অধ্যায়ঃ পৃথিবীর প্রধান জলবায়ু অঞ্চল – জলবায়ুবিদ্যা – ভূগোল প্রশ্নোত্তর | WORLD MAJOR CLIMATIC REGION – Climatology – Geography

1072

জলবায়ুবিদ্যা – ভূগোল – প্রশ্ন ও উত্তর

Climatology (Geography) Question and Answer in Bengali

অধ্যায়ঃ পৃথিবীর প্রধান জলবায়ু অঞ্চল - জলবায়ুবিদ্যা - ভূগোল প্রশ্নোত্তর | WORLD MAJOR CLIMATIC REGION - Climatology - Geography

জলবায়ুবিদ্যা – Climatology (ভূগোল – Geography) বিষয়ের অধ্যায়ঃ পৃথিবীর প্রধান জলবায়ু অঞ্চল – WORLD MAJOR CLIMATIC REGION প্রশ্ন ও উত্তর  নিচে দেওয়া হল। এই (অধ্যায়ঃ পৃথিবীর প্রধান জলবায়ু অঞ্চল – WORLD MAJOR CLIMATIC REGION – জলবায়ুবিদ্যা Climatology – ভূগোল Geography) প্রশ্নোত্তর গুলি স্কুল, কলেজ ও বিভিন্ন প্রতিযোগিতা মূলক পরীক্ষার জন্য খুব ইম্পর্টেন্ট। তোমরা যারা অধ্যায়ঃ পৃথিবীর প্রধান জলবায়ু অঞ্চল – WORLD MAJOR CLIMATIC REGION – জলবায়ুবিদ্যা – Climatology (ভূগোল – Geography) অতিসংক্ষিপ্ত প্রশ্ন ও উত্তর (Short Question and Answer) খুঁজে চলেছো, তারা নিচে দেওয়া প্রশ্নপত্র ভালো করে পড়তে পারো। 

অধ্যায়ঃ পৃথিবীর প্রধান জলবায়ু অঞ্চল – WORLD MAJOR CLIMATIC REGION

1 .  জলবায়ু অঞল ( CLIMATIC REGION ) । 

উত্তরঃ পৃথিবীর বিভিন্ন অংশে জলবায়ুর বৈচিত্র্যের মধ্যেও অনেক সময় ঐক্যের সুর অনুসন্ধান করা যায় । তাপমাত্রা , বায়ুচাপ , বায়ুপ্রবাহ , বৃষ্টিপাত ইত্যাদি আবহাওয়ার উপাদানগুলির সমধর্মিতা ও সাদৃশ্যের ভিত্তিতে চিহ্নিত কাল্পনিক সীমাযুক্ত অঞ্চলকে জলবায়ু অঞল বলা হয় । | বৈশিষ্ট্য : ( i ) সীমাহীন – ইহা সুনির্দিষ্ট সীমান্তে আবদ্ধ নয় , একটি অল ধীরে ধীরে অন্য অঞলে মিশে যায় । ( ii ) নিরপেক্ষ অল — দুই পৃথক জলবায়ু অঞ্চলের মধ্যস্থলে সৃষ্ট নিরপেক্ষ অঞলে দই অঞ্চলের বৈশিষ্ট্যও দেখা যায় । ( iii ) উপ অঞ্চল সৃষ্টি — একই জলবায়ু অঞ্চলের প্রাকৃতিক পরিবেশের পার্থকো উপ জলবায়ু অঞ্চল গঠিত হয় । ( iv ) রাজনৈতিক সমায় আবদ্ধ নয় — একে রাজনৈতিক সীমায় বন্ধ করা যায় না । একই দেশে একাধিক জলবায়ু ( যেমন – ব্রাজিলের দক্ষিণে ক্রান্তীয় সাভানা ও উত্তর মধ্যে নিরক্ষীয় জলবায়ু দেখা যায় ) ।

2. পৃথিবীর জলবায়ু অঞ্চলের মুখ্য বৈশিষ্ট্য আলোচনা কর।

উত্তরঃ 1. নিরক্ষীয় জলবায়ু অঞ্চল : A ) অধিক তাপমাত্রা : সারা বৎসর তাপমাত্রা অধিক ও সমান থাকে ( যেমন – ব্রাজিলের বেলেম 26°C ) | B ) অধিক বৃষ্টিপাত : বাৎসরিক গড় বৃষ্টিপাত অধিক ( যেমন – ইন্দোনেশিয়ার পাদাং 417 সেমি ) | C ) অধিক বর্ষণমুখর দিন : সারা বৎসর প্রতিদিনই বৃষ্টি ( উদাহরণ – বেলেম – 293 দিন / বৎসর ) D ) কম উয়তার প্রসর : বাৎসরিক উয়তার প্রসার 2 – 4°C ( উদাহরণ – মার্শাল দ্বীপ – 3°C ) E ) দুর্বল বায়ুপ্রবাহ : বায়ুচাপের ঢাল কম ও উলম্ব সঞ্চালনের জন্য বায়ু দুর্বল হয় । F ) অন্যান্য : দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়া , বর্ষব্যাপী মেঘাচ্ছন্নতা ও চিরহরিৎ অরণ্যের সাথে জড়িত । 
2. মৌসুমী জলবায়ু অঞ্চল : A ) উয়ুতা : গ্রীষ্মকালীন উম্লতা 300 – 320C , শীতকালীন উত্মতা 100 – 220C , বার্ষিক গড় উষ্মতা 190 – 22°C । B ) বায়ুপ্রবাহ : গ্রীকালে ভারতের ক্ষেত্রে দঃ পঃ মৌসুমী বায়ু ও শীতকালে উঃ পূর্ব মৌসুমী বায়ু প্রবাহিত হয় । C ) বৃষ্টিপাত : এই জলবায়ু অঞলের প্রধান বৈশিষ্ট্য গ্রীষ্মকালীন বৃষ্টিপাত ।
3. উষ্ণ জলবায়ু : A ) অত্যাধিক উতা : সারা বৎসর অত্যাধিক উয়তা ( উদাঃ – লিবিয়ার আলজাজিজিয়া 58°C ) B ) উন্নতার প্রসর বেশী : বার্ষিক উয়তার প্রসার 20°C ( উদাঃ – সাহারার ত্রিপােলী 37 . 8°C ) । C ) বৃষ্টিপাতহীনতা : অনিয়মিত ও অনিশ্চিত ( উদাঃ – চিলির আটাকামা মরুভূমিতে একটানা 1500 দিন বৃষ্টি হয়নি । ) | D ) অন্যান্য বৈশিষ্ট্য : বায়ুমণ্ডলীয় গােলযােগ না থাকায় মেঘপুঞ্জের বৃষ্টি মাটিতে পড়ার আগেই বাস্পীভূত হয় , উচ্চ স্থানে রাত্রে তাপমাত্রা হ্রাস পেয়ে তুহীনপাত ঘটে , বৃষ্টি অপেক্ষা বাস্পীভবন অধিক , বছরে অধিকাংশই মেঘমুক্ত থাকে । 
4. ভূমধ্যসাগরীয় জলবায়ু অঞ্চল : ( A ) গ্রীকালীন মাঝারি উয়তা : ( উদাঃ – লিবসন 220C ) ; ( B ) শীতকালীন কম উত্মতা : উদাহরণ রেড । ব্লাফ 79C , ক্যালিফোর্নিয়া ) ; ( C ) বায়ুচাপ বলয়গুলি দক্ষিণে সরে যাওয়ায় আর্দ্র পশ্চিমাবায়ুতে শীতকালীন বৃষ্টি হয় ( উদাঃ – মার্সাই 53 c . m . অ্যাডিলেড 55 c . m . ) ; ( D ) উত্তরায়নে বায়ু বলয়গুলি উত্তরে সরলে অঞ্চলটি শুষ্ক আয়ন বায়ুর প্রভাবে পড়ে বলে গ্রীষ্মকাল শুষ্ক হয় । ; ( E ) তুহীন ও তুষারপাত খুবই কম হয় । ( যেমন – লন এঞ্জেলসে 40 বছরে মাত্র 12 বার তুহীনপাত হয়েছে ) ; ( F ) স্থানীয় ঘূর্ণবার্তার সৃষ্টি হয় ( যেমন স্পেনেব নেভেচে , তিডনিশিযাব ঘিবলি , অস্টেলিযাব বিক ফিল্ডাব ও দক্ষিণ আফিকাব বাগ হত্যাদি । 
5. নাতিশীতোষ্ণ তৃণভূমি জলবায়ু অঞ্চল : ( A ) অধিক উয়তা : উয়তার চরমতা এখানে লক্ষণীয় ( মহাদেশীয় প্রকৃতির ) । ( B ) উয়তার প্রসর : উয়তার প্রসার অত্যাধিক ( প্রায় 30°C ) ( C ) বৃষ্টিপাত কম : বৃষ্টিপাত মাত্র 25 – 30 সেমি । ( D ) স্থানীয় বায়ু : বিভিন্ন উষ্ণু স্থানীয় বায়ু প্রবাহিত হয় ( উদাহরণ — USA – এর চিনুক ) । 

3.  “ ভূমধ্যসাগরীয় জলবায়ু অঞ্চলে শীতকালে বৃষ্টিপাত হয় ” – ভৌগলিক কারণ। 

উত্তরঃ ( i ) পশ্চিমাবায়ু ভূমিকা ও শীতকালে সূর্যের দক্ষিণায়নের জন্য উপক্ৰান্তীয় উচ্চ চাপ বলয় 50 দক্ষিণে সরে যায় , ফলে 250 দক্ষিণ অক্ষরেখা পর্যন্ত পশ্চিমাবায়ুর প্রভাবে আসে পশ্চিম দিক থেকে আগত পশ্চিমাবায়ু সমুদ্র থেকে প্রচুর জলীয় বাষ্প এনে শীতকালে বৃষ্টিপাত ঘটায় । ( ii ) শীতল বায়ুপুঞ্জ : শীতকালে মেরুপ্রদেশ থেকে শীতল বায়ুপুঞ্জ – এর আগমনে মেরু বায়ু নাতিশীতোেয় ঘূর্ণাবর্তের সৃষ্টি করে , যা এই অঞ্চলে বৃষ্টিপাত ঘটায় । এর কারণে এই অঞলে মােট বৃষ্টিপাতের প্রায় 78 % – 85 % বৃষ্টি শীতকালে হয় । 

4. ভূমধ্যসাগরীয় অঞ্চলের স্থানীয় বায়ুমণ্ডল। 

উত্তরঃ ভূমধ্যসাগর তীর র্তী অঞ্চলে উয়শীতল স্থানীয় বায়ুগুলি হল — ( i ) সিরক্কো ( উবায়ু ) : সাহারা মরু অঞ্চলের উঃ আফ্রিকা ও সৌদি আরবে সিরক্কো বায়ু প্রবাহিত হয় । লিবিয়ায় , স্পেনে , মিশরে , ও গ্রিসে ইহা যথাক্রমে শিবলী , লেভেসে , খামসিন , ঘরবী নামে ‘ পরিচিত । ( ii ) মিঠুাল ( শীতল বায়ু ) : ইওরােপের আল্পস থেকে ফ্রান্সে রােন উপত্যকায় মিস্ট্রাল বায়ুপ্রবাহিত হয় । ( iii ) লেভেন্টার ( উয়বায়ু )  : ভূমধ্যসাগরীয় অঞ্চলে শীত ও বসন্তে পূর্বাভিমুখী উয় ও আর্দ্র বায়ু লেভেন্টার নামে প্রবাহিত হয় ।

5. মৌসুমী ও ভূমধ্যসাগরীয় জলবায়ুর পার্থক্য । 

উত্তরঃ 

বিষয়
মৌসুমী জলবায়ু
ভূমধ্যসাগরীয় জলবায়ু
i ) অবস্থান
মহাদেশের দঃ পূর্বাংশে দেখা যায়।
মহাদেশের পশ্চিমাংশে দেখা যায়।
ii ) অক্ষাংশ
10° – 30° অক্ষাংশে এর অবস্থান
30° – 45° অক্ষাংশে এর অবস্থান
iii ) উন্নতা
শীতগ্রীষ্মের উয়তার পার্থক্য বেশি
শীত – গ্রীয়ের উষ্ণুতার পার্থক্য কম
iv ) বৃষ্টিপাত
গ্রীষ্মকালে অধিক বৃষ্টি হয়
শীতকালে অধিক বৃষ্টি হয়
v ) বার্ষিক বৃষ্টি
বাৎসরিক গড় বৃষ্টি 150 সেমি
বাৎসরিক গড় বৃষ্টিপাত মাঝারি , 50 – 75 সেমি
vi ) বায়ু ও বৃষ্টিপাত
দঃ পঃ মৌসুমী বায়ুতে বৃষ্টি হয়
পশ্চিমা বায়ুপ্রবাহে শীতে বৃষ্টি হয়

FILE INFO : অধ্যায়ঃ পৃথিবীর প্রধান জলবায়ু অঞ্চল – WORLD MAJOR CLIMATIC REGION | জলবায়ুবিদ্যা – ভূগোল প্রশ্নোত্তর (Climatology – Geography)

File Details:
PDF Name : অধ্যায়ঃ পৃথিবীর প্রধান জলবায়ু অঞ্চল – WORLD MAJOR CLIMATIC REGION | জলবায়ুবিদ্যা – ভূগোল প্রশ্নোত্তর (Climatology – Geography)
Language : Bengali
Size : 772.0 kb
No. of Pages : 3
Download Link : Click Here To Download

INFO : Geography – Climatology – Question and Answer | ভূগোল – জলবায়ুবিদ্যা – অধ্যায়ঃ পৃথিবীর প্রধান জলবায়ু অঞ্চল – WORLD MAJOR CLIMATIC REGION – প্রশ্নোত্তর

         ” ভূগোল (Geography) – জলবায়ুবিদ্যা (Climatology) – অধ্যায়ঃ পৃথিবীর প্রধান জলবায়ু অঞ্চল – WORLD MAJOR CLIMATIC REGION “ একটি অতি গুরুত্বপূর্ণ টপিক বিভিন্ন শ্রেনীর পরীক্ষা (Class 5, 6, 7, 8, 9,  Madhyamik, Higher Secondary – HS, College & University Exam) এবং বিভিন্ন চাকরির (WBCS, WBSSC) পরীক্ষায় এখান থেকে প্রশ্ন অবশ্যম্ভাবী । সে কথা মাথায় রেখে BhugolShiksha.com এর পক্ষ থেকে ভূগোল পরীক্ষা প্রস্তুতিমূলক প্রশ্নো ও উত্তর উপস্থাপনের প্রচেষ্টা করা হলাে। ছাত্রছাত্রী, পরীক্ষার্থীদের উপকারে লাগলে, আমাদের প্রয়াস  ভূগোল (Geography) জলবায়ুবিদ্যা (Climatology) – অধ্যায়ঃ পৃথিবীর প্রধান জলবায়ু অঞ্চল – WORLD MAJOR CLIMATIC REGION / সংক্ষিপ্ত ছোট প্রশ্ন ও উত্তর / SAQ / Short Question and Answer / QNA / FREE PDF Download ) পরীক্ষা প্রস্তুতিমূলক প্রশ্নোত্তর সফল হবে।

Source : Bhugolika

    স্কুল, কলেজ ও বিভিন্ন ছাত্রছাত্রীদের পড়াশোনার ডিজিটাল মাধ্যম BhugolShiksha.com । এর প্রধান উদ্দেশ্য পঞ্চম শ্রেণী থেকে নবম শ্রেণী, মাধ্যমিকউচ্চ মাধ্যমিক সমস্ত বিষয় এবং গ্রাজুয়েশনের শুধুমাত্র ভূগোল বিষয়কে  সহজ বাংলা ভাষায় আলোচনার মাধ্যমে ছাত্রছাত্রীদের কাছে সহজ করে তোলা। 

        আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ সময় করে আমাদের পােস্টটি পড়ার জন্য। এই ভাবেই আমাদের ভূগোল শিক্ষা – Bhugol Shiksha – BhugolShiksha.com ওয়েবসাইটের পাশে থাকুন। ভূগোল বিষয়ে যেকোনো প্ৰশ্ন উত্তর জানতে এই ওয়েবসাইটটি ফলাে করুন এবং নিজেকে ভৌগোলিক  তথ্য সমৃদ্ধ করে তুলুন , ধন্যবাদ।

নিচের বাটনে ক্লিক করে শেয়ার করেন বন্ধুদের মাঝে