপকারে লাগলে, আমাদের প্রয়াস  ভূগোল (Geography) ভারতের আঞ্চলিক ভূগোল (Regional Geography of India) – মৃত্তিকা – Soil / মৃত্তিকা সংক্ষিপ্ত ছোট প্রশ্ন ও উত্তর / মৃত্তিকা (ভারতের আঞ্চলিক ভূগোল – ভূগোল) প্রশ্ন ও উত্তর | Soil (Regional Geography of India – Geography)  SAQ / Short Question and Answer / মৃত্তিকা (ভারতের আঞ্চলিক ভূগোল – ভূগোল) প্রশ্ন ও উত্তর | Soil (Regional Geography of India – Geography) Quiz / মৃত্তিকা (ভারতের আঞ্চলিক ভূগোল – ভূগোল) প্রশ্ন ও উত্তর | Soil (Regional Geography of India – Geography) QNA / মৃত্তিকা (ভারতের আঞ্চলিক ভূগোল – ভূগোল) প্রশ্ন ও উত্তর | Soil (Regional Geography of India – Geography) Question and Answer FREE PDF Download ) পরীক্ষা প্রস্তুতিমূলক প্রশ্নোত্তর সফল হবে।

মৃত্তিকা (ভারতের আঞ্চলিক ভূগোল – ভূগোল) প্রশ্ন ও উত্তর | Soil (Regional Geography of India – Geography) Question and Answer in Bengali

স্কুল, কলেজ ও বিভিন্ন ছাত্রছাত্রীদের পড়াশোনার ডিজিটাল মাধ্যম BhugolShiksha.com । এর প্রধান উদ্দেশ্য পঞ্চম শ্রেণী থেকে নবম শ্রেণী, মাধ্যমিকউচ্চ মাধ্যমিক সমস্ত বিষয় এবং গ্রাজুয়েশনের শুধুমাত্র ভূগোল বিষয়কে  সহজ বাংলা ভাষায় আলোচনার মাধ্যমে ছাত্রছাত্রীদের কাছে সহজ করে তোলা।

মৃত্তিকা (ভারতের আঞ্চলিক ভূগোল – ভূগোল) প্রশ্ন ও উত্তর | Soil (Regional Geography of India – Geography)

আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ সময় করে আমাদের এই ” মৃত্তিকা (ভারতের আঞ্চলিক ভূগোল – ভূগোল) প্রশ্ন ও উত্তর | Soil (Regional Geography of India – Geography) ” পােস্টটি পড়ার জন্য। এই ভাবেই আমাদের ভূগোল শিক্ষা – Bhugol Shiksha – BhugolShiksha.com ওয়েবসাইটের পাশে থাকুন। ভূগোল বিষয়ে যেকোনো প্ৰশ্ন উত্তর জানতে এই ওয়েবসাইটটি ফলাে করুন এবং নিজেকে ভৌগোলিক  তথ্য সমৃদ্ধ করে তুলুন , ধন্যবাদ।

Subscribe Our YouTube Channel

Join Our Telegram Channel

E-mail Subscription